ঢাকা, এপ্রিল ২৬, ২০১৮, ১৩ বৈশাখ ১৪২৫
---
---
bbc24news.com
প্রথম পাতা » সম্পাদকীয় » শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোতে ভর্তি ফি সহনীয় পরিমাণে নির্ধারণ করুন?
সোমবার ● ১৮ ডিসেম্বর ২০১৭, ১৩ বৈশাখ ১৪২৫
Email this News Print Friendly Version

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোতে ভর্তি ফি সহনীয় পরিমাণে নির্ধারণ করুন?

---এম ডি জালাল:শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোতে পরীক্ষার বা ভর্তি ফি বৃদ্ধির এই প্রবণতা এখন শুধু শহরেই সীমাবদ্ধ নয়, মফস্বল বা গ্রামাঞ্চলের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোতেও চলছে ফি বৃদ্ধির এই তৎপরতা। রাষ্ট্রীয় বেতন-ভাতায় হৃষ্টপুষ্ট এসব প্রতিষ্ঠানের সম্মানিত শিক্ষকরা কোন খরচ বাবদ অতিরিক্ত ফি নেন তা আমাদের অনেকেরই জানা নেই। এসএসসি, এইচএসসি পরীক্ষার চূড়ান্ত নিবন্ধনে অতিরিক্ত ফি আদায়ের খবরও প্রায়ই বের হয় পত্রপত্রিকায়। সম্প্রতি দেশের বিভিন্ন বিদ্যালয়, কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি ফি বাড়ানো হয়েছে। প্রতিষ্ঠানের অভ্যন্তরীণ খরচ মেটাতে নাকি এসব ফি নেয়া হয়। প্রতিষ্ঠানপ্রধানদের এ ধরনের বক্তব্য সত্যিই লজ্জাজনক। সংবাদপত্রে প্রায়ই নানা ধরনের খবরে চোখ পড়ে। যখন কোনো শিক্ষক বা শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান সম্পর্কে নেতিবাচক খবর পড়তে হয়, তখন লজ্জা লাগে।
উচ্চ মাধ্যমিক বা কলেজ পর্যায়ে ভর্তির ফি বৃদ্ধি, পরীক্ষার ফি বৃদ্ধি পেলে কোনো আন্দোলন বা প্রতিবাদের নজির কম। কিন্তু দেশের পাবলিক বা প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে ফি বাড়ানো হলে কিছুটা প্রতিবাদ চোখে পড়ে। জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় ও রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি ফিবিরোধী আন্দোলন শেষ হয়েছে খুব বেশিদিন হয়নি। সেসব আন্দোলনে অনেক শিক্ষার্থী হামলা-মামলারও শিকার হয়েছেন। সর্বশেষ রাজশাহীতে মেডিকেল শিক্ষার্থীদের ওপর রাজনৈতিক কর্মীদের হামলার ঘটনা ঘটেছে। শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোতে এ ধরনের ঘটনা ক্রমেই স্বাভাবিক রূপ পাচ্ছে। সহ্য করতে করতে এসব অত্যাচার এখন জীবনযাত্রার অংশে পরিণত হয়েছে।
এবার ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে এক লাফে তিনগুণ ভর্তি ফি বাড়ানো হয়েছে। পরিবহন, আবাসন ও একাডেমিক খাতে সমহারে বেড়েছে ফি’র পরিমাণ। এ নিয়ে শান্তিপূর্ণ আন্দোলন ও প্রতিবাদ করছে সাধারণ শিক্ষার্থীরা। বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রগতিশীল ছাত্র সংগঠনগুলো ভর্তি ফি বাড়ানোর প্রতিবাদে সোচ্চার হলেও চোখ নামিয়ে আছে ক্ষমতাসীন দলের ছাত্র সংগঠন। মনে হয় তারা ছাত্র নন! নাকি তাদের এসব ফি দেয়া লাগে না? শিক্ষার্থীদের স্বার্থসংশ্লিষ্ট যৌক্তিক আন্দোলনে কেন তারা যোগ দেন না?
বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ বলছে, ঢাবি, জাবি, রাবির সঙ্গে সঙ্গতি রেখে ভর্তি ফি বাড়ানো হয়েছে। এটা কোন ধরনের য–ক্তি? ঢাবি, জাবির মতো সুযোগ-সুবিধা কি ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় নিশ্চিত করেছে? শিক্ষার্থীদের দুই-তৃতীয়াংশ যেখানে অনাবাসিক সেখানে আবাসন ফি বাড়ানোর কী যৌক্তিকতা? লক্কড়ঝক্কড় পরিবহন সেবার মান না বাড়িয়ে কেন ফি বাড়ানো হচ্ছে? সেবার মান, শিক্ষার মান না বাড়িয়ে শিক্ষার্থীদের আর্থিক সক্ষমতার পারদ মাপার এই কূটকৌশল কি শিক্ষার্থী বা শিক্ষাবান্ধব?
বিশ্ববিদ্যালয়ের নিজস্ব আয় বাড়ানোর জন্য শিক্ষার্থীদের ঘাড়ে যে জোয়াল তুলে দেয়া হচ্ছে তার ভার কি বইতে পারবেন অভিভাবকরা? বিশ্ববিদ্যালয়ের সিন্ডিকেটে কোনো ধরনের আলোচনা ছাড়া শুধু অর্থ কমিটির পরামর্শের ওপর ভর করে এমন সিদ্ধান্ত প্রশাসনিক দেউলিয়াত্বের ইঙ্গিত দেয়। বিশ্ববিদ্যালয়ের নাকে-মুখে আলতা-কাজল পরিয়ে সৌন্দর্য বাড়ানো যায়। শিক্ষার্থীদের মাথায় অর্থের বোঝা চাপিয়ে দিয়ে শিক্ষক-কর্মকর্তা-কর্মচারীদের কাছ থেকে বাহবা পাওয়া যায়। কিন্তু শিক্ষার্থীদের সেবার মান বাড়ানো যায় না। আমরা বিশ্বাস করি, কর্তৃপক্ষ শিক্ষার্থীদের স্বার্থ বিবেচনায় নিয়ে ভর্তি ফি সহনীয় পরিমাণে নির্ধারণ করবে।


