ঢাকা, ফেব্রুয়ারী ২২, ২০১৮, ১০ ফাল্গুন ১৪২৪
---
---
bbc24news.com
প্রথম পাতা » সম্পাদকীয় » পাকিস্তানের কোনো প্রধানমন্ত্রীই মেয়াদ পূর্ণ করতে পারেননি
রবিবার ● ৩০ জুলাই ২০১৭, ১০ ফাল্গুন ১৪২৪
Email this News Print Friendly Version

পাকিস্তানের কোনো প্রধানমন্ত্রীই মেয়াদ পূর্ণ করতে পারেননি

---বিবিসি২৪নিউজ,পাকিস্তানে অতীতের দিকে তাকালে আমরা দেখতে পাই, কোনো প্রধানমন্ত্রীই তার নির্ধারিত মেয়াদ পূর্ণ করতে পারেননি। দুর্নীতির এক চাঞ্চল্যকর মামলায় পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফকে তার পদে থাকার ব্যাপারে অযোগ্য ঘোষণা করেছেন দেশটির সুপ্রিমকোর্ট। শুধু তাই নয়, নওয়াজ আজীবনের জন্য সরকারি যে কোনো পদে অযোগ্য ঘোষিত হয়েছেন। আদালতের রায় ঘোষিত হওয়ার পর পদত্যাগের ঘোষণা দিয়েছেন মুসলিম লীগপ্রধান এই প্রধানমন্ত্রী। দলটির এক বৈঠকে সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে নওয়াজ শরিফের ভাই শাহবাজ শরিফ হবেন পরবর্তী প্রধানমন্ত্রী। নওয়াজ শরিফকেও তার মেয়াদ আরও এক বছর বাকি থাকতেই পদ হারাতে হল।

নওয়াজ শরিফকে প্রধানমন্ত্রী পদ থেকে সরে দাঁড়াতে হয়েছে পানামা পেপারস কেলেঙ্কারিঘটিত এক মামলায়। উচ্চপর্যায়ের তদন্ত শেষে সুপ্রিমকোর্টের পাঁচ সদস্যের বেঞ্চ সর্বসম্মত রায়ে তাকে অযোগ্য ঘোষণা করেছেন। অর্থাৎ দেখা যাচ্ছে, দুর্নীতি, তা যত উচ্চ পর্যায়েই ঘটে থাকুক না কেন, পাকিস্তানের সর্বোচ্চ আদালত ছাড় দেননি। পাকিস্তানের বিচার ব্যবস্থাকেও তাই অভিবাদন জানাতে হয়। মৌলবাদ, জঙ্গিবাদসহ নানা প্রতিক্রিয়াশীল উপসর্গে জর্জরিত পাকিস্তানে আদালতের এই স্বচ্ছ অবস্থান নিঃসন্দেহে অনুকরণযোগ্য। একই সঙ্গে বাংলাদেশের রাজনীতিক সম্প্রদায়ের জন্যও পাকিস্তানের সুপ্রিমকোর্টের এ রায় এক সতর্কবার্তা বয়ে এনেছে বৈকি। বাংলাদেশে দুর্নীতির প্রকৃত অবস্থা কী, তা খোদ অর্থমন্ত্রীর বক্তব্যেই প্রকাশ পেয়েছে। তিনি বলেছেন, যাদের হাতে ক্ষমতা তারাই দুর্নীতি করে। আমরা বলতে চাই, ক্ষমতাবান দুর্নীতিবাজদের তাই সাবধান হওয়ার সময় এসেছে যে, দুর্নীতি করে পার পাওয়া যাবে- এ মর্মে নিশ্চিত হওয়ার কোনো সুযোগ নেই। যে কেউই যে কোনো সময় আইনের ঘেরাটোপে বন্দি হয়ে যেতে পারেন এবং সেক্ষেত্রে শুধু ক্ষমতা নয়, হারাতে হতে পারে সামাজিক সম্মান ও সম্ভ্রম।

বিশ্লেষকদের কেউ কেউ বলছেন, সেনাবাহিনীর কূটচালেই নওয়াজ শরিফকে ক্ষমতা হারাতে হয়েছে। আবার অনেকে মনে করছেন সন্ত্রাসকবলিত পাকিস্তানের ভবিষ্যৎ আবারও অনিশ্চিতের পথে যাত্রা করল। দেশটিতে সেনাবাহিনীর কর্তৃত্ব বাড়বে বলেও সন্দেহ করছেন অনেকে। এটা ঠিক, পাকিস্তানের রাজনীতিতে সেনাবাহিনীর একটি প্রচ্ছন্ন প্রভাব রয়েছে। তারা হয়তো এটাও চায় না যে, পাকিস্তানে গণতন্ত্র প্রাতিষ্ঠানিক রূপ পাক। কথা হচ্ছে, পাকিস্তানে যেমন-তেমন হলেও একটা গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়া চালু রয়েছে; কিন্তু তা নিশ্চয়ই সামরিকতন্ত্রের চেয়ে ভালো। আমরা বিশ্বাস করতে চাই না, সামরিক জেনারেলরা আদালতকে প্রভাবিত করেছেন বলেই নওয়াজকে সরে যেতে হয়েছে। সর্বোচ্চ আদালতের রায় মান্য করাই ন্যায়সঙ্গত। আমরা আশা করব, পাকিস্তান তো বটেই, বাংলাদেশের রাজনীতিকরাও পাকিস্তানের সর্বোচ্চ আদালতের রায় থেকে শিক্ষা নিয়ে দুর্নীতিমুক্ত অবস্থায় রাজনীতি পরিচালনা করবেন।


ই-ভিসার ভোগান্তিতে বাতিল হচ্ছে হজ ফ্লাইট

উত্তর কোরিয়া ১০,০০০ কিলোমিটারের বেশি পাল্লার ক্ষেপণাস্ত্রের সফল পরীক্ষা


এ বিভাগের আরো খবর...

