ঢাকা, অক্টোবর ২৪, ২০১৮, ৯ কার্তিক ১৪২৫
---
bbc24news.com
প্রথম পাতা » News & Events » রোহিঙ্গা সংকট সমাধানে কূটনৈতিক চাপ অব্যাহত রাখতে হবে ?
সোমবার ● ২০ নভেম্বর ২০১৭, ৯ কার্তিক ১৪২৫
Email this News Print Friendly Version

রোহিঙ্গা সংকট সমাধানে কূটনৈতিক চাপ অব্যাহত রাখতে হবে ?

এম ডি জালাল,

---রোহিঙ্গা সংকট সমাধানে আন্তর্জাতিক চাপ এবং কূটনৈতিক তৎপরতাও অব্যাহত রাখতে হবে। বিদেশি প্রতিনিধিদের পরিদর্শন রোহিঙ্গা সংকট সমাধানে ভূমিকা রাখতে হবে। রোহিঙ্গা শরণার্থীদের দুর্ভোগ দেখা ও চলমান এ সংকট সমাধানে সহায়তার লক্ষ্যে বিভিন্ন দেশের উচ্চপর্যায়ের প্রতিনিধি দল বাংলাদেশ সফর করেছে। শনিবার চীনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ওয়াং ই প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে সাক্ষাৎ করে বাংলাদেশ ও মিয়ানমারের মধ্যে সংলাপে সহায়তা করার প্রস্তাব দিয়েছেন। একইদিন যুক্তরাষ্ট্রের একটি প্রতিনিধি দল উখিয়ায় রোহিঙ্গা শিবির পরিদর্শন করেছে। প্রতিনিধি দলটি মিয়ানমারও সফর করে রোহিঙ্গা নির্যাতনের তথ্য দেশটির কংগ্রেসে তুলে ধরবে বলে জানিয়েছে। গতকাল রোহিঙ্গা শরণার্থী শিবির পরিদর্শন করেছেন জাপান, জার্মানি ও নরওয়ের পররাষ্ট্রমন্ত্রীরা। তাদের সঙ্গে ইউরোপিয়ান ইউনিয়নের পররাষ্ট্রবিষয়ক প্রধানও ছিলেন। চীনসহ বিদেশের উচ্চপর্যায়ের প্রতিনিধিদের এ সফর রোহিঙ্গা সংকট সমাধানে ভূমিকা রাখবে বলে আশা করা যায়।

মিয়ানমারের রাজধানী নেপিদোতে আজ ও আগামীকাল দুই দিনব্যাপী আসেম সম্মেলননে যোগ দিচ্ছেন এসব প্রতিনিধি। রোহিঙ্গা সংকট সমাধানে তারা সেখানে নিজেদের অবস্থান তুলে ধরতে পারেন।

---রোহিঙ্গা ইস্যুতে মিয়ানমারকে নিরঙ্কুশ সমর্থন দেয়া চীনের সংকট সমাধানে সহায়তার প্রস্তাব দেয়া ইতিবাচক বলা যায়। তবে দেশটি আন্তর্জাতিক চাপের পরিবর্তে দ্বিপাক্ষিকভাবে সমাধানে জোর দিয়েছে। আমরা মনে করি, দ্বিপাক্ষিক উদ্যোগ জোরদার করা জরুরি, একইসঙ্গে আন্তর্জাতিক চাপ এবং কূটনৈতিক তৎপরতাও অব্যাহত রাখতে হবে। কারণ, ১৯৯২ সালের দ্বিপাক্ষিক সমঝোতা ইতিবাচক কোনো ফল বয়ে আনেনি। এর আগে রোহিঙ্গা ইস্যুতে জাতিসংঘ থার্ড কমিটিতে সংকট সমাধানে চীন ও রাশিয়াসহ আমাদের কিছু বন্ধুদেশ প্রস্তাবের বিপক্ষে ভোট দেয়। ভোটদানে বিরত থাকে ভারত, জাপানসহ পরীক্ষিত আরও কিছু বন্ধুরাষ্ট্র।এসব দেশ রোহিঙ্গাদের নিপীড়ন, নির্যাতন রোধ ও সংকট সমাধানের পক্ষে থাকলেও আন্তর্জাতিক ফোরামে তার প্রতিফলন কিন্তু দেখা যাচ্ছে না। দেশগুলো যে কোনো উদ্যোগের সরাসরি পক্ষে না এলেও বিরোধিতা যেন না করে, অন্তত নিরপেক্ষ থাকে সে প্রচেষ্টা জোরদার করতে হবে।

চীন-ভারতসহ বিভিন্ন দেশের সমর্থনের পরও পরিস্থিতির পরিবর্তন না হওয়া অনেকটা ‘অপারেশন সাকসেস; কিন্তু রোগী মারা গেছে’র মতোই। রোহিঙ্গা সংকটের দায় পুরোপুরি মিয়ানমারের এবং তারা দেশটিরই নাগরিক, অথচ নিকট প্রতিবেশী হওয়াতে তার সবচেয়ে বড় খেসারত দিতে হচ্ছে আমাদের। বিষয়টি আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে বোঝানো সম্ভব হয়েছে। সর্বশেষ চীনও সমাধানের আগ্রহ ও নিরাপত্তা পরিষদের সহায়তার ওপর জোর দিয়েছে। রোহিঙ্গাদের ফেরত নেয়ার ব্যাপারে বিদেশি উচ্চপর্যায়ের প্রতিনিধিদের কাছ থেকে এটাই কাম্য।


ব্যাপক চাপের মাঝেও,পদত্যাগ করবেন না মুগাবে?