গৃহকর্মী নামে ‘বৈধপথে’ মধ্যপ্রাচ্যেসহ অনেক দেশে নারী পাচার হচ্ছে?

সমস্যায় ভুগছেন রানী


এ বিভাগের আরো খবর...

অবর্ণনীয় দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে রাজধানীবাসীকে অবর্ণনীয় দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে রাজধানীবাসীকে
বিড়ি শিল্পে তামাকের ভয়াবহতা আর শিশুশ্রম বাড়ছে বিড়ি শিল্পে তামাকের ভয়াবহতা আর শিশুশ্রম বাড়ছে
প্লাস্টিক বিপর্যয়ের মুখে বাংলাদেশ, খাবারে ঢুকে পড়ছে প্লাস্টিক ! প্লাস্টিক বিপর্যয়ের মুখে বাংলাদেশ, খাবারে ঢুকে পড়ছে প্লাস্টিক !
ইন্টারনেটে নিম্নগতির দেশগুলোর কাতারেই বাংলাদেশ ইন্টারনেটে নিম্নগতির দেশগুলোর কাতারেই বাংলাদেশ
শিক্ষাকে কখনো পণ্য হিসেবে বিবেচনা করা উচিত নয় শিক্ষাকে কখনো পণ্য হিসেবে বিবেচনা করা উচিত নয়
রেল যোগাযোগ ঝুঁকিমুক্ত করার পদক্ষেপ নিন রেল যোগাযোগ ঝুঁকিমুক্ত করার পদক্ষেপ নিন
এডিবির পর্যবেক্ষণ বলছে-বাংলাদেশের অর্থনীতির ভিত্তি সুদৃঢ় করতে হবে এডিবির পর্যবেক্ষণ বলছে-বাংলাদেশের অর্থনীতির ভিত্তি সুদৃঢ় করতে হবে
কাশ্মীরের ধর্ষণ ও হত্যা দিল্লিতে পৌঁছায়িন কেন? কাশ্মীরের ধর্ষণ ও হত্যা দিল্লিতে পৌঁছায়িন কেন?
রোহিঙ্গা পাঁচ সদস্যের একটি পরিবারকে ফিরিয়ে নিয়েছে: মিয়ানমার রোহিঙ্গা পাঁচ সদস্যের একটি পরিবারকে ফিরিয়ে নিয়েছে: মিয়ানমার
জলবায়ু পরিবর্তনে বন্যা এবং সাইক্লোনের প্রবণতা বেড়ে যাবে জলবায়ু পরিবর্তনে বন্যা এবং সাইক্লোনের প্রবণতা বেড়ে যাবে

