ঢাকা, জুলাই ২০, ২০১৮, ৪ শ্রাবণ ১৪২৫
---
---
bbc24news.com
প্রথম পাতা » আইন-আদালত » পেটে বাচ্চা রেখে অস্ত্রোপচার শেষ করায়: ক্ষতিপূরণ দিতে হাইকোর্টের নির্দেশ
রবিবার ● ২৬ নভেম্বর ২০১৭, ৪ শ্রাবণ ১৪২৫
Email this News Print Friendly Version

পেটে বাচ্চা রেখে অস্ত্রোপচার শেষ করায়: ক্ষতিপূরণ দিতে হাইকোর্টের নির্দেশ

---বিবিসি২৪নিউজ,নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকা:‘গত ১৮ সেপ্টেম্বর কুমিল্লার হোমনা উপজেলার আলগিরচর গ্রামের প্রবাসী আউয়াল হোসেনের অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রী খাদিজা আক্তারকে গৌরীপুরের লাইফ হসপিটাল ও ডিজিটাল ডায়াগনস্টিক সেন্টারে ভর্তি করা হয়। পেটে জমজ সন্তানের একজনকে ভূমিষ্ঠ করিয়ে আরেকজনকে পেটে রেখেই সেলাই করে অস্ত্রোপচার শেষ করার ঘটনায় সংশ্লিষ্ট চিকিৎসকের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। এছাড়া ঘটনার শিকার খাদিজা আক্তারকে তিন লাখ টাকা ক্ষতিপূরণ দিতে সংশ্লিষ্ট ক্লিনিকের মালিককে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। রোববার (২৬ নভেম্বর) বিচারপতি সালমা মাসুদ চৌধুরী ও বিচারপতি এ কে এম জহিরুল হকের হাইকোর্ট বেঞ্চ এ রায় দেন।

বাংলাদেশ মেডিকেল অ্যান্ড ডেন্টাল কাউন্সিলকে আদালতের আদেশ পালন করতে বলা হয়েছে।
আদালতে শুনানি করেন সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত এ বিষয়ে প্রতিবেদন নজরে আনা আইনজীবী মাহফুজুর রহমান মিলন। ডায়াগনস্টিক সেন্টারের মালিকের পক্ষে ছিলেন আব্দুল মতিন খসরু।

অস্ত্রোপচারকারী চিকিৎসক হোসনে আরা বেগমের পক্ষে ছিলেন এ কিউ এম সোহেল রানা। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন সহকারী অ্যাটর্নি জেনারেল অরবিন্দ কুমার রায়।

সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত ‘জমজের একটিকে পেটে রেখেই অস্ত্রোপচার শেষ’ শীর্ষক প্রতিবেদনে বলা হয়, সেখানে ওইদিনই সিজারের মাধ্যমে তার একটি মেয়ে সন্তান হয়। তখন অন্তঃসত্ত্বার স্বজনেরা খাদিজার পেটে জমজ বাচ্চা রয়েছে জানালে অস্ত্রোপচারকারী চিকিৎসক শেখ হোসনে আরা বলেন, খাদিজার পেটে বাচ্চা একটিই। অন্যটি টিউমার। চারদিন ভর্তি রাখার পর তাকে ক্লিনিক থেকে ছাড়পত্র দেওয়া হয়।’

‘হাসপাতাল থেকে বাড়ি ফেরার কয়েকদিন পর খাদিজার ফের শারীরিক সমস্যা দেখা দেয়। ১৫ দিন পর পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে জানা যায়, খাদিজার পেটে আরেকটি বাচ্চা রয়েছে।’

‘পরে গত ২৩ অক্টোবর রাতে তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে ২৫ অক্টোবর অস্ত্রোপচারের মাধ্যমে পেট থেকে একটি মৃত ছেলে সন্তান বের করা হয়।’

ওই ঘটনায় সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত প্রতিবেদন নজরে আনার পর গত ২৯ অক্টোবর বিচারপতি সালমা মাসুদ চৌধুরী ও এ কে এম জহিরুল হকের হাইকোর্ট বেঞ্চ স্বপ্রণোদিত হয়ে কুমিল্লার সিভিল সার্জন, কুমিল্লার গৌরীপুরের লাইফ হসপিটাল অ্যান্ড ডিজিটাল ডায়াগনস্টিকের তিনজনকে ৭ নভেম্বর তলব করেছে হাইকোর্টে।


রাষ্ট্রীয় বাহিনী দ্বারা ৪০০ গুমের ঘটনা ঘটেছে: মোশাররফ

পূর্ণাঙ্গ রায় দিতে কিছুদিন সময় লাগবে-অ্যাটর্নি জেনারেল


এ বিভাগের আরো খবর...

