ঢাকা, নভেম্বর ২২, ২০১৭, ৮ অগ্রহায়ন ১৪২৪
---
---
bbc24news.com
প্রথম পাতা » সম্পাদকীয় » বন্যা মানবিক বিপর্যয়ের দিকগুলোর গুরুত্ব দেয়া জরুরি?
সোমবার ● ১৪ আগস্ট ২০১৭, ৮ অগ্রহায়ন ১৪২৪
Email this News Print Friendly Version

বন্যা মানবিক বিপর্যয়ের দিকগুলোর গুরুত্ব দেয়া জরুরি?

---বন্যাসহ যে কোনো দুর্যোগে সবার আগে মানবিক বিপর্যয়ের দিকগুলোর প্রতি গুরুত্ব দেয়া জরুরি। দুর্যোগকবলিত অসহায় মানুষ যাতে পর্যাপ্ত পরিমাণে খাদ্য ও পানীয় পায়, সেদিকে বিশেষ যতœবান হওয়ার পাশাপাশি তাদের স্বাস্থ্যঝুঁকির বিষয়েও পূর্ণ প্রস্তুতি থাকা উচিত। মৌসুমি বায়ুর প্রভাবে টানা বর্ষণ ও উজান থেকে নেমে আসা ঢলে দেশের বিভিন্ন স্থানে, বিশেষ করে উত্তর-পূর্বাঞ্চলে অনেক নদ-নদীর পানি বিপদসীমার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। পানি উন্নয়ন বোর্ডের বন্যা পূর্বাভাস ও সতর্কীকরণ কেন্দ্র (এফএফডব্লিউসি) শনিবার সকালে যে তথ্য প্রকাশ করেছে, তাতে দেখা যাচ্ছে- দেশের ১৪টি নদীর পানি বিপদসীমার ওপরে প্রবাহিত হচ্ছে। ভারতের গজলডোবা বাঁধের সব গেট খুলে দেয়ায় তিস্তা নদীর পানি বিপদসীমার ৬৫ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। দ্রুতগতিতে পানি বৃদ্ধি পাওয়ায় ইতিমধ্যে তিস্তা ব্যারাজ এলাকায় রেড অ্যালার্ট জারি করা হয়েছে। উল্লেখ্য, বাংলাদেশে মিঠাপানির প্রধান উৎস তিনটি নদ-নদী অববাহিকা। এগুলো হচ্ছে মেঘনা অববাহিকা, ব্রহ্মপুত্র-যমুনা অববাহিকা ও গঙ্গা-পদ্মা অববাহিকা। এ তিনটি অববাহিকা যখন একসঙ্গে সক্রিয় হলে দেশে বড় বন্যা হয়ে থাকে। যেমনটা দেখা গেছে ১৯৯৮ বা ২০০৪ সালে। এ বছর একই পরিস্থিতির সৃষ্টি হলে মানুষের দুঃখ-দুর্দশার অন্ত থাকবে না, তা বলাইবাহুল্য। পানির প্রবল চাপে এরই মধ্যে নদী-তীরবর্তী বিভিন্ন অঞ্চলে ভাঙন বৃদ্ধি পেয়েছে এবং সেখানকার মানুষ চরম দুর্ভোগে পড়েছেন বলে জানা গেছে।

বন্যার সময় দেশে ত্রাণসামগ্রী বিতরণের একটা রেওয়াজ গড়ে উঠলেও দেখা গেছে, এগুলো বন্যাকবলিত মানুষের জীবনে স্থায়ী কোনো প্রভাব ফেলে না। এ প্রেক্ষাপটে বন্যাকে স্থায়ীভাবে জয় করার উদ্যোগ নেয়া জরুরি। এজন্য নদ-নদীগুলোর নাব্য বাড়াতে হবে সর্বাগ্রে। কিছু মানুষের অবিবেচনাপ্রসূত কর্মকাণ্ড ও অদূরদর্শিতায় একসময়ের খরস্রোতা নদ-নদীগুলো আজ জীর্ণ-শীর্ণ অথবা মরণাপন্ন। এগুলোকে অবশ্যই মৃত্যুর হাত থেকে রক্ষা করতে হবে। অন্যদিকে আন্তর্জাতিক নদ-নদীগুলোর ব্যাপারে আমাদের অবস্থান ও দাবি আরও জোরালো করার লক্ষ্যে শক্ত কূটনৈতিক ভূমিকা গ্রহণ করা উচিত। বাংলাদেশ হচ্ছে ভাটির দেশ। উল্লেখযোগ্য নদীগুলোর উৎস দেশের ভূ-সীমানার বাইরে। অভিন্ন নদীগুলোর গতিপ্রবাহ স্বাভাবিক রাখার ব্যাপারে প্রতিবেশী দেশ, বিশেষ করে ভারত ও নেপালের সঙ্গে এমন গঠনমূলক উদ্যোগ নেয়া উচিত, যাতে তা কার্যকর ও ফলপ্রসূ হয়।
তাছাড়া বন্যা-পরবর্তী সংস্কার ও পুনর্বাসনের ব্যাপারেও এখন থেকেই পদক্ষেপ নিতে হবে। ক্ষতিগ্রস্ত বেড়িবাঁধ, স্লুইসগেট ইত্যাদির দ্রুত সংস্কার ও মেরামতসহ ক্ষেতের ফসল, গবাদিপশু ও ঘরবাড়ি হারানো মানুষের কাছে যতটা সম্ভব আর্থিক সহায়তার হাত প্রসারিত করা উচিত।


যখন বঙ্গবন্ধুর সপরিবারে হত্যা করে তখন কোথায় ছিল আদালত?

দেশে বন্যা কবলিত মানুষের পাশে বিজিবি


এ বিভাগের আরো খবর...

শেখ হাসিনার নামে বিশ্ববিদ্যালয় হচ্ছে? শেখ হাসিনার নামে বিশ্ববিদ্যালয় হচ্ছে?
কাঁদলেন ঐশ্বরিয়া! কাঁদলেন ঐশ্বরিয়া!
গেইল আর সাকিবের ঝড় গেইল আর সাকিবের ঝড়
নোয়াখালীতে র‍্যাবের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে দুজন নিহত নোয়াখালীতে র‍্যাবের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে দুজন নিহত
কোহলির সেঞ্চুরির ফিফটি কোহলির সেঞ্চুরির ফিফটি
বিগ বি’র নাতনি আরাধ্যর ষষ্ঠ জন্মদিন বিগ বি’র নাতনি আরাধ্যর ষষ্ঠ জন্মদিন
হাসপাতাল লাশ জিম্মি করতে পারবে না : হাইকোর্ট হাসপাতাল লাশ জিম্মি করতে পারবে না : হাইকোর্ট
রোহিঙ্গা সংকট সমাধানে কূটনৈতিক চাপ অব্যাহত রাখতে হবে ? রোহিঙ্গা সংকট সমাধানে কূটনৈতিক চাপ অব্যাহত রাখতে হবে ?
রাজধানীতে মাদ্রাসাছাত্রের গলাকাটা লাশ উদ্ধার রাজধানীতে মাদ্রাসাছাত্রের গলাকাটা লাশ উদ্ধার
শিরোপা জিতেই নিয়েছে বার্সা! শিরোপা জিতেই নিয়েছে বার্সা!

সর্বাধিক পঠিত

জিম্বাবুয়ের জনরোষ, বিক্ষোভের কারন ফার্স্টলেডি গ্রেস মুগাবে? জিম্বাবুয়ের জনরোষ, বিক্ষোভের কারন ফার্স্টলেডি গ্রেস মুগাবে?
তদন্তের স্বার্থেই তনুর পরিবারকে ডাকা হয়েছে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী তদন্তের স্বার্থেই তনুর পরিবারকে ডাকা হয়েছে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী
ভারপ্রাপ্ত প্রধান বিচারপতির অভিভাষণ ৩ ডিসেম্বর ভারপ্রাপ্ত প্রধান বিচারপতির অভিভাষণ ৩ ডিসেম্বর
৬ যুদ্ধাপরাধীর মৃত্যুদণ্ড ৬ যুদ্ধাপরাধীর মৃত্যুদণ্ড
দেশে ফিরলেন লেবাননের প্রধানমন্ত্রী হারিরি দেশে ফিরলেন লেবাননের প্রধানমন্ত্রী হারিরি
অবশেষে জিম্বাবুয়ের প্রেসিডেন্ট মুগাবের পদত্যাগ অবশেষে জিম্বাবুয়ের প্রেসিডেন্ট মুগাবের পদত্যাগ
মাঠে ফুটবল খেলে মাতালেন উপমন্ত্রী জয়! মাঠে ফুটবল খেলে মাতালেন উপমন্ত্রী জয়!
রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে নিতে বাংলাদেশের সঙ্গে সমঝোতা সই হবে-সু চি রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে নিতে বাংলাদেশের সঙ্গে সমঝোতা সই হবে-সু চি
শেখ হাসিনার নামে বিশ্ববিদ্যালয় হচ্ছে? শেখ হাসিনার নামে বিশ্ববিদ্যালয় হচ্ছে?
সন্ত্রাসবাদের তালিকায় আবারো উত্তর কোরিয়াকে অন্তর্ভুক্তি করল-ট্রাম্প সন্ত্রাসবাদের তালিকায় আবারো উত্তর কোরিয়াকে অন্তর্ভুক্তি করল-ট্রাম্প
শেখ হাসিনার নামে বিশ্ববিদ্যালয় হচ্ছে?
কাঁদলেন ঐশ্বরিয়া!
গেইল আর সাকিবের ঝড়
নোয়াখালীতে র‍্যাবের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে দুজন নিহত
কোহলির সেঞ্চুরির ফিফটি
বিগ বি’র নাতনি আরাধ্যর ষষ্ঠ জন্মদিন
হাসপাতাল লাশ জিম্মি করতে পারবে না : হাইকোর্ট
রোহিঙ্গা সংকট সমাধানে কূটনৈতিক চাপ অব্যাহত রাখতে হবে ?
রাজধানীতে মাদ্রাসাছাত্রের গলাকাটা লাশ উদ্ধার
শিরোপা জিতেই নিয়েছে বার্সা!