ঢাকা, জানুয়ারী ২১, ২০১৯, ৮ মাঘ ১৪২৫
---
bbc24news.com
প্রথম পাতা » প্রধান সংবাদ » আবারও নারায়ণগঞ্জের ফুটপাত হকারের দখলে
বৃহস্পতিবার ● ১৮ জানুয়ারী ২০১৮, ৮ মাঘ ১৪২৫
Email this News Print Friendly Version

আবারও নারায়ণগঞ্জের ফুটপাত হকারের দখলে

---বিবিসি২৪নিউজ,নারায়ণগঞ্জ নগরীর প্রধান সড়ক বঙ্গবন্ধু সড়কের ফুটপাতে প্রশাসনের বেঁধে দেওয়া নিয়ম না মেনে আবারও বসেছেন হকাররা। বৃহস্পতিবার বিকাল সাড়ে চারটা থেকে নগরীর বঙ্গবন্ধু সড়কের চাষাঢ়া সোনালী ব্যাংক মোড় থেকে দুই নম্বর রেলগেট পর্যন্ত দুই পাশেই দোকান সাজিয়ে তারা বসে পড়েন। ফলে নগরীর প্রধান সড়কে আবারও যানজট সৃষ্টিসহ পথচারীদের চলাচলে ভোগান্তি শুরু হয়েছে।
পুলিশ সুপার মঈনুল হক জানিয়েছিলেন, নারায়ণগঞ্জ শহরের প্রধান সড়ক বঙ্গবন্ধু সড়কে কোনও হকার বসতে পারবে না। তবে সিরাজউদ্দৌলা সড়ক, সলিমুল্লাহ সড়ক, চেম্বার রোড ও খানপুর হাসপাতালের সামনের সড়কে বিকাল ৫টা থেকে রাত ১০টা পর্যন্ত হকাররা কেনাবেচা করতে পারবেন।

বুধবার দুপুরে সিটি করপোরেশনের মেয়র সেলিনা হায়াৎ আইভীর সঙ্গে জেলা প্রশাসকের প্রতিনিধি হিসেবে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক জসিম উদ্দিন হায়দার ও পুলিশ সুপারের প্রতিনিধি অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ফারুক হোসেনের বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

কিন্তু প্রথম দিনেই হকারদের এই বেপরোয়া আচরণে নগরবাসী প্রকাশ্যে কোনও মন্তব্য না করলেও এই নিয়ে মিশ্র প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি হয়েছে। ফুটপাতের হকাররা প্রশাসনকে বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখিয়েছে বলে মনে করছেন নগরবাসী। তারা অবিলম্বে কঠোর আইন প্রয়োগের মাধ্যমে প্রশাসনের নেওয়া সিদ্ধান্তকে বাস্তবায়নের দাবি জানান।

সরেজমিনে দেখা গেছে, প্রশাসনের নির্ধারণ করে দেওয়া নবাব সলিমুল্লাহ সড়ক ও খানপুর হাসপাতাল সড়কে কোন হকার বসেননি। শুধু নবাব সিরাজউদ্দৌলা সড়কে অল্প কয়েক জন হকার দেখা গেছে।

বঙ্গবন্ধু সড়কে বসা হকারদের দাবি প্রশাসনের নির্ধারণ করে দেওয়া সড়কগুলোতে মানুষের চলাচল খুব কম। সেখানে কোনও কাস্টমার যায় না। এছাড়া গত ২৬ দিন ধরে তারা রাস্তায় বসতে না পারার কারণে মানবেতর জীবন-যাপন করছেন। যে কারণে বাধ্য হয়েই ফুটপাতে পণ্য নিয়ে বসছেন।

এ প্রসঙ্গে সদর থানার ওসির দায়িত্বে থাকা আব্দুর রাজ্জাক জানান, হকার যাতে বঙ্গবন্ধু সড়কে বসতে না পারে সেজন্য পুলিশ কঠোর অবস্থানে রয়েছে। বিকালে যেসব হকার বঙ্গবন্ধু সড়কে বসেছে, তাদের রাত ৭টার দিকে উঠিয়ে দেওয়া হয়েছে। তিনি বলেন, ‘স্বল্প সংখ্যক পুলিশ দিয়ে এত হকার নিয়ন্ত্রণ করা সম্ভব না। তাই পুলিশ তাদের উচ্ছেদ করার পর আবারও সড়কে তারা বসে পড়ে।’

নারায়ণগঞ্জ হকার সংগ্রাম পরিষদের সভাপতি আসাদুল ইসলাম বলেন, ‘হকাররা বিচ্ছিন্নভাবে বঙ্গবন্ধু সড়কে বসেছিল। কারণ, প্রশাসনের পক্ষ থেকে যে জায়গুলো নির্দিষ্ট করে দেওয়া হয়েছিল, সেখানে মাত্র ২৫ শতাংশ হকার বসার জায়গা রয়েছে। বাকি ৭৫ শতাংশ হকারের বসার জায়গা নিয়ে এখনও সমস্যা রয়েই গেছে।’

অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক জসিম উদ্দিন হায়দার বলেন, ‘সিটি করপোরেশন চাইলে আমরা নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট দেব। আমি যেহেতু তদন্ত কমিটিতে আছি, সেহেতু এর বেশি কিছু বলতে পারছি না।’যদিও রাত সাড়ে ৭টার দিকে নারায়ণগঞ্জ সদর মডেল থানার ওসির দায়িত্বে থাকা কর্মকর্তা আব্দুর রাজ্জাকের নেতৃত্বে একদল পুলিশ এসে হকারদের ফুটপাত থেকে উঠিয়ে দেয়।


মেয়র আইভী শঙ্কামুক্ত,বিশ্রামে থাকার পরামর্শ চিকিৎসকের

ব্যাংকিং খাতে ব্যর্থতায় সরকারের অর্থনৈতিক সাফল্য ম্লান-এমপি ইসরাফিল


এ বিভাগের আরো খবর...

আফগান সেনা ঘাঁটিতে তালেবান হামলা, নিহত শতাধিক আফগান সেনা ঘাঁটিতে তালেবান হামলা, নিহত শতাধিক
বিশ্ব ইজতেমা নিয়ে এখনও সংশয় কাটেনি বিশ্ব ইজতেমা নিয়ে এখনও সংশয় কাটেনি
ভারতে ষাঁড়ের রেসলিং উৎসবে নিহত ২ ভারতে ষাঁড়ের রেসলিং উৎসবে নিহত ২
ফ্রাঙ্কলিংকের ঝড়ে উড়ে গেল ঢাকা ডায়নামাইটস ফ্রাঙ্কলিংকের ঝড়ে উড়ে গেল ঢাকা ডায়নামাইটস
বড় সংগ্রহ গড়তে পারেনি সাকিবের ঢাকা বড় সংগ্রহ গড়তে পারেনি সাকিবের ঢাকা
বিশ্ব ইজতেমা অনুষ্ঠানের নির্দেশনা চেয়ে হাইকোর্টে রিট বিশ্ব ইজতেমা অনুষ্ঠানের নির্দেশনা চেয়ে হাইকোর্টে রিট
রাষ্ট্রপতির সঙ্গে নৌবাহিনী প্রধানের বিদায়ী সাক্ষাৎ রাষ্ট্রপতির সঙ্গে নৌবাহিনী প্রধানের বিদায়ী সাক্ষাৎ
বুধবারের বৈঠকে ইজতেমা নিয়ে সিদ্ধান্ত:স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বুধবারের বৈঠকে ইজতেমা নিয়ে সিদ্ধান্ত:স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী
এবারের নির্বাচনের পরিবেশ ছিল সম্পূর্ণ শান্তিপূর্ণ- তথ্যমন্ত্রী এবারের নির্বাচনের পরিবেশ ছিল সম্পূর্ণ শান্তিপূর্ণ- তথ্যমন্ত্রী
পাঁচ প্রতিষ্ঠানের পানি ‘মানহীন’ আদলতকে- বিএসটিআই পাঁচ প্রতিষ্ঠানের পানি ‘মানহীন’ আদলতকে- বিএসটিআই

সর্বাধিক পঠিত

আফগান সেনা ঘাঁটিতে তালেবান হামলা, নিহত শতাধিক আফগান সেনা ঘাঁটিতে তালেবান হামলা, নিহত শতাধিক
বিশ্ব ইজতেমা নিয়ে এখনও সংশয় কাটেনি বিশ্ব ইজতেমা নিয়ে এখনও সংশয় কাটেনি
ভারতে ষাঁড়ের রেসলিং উৎসবে নিহত ২ ভারতে ষাঁড়ের রেসলিং উৎসবে নিহত ২
ফ্রাঙ্কলিংকের ঝড়ে উড়ে গেল ঢাকা ডায়নামাইটস ফ্রাঙ্কলিংকের ঝড়ে উড়ে গেল ঢাকা ডায়নামাইটস
বড় সংগ্রহ গড়তে পারেনি সাকিবের ঢাকা বড় সংগ্রহ গড়তে পারