ঢাকা, জুলাই ১৯, ২০১৮, ৪ শ্রাবণ ১৪২৫
---
---
bbc24news.com
প্রথম পাতা » এশিয়া-মধ্যপ্রাচ্য » উ.কোরিয়া আইসিবিএম সর্বোচ্চ ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা
বুধবার ● ২৯ নভেম্বর ২০১৭, ৪ শ্রাবণ ১৪২৫
Email this News Print Friendly Version

উ.কোরিয়া আইসিবিএম সর্বোচ্চ ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা

---বিবিসি২৪নিউজ,উত্তর কোরিয়া এক ব্যলিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপ করেছে যেটি চার হাজার কিলোমিটারের বেশি উচ্চতায় গিয়ে উড়ে যায় বলে ধারণা করা হচ্ছে। এই উচ্চতা এখনো পর্যন্ত ক্ষেপণাস্ত্রের গতিপথের ক্ষেত্রে দেশটির সর্বোচ্চ বলে জানিয়েছেন জাপান সরকার।

জাপানের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়, ফ্লাইটের উপাত্তের উপর ভিত্তি করে এই নিক্ষেপণ পরীক্ষা করে দেখছে।দেশটির পশ্চিমাঞ্চলের উপকূলে পিয়াংসং এর কাছাকাছি এক জায়গা থেকে রাত তিনটা আটারো নাগাদ ওই ক্ষেপণাস্ত্রটি নিক্ষেপ করা হয়েছিল বলে মন্ত্রণালয় জানিয়েছে। অনুমান করা হচ্ছে যে ক্ষেপণাস্ত্রটি আওমোরি জেলার আড়াইশো কিলোমিটার পশ্চিমে জাপানের একান্ত অর্থনৈতিক জোনে গিয়ে পতিত হয়েছে।

আজকের ক্ষেপণাস্ত্রটি এমন ভাবে নিক্ষেপ করা হয়েছিল যে এটি একদম খাড়া পথে উঠে যায়।ধারণা করা হচ্ছে যে এটি চার হাজার কিলোমিটারের বেশি উচ্চতায় পৌঁছে যায় যা এযাবত দেশটির সর্বোচ্চ।

কর্মকর্তারা বলছেন যে এটি প্রায় ৫৩ মিনিট ধরে উড়ে যায়। এই উড্ডয়নকাল হল দেশটির জন্য এখনো পর্যন্ত সর্বোচ্চ সময়। ক্ষেপণাস্ত্রটি সম্ভবত আন্তঃ মহাদেশীয় বা আইসিবিএম পর্যায়ের এবং এর পাল্লা হল সাড়ে পাঁচ হাজার কিলোমিটারের বেশি বলে তাঁরা আরও জানান।

ক্ষেপণাস্ত্রটির সর্বোচ্চ পাল্লা হিসাব করে দেখাসহ এটি স্বাভাবিক পথে উড়ে গেছে কিনা এবং এর অন্যান্য সামর্থ্য কি - এসকল তথ্য খুঁজে দেখার লক্ষ্যে প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় এইজিস জাহাজের রেডার থেকে সংগ্রহ করা উপাত্ত পরীক্ষা করে দেখছে।

এখনো পর্যন্ত দেশটি নিক্ষেপিত যে ক্ষেপণাস্ত্রটি সর্বোচ্চ উচ্চতায় পৌঁছাতে সক্ষম হয়েছিল সেটি ছিল হোয়াসং- ১৪ যেটি জুলাই মাসের ২৮ তারিখে খাড়া পথে নিক্ষেপ করা হয়েছিল। তবে, আজ নিক্ষেপিত ক্ষেপণাস্ত্রটি আগেরটির থেকেও পাঁচশো কিলোমিটার বেশি উচ্চতায় গিয়ে পৌঁছায়।একই সাথে এটি আট মিনিট বেশি উড়ে গেছে বলেও অনুমান করা হচ্ছে।

উত্তর কোরিয়া আজ ঘোষণা দিয়েছে যে তারা হোয়াসং- ১৫ নামের নতুন এক ধরনের আন্তঃ মহাদেশীয় ব্যলিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্রের সফলভাবে পরীক্ষা চালিয়েছে।


শহীদুলের ফাঁসি কার্যকর

বাংলাদেশ পারমাণবিক জগতে প্রথম পা রাখলেন


এ বিভাগের আরো খবর...

কমপ্লায়েন্স ইস্যুই কারণে বস্ত্র খাতের ৮৩৯ কারখানা বন্ধ! কমপ্লায়েন্স ইস্যুই কারণে বস্ত্র খাতের ৮৩৯ কারখানা বন্ধ!
আজ এইচএসসির ফল, জানা যাবে যেভাবে? আজ এইচএসসির ফল, জানা যাবে যেভাবে?
মৃত্যুর মুখ থেকে ফিরে আসার গল্প শোনাল থাই কিশোররা মৃত্যুর মুখ থেকে ফিরে আসার গল্প শোনাল থাই কিশোররা
জাপান-ইইউ মুক্ত বাণিজ্য চুক্তি স্বাক্ষর জাপান-ইইউ মুক্ত বাণিজ্য চুক্তি স্বাক্ষর
ট্রাম্পের সমালোচনা করতে চাইছে - হোয়াইট হাউস ট্রাম্পের সমালোচনা করতে চাইছে - হোয়াইট হাউস
রোহিঙ্গারা বিশ্বের সবচেয়ে নির্যাতিত জাতিতে পরিণত হতে যাচ্ছে- জাতিসংঘ রোহিঙ্গারা বিশ্বের সবচেয়ে নির্যাতিত জাতিতে পরিণত হতে যাচ্ছে- জাতিসংঘ
আমেরিকার মূল টার্গেট হচ্ছে ইয়েমেনে আধিপত্য প্রতিষ্ঠা করা আমেরিকার মূল টার্গেট হচ্ছে ইয়েমেনে আধিপত্য প্রতিষ্ঠা করা
ইরানে নৈরাজ্য ও বিশৃঙ্খলা সৃষ্টির চেষ্টা করছেন- ট্রাম্প ইরানে নৈরাজ্য ও বিশৃঙ্খলা সৃষ্টির চেষ্টা করছেন- ট্রাম্প
তিন তালাক ফতোয়া: ইসলাম থেকে বের করার অধিকার কারও নেই তিন তালাক ফতোয়া: ইসলাম থেকে বের করার অধিকার কারও নেই
গুগলের ৫শ’ কোটি ডলার জরিমানা! গুগলের ৫শ’ কোটি ডলার জরিমানা!

সর্বাধিক পঠিত

কক্সবাজারে বন্দুকযুদ্ধে নিহত ২ কক্সবাজারে বন্দুকযুদ্ধে নিহত ২
কমপ্লায়েন্স ইস্যুই কারণে বস্ত্র খাতের ৮৩৯ কারখানা বন্ধ! কমপ্লায়েন্স ইস্যুই কারণে বস্ত্র খাতের ৮৩৯ কারখানা বন্ধ!
আজ এইচএসসির ফল, জানা যাবে যেভাবে? আজ এইচএসসির ফল, জানা যাবে যেভাবে?
মৃত্যুর মুখ থেকে ফিরে আসার গল্প শোনাল থাই কিশোররা মৃত্যুর মুখ থেকে ফিরে আসার গল্প শোনাল থাই কিশোররা
জাপান-ইইউ মুক্ত বাণিজ্য চুক্তি স্বাক্ষর জাপান-ইইউ মুক্ত বাণিজ্য চুক্তি স্বাক্ষর
ট্রাম্পের সমালোচনা করতে চাইছে - হোয়াইট হাউস ট্রাম্পের সমালোচনা করতে চাইছে - হোয়াইট হাউস
দুদকের অভিযানে সিভিল সার্জনের ঘুষের ‘প্রমাণ’ দাবি দুদকের অভিযানে সিভিল সার্জনের ঘুষের ‘প্রমাণ’ দাবি
রোহিঙ্গারা বিশ্বের সবচেয়ে নির্যাতিত জাতিতে পরিণত হতে যাচ্ছে- জাতিসংঘ রোহিঙ্গারা বিশ্বের সবচেয়ে নির্যাতিত জাতিতে পরিণত হতে যাচ্ছে- জাতিসংঘ
আমেরিকার মূল টার্গেট হচ্ছে ইয়েমেনে আধিপত্য প্রতিষ্ঠা করা আমেরিকার মূল টার্গেট হচ্ছে ইয়েমেনে আধিপত্য প্রতিষ্ঠা করা
ভূমি মন্ত্রণালয়ের অফিসগুলো দুর্নীতির আখড়া! ভূমি মন্ত্রণালয়ের অফিসগুলো দুর্নীতির আখড়া!
ভূমি মন্ত্রণালয়ের অফিসগুলো দুর্নীতির আখড়া!
রোহিঙ্গাদের সুরক্ষায় বিশ্ব সম্প্রদায় ব্যর্থ হয়েছে-গুতেরেস
শিশু মৃত্যু দায়ী চিকিৎসকের বিরুদ্ধে দ্রুত ব্যবস্থা নিন?
প্রকল্প বাস্তবায়নে-দুর্নীতির দিকে নজর দিন?
মানি লন্ডারিং প্রতিরোধ আইন- আমলে নিন?
আর্জেন্টিনা ১-০ নাইজেরিয়া, ক্রোয়েশিয়া ০-০ আইসল্যান্ড
ডোনাল্ড ট্রাম্প যুক্তরাষ্ট্রের কূটনীতিকে কোন পথে নিয়ে যাচ্ছেন?
প্রধানমন্ত্রীর বিমানে ত্রুটির মামলার প্রকৌশলীদের জামিন মঞ্জুর
কাঙ্খিত ফল পেতে হলে,ভেজালবিরোধী অভিযান চালু রাখতে হবে?
মাদকযুদ্ধে কেন হারবে বাংলাদেশ?