ঢাকা, অক্টোবর ২৪, ২০১৮, ৯ কার্তিক ১৪২৫
---
bbc24news.com
প্রথম পাতা » আর্ন্তজাতিক » ‘ক্লাইমেট চ্যান্সেলর’ হিসেবে পরিচিতি পেয়েছেন “ম্যার্কেল
মঙ্গলবার ● ১৪ নভেম্বর ২০১৭, ৯ কার্তিক ১৪২৫
Email this News Print Friendly Version

‘ক্লাইমেট চ্যান্সেলর’ হিসেবে পরিচিতি পেয়েছেন “ম্যার্কেল

---বিবিসি২৪নিউজ,আহমেদ মুকুল,জার্মান থেকে:কার্বন নির্গমন কমানোর যে লক্ষ্যমাত্রায় জার্মানি অতীতে সম্মত হয়েছিল, তা পূরণ হবে না বলেই মনে হচ্ছে৷ রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা বলছেন, ম্যার্কেল জলবায়ু পরিবর্তন রোধে বিশ্ব মঞ্চে বড় বড় বুলি আওড়ালেও জোট সরকার গড়তে গিয়ে সম্ভবত তাঁকে ব্যবসা এবং রাজনীতির স্বার্থে বেশ কিছুটা ছাড় দিতে হবে৷ জার্মানির চ্যান্সেলর ‘ক্লাইমেট চ্যান্সেলর’ হিসেবে পরিচিতি পেয়েছেন৷ এই পরিচিতি ভবিষ্যতে কতটা যৌক্তিক হবে তা নিয়ে সংশয় দেখা দিয়েছে৷ কেননা, জার্মানি কার্বন নির্গমন রোধের লক্ষ্যমাত্রা পূরণে ব্যর্থ হবে বলেই ধারণা করা হচ্ছে৷

সর্বশেষ জাতীয় নির্বাচনের পর এক কঠিন পরীক্ষার মধ্যে পড়েছেন জার্মান চ্যান্সেল আঙ্গেলা ম্যার্কেল৷ সম্ভাব্য যে জোট সরকার গড়ার পথে তিনি রয়েছেন, তাতে একদিকে রয়েছে পরিবেশবান্ধব দল গ্রিন পার্টি এবং অন্যদিকে ব্যবসায়ীদের দল হিসেবে পরিচিত এফডিপি৷ এই দুই সম্ভাব্য জোটসঙ্গীর মধ্যে অমিল অনেক৷ বিশেষ করে পরিবেশের ইস্যুতে গ্রিন পার্টি যতটা কঠোর উদ্যোগ নেয়ার পক্ষে, এফডিপি ততটা নয়৷ বরং দলটি দেখছে বড় বড় কর্পোরেটদের স্বার্থ৷

এ অবস্থায় জার্মানির সাপ্তাহিক পত্রিকা ‘ডি সাইট’ ম্যার্কেলের নীতির সঙ্গে ডোনাল্ড ট্রাম্পের নীতির মিল রয়েছে বলে মনে করছে৷ পার্থক্য এই যে, ট্রাম্প সততার সঙ্গে জলবায়ু পরিবর্তনের বিষয়টি অস্বীকার করেছেন, লিখেছে পত্রিকাটি৷

বিদ্যুৎ কেন্দ্রগুলিতে কয়লা ব্যবহারের বিরোধীতা জানিয়ে কপ২৩-এর ঠিক একদিন আগে, হাজার হাজার বিক্ষোভকারী সমবেত হন৷ বিক্ষোভকারীদের সবাই সেসময় সাদা পোশাক পরে প্রায় ১০ কিলোমিটার হেঁটে হাম্বাখ কয়লা খনি পর্যন্ত যান৷ ২০২০ সালের মধ্যে কার্বন নির্গমনের হার ১৯৯০ সালের তুলনায় চল্লিশ শতাংশ কমিয়ে আনার ঘোষণা দিয়েছিল জার্মানি৷ কিন্তু বর্তমান যে অবস্থা তাতে ৩২ শতাংশের বেশি কমাতে পারবে না দেশটি৷ ফলে ২০৩০ সালের ৫৫ শতাংশ এবং ২০৫০ সাল নাগাদ ৯৫ শতাংশ কার্বন নির্গমন রোধের যে সিদ্ধান্ত দেশটি নিয়েছিল, তাও বাস্তবায়ন কঠিন হবে বলে মনে করা হচ্ছে৷

এদিকে শনিবার ম্যার্কেল বলেছেন, জার্মানি এবং অর্থনৈতিকভাবে উন্নত অন্যান্য দেশগুলোর বরফ গলা, উষ্ণতা বৃদ্ধি এবং আরো বিরূপ প্রাকৃতিক দুর্যোগ কমাতে প্রয়োজনীয় উদ্যোগ নিতে হবে৷


সম্প্রদায়িক ঘটনাগুলোর উপর সরকার ‘বিশেষ নজর’ রাখছে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

ছোট নবাব তৈমুরকে এক কোটি রুপির গাড়ি উপহার দিল-সাইফ


এ বিভাগের আরো খবর...

আজই সিরিজ জিততে চান- মাশরাফি আজই সিরিজ জিততে চান- মাশরাফি
যুক্তরাষ্ট্রকে পাল্টা হুশিয়ারি, পাল্লা দিয়ে পরমাণু অস্ত্র বানাবে- রাশিয়া যুক্তরাষ্ট্রকে পাল্টা হুশিয়ারি, পাল্লা দিয়ে পরমাণু অস্ত্র বানাবে- রাশিয়া
বিশ্ব বয়কটের পরও সৌদি এফআইআই সম্মেলন শুরু বিশ্ব বয়কটের পরও সৌদি এফআইআই সম্মেলন শুরু
প্রথমবারে মতো নিরাপত্তা চুক্তি সই করল- ভারত-চীন প্রথমবারে মতো নিরাপত্তা চুক্তি সই করল- ভারত-চীন
সংসদে সবার থেকে বিদায় নিলেন অর্থমন্ত্রী সংসদে সবার থেকে বিদায় নিলেন অর্থমন্ত্রী
সংসদে বিরোধী দল হিসাবে জাতীয় পার্টি কতটা ভূমিকা রাখতে পেরেছে? সংসদে বিরোধী দল হিসাবে জাতীয় পার্টি কতটা ভূমিকা রাখতে পেরেছে?
সামনের দিনগুলি খুবেই কঠিন, রক্তপাত বৃদ্ধি পাবে- অলি সামনের দিনগুলি খুবেই কঠিন, রক্তপাত বৃদ্ধি পাবে- অলি
ম্যানইউকে ১-০ গোলে হারাল ইউভেন্তুস ম্যানইউকে ১-০ গোলে হারাল ইউভেন্তুস
খাশুগজি হত্যার ঘটনা পরিকল্পিত ‘নির্মম হত্যাকাণ্ড’- এরদোয়ান খাশুগজি হত্যার ঘটনা পরিকল্পিত ‘নির্মম হত্যাকাণ্ড’- এরদোয়ান
সিলেটে প্রথম জনসভার জোর প্রস্তুতি চালাচ্ছে- ঐক্যফ্রন্ট সিলেটে প্রথম জনসভার জোর প্রস্তুতি চালাচ্ছে- ঐক্যফ্রন্ট

সর্বাধিক পঠিত

পরীমনি জন্মদিন পালন করবেন সুবিধাবঞ্জিত শিশুদের সাথে পরীমনি জন্মদিন পালন করবেন সুবিধাবঞ্জিত শিশুদের সাথে
আজই সিরিজ জিততে চান- মাশরাফি আজই সিরিজ জিততে চান- মাশরাফি
রংপুরে যাত্রীবাহী বাস উল্টে নিহত ২ রংপুরে যাত্রীবাহী বাস উল্টে নিহত ২
যুক্তরাষ্ট্রকে পাল্টা হুশিয়ারি, পাল্লা দিয়ে পরমাণু অস্ত্র বানাবে- রাশিয়া যুক্তরাষ্ট্রকে পাল্টা হুশিয়ারি, পাল্লা দিয়ে পরমাণু অস্ত্র বানাবে- রাশিয়া
বিশ্ব বয়কটের পরও সৌদি এফআইআই সম্মেলন শুরু বিশ্ব বয়কটের পরও সৌদি এফআইআই সম্মেলন শুরু
প্রথমবারে মতো নিরাপত্তা চুক্তি সই করল- ভারত-চীন প্রথমবারে মতো নিরাপত্তা চুক্তি সই করল- ভারত-চীন
সংসদে সবার থেকে বিদায় নিলেন অর্থমন্ত্রী সংসদে সবার থেকে বিদায় নিলেন অর্থমন্ত্রী
সংসদে বিরোধী দল হিসাবে জাতীয় পার্টি কতটা ভূমিকা রাখতে পেরেছে? সংসদে বিরোধী দল হিসাবে জাতীয় পার্টি কতটা ভূমিকা রাখতে পেরেছে?
হাসিনা-খালেদার গ্রেপ্তার নিয়ে যা বলেছিলেন মইনুল হাসিনা-খালেদার গ্রেপ্তার নিয়ে যা বলেছিলেন মইনুল
মেয়েদের অঙ্গে স্পর্শ দোষের কিছু না ! মেয়েদের অঙ্গে স্পর্শ দোষের কিছু না !
নদীশাসনের দুর্বলতা বিঘ্নিত হচ্ছে নৌপথে চলাচল
শিল্পে গ্যাস সংযোগ না দেওয়া, আর্থিক ক্ষতির মুখে-সরকার
গুদামের খাদ্যদ্রব্য পাচারে-সক্রিয় চোর সিন্ডিকেট
প্যারিস জলবায়ু চুক্তি ৩০০ পৃষ্ঠার খসড়া অনুমোদন করেছে-ব্যাংকক
সড়ক শৃঙ্খলা-মূল সমস্যাটা রাজনীতিতেই: কাদের
বিশ্বের ভয়াবহ আবহাওয়া নিয়ে প্রযুক্তিগত আলোচনা চলছে
রোহিঙ্গা প্রশ্নে চীন-রাশিয়াকে-জাতিসংঘের কড়া হুুশিয়ারি!
খালেদা জিয়ার জামিন বহাল
বিমসটেক শীর্ষ সম্মেলনে নেপালে প্রধানমন্ত্রী
আওয়ামী লীগের জন্য যা পেয়েছি তা ভয়ংকর!