সর্বাধিক পঠিত

তারেক ব্রিটেনের আইন মোতাবেক বসবাস করছেন- রিজভী তারেক ব্রিটেনের আইন মোতাবেক বসবাস করছেন- রিজভী
এই মাসে প্রজ্ঞাপন জারি না হলে ফের আন্দোলন! এই মাসে প্রজ্ঞাপন জারি না হলে ফের আন্দোলন!
চতুর্থ কার্যদিবসে ঊর্ধ্বমুখী প্রবণতায় ফিরেছে সূচক চতুর্থ কার্যদিবসে ঊর্ধ্বমুখী প্রবণতায় ফিরেছে সূচক
ঘন ও লম্বা চুল করতে রসুনের জুড়ি মেলা ভার ঘন ও লম্বা চুল করতে রসুনের জুড়ি মেলা ভার
বাংলাদেশ কম্বোডিয়াকে হারিয়ে ২০-০ গোলে বড় জয়! বাংলাদেশ কম্বোডিয়াকে হারিয়ে ২০-০ গোলে বড় জয়!
ইসির সঙ্গে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর বৈঠক আজ ইসির সঙ্গে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর বৈঠক আজ
ধোনির জয়,কোহলির বেঙ্গালুরুর হার! ধোনির জয়,কোহলির বেঙ্গালুরুর হার!
শব্দদূষণে বধির হওয়ার মাত্রা বেড়েই চলছে শব্দদূষণে বধির হওয়ার মাত্রা বেড়েই চলছে
সঞ্জয়ের বায়োপিকের নাম ‘দত্ত’ থেকে ‘সঞ্জু’ কেন? সঞ্জয়ের বায়োপিকের নাম ‘দত্ত’ থেকে ‘সঞ্জু’ কেন?
জলবায়ু ও দখলের কারণেই নদীগুলো মৃত জলবায়ু ও দখলের কারণেই নদীগুলো মৃত
অবর্ণনীয় দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে রাজধানীবাসীকে
বিড়ি শিল্পে তামাকের ভয়াবহতা আর শিশুশ্রম বাড়ছে
প্লাস্টিক বিপর্যয়ের মুখে বাংলাদেশ, খাবারে ঢুকে পড়ছে প্লাস্টিক !
শিক্ষাকে কখনো পণ্য হিসেবে বিবেচনা করা উচিত নয়
রেল যোগাযোগ ঝুঁকিমুক্ত করার পদক্ষেপ নিন
এডিবির পর্যবেক্ষণ বলছে-বাংলাদেশের অর্থনীতির ভিত্তি সুদৃঢ় করতে হবে
কাশ্মীরের ধর্ষণ ও হত্যা দিল্লিতে পৌঁছায়িন কেন?
রোহিঙ্গা পাঁচ সদস্যের একটি পরিবারকে ফিরিয়ে নিয়েছে: মিয়ানমার
জলবায়ু পরিবর্তনে বন্যা এবং সাইক্লোনের প্রবণতা বেড়ে যাবে
কোটা আন্দোলনকারীদের জয় হলেও মেধাবীরা কতটুকু সুযোগ পাবে?