অ্যালায়েন্স সিকিউরিটিজের চেয়ারম্যান পঙ্কজ রায় গ্রেপ্তার


এ বিভাগের আরো খবর...

ইস্পাতের উৎস হয়ে উঠছে তুরস্কে ইস্পাতের উৎস হয়ে উঠছে তুরস্কে
সামিট পাওয়ারের ৩০% লভ্যাংশ সুপারিশ সামিট পাওয়ারের ৩০% লভ্যাংশ সুপারিশ
পেট্রলের দাম কমল ৮২ রুপির নিচে পেট্রলের দাম কমল ৮২ রুপির নিচে
সরাসরি খেলা দেখুন বাংলাদেশ বনাম- জিম্বাবুয়ে সরাসরি খেলা দেখুন বাংলাদেশ বনাম- জিম্বাবুয়ে
বাংলাদেশ রেলওয়ে সার্ভিস বাড়েনি, বেড়েছে জ্বালানির ব্যবহার বাংলাদেশ রেলওয়ে সার্ভিস বাড়েনি, বেড়েছে জ্বালানির ব্যবহার
ইউরোপে শতকরা ৫০ ভাগ লেখক আক্রমণের শিকার ইউরোপে শতকরা ৫০ ভাগ লেখক আক্রমণের শিকার
তিনজনের যাবজ্জীবন মাদক মামলায়-ঝিনাইদহে তিনজনের যাবজ্জীবন মাদক মামলায়-ঝিনাইদহে
নদীশাসনের দুর্বলতা বিঘ্নিত হচ্ছে নৌপথে চলাচল নদীশাসনের দুর্বলতা বিঘ্নিত হচ্ছে নৌপথে চলাচল
বিপজ্জনক ক্রসিং ছোট গাড়িতে বড় ঝুঁকি বিপজ্জনক ক্রসিং ছোট গাড়িতে বড় ঝুঁকি
একটি কথাতে কি রাষ্ট্রদ্রোহিতা হয়- জাফরুল্লাহ একটি কথাতে কি রাষ্ট্রদ্রোহিতা হয়- জাফরুল্লাহ

সর্বাধিক পঠিত

জন্মনিয়ন্ত্রণ পিল বদলে দেয় নারীদের শরীরের গঠন জন্মনিয়ন্ত্রণ পিল বদলে দেয় নারীদের শরীরের গঠন
অভিনেত্রী শ্রীতমা ভট্টাচার্যের বিয়ের জল্পনা শুরু অভিনেত্রী শ্রীতমা ভট্টাচার্যের বিয়ের জল্পনা শুরু
পরীমনি জন্মদিন পালন করবেন সুবিধাবঞ্জিত শিশুদের সাথে পরীমনি জন্মদিন পালন করবেন সুবিধাবঞ্জিত শিশুদের সাথে
আজই সিরিজ জিততে চান- মাশরাফি আজই সিরিজ জিততে চান- মাশরাফি
রংপুরে যাত্রীবাহী বাস উল্টে নিহত ২ রংপুরে যাত্রীবাহী বাস উল্টে নিহত ২
যুক্তরাষ্ট্রকে পাল্টা হুশিয়ারি, পাল্লা দিয়ে পরমাণু অস্ত্র বানাবে- রাশিয়া যুক্তরাষ্ট্রকে পাল্টা হুশিয়ারি, পাল্লা দিয়ে পরমাণু অস্ত্র বানাবে- রাশিয়া
বিশ্ব বয়কটের পরও সৌদি এফআইআই সম্মেলন শুরু বিশ্ব বয়কটের পরও সৌদি এফআইআই সম্মেলন শুরু
প্রথমবারে মতো নিরাপত্তা চুক্তি সই করল- ভারত-চীন প্রথমবারে মতো নিরাপত্তা চুক্তি সই করল- ভারত-চীন
সংসদে সবার থেকে বিদায় নিলেন অর্থমন্ত্রী সংসদে সবার থেকে বিদায় নিলেন অর্থমন্ত্রী
সংসদে বিরোধী দল হিসাবে জাতীয় পার্টি কতটা ভূমিকা রাখতে পেরেছে? সংসদে বিরোধী দল হিসাবে জাতীয় পার্টি কতটা ভূমিকা রাখতে পেরেছে?
নদীশাসনের দুর্বলতা বিঘ্নিত হচ্ছে নৌপথে চলাচল
শিল্পে গ্যাস সংযোগ না দেওয়া, আর্থিক ক্ষতির মুখে-সরকার
গুদামের খাদ্যদ্রব্য পাচারে-সক্রিয় চোর সিন্ডিকেট
প্যারিস জলবায়ু চুক্তি ৩০০ পৃষ্ঠার খসড়া অনুমোদন করেছে-ব্যাংকক
সড়ক শৃঙ্খলা-মূল সমস্যাটা রাজনীতিতেই: কাদের
বিশ্বের ভয়াবহ আবহাওয়া নিয়ে প্রযুক্তিগত আলোচনা চলছে
রোহিঙ্গা প্রশ্নে চীন-রাশিয়াকে-জাতিসংঘের কড়া হুুশিয়ারি!
খালেদা জিয়ার জামিন বহাল
বিমসটেক শীর্ষ সম্মেলনে নেপালে প্রধানমন্ত্রী
আওয়ামী লীগের জন্য যা পেয়েছি তা ভয়ংকর!