ঢাকা, এপ্রিল ২৬, ২০১৮, ১৩ বৈশাখ ১৪২৫
---
---
bbc24news.com
প্রথম পাতা » প্রধান সংবাদ » অপারেশনের সময় নবজাতকের মাথা অংশ কেটে ফেলাই, শিশু মৃত্যু
সোমবার ● ২৫ ডিসেম্বর ২০১৭, ১৩ বৈশাখ ১৪২৫
Email this News Print Friendly Version

অপারেশনের সময় নবজাতকের মাথা অংশ কেটে ফেলাই, শিশু মৃত্যু

---বিবিসি২৪নিউজ, ক্লিনিকে নবজাতকের প্রসব করানোর সময় অপারেশনে মাথার একটা অংশ কেটে ফেললেন চিকিৎসক। কেটে ফেলা স্থানে চারটি সেলাই করা হলেও স্বজনদের জানানো হয়নি বিষয়টি।

জন্মের পর থেকেই কাটা স্থানে তুলা ও তোয়ালে দিয়ে ঢেকে রাখা হয়েছিল। জন্মের ৭ ঘণ্টা পর শিশুটির মৃত্যু হয়। দাফনের জন্য গোসল করাতে গেলে মাথার ক্ষত ও সেলাইয়ের চিহ্ন দেখতে পান স্বজনরা।

মানিকগঞ্জ সদর উপজেলার বালিরটেক একতা ক্লিনিকে এ ঘটনা ঘটে। ক্ষুব্ধ স্বজনরা নবজাতকের মরদেহ নিয়ে সোমবার দুপুরে ক্লিনিক ঘেরাও করে। পরে পুলিশ উপস্থিত হয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করে।

পুলিশ ও পারিবারিক সূত্র জানায়, সদর উপজেলার ভাড়ারিয়া ইউনিয়নের ভাড়ারিয়া গ্রামের মিশুক রানার স্ত্রী মাকসুদার প্রসব বেদনা উঠলে রোববার রাত ১০টার দিকে তাকে একতা ক্লিনিকে ভর্তি করা হয়।

রাত ১২টার দিকে সিজারিয়ান অপারেশন করে একটি কন্যাশিশু প্রসব করানো হয়। অপারেশনের সময় নবজাতকের মাথার একটা অংশ কাটা পড়ে। ভোর রাতে শিশুটির অবস্থার অবনতি হলে ঢাকায় নেয়ার পথে সকাল ৮টার দিকে তার মৃত্যু হয়।

মাকসুদার মামা রকিব উল্লাহ জানান, প্রসব করানোর পরে শিশুটির মাথায় তুলা এবং তোয়ালে দিয়ে ঢেকে রাখা হয়েছিল। তারপরও তুলা ভেদ করে রক্ত বের হচ্ছিল। সকাল ১০টার দিকে দাফন করার জন্য গোসল করানোর সময় তুলা সরালে তারা দেখতে পান শিশুটির মাথায় গভীর ক্ষত। সেখানে সেলাই করা হয়েছে।

এ অবস্থা দেখে তারা বুঝতে পারেন নবজাতকের মাথার একটা অংশ কেটে ফেলেছেন চিকিৎসক। ফলে অতিরিক্ত রক্তপাতের কারণে শিশুটির মৃত্যু হয়েছে। এ অবস্থায় তারা শিশুটির মরদেহ নিয়ে ক্লিনিকে আসেন।

শিশুটির বাবা মিশুক রানা বলেন, প্রসব করানোর সময় তার মেয়ের মাথায় আঘাতের কথা তাদের কাছে ডাক্তার, নার্স কেউ বলেননি। আঘাত লুকিয়ে রাখার জন্য তুলা এবং তোয়ালে দিয়ে ঢেকে রেখেছিল। তিনি অভিযোগ করেন, ডাক্তারের অবহেলার কারণেই তার মেয়ের মৃত্যু হয়েছে।

এ ব্যাপারে ক্লিনিকের পরিচালক মো. ফারুক হোসেন জানান, ডা. মো. নাজমুল হাসান এ সিজারিয়ান অপারেশন করেছেন। অপারেশনের জন্য তাকে কল দিয়ে ঢাকা থেকে আনা হয়েছিল।

সিজিরিয়ান অপারেশনের কথা স্বীকার করে ডা. মো. নাজমুল হাসান বলেন, আমি বর্তমানে ডিজি হেলথে ডেপুটেশনে কর্মরত। ঠান্ডাজনিত কারণে শিশুটির অবস্থা ভালো ছিল না। সে কারণে তার মৃত্যু হতে পারে।

মাথায় আঘাতের কথা স্বীকার করে তিনি বলেন, ‘মাথার একটা অংশ কাটা যায়। সেটি সেলাই করা হয়েছে। তবে এর কারণে নবজাতকের মৃত্যু হয়নি বলে তিনি দাবি করেন।’

মানিকগঞ্জ সদর থানা পুলিশের এসআই মহম্মদ আশরাফুল ইসলাম জানান, নবজাতকের মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে। আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।


বড়দিনে বার্তায় জেরুজালেমের জন্য শান্তি কামনায়- পোপ

যশোরে সিলিন্ডার বিস্ফোরণে দুই শ্রমিকের মৃত্যু


এ বিভাগের আরো খবর...

