ঢাকা, ডিসেম্বর ১৯, ২০১৭, ৪ পৌষ ১৪২৪
---
---
bbc24news.com
প্রথম পাতা » আর্ন্তজাতিক » সৌদিতে আবারও ক্ষেপণাস্ত্র হামলা করল ইয়েমেন?
শুক্রবার ● ১ ডিসেম্বর ২০১৭, ৪ পৌষ ১৪২৪
Email this News Print Friendly Version

সৌদিতে আবারও ক্ষেপণাস্ত্র হামলা করল ইয়েমেন?

---বিবিসি২৪নিউজ, সৌদি আরবের একটি সামরিক ঘাঁটি লক্ষ্য করে মধ্যম-পাল্লার একটি ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপ করেছে হুথি আনসারুল্লাহ যোদ্ধা সমর্থিত ইয়েমেনের সেনাবাহিনী। এই নিয়ে গত এক মাসের মধ্যে সৌদি আরবে এ ধরনের দ্বিতীয় ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালাল ইয়েমেন।

সৌদি নেতৃত্বাধীন কথিত সামরিক জোট ইয়েমেনের ওপর থেকে অবরোধ প্রত্যাহার না করলে হুথি যোদ্ধারা কঠোর ব্যবস্থা নেয়ার হুমকি দেয়ার পর এই ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালানো হলো।

ইয়েমেনের নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একটি সামরিক সূত্র বৃহস্পতিবার রাতে আরবি টিভি চ্যানেল আল-মাসিরা’কে জানিয়েছে, গতকাল দেশীয় প্রযুক্তিতে তৈরি ক্ষেপণাস্ত্রটি সৌদি আরবের নির্ধারিত লক্ষ্যবস্তুতে আঘাত হেনেছে। তবে সৌদি আরবের ঠিক কোন ঘাঁটি লক্ষ্য করে এটি নিক্ষেপ করা হয়েছে সূত্রটি তা জানায়নি।

ক্ষেপণাস্ত্র হামলায় সৌদি সামরিক ঘাঁটির ক্ষয়ক্ষতি বা সৌদি সেনাদের হতাহতের তাৎক্ষণিক কোনো খবর পাওয়া যায়নি। তবে সৌদি প্রেস এজেন্সি জানিয়েছে, দেশটির দক্ষিণাঞ্চলীয় আসির প্রদেশের ‘খামিস মুশাইত’ শহর লক্ষ্য করে ইয়েমেন থেকে নিক্ষিপ্ত একটি ক্ষেপণাস্ত্রকে আকাশে ধ্বংস করে দেয়া হয়েছে।

সৌদি নেতৃত্বাধীন কথিত সামরিক জোটের মুখপাত্র তুর্কি আল-মালিকি’র বরাত দিয়ে ওই এজেন্সি দাবি করেছে, “কোনো ক্ষয়ক্ষতি ছাড়াই ক্ষেপণাস্ত্রটি ধ্বংস করে দেয়া হয়েছে।”
হুথি আনসারুল্লাহ আন্দোলনের নেতা আব্দুল মালিক আল-হুথি

ইয়েমেনের জনপ্রিয় হুথি আনসারুল্লাহ আন্দোলনের নেতা আব্দুল মালিক আল-হুথি বৃহস্পতিবার টেলিভিশনে সম্প্রচারিত এক ভাষণে সৌদি আরবের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়ার হুমকি দিয়েছিলেন। তিনি সতর্ক করে দিয়ে বলেন, ইয়েমেনের ওপর থেকে অবরোধ প্রত্যাহার করা না হলে রিয়াদের বিরুদ্ধে পাল্টা ব্যবস্থা নেয়া হবে।

এর আগে গত ৫ নভেম্বর ইয়েমেনের সেনাবাহিনী সৌদি আরবের রাজধানী রিয়াদের কিং খালিদ আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর লক্ষ্য করে স্কাড-শ্রেণির ‘বোরকান-২’ ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপ করে। ইয়েমেনের ওপর গত আড়াই বছরেরও বেশি সময় ধরে চলা সৌদি আগ্রাসনের জবাবে ওই ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালানো হয়।

সৌদি কর্তৃপক্ষ অবশ্য ওই ক্ষেপণাস্ত্রটিও আকাশেই ধ্বংস করে দেয়ার দাবি করে। ক্ষেপণাস্ত্রটির ধ্বংসাবশেষ বিমানবন্দর চত্বরে পড়লেও তাতে কোনো ক্ষতি হয়নি বলে দাবি করা হয়।


‘নাগরিকত্ব’ পাওয়ার পর সন্তান ও পরিবার চায়- সোফিয়া

উ কোরিয়ার আগ্রাসন নীতি: চলতি বছর ২০টির বেশি ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপ?


এ বিভাগের আরো খবর...

উন্নত জীবনের সন্ধানে, মানুষ আশ্রয় খুঁজছে, ইউরোপে উন্নত জীবনের সন্ধানে, মানুষ আশ্রয় খুঁজছে, ইউরোপে
জার্মানে যৌন খেলনার ইতিহাস সেক্সশপ সাম্রাজ্য জার্মানে যৌন খেলনার ইতিহাস সেক্সশপ সাম্রাজ্য
প্রতিবার ট্রেন দুর্ঘটনা শিশুদের ভূমিকা থাকে? প্রতিবার ট্রেন দুর্ঘটনা শিশুদের ভূমিকা থাকে?
হাতিরঝিলে নির্মিত হচ্ছে দৃস্টিনন্দন ঢাকা অপেরা হাউস হাতিরঝিলে নির্মিত হচ্ছে দৃস্টিনন্দন ঢাকা অপেরা হাউস
যুক্তরাষ্ট্রের হার্টসফিল্ড-জ্যাকসন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর বিদ্যুৎবিচ্ছিন্ন,হাজারেরও বেশি ফ্লাইট বাতিল যুক্তরাষ্ট্রের হার্টসফিল্ড-জ্যাকসন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর বিদ্যুৎবিচ্ছিন্ন,হাজারেরও বেশি ফ্লাইট বাতিল
তুরস্কের প্রধানমন্ত্রী বিনালি ইয়ালদিরিম এখন ঢাকায় তুরস্কের প্রধানমন্ত্রী বিনালি ইয়ালদিরিম এখন ঢাকায়
মহিউদ্দিনের কুলখানিতে যেভাবে পদদলিতে নিহত হলো ১০ জন মহিউদ্দিনের কুলখানিতে যেভাবে পদদলিতে নিহত হলো ১০ জন
সৌদি যুবরাজের দেশে দুর্নীতিবিরোধী অভিযান, বিদেশে বিলাসী জীবন সৌদি যুবরাজের দেশে দুর্নীতিবিরোধী অভিযান, বিদেশে বিলাসী জীবন
গৃহকর্মী নামে ‘বৈধপথে’ মধ্যপ্রাচ্যেসহ অনেক দেশে নারী পাচার হচ্ছে? গৃহকর্মী নামে ‘বৈধপথে’ মধ্যপ্রাচ্যেসহ অনেক দেশে নারী পাচার হচ্ছে?
রাশিয়ায় বোমা হামলা ব্যার্থ:সিআইএ রাশিয়ায় বোমা হামলা ব্যার্থ:সিআইএ

সর্বাধিক পঠিত

হাঁপানি ও অ্যালার্জি এড়াতে জীবনযাত্রায় পরিবর্তন চাই হাঁপানি ও অ্যালার্জি এড়াতে জীবনযাত্রায় পরিবর্তন চাই
উন্নত জীবনের সন্ধানে, মানুষ আশ্রয় খুঁজছে, ইউরোপে উন্নত জীবনের সন্ধানে, মানুষ আশ্রয় খুঁজছে, ইউরোপে
জার্মানে যৌন খেলনার ইতিহাস সেক্সশপ সাম্রাজ্য জার্মানে যৌন খেলনার ইতিহাস সেক্সশপ সাম্রাজ্য
প্রতিবার ট্রেন দুর্ঘটনা শিশুদের ভূমিকা থাকে? প্রতিবার ট্রেন দুর্ঘটনা শিশুদের ভূমিকা থাকে?
হাতিরঝিলে নির্মিত হচ্ছে দৃস্টিনন্দন ঢাকা অপেরা হাউস হাতিরঝিলে নির্মিত হচ্ছে দৃস্টিনন্দন ঢাকা অপেরা হাউস
যুক্তরাষ্ট্রের হার্টসফিল্ড-জ্যাকসন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর বিদ্যুৎবিচ্ছিন্ন,হাজারেরও বেশি ফ্লাইট বাতিল যুক্তরাষ্ট্রের হার্টসফিল্ড-জ্যাকসন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর বিদ্যুৎবিচ্ছিন্ন,হাজারেরও বেশি ফ্লাইট বাতিল
তুরস্কের প্রধানমন্ত্রী বিনালি ইয়ালদিরিম এখন ঢাকায় তুরস্কের প্রধানমন্ত্রী বিনালি ইয়ালদিরিম এখন ঢাকায়
মহিউদ্দিনের কুলখানিতে যেভাবে পদদলিতে নিহত হলো ১০ জন মহিউদ্দিনের কুলখানিতে যেভাবে পদদলিতে নিহত হলো ১০ জন
সৌদি যুবরাজের দেশে দুর্নীতিবিরোধী অভিযান, বিদেশে বিলাসী জীবন সৌদি যুবরাজের দেশে দুর্নীতিবিরোধী অভিযান, বিদেশে বিলাসী জীবন
সমস্যায় ভুগছেন রানী সমস্যায় ভুগছেন রানী
হাঁপানি ও অ্যালার্জি এড়াতে জীবনযাত্রায় পরিবর্তন চাই
হাতিরঝিলে নির্মিত হচ্ছে দৃস্টিনন্দন ঢাকা অপেরা হাউস
শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোতে ভর্তি ফি সহনীয় পরিমাণে নির্ধারণ করুন?
চুক্তি অনুযায়ী ২২ জানুয়ারি থেকে রোহিঙ্গা ফেরত: বাংলাদেশ
শ্রীলঙ্কাকে ২ উইকেট হারিয়েই সিরিজ জিতল: ভারত
হোটেল থেকে অভিনেত্রী গ্রেপ্তার!
ঢাকা ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত ১
রাশিয়া ও চীনের ক্ষেপণাস্ত্র মহড়া চলছে
মানুষের ন্যায্য অধিকার প্রতিষ্ঠার সংগ্রাম করে গেছেন ভাসানী: খালেদা জিয়া
‘ওয়ান প্ল্যানেট সামিটে’ যোগ দিতে প্যারিস পৌঁছেছেন প্রধানমন্ত্রী