ঢাকা, এপ্রিল ২৬, ২০১৮, ১৩ বৈশাখ ১৪২৫
---
---
bbc24news.com
প্রথম পাতা » অর্থ–শেয়ারবাজার » অর্থনীতির তীব্র ঝুঁকিতে বাংলাদেশ!
সোমবার ● ২৫ ডিসেম্বর ২০১৭, ১৩ বৈশাখ ১৪২৫
Email this News Print Friendly Version

অর্থনীতির তীব্র ঝুঁকিতে বাংলাদেশ!

---এমডি জালাল,বিশ্বব্যাংকের সর্বশেষ প্রতিবেদন অনুযায়ী বর্তমানে বাংলাদেশের মোট ঋণের ১১ শতাংশই খেলাপি হয়ে গেছে। খেলাপি ঋণ ভয়াবহ আকার ধারণ করায় অর্থনীতিতে তীব্র ঝুঁকি তৈরি হয়েছে। ঋণখেলাপি, জালিয়াতি, আত্মসাৎ, এমনকি ব্যাংক ডাকাতি ও নানা আর্থিক কেলেঙ্কারি এমন পর্যায়ে পৌঁছেছে যে, প্রতিযোগী দেশগুলো থেকে বাংলাদেশ অনেক পিছিয়ে পড়েছে। অথচ প্রতিবেশী দেশ ভারতে এটি ৪ দশমিক ৩৪ শতাংশ, হংকংয়ে শূন্য দশমিক ৯ শতাংশ, চীনে ১ দশমিক ৭৪ শতাংশ, মালয়েশিয়ায় ১ দশমিক ৬৫ শতাংশ, থাইল্যান্ডে ২ দশমিক ৮৮ শতাংশ এবং ফিলিপাইনে ১ দশমিক ৯৫ শতাংশ।

এতে দেখা যাচ্ছে, প্রতিযোগী দেশগুলোর মধ্যে সর্বোচ্চ ভারতে ৪ দশমিক ৩৪ শতাংশের চেয়েও বাংলাদেশে খেলাপি ঋণ সাড়ে ৬ শতাংশের বেশি। বলার অপেক্ষা রাখে না, এত বেশি খেলাপি ঋণের বোঝা নিয়ে ব্যাংকিং খাত কোমর সোজা করে দাঁড়াতে পারবে না। বাংলাদেশ অর্থনীতি সমিতির দ্বিবার্ষিক সম্মেলনে দেশের খেলাপি ঋণের এ চিত্রের পাশাপাশি অর্থনীতির আরও কিছু সমস্যা তুলে ধরা হয়। যার মধ্যে সুদের হার বেশি হওয়া, মোবাইল ব্যাংকিংয়ের ঝুঁকি, শেয়ারবাজারে বাংকগুলোর বাড়তি বিনিয়োগ, জরুরি সামাজিক খাতে স্বল্প এবং টেকসই বিনিয়োগের অভাবের মতো বিষয়গুলো রয়েছে। সুদের হার বেশি হওয়ার পেছনে খেলাপি ঋণের বড় ভূমিকা উল্লেখযোগ্য। কারণ, বিতরণ করা ঋণ খেলাপি হয়ে পড়লে ব্যাংকের আয় কমে যায়। এতে করে চাইলেও তারা ঋণের সুদহার কমাতে পারে না। এ অবস্থায় অর্থনীতির সার্বিক ঝুঁকি দূর করতে হলে খেলাপি ঋণ, ঋণ কেলেঙ্কারি ও জালিয়াতি রোধে কঠোর অবস্থান নেয়ার বিকল্প নেই।
কেন্দ্রীয় ব্যাংককে শক্তিশালী করার পাশাপাশি স্বাধীন একটি কমিশন, আর্থিক অনিয়ম-দুর্নীতির বিচারের জন্য দ্রুত বিচার ও আপিল ট্রাইব্যুনাল ছাড়া ঋণখেলাপি, জালিয়াতি ও লুটপাট রোধ সম্ভব হবে না। এর বাইরে চিহ্নিত মোটা অঙ্কের ঋণখেলাপিদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির আওতায় আনতে হবে। অন্যথায় ব্যাংকিং খাতের অনিয়ম রোধ অরণ্যে রোদন হয়েই থাকবে। যেখানে বেশিরভাগ প্রতিযোগী দেশের খেলাপি ঋণ মাত্র শূন্য দশমিক ৯ থেকে ১ দশমিক ৬৫-৯৫ পর্যন্ত, সেখানে আমাদের ১১ শতাংশ হওয়ার পেছনে রাজনৈতিক বিবেচনায় রাঘববোয়াল খেলাপিদের ছাড় দেয়া, সরকার ও শাসকদলের শীর্ষপর্যায়ের আশীর্বাদপুষ্ট হয়ে পার পাওয়া যে দায়ী, তা বলাই বাহুল্য। চীনে তো বড় ধরনের দুর্নীতি-অনিয়মের কারণে ফাঁসির নজিরও রয়েছে। অথচ আমরা নির্বিকার। এ অবস্থায় অর্থনীতির ঝুঁকি মোকাবেলায় খেলাপি ঋণের বিরুদ্ধে কঠোর অবস্থানের নিতে হবে।


বাংলাদেশে-ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনীর ৩ সদস্য আটক

চার নারী ধর্ষণে, পুলিশের ব্যর্থতা দায়ী- সিএমপি


এ বিভাগের আরো খবর...

চতুর্থ কার্যদিবসে ঊর্ধ্বমুখী প্রবণতায় ফিরেছে সূচক চতুর্থ কার্যদিবসে ঊর্ধ্বমুখী প্রবণতায় ফিরেছে সূচক
ঊর্ধ্বমুখী প্রবণতায় ফিরেছে সূচক! ঊর্ধ্বমুখী প্রবণতায় ফিরেছে সূচক!
ভ্যাট দিতে অস্বীকৃতি প্রকাশ করেছে রবি! ভ্যাট দিতে অস্বীকৃতি প্রকাশ করেছে রবি!
রমজানে বাজার মোকাবেলা করতে প্রস্তুত টিসিবি! রমজানে বাজার মোকাবেলা করতে প্রস্তুত টিসিবি!
সূচকের নিম্নমুখী প্রবণতায় শেষ হয়েছে লেনদেন! সূচকের নিম্নমুখী প্রবণতায় শেষ হয়েছে লেনদেন!
কম্বোডিয়ায় দেড় লাখ টন বেশি চাল উৎপাদন! কম্বোডিয়ায় দেড় লাখ টন বেশি চাল উৎপাদন!
জুট স্পিনার্সের কোনো অপ্রকাশিত মূল্যসংবেদনশীল তথ্য নেই! জুট স্পিনার্সের কোনো অপ্রকাশিত মূল্যসংবেদনশীল তথ্য নেই!
শ্রীমঙ্গলের নিলামকেন্দ্রে চায়ের নিলাম শুরু হবে ১৫ মে! শ্রীমঙ্গলের নিলামকেন্দ্রে চায়ের নিলাম শুরু হবে ১৫ মে!
এলএনজি রফতানির গুরুত্বপূর্ণ রুট পানামা খাল! এলএনজি রফতানির গুরুত্বপূর্ণ রুট পানামা খাল!
আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে পাঁচ প্রতিষ্ঠান! আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে পাঁচ প্রতিষ্ঠান!

সর্বাধিক পঠিত

তারেক ব্রিটেনের আইন মোতাবেক বসবাস করছেন- রিজভী তারেক ব্রিটেনের আইন মোতাবেক বসবাস করছেন- রিজভী
এই মাসে প্রজ্ঞাপন জারি না হলে ফের আন্দোলন! এই মাসে প্রজ্ঞাপন জারি না হলে ফের আন্দোলন!
চতুর্থ কার্যদিবসে ঊর্ধ্বমুখী প্রবণতায় ফিরেছে সূচক চতুর্থ কার্যদিবসে ঊর্ধ্বমুখী প্রবণতায় ফিরেছে সূচক
ঘন ও লম্বা চুল করতে রসুনের জুড়ি মেলা ভার ঘন ও লম্বা চুল করতে রসুনের জুড়ি মেলা ভার
বাংলাদেশ কম্বোডিয়াকে হারিয়ে ২০-০ গোলে বড় জয়! বাংলাদেশ কম্বোডিয়াকে হারিয়ে ২০-০ গোলে বড় জয়!
ইসির সঙ্গে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর বৈঠক আজ ইসির সঙ্গে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর বৈঠক আজ
ধোনির জয়,কোহলির বেঙ্গালুরুর হার! ধোনির জয়,কোহলির বেঙ্গালুরুর হার!
শব্দদূষণে বধির হওয়ার মাত্রা বেড়েই চলছে শব্দদূষণে বধির হওয়ার মাত্রা বেড়েই চলছে
সঞ্জয়ের বায়োপিকের নাম ‘দত্ত’ থেকে ‘সঞ্জু’ কেন? সঞ্জয়ের বায়োপিকের নাম ‘দত্ত’ থেকে ‘সঞ্জু’ কেন?
জলবায়ু ও দখলের কারণেই নদীগুলো মৃত জলবায়ু ও দখলের কারণেই নদীগুলো মৃত
অবর্ণনীয় দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে রাজধানীবাসীকে
বিড়ি শিল্পে তামাকের ভয়াবহতা আর শিশুশ্রম বাড়ছে
প্লাস্টিক বিপর্যয়ের মুখে বাংলাদেশ, খাবারে ঢুকে পড়ছে প্লাস্টিক !
শিক্ষাকে কখনো পণ্য হিসেবে বিবেচনা করা উচিত নয়
রেল যোগাযোগ ঝুঁকিমুক্ত করার পদক্ষেপ নিন
এডিবির পর্যবেক্ষণ বলছে-বাংলাদেশের অর্থনীতির ভিত্তি সুদৃঢ় করতে হবে
কাশ্মীরের ধর্ষণ ও হত্যা দিল্লিতে পৌঁছায়িন কেন?
রোহিঙ্গা পাঁচ সদস্যের একটি পরিবারকে ফিরিয়ে নিয়েছে: মিয়ানমার
জলবায়ু পরিবর্তনে বন্যা এবং সাইক্লোনের প্রবণতা বেড়ে যাবে
কোটা আন্দোলনকারীদের জয় হলেও মেধাবীরা কতটুকু সুযোগ পাবে?