ঢাকা, মে ২৫, ২০১৮, ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫
---
---
bbc24news.com
প্রথম পাতা » ইউরোপ » ঘূর্ণিঝড়ে গতি ৩০০ কি.মি হওয়ায়,ক্যারিবীয় দ্বীপপুঞ্জে ৯০ শতাংশ ভবনই ক্ষতিগ্রস্ত
বৃহস্পতিবার ● ৭ সেপ্টেম্বর ২০১৭, ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫
Email this News Print Friendly Version

ঘূর্ণিঝড়ে গতি ৩০০ কি.মি হওয়ায়,ক্যারিবীয় দ্বীপপুঞ্জে ৯০ শতাংশ ভবনই ক্ষতিগ্রস্ত

---বিবিসি২৪নিউজ,দুটি দ্বীপে আঘাত হানার আগে ঘূর্ণিঝড়ে বাতাসের গতি ছিল ঘন্টায় ৩০০ কিলোমিটার হওয়ায় দেশটির প্রায় ৯০ শতাংশ ভবনই ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।ঘূর্ণিঝড় ইরমার কারণে ক্যারিবিয় দ্বীপগুলো ব্যাপক ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। এন্টিগুয়া ও বারবুডার প্রধানমন্ত্রী জানিয়েছেন, তাদের দেশে ঝড়ে অন্তত একজন নিহত হয়েছে।ফরাসী প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রঁ বলেছেন, সেন্ট মার্টিন ও সেন্ট বার্টস-এ ক্ষতির মাত্রাটা ব্যাপক।

ইরমা শুরুতেই আঘাত হানে এন্টিগুয়া ও বারবুডায়। তারপর যায় ফরাসীদের কাছে অবকাশ যাপনের সবচেয়ে জনপ্রিয় দ্বীপ সেন্ট মার্টিন ও সেন্ট বার্টসের দিকে।
ফরাসী স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী জানিয়েছেন, এই ঝড়ের কারণে বন্যা হয়েছে এবং দ্বীপের ভবনগুলোর ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে।

বারবুডায় যে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে তা স্বীকারও করেছেন এন্টিগুয়া ও বারবুডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ব্রাউনি।বারবুডায় ঝড়ের মধ্যে পড়া একজন জানাচ্ছিলেন তার অভিজ্ঞতার কথা।

তিনি বলছেন, “আমার পুরো বাড়ি একটা মৃত্যু ফাঁদে পরিণত হয়েছিল। সেই ঘরে আটকা পড়েছিলাম আমরা সাতজন। আমরা সাহায্যের জন্য আর্তি করছিলাম আর খোদার কাছে প্রার্থনা করছিলাম। দমকলকর্মীরা আমাদের উদ্ধারে এগিয়ে এসেছিল। আমার জীবনের জন্য ঈশ্বরকে ধন্যবাদ।”

অ্যামেরিকার ফ্লোরিডার পশ্চিম এলাকা থেকেও অনেককে সরিয়ে নেয়া হয়েছে এবং এই ঝড়ের প্রভাবে সেখানে ব্যাপক ভূমিধ্বসের আশঙ্কা করা হচ্ছে।

ক্যাটাগরি-ফাইভ বা সর্বোচ্চ মাত্রার ঘূর্ণিঝড় ইরমা এখন নর্দান ভার্জিন আইল্যান্ডের ওপর দিয়ে সামনের দিকে অগ্রসর হচ্ছে।

গত এক দশকের মধ্যে সবচেয়ে বেশি শক্তিশালী ঝড় হিসেবে ইরমাকে বিবেচনা করা হচ্ছে।


রোহিঙ্গা সমস্যা নয়,চাল আনতে স্ত্রীসহ মিয়ানমার গেলেন খাদ্যমন্ত্রী

সীমান্তে ল্যান্ডমাইন, আন্তর্জাতিক আইনের বরখেলাপ?


এ বিভাগের আরো খবর...

শীর্ষ বৈঠক পুনঃ বিবেচনার হুমকি দিয়েছে উ. কোরিয়া শীর্ষ বৈঠক পুনঃ বিবেচনার হুমকি দিয়েছে উ. কোরিয়া
শেখ হাসিনার প্রতি কৃতজ্ঞ প্রিয়াঙ্কা চোপড়া শেখ হাসিনার প্রতি কৃতজ্ঞ প্রিয়াঙ্কা চোপড়া
টেলিফোনে প্যালেস্টাইনের রাষ্ট্রপতির খোঁজ নিলেন- প্রধানমন্ত্রী টেলিফোনে প্যালেস্টাইনের রাষ্ট্রপতির খোঁজ নিলেন- প্রধানমন্ত্রী
উ. কোরিয়া পারমাণবিক পরীক্ষাকেন্দ্রের সুড়ঙ্গ ধ্বংস করল উ. কোরিয়া পারমাণবিক পরীক্ষাকেন্দ্রের সুড়ঙ্গ ধ্বংস করল
মালয়েশীয় যাত্রীবাহী বিমানে রুশ ক্ষেপণাস্ত্রের আঘাত! মালয়েশীয় যাত্রীবাহী বিমানে রুশ ক্ষেপণাস্ত্রের আঘাত!
সিরিয়ার সেনা অবস্থানে ফের মার্কিন হামলা! সিরিয়ার সেনা অবস্থানে ফের মার্কিন হামলা!
প্রধানমন্ত্রীর ভারত সফরে তিস্তা পানি নিয়ে এজেন্ডা নেই: রিজভী প্রধানমন্ত্রীর ভারত সফরে তিস্তা পানি নিয়ে এজেন্ডা নেই: রিজভী
খাসজমি ভূমিহীন কৃষকদের দেয়ার নির্দেশ খাসজমি ভূমিহীন কৃষকদের দেয়ার নির্দেশ
খালেদার জামিনের আদেশ রোববার খালেদার জামিনের আদেশ রোববার
সিটি নির্বাচনে প্রচারণার সুযোগ পাচ্ছেন- এমপিরা সিটি নির্বাচনে প্রচারণার সুযোগ পাচ্ছেন- এমপিরা

সর্বাধিক পঠিত

শীর্ষ বৈঠক পুনঃ বিবেচনার হুমকি দিয়েছে উ. কোরিয়া শীর্ষ বৈঠক পুনঃ বিবেচনার হুমকি দিয়েছে উ. কোরিয়া
শেখ হাসিনার প্রতি কৃতজ্ঞ প্রিয়াঙ্কা চোপড়া শেখ হাসিনার প্রতি কৃতজ্ঞ প্রিয়াঙ্কা চোপড়া
টেলিফোনে প্যালেস্টাইনের রাষ্ট্রপতির খোঁজ নিলেন- প্রধানমন্ত্রী টেলিফোনে প্যালেস্টাইনের রাষ্ট্রপতির খোঁজ নিলেন- প্রধানমন্ত্রী
উ. কোরিয়া পারমাণবিক পরীক্ষাকেন্দ্রের সুড়ঙ্গ ধ্বংস করল উ. কোরিয়া পারমাণবিক পরীক্ষাকেন্দ্রের সুড়ঙ্গ ধ্বংস করল
মালয়েশীয় যাত্রীবাহী বিমানে রুশ ক্ষেপণাস্ত্রের আঘাত! মালয়েশীয় যাত্রীবাহী বিমানে রুশ ক্ষেপণাস্ত্রের আঘাত!
জামালপুরে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে ৩ শ্রমিকের ‘মৃত্যু’ জামালপুরে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে ৩ শ্রমিকের ‘মৃত্যু’
সিরিয়ার সেনা অবস্থানে ফের মার্কিন হামলা! সিরিয়ার সেনা অবস্থানে ফের মার্কিন হামলা!
প্রধানমন্ত্রীর ভারত সফরে তিস্তা পানি নিয়ে এজেন্ডা নেই: রিজভী প্রধানমন্ত্রীর ভারত সফরে তিস্তা পানি নিয়ে এজেন্ডা নেই: রিজভী
পুঁজিবাজারে ঊর্ধ্বমুখী প্রবণতা! পুঁজিবাজারে ঊর্ধ্বমুখী প্রবণতা!
বিরাটের কাউন্টি খেলা অনিশ্চিত! বিরাটের কাউন্টি খেলা অনিশ্চিত!
‘মাদক ব্যবসার চেয়েও ক্রসফায়ার বড় অপরাধ?
অসহনীয় যানজট নিরসনে দ্রুত কার্যকর পদক্ষেপ নিন?
বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট মহাকাশযাত্রা বাংলাদেশের জন্য মাইলফলক
বন জলবায়ু আলোচনায় যে সিদ্ধান্ত হয়েছে
জলবায়ু পরিবর্তনে প্যারিস চুক্তির সাথে চারশো বড় কোম্পানি প্রতিশ্রুতিবদ্ধ হয়েছে
আবারও অশান্ত হয়ে উঠছে পাহাড়ি এলাকা?
কিম-মুনের ঐতিহাসিক বৈঠক-গোটা বিশ্বে এটি শান্তির পরিবেশ তৈরি করবে!
অবর্ণনীয় দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে রাজধানীবাসীকে
বিড়ি শিল্পে তামাকের ভয়াবহতা আর শিশুশ্রম বাড়ছে
প্লাস্টিক বিপর্যয়ের মুখে বাংলাদেশ, খাবারে ঢুকে পড়ছে প্লাস্টিক !