তারেক ব্রিটেনের আইন মোতাবেক বসবাস করছেন- রিজভী তারেক ব্রিটেনের আইন মোতাবেক বসবাস করছেন- রিজভী
এই মাসে প্রজ্ঞাপন জারি না হলে ফের আন্দোলন! এই মাসে প্রজ্ঞাপন জারি না হলে ফের আন্দোলন!
চতুর্থ কার্যদিবসে ঊর্ধ্বমুখী প্রবণতায় ফিরেছে সূচক চতুর্থ কার্যদিবসে ঊর্ধ্বমুখী প্রবণতায় ফিরেছে সূচক
ঘন ও লম্বা চুল করতে রসুনের জুড়ি মেলা ভার ঘন ও লম্বা চুল করতে রসুনের জুড়ি মেলা ভার
ইসির সঙ্গে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর বৈঠক আজ ইসির সঙ্গে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর বৈঠক আজ
শব্দদূষণে বধির হওয়ার মাত্রা বেড়েই চলছে শব্দদূষণে বধির হওয়ার মাত্রা বেড়েই চলছে
পরমাণু সমঝোতা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ- গুতেরেস পরমাণু সমঝোতা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ- গুতেরেস
শাকিব-অপুর নতুন চমক! শাকিব-অপুর নতুন চমক!
চীনে ক্রীড়া প্রতিযোগিতায় গ্রেনেড নিক্ষেপ প্রতিযোগিতা! চীনে ক্রীড়া প্রতিযোগিতায় গ্রেনেড নিক্ষেপ প্রতিযোগিতা!
মুন্সীগঞ্জে বন্দুকযুদ্ধে আসামি নিহত মুন্সীগঞ্জে বন্দুকযুদ্ধে আসামি নিহত

সর্বাধিক পঠিত

তারেক ব্রিটেনের আইন মোতাবেক বসবাস করছেন- রিজভী তারেক ব্রিটেনের আইন মোতাবেক বসবাস করছেন- রিজভী
এই মাসে প্রজ্ঞাপন জারি না হলে ফের আন্দোলন! এই মাসে প্রজ্ঞাপন জারি না হলে ফের আন্দোলন!
চতুর্থ কার্যদিবসে ঊর্ধ্বমুখী প্রবণতায় ফিরেছে সূচক চতুর্থ কার্যদিবসে ঊর্ধ্বমুখী প্রবণতায় ফিরেছে সূচক
ঘন ও লম্বা চুল করতে রসুনের জুড়ি মেলা ভার ঘন ও লম্বা চুল করতে রসুনের জুড়ি মেলা ভার
বাংলাদেশ কম্বোডিয়াকে হারিয়ে ২০-০ গোলে বড় জয়! বাংলাদেশ কম্বোডিয়াকে হারিয়ে ২০-০ গোলে বড় জয়!
ইসির সঙ্গে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর বৈঠক আজ ইসির সঙ্গে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর বৈঠক আজ
ধোনির জয়,কোহলির বেঙ্গালুরুর হার! ধোনির জয়,কোহলির বেঙ্গালুরুর হার!
শব্দদূষণে বধির হওয়ার মাত্রা বেড়েই চলছে শব্দদূষণে বধির হওয়ার মাত্রা বেড়েই চলছে
সঞ্জয়ের বায়োপিকের নাম ‘দত্ত’ থেকে ‘সঞ্জু’ কেন? সঞ্জয়ের বায়োপিকের নাম ‘দত্ত’ থেকে ‘সঞ্জু’ কেন?
জলবায়ু ও দখলের কারণেই নদীগুলো মৃত জলবায়ু ও দখলের কারণেই নদীগুলো মৃত
অবর্ণনীয় দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে রাজধানীবাসীকে
বিড়ি শিল্পে তামাকের ভয়াবহতা আর শিশুশ্রম বাড়ছে
প্লাস্টিক বিপর্যয়ের মুখে বাংলাদেশ, খাবারে ঢুকে পড়ছে প্লাস্টিক !
শিক্ষাকে কখনো পণ্য হিসেবে বিবেচনা করা উচিত নয়
রেল যোগাযোগ ঝুঁকিমুক্ত করার পদক্ষেপ নিন
এডিবির পর্যবেক্ষণ বলছে-বাংলাদেশের অর্থনীতির ভিত্তি সুদৃঢ় করতে হবে
কাশ্মীরের ধর্ষণ ও হত্যা দিল্লিতে পৌঁছায়িন কেন?
রোহিঙ্গা পাঁচ সদস্যের একটি পরিবারকে ফিরিয়ে নিয়েছে: মিয়ানমার
জলবায়ু পরিবর্তনে বন্যা এবং সাইক্লোনের প্রবণতা বেড়ে যাবে
কোটা আন্দোলনকারীদের জয় হলেও মেধাবীরা কতটুকু সুযোগ পাবে?