ঢাকা, এপ্রিল ২৬, ২০১৮, ১৩ বৈশাখ ১৪২৫
---
---
bbc24news.com
প্রথম পাতা » News & Events » রোহিঙ্গা সংকট সমাধানে কূটনৈতিক চাপ অব্যাহত রাখতে হবে ?
সোমবার ● ২০ নভেম্বর ২০১৭, ১৩ বৈশাখ ১৪২৫
Email this News Print Friendly Version

রোহিঙ্গা সংকট সমাধানে কূটনৈতিক চাপ অব্যাহত রাখতে হবে ?

এম ডি জালাল,

---রোহিঙ্গা সংকট সমাধানে আন্তর্জাতিক চাপ এবং কূটনৈতিক তৎপরতাও অব্যাহত রাখতে হবে। বিদেশি প্রতিনিধিদের পরিদর্শন রোহিঙ্গা সংকট সমাধানে ভূমিকা রাখতে হবে। রোহিঙ্গা শরণার্থীদের দুর্ভোগ দেখা ও চলমান এ সংকট সমাধানে সহায়তার লক্ষ্যে বিভিন্ন দেশের উচ্চপর্যায়ের প্রতিনিধি দল বাংলাদেশ সফর করেছে। শনিবার চীনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ওয়াং ই প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে সাক্ষাৎ করে বাংলাদেশ ও মিয়ানমারের মধ্যে সংলাপে সহায়তা করার প্রস্তাব দিয়েছেন। একইদিন যুক্তরাষ্ট্রের একটি প্রতিনিধি দল উখিয়ায় রোহিঙ্গা শিবির পরিদর্শন করেছে। প্রতিনিধি দলটি মিয়ানমারও সফর করে রোহিঙ্গা নির্যাতনের তথ্য দেশটির কংগ্রেসে তুলে ধরবে বলে জানিয়েছে। গতকাল রোহিঙ্গা শরণার্থী শিবির পরিদর্শন করেছেন জাপান, জার্মানি ও নরওয়ের পররাষ্ট্রমন্ত্রীরা। তাদের সঙ্গে ইউরোপিয়ান ইউনিয়নের পররাষ্ট্রবিষয়ক প্রধানও ছিলেন। চীনসহ বিদেশের উচ্চপর্যায়ের প্রতিনিধিদের এ সফর রোহিঙ্গা সংকট সমাধানে ভূমিকা রাখবে বলে আশা করা যায়।

মিয়ানমারের রাজধানী নেপিদোতে আজ ও আগামীকাল দুই দিনব্যাপী আসেম সম্মেলননে যোগ দিচ্ছেন এসব প্রতিনিধি। রোহিঙ্গা সংকট সমাধানে তারা সেখানে নিজেদের অবস্থান তুলে ধরতে পারেন।

---রোহিঙ্গা ইস্যুতে মিয়ানমারকে নিরঙ্কুশ সমর্থন দেয়া চীনের সংকট সমাধানে সহায়তার প্রস্তাব দেয়া ইতিবাচক বলা যায়। তবে দেশটি আন্তর্জাতিক চাপের পরিবর্তে দ্বিপাক্ষিকভাবে সমাধানে জোর দিয়েছে। আমরা মনে করি, দ্বিপাক্ষিক উদ্যোগ জোরদার করা জরুরি, একইসঙ্গে আন্তর্জাতিক চাপ এবং কূটনৈতিক তৎপরতাও অব্যাহত রাখতে হবে। কারণ, ১৯৯২ সালের দ্বিপাক্ষিক সমঝোতা ইতিবাচক কোনো ফল বয়ে আনেনি। এর আগে রোহিঙ্গা ইস্যুতে জাতিসংঘ থার্ড কমিটিতে সংকট সমাধানে চীন ও রাশিয়াসহ আমাদের কিছু বন্ধুদেশ প্রস্তাবের বিপক্ষে ভোট দেয়। ভোটদানে বিরত থাকে ভারত, জাপানসহ পরীক্ষিত আরও কিছু বন্ধুরাষ্ট্র।এসব দেশ রোহিঙ্গাদের নিপীড়ন, নির্যাতন রোধ ও সংকট সমাধানের পক্ষে থাকলেও আন্তর্জাতিক ফোরামে তার প্রতিফলন কিন্তু দেখা যাচ্ছে না। দেশগুলো যে কোনো উদ্যোগের সরাসরি পক্ষে না এলেও বিরোধিতা যেন না করে, অন্তত নিরপেক্ষ থাকে সে প্রচেষ্টা জোরদার করতে হবে।

চীন-ভারতসহ বিভিন্ন দেশের সমর্থনের পরও পরিস্থিতির পরিবর্তন না হওয়া অনেকটা ‘অপারেশন সাকসেস; কিন্তু রোগী মারা গেছে’র মতোই। রোহিঙ্গা সংকটের দায় পুরোপুরি মিয়ানমারের এবং তারা দেশটিরই নাগরিক, অথচ নিকট প্রতিবেশী হওয়াতে তার সবচেয়ে বড় খেসারত দিতে হচ্ছে আমাদের। বিষয়টি আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে বোঝানো সম্ভব হয়েছে। সর্বশেষ চীনও সমাধানের আগ্রহ ও নিরাপত্তা পরিষদের সহায়তার ওপর জোর দিয়েছে। রোহিঙ্গাদের ফেরত নেয়ার ব্যাপারে বিদেশি উচ্চপর্যায়ের প্রতিনিধিদের কাছ থেকে এটাই কাম্য।


ব্যাপক চাপের মাঝেও,পদত্যাগ করবেন না মুগাবে?

অ্যালায়েন্স সিকিউরিটিজের চেয়ারম্যান পঙ্কজ রায় গ্রেপ্তার


এ বিভাগের আরো খবর...

অবর্ণনীয় দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে রাজধানীবাসীকে অবর্ণনীয় দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে রাজধানীবাসীকে
বিড়ি শিল্পে তামাকের ভয়াবহতা আর শিশুশ্রম বাড়ছে বিড়ি শিল্পে তামাকের ভয়াবহতা আর শিশুশ্রম বাড়ছে
ইয়াবাসহ গ্রেফতার নারী ক্রিকেটার! ইয়াবাসহ গ্রেফতার নারী ক্রিকেটার!
প্লাস্টিক বিপর্যয়ের মুখে বাংলাদেশ, খাবারে ঢুকে পড়ছে প্লাস্টিক ! প্লাস্টিক বিপর্যয়ের মুখে বাংলাদেশ, খাবারে ঢুকে পড়ছে প্লাস্টিক !
বাংলাদেশে আসবে ভারতীয় দল! বাংলাদেশে আসবে ভারতীয় দল!
ইন্টারনেটে নিম্নগতির দেশগুলোর কাতারেই বাংলাদেশ ইন্টারনেটে নিম্নগতির দেশগুলোর কাতারেই বাংলাদেশ
দুই শিরোপা জয়ের সুযোগ রয়েছে বার্সেলোনার! দুই শিরোপা জয়ের সুযোগ রয়েছে বার্সেলোনার!
শিক্ষাকে কখনো পণ্য হিসেবে বিবেচনা করা উচিত নয় শিক্ষাকে কখনো পণ্য হিসেবে বিবেচনা করা উচিত নয়
মিল্ক বিউটি তামান্না! মিল্ক বিউটি তামান্না!
মুক্তিযুদ্ধে নৌ-কমান্ডোদের অভিযান নিয়ে ‘অপারেশন জ্যাকপট’! মুক্তিযুদ্ধে নৌ-কমান্ডোদের অভিযান নিয়ে ‘অপারেশন জ্যাকপট’!

সর্বাধিক পঠিত

মুক্তি পেয়েছে নুসরাত ফারিয়ার ‘পটাকা’ মুক্তি পেয়েছে নুসরাত ফারিয়ার ‘পটাকা’
তারেক ব্রিটেনের আইন মোতাবেক বসবাস করছেন- রিজভী তারেক ব্রিটেনের আইন মোতাবেক বসবাস করছেন- রিজভী
এই মাসে প্রজ্ঞাপন জারি না হলে ফের আন্দোলন! এই মাসে প্রজ্ঞাপন জারি না হলে ফের আন্দোলন!
চতুর্থ কার্যদিবসে ঊর্ধ্বমুখী প্রবণতায় ফিরেছে সূচক চতুর্থ কার্যদিবসে ঊর্ধ্বমুখী প্রবণতায় ফিরেছে সূচক
ঘন ও লম্বা চুল করতে রসুনের জুড়ি মেলা ভার ঘন ও লম্বা চুল করতে রসুনের জুড়ি মেলা ভার
বাংলাদেশ কম্বোডিয়াকে হারিয়ে ২০-০ গোলে বড় জয়! বাংলাদেশ কম্বোডিয়াকে হারিয়ে ২০-০ গোলে বড় জয়!
ইসির সঙ্গে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর বৈঠক আজ ইসির সঙ্গে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর বৈঠক আজ
ধোনির জয়,কোহলির বেঙ্গালুরুর হার! ধোনির জয়,কোহলির বেঙ্গালুরুর হার!
শব্দদূষণে বধির হওয়ার মাত্রা বেড়েই চলছে শব্দদূষণে বধির হওয়ার মাত্রা বেড়েই চলছে
সঞ্জয়ের বায়োপিকের নাম ‘দত্ত’ থেকে ‘সঞ্জু’ কেন? সঞ্জয়ের বায়োপিকের নাম ‘দত্ত’ থেকে ‘সঞ্জু’ কেন?
অবর্ণনীয় দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে রাজধানীবাসীকে
বিড়ি শিল্পে তামাকের ভয়াবহতা আর শিশুশ্রম বাড়ছে
প্লাস্টিক বিপর্যয়ের মুখে বাংলাদেশ, খাবারে ঢুকে পড়ছে প্লাস্টিক !
শিক্ষাকে কখনো পণ্য হিসেবে বিবেচনা করা উচিত নয়
রেল যোগাযোগ ঝুঁকিমুক্ত করার পদক্ষেপ নিন
এডিবির পর্যবেক্ষণ বলছে-বাংলাদেশের অর্থনীতির ভিত্তি সুদৃঢ় করতে হবে
কাশ্মীরের ধর্ষণ ও হত্যা দিল্লিতে পৌঁছায়িন কেন?
রোহিঙ্গা পাঁচ সদস্যের একটি পরিবারকে ফিরিয়ে নিয়েছে: মিয়ানমার
জলবায়ু পরিবর্তনে বন্যা এবং সাইক্লোনের প্রবণতা বেড়ে যাবে
কোটা আন্দোলনকারীদের জয় হলেও মেধাবীরা কতটুকু সুযোগ পাবে?