সনাতন ছাড়া সব ধরনের সোনার দাম কমেছে সনাতন ছাড়া সব ধরনের সোনার দাম কমেছে
মিয়ানমারের রাখাইনে বিশ্ববিদ্যালয় চালু হচ্ছে মিয়ানমারের রাখাইনে বিশ্ববিদ্যালয় চালু হচ্ছে
সব দলের অংশগ্রহণ মূলক নির্বাচন চায়- ইইউ সব দলের অংশগ্রহণ মূলক নির্বাচন চায়- ইইউ
বামপন্থী জোট বেশি, ভোট কম দুর্বলতা নিজেদেরই বামপন্থী জোট বেশি, ভোট কম দুর্বলতা নিজেদেরই
উষ্ণতম দিন পার করল রাজধানীবাসী উষ্ণতম দিন পার করল রাজধানীবাসী
সিলেটে আরিফকে সমর্থন দিলেন সেলিম সিলেটে আরিফকে সমর্থন দিলেন সেলিম
ই-পাসপোর্ট চালু করছে বাংলাদেশ ই-পাসপোর্ট চালু করছে বাংলাদেশ
আমরা গুণগত মানের দিকটায় গুরুত্ব দিচ্ছি- শিক্ষামন্ত্রী আমরা গুণগত মানের দিকটায় গুরুত্ব দিচ্ছি- শিক্ষামন্ত্রী
সোনায় হেরফেরের সমস্যা দ্রুত সমাধানের নির্দেশ- প্রধানমন্ত্রীর সোনায় হেরফেরের সমস্যা দ্রুত সমাধানের নির্দেশ- প্রধানমন্ত্রীর
সোনা নিয়ে কথা বলা বিএনপির মুখে শোভা পায় না- কাদের সোনা নিয়ে কথা বলা বিএনপির মুখে শোভা পায় না- কাদের

সর্বাধিক পঠিত

সনাতন ছাড়া সব ধরনের সোনার দাম কমেছে সনাতন ছাড়া সব ধরনের সোনার দাম কমেছে
মিয়ানমারের রাখাইনে বিশ্ববিদ্যালয় চালু হচ্ছে মিয়ানমারের রাখাইনে বিশ্ববিদ্যালয় চালু হচ্ছে
সব দলের অংশগ্রহণ মূলক নির্বাচন চায়- ইইউ সব দলের অংশগ্রহণ মূলক নির্বাচন চায়- ইইউ
বামপন্থী জোট বেশি, ভোট কম দুর্বলতা নিজেদেরই বামপন্থী জোট বেশি, ভোট কম দুর্বলতা নিজেদেরই
জীবনের সব গল্প নাটকের সাথে মিলে না? জীবনের সব গল্প নাটকের সাথে মিলে না?
লন্ডনে গানে গানে চিরকুট ব্যান্ড লন্ডনে গানে গানে চিরকুট ব্যান্ড
‘টুইটারম্যান’ নেইমার–এমবাপ্পে ‘টুইটারম্যান’ নেইমার–এমবাপ্পে
এশিয়ান গেমসে থাকছেন না মামুনুল এশিয়ান গেমসে থাকছেন না মামুনুল
ধোনি কি অবসর নিয়ে ফেলছেন? ধোনি কি অবসর নিয়ে ফেলছেন?
উষ্ণতম দিন পার করল রাজধানীবাসী উষ্ণতম দিন পার করল রাজধানীবাসী
প্রবাসীরা অধিকার প্রতিষ্ঠায় সরকারের পদক্ষেপ চায়- ইউকে মানিকগঞ্জ সমিতি
ভূমি মন্ত্রণালয়ের অফিসগুলো দুর্নীতির আখড়া!
রোহিঙ্গাদের সুরক্ষায় বিশ্ব সম্প্রদায় ব্যর্থ হয়েছে-গুতেরেস
শিশু মৃত্যু দায়ী চিকিৎসকের বিরুদ্ধে দ্রুত ব্যবস্থা নিন?
প্রকল্প বাস্তবায়নে-দুর্নীতির দিকে নজর দিন?
মানি লন্ডারিং প্রতিরোধ আইন- আমলে নিন?
আর্জেন্টিনা ১-০ নাইজেরিয়া, ক্রোয়েশিয়া ০-০ আইসল্যান্ড
ডোনাল্ড ট্রাম্প যুক্তরাষ্ট্রের কূটনীতিকে কোন পথে নিয়ে যাচ্ছেন?
প্রধানমন্ত্রীর বিমানে ত্রুটির মামলার প্রকৌশলীদের জামিন মঞ্জুর
কাঙ্খিত ফল পেতে হলে,ভেজালবিরোধী অভিযান চালু রাখতে হবে?