গোয়েন্দা নজরধারী বাড়ানো হয়েছে- বেনজীর আহমেদ গোয়েন্দা নজরধারী বাড়ানো হয়েছে- বেনজীর আহমেদ
ভারতীয় সুপ্রিমকোর্টের রায়, তিস্তা ইস্যু সহায়ক হবে? ভারতীয় সুপ্রিমকোর্টের রায়, তিস্তা ইস্যু সহায়ক হবে?
টেকসই ও দুর্যোগ সহিষ্ণু জাত উদ্ভাবনে : রাষ্ট্রপতির আহ্বান টেকসই ও দুর্যোগ সহিষ্ণু জাত উদ্ভাবনে : রাষ্ট্রপতির আহ্বান
ভ্যালেন্টাইন্স ডে’র একই বাক্সে ৩৯ বছর ধরে স্ত্রীকে উপহার! ভ্যালেন্টাইন্স ডে’র একই বাক্সে ৩৯ বছর ধরে স্ত্রীকে উপহার!
খালেদা জিয়াকে স্থানান্তরের চিন্তা সরকারের নেই: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী খালেদা জিয়াকে স্থানান্তরের চিন্তা সরকারের নেই: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী
ভালোবাসবার আবার দিনক্ষণ কি? ভালোবাসবার আবার দিনক্ষণ কি?
বিচারক সংকট,আদালত কাঠামোর সংস্কার জরুরি বিচারক সংকট,আদালত কাঠামোর সংস্কার জরুরি
পিজা অন ফায়ার নেশায় বুঁদ হওয়া ঠেকায় কে! পিজা অন ফায়ার নেশায় বুঁদ হওয়া ঠেকায় কে!
বক্স অফিসে দীপিকার মাস্তানি বক্স অফিসে দীপিকার মাস্তানি
সুইস প্রেসিডেন্টের বাংলাদেশ সফর বিশেষ তাৎপর্য আছে? সুইস প্রেসিডেন্টের বাংলাদেশ সফর বিশেষ তাৎপর্য আছে?

সর্বাধিক পঠিত

২৩ কর্মকর্তাকে ঢাকার বাইরে বদলি করল- শিক্ষা প্রশাসন ২৩ কর্মকর্তাকে ঢাকার বাইরে বদলি করল- শিক্ষা প্রশাসন
ব্যথা মুক্ত রাখে যেসব খাবার ব্যথা মুক্ত রাখে যেসব খাবার
আলী আকবর রুপু চলে গেলেন না ফেরার দেশে আলী আকবর রুপু চলে গেলেন না ফেরার দেশে
মন্টিনিগ্রোর মার্কিন দূতাবাসে: গ্রেনেড হামলা! মন্টিনিগ্রোর মার্কিন দূতাবাসে: গ্রেনেড হামলা!
গণকবর নিশ্চিহ্ন করে প্রমাণ নষ্ট করছে: মিয়ানমার গণকবর নিশ্চিহ্ন করে প্রমাণ নষ্ট করছে: মিয়ানমার
রাণীনগর ওভারব্রিজটি উচু করার আহ্বান এলাকা বাসীর রাণীনগর ওভারব্রিজটি উচু করার আহ্বান এলাকা বাসীর
২০৪১ সালের মধ্যে বাংলাদেশ হবে সমৃদ্ধ দেশ: প্রধানমন্ত্রী ২০৪১ সালের মধ্যে বাংলাদেশ হবে সমৃদ্ধ দেশ: প্রধানমন্ত্রী
সে প্রথম প্রেম আমার নীলাঞ্জনা সে প্রথম প্রেম আমার নীলাঞ্জনা
খালেদার অর্থদন্ড স্থগিত: জামিন শুনানি রবিবারে খালেদার অর্থদন্ড স্থগিত: জামিন শুনানি রবিবারে
সৌদি সাংবাদিকের মাইকে আজান বন্ধ করার আহ্বান সৌদি সাংবাদিকের মাইকে আজান বন্ধ করার আহ্বান
গোয়েন্দা নজরধারী বাড়ানো হয়েছে- বেনজীর আহমেদ
ভারতীয় সুপ্রিমকোর্টের রায়, তিস্তা ইস্যু সহায়ক হবে?
টেকসই ও দুর্যোগ সহিষ্ণু জাত উদ্ভাবনে : রাষ্ট্রপতির আহ্বান
ভ্যালেন্টাইন্স ডে’র একই বাক্সে ৩৯ বছর ধরে স্ত্রীকে উপহার!
খালেদা জিয়াকে স্থানান্তরের চিন্তা সরকারের নেই: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী
ভালোবাসবার আবার দিনক্ষণ কি?
বিচারক সংকট,আদালত কাঠামোর সংস্কার জরুরি
পিজা অন ফায়ার নেশায় বুঁদ হওয়া ঠেকায় কে!
বক্স অফিসে দীপিকার মাস্তানি
সব্যসাচীর কাছে আবদার দীপিকার-অনুষ্কার মতো বউ সাজতে চাই