ঢাকা, মে ২৫, ২০১৮, ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫
---
---
bbc24news.com
প্রথম পাতা » ছুটির দিনে » রংপুর সিটি নির্বাচনে লাঙলের জয়!
শুক্রবার ● ২২ ডিসেম্বর ২০১৭, ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫
Email this News Print Friendly Version

রংপুর সিটি নির্বাচনে লাঙলের জয়!

---বিবিসি২৪নিউজ,রংপুর সিটি করপোরেশন নির্বাচনের প্রাপ্ত ফলাফলে জাতীয় পার্টির প্রার্থী মোস্তাফিজার রহমানের কাছে তাঁরই নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের সরফুদ্দীন আহমেদ ধরাশায়ী।

রিটার্নিং কর্মকর্তার কার্যালয় সূত্রে রাত ১২টার দিকে এ সিটি করপোরশনের ১৯৩টি কেন্দ্রের ফল পাওয়া গেছে। লাঙল প্রতীক নিয়ে মোস্তাফিজার রহমান পেয়েছেন ১ লাখ ৬০ হাজার ৪৮৯ ভোট। নৌকা প্রতীক নিয়ে বর্তমান মেয়র সরফুদ্দীন আহমেদ পেয়েছেন ৬২ হাজার ৪০০ ভোট। আর ধানের শীষ প্রতীক নিয়ে বিএনপির কাওসার জামান পেয়েছেন ৩৫ হাজার ১৩৬ ভোট।

রংপুর সিটি করপোশনে এবারই প্রথম দলীয় প্রতীকে ভোট গ্রহণ হয়। এ সিটি করপোরেশনে মোট ভোটার ৩ লাখ ৯৩ হাজার ৯৯৪ জন। ১৯৩ কেন্দ্রে ২ লাখ ৯২ হাজার ৭২৩ জন ভোটার নিজেদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করেছেন। মোট ৭৪ দশমিক ৩০ শতাংশ ভোট পড়েছে বলে রিটার্নিং কর্মকর্তা জানিয়েছেন।

রংপুর সিটি করপোরেশন নির্বাচনে সবার আগে ফল পাওয়া গেছে ইভিএম ব্যবহার করা কেন্দ্রের। ভোট গ্রহণ শেষ হওয়ার আধা ঘণ্টার মধ্যেই ওই কেন্দ্রের ফলাফল পাওয়া গেছে। রংপুরে ১৯৩টি কেন্দ্রের মধ্যে একটি কেন্দ্রে প্রথমবারের মতো ইলেকট্রনিক পদ্ধতিতে ভোট দিয়েছেন ভোটাররা। রংপুরের ২৫ নম্বর ওয়ার্ডের বেগম রোকেয়া সরকারি কলেজ কেন্দ্রে ওই ইভিএম ব্যবহার করা হয়। ওই কেন্দ্রের ফলাফলে জাতীয় পার্টির প্রার্থী মোস্তাফিজার রহমান লাঙল প্রতীক নিয়ে ৬৭৪ ভোট পেয়েছেন। তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী আওয়ামী লীগের প্রার্থী সরফুদ্দীন আহমেদ পেয়েছেন ৩৩৪ভোট। আর বিএনপির প্রার্থী কাওসার জামান পেয়েছেন ১১৭ ভোট।

জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা জি এম সাহতাব উদ্দীন এ তথ্য জানিয়েছেন। ওই কেন্দ্রে মোট ভোটার ছিলেন ২ হাজার ৫৯ জন। এর মধ্যে ৬১.৬৭ শতাংশ ভোট পড়েছে। উৎসবমুখর পরিবেশে ভোট গ্রহণ হয়েছে রংপুর সিটি করপোরেশন নির্বাচনে।


ভারতের সবচেয়ে বড় ব্র্যান্ড এখন কোহলি

এবার নিখোঁজ’মোবাশ্বারও ফিরে এসেছেন?


এ বিভাগের আরো খবর...

শীর্ষ বৈঠক পুনঃ বিবেচনার হুমকি দিয়েছে উ. কোরিয়া শীর্ষ বৈঠক পুনঃ বিবেচনার হুমকি দিয়েছে উ. কোরিয়া
শেখ হাসিনার প্রতি কৃতজ্ঞ প্রিয়াঙ্কা চোপড়া শেখ হাসিনার প্রতি কৃতজ্ঞ প্রিয়াঙ্কা চোপড়া
টেলিফোনে প্যালেস্টাইনের রাষ্ট্রপতির খোঁজ নিলেন- প্রধানমন্ত্রী টেলিফোনে প্যালেস্টাইনের রাষ্ট্রপতির খোঁজ নিলেন- প্রধানমন্ত্রী
উ. কোরিয়া পারমাণবিক পরীক্ষাকেন্দ্রের সুড়ঙ্গ ধ্বংস করল উ. কোরিয়া পারমাণবিক পরীক্ষাকেন্দ্রের সুড়ঙ্গ ধ্বংস করল
মালয়েশীয় যাত্রীবাহী বিমানে রুশ ক্ষেপণাস্ত্রের আঘাত! মালয়েশীয় যাত্রীবাহী বিমানে রুশ ক্ষেপণাস্ত্রের আঘাত!
সিরিয়ার সেনা অবস্থানে ফের মার্কিন হামলা! সিরিয়ার সেনা অবস্থানে ফের মার্কিন হামলা!
প্রধানমন্ত্রীর ভারত সফরে তিস্তা পানি নিয়ে এজেন্ডা নেই: রিজভী প্রধানমন্ত্রীর ভারত সফরে তিস্তা পানি নিয়ে এজেন্ডা নেই: রিজভী
খাসজমি ভূমিহীন কৃষকদের দেয়ার নির্দেশ খাসজমি ভূমিহীন কৃষকদের দেয়ার নির্দেশ
খালেদার জামিনের আদেশ রোববার খালেদার জামিনের আদেশ রোববার
সিটি নির্বাচনে প্রচারণার সুযোগ পাচ্ছেন- এমপিরা সিটি নির্বাচনে প্রচারণার সুযোগ পাচ্ছেন- এমপিরা

সর্বাধিক পঠিত

শীর্ষ বৈঠক পুনঃ বিবেচনার হুমকি দিয়েছে উ. কোরিয়া শীর্ষ বৈঠক পুনঃ বিবেচনার হুমকি দিয়েছে উ. কোরিয়া
শেখ হাসিনার প্রতি কৃতজ্ঞ প্রিয়াঙ্কা চোপড়া শেখ হাসিনার প্রতি কৃতজ্ঞ প্রিয়াঙ্কা চোপড়া
টেলিফোনে প্যালেস্টাইনের রাষ্ট্রপতির খোঁজ নিলেন- প্রধানমন্ত্রী টেলিফোনে প্যালেস্টাইনের রাষ্ট্রপতির খোঁজ নিলেন- প্রধানমন্ত্রী
উ. কোরিয়া পারমাণবিক পরীক্ষাকেন্দ্রের সুড়ঙ্গ ধ্বংস করল উ. কোরিয়া পারমাণবিক পরীক্ষাকেন্দ্রের সুড়ঙ্গ ধ্বংস করল
মালয়েশীয় যাত্রীবাহী বিমানে রুশ ক্ষেপণাস্ত্রের আঘাত! মালয়েশীয় যাত্রীবাহী বিমানে রুশ ক্ষেপণাস্ত্রের আঘাত!
জামালপুরে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে ৩ শ্রমিকের ‘মৃত্যু’ জামালপুরে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে ৩ শ্রমিকের ‘মৃত্যু’
সিরিয়ার সেনা অবস্থানে ফের মার্কিন হামলা! সিরিয়ার সেনা অবস্থানে ফের মার্কিন হামলা!
প্রধানমন্ত্রীর ভারত সফরে তিস্তা পানি নিয়ে এজেন্ডা নেই: রিজভী প্রধানমন্ত্রীর ভারত সফরে তিস্তা পানি নিয়ে এজেন্ডা নেই: রিজভী
পুঁজিবাজারে ঊর্ধ্বমুখী প্রবণতা! পুঁজিবাজারে ঊর্ধ্বমুখী প্রবণতা!
বিরাটের কাউন্টি খেলা অনিশ্চিত! বিরাটের কাউন্টি খেলা অনিশ্চিত!
‘মাদক ব্যবসার চেয়েও ক্রসফায়ার বড় অপরাধ?
অসহনীয় যানজট নিরসনে দ্রুত কার্যকর পদক্ষেপ নিন?
বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট মহাকাশযাত্রা বাংলাদেশের জন্য মাইলফলক
বন জলবায়ু আলোচনায় যে সিদ্ধান্ত হয়েছে
জলবায়ু পরিবর্তনে প্যারিস চুক্তির সাথে চারশো বড় কোম্পানি প্রতিশ্রুতিবদ্ধ হয়েছে
আবারও অশান্ত হয়ে উঠছে পাহাড়ি এলাকা?
কিম-মুনের ঐতিহাসিক বৈঠক-গোটা বিশ্বে এটি শান্তির পরিবেশ তৈরি করবে!
অবর্ণনীয় দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে রাজধানীবাসীকে
বিড়ি শিল্পে তামাকের ভয়াবহতা আর শিশুশ্রম বাড়ছে
প্লাস্টিক বিপর্যয়ের মুখে বাংলাদেশ, খাবারে ঢুকে পড়ছে প্লাস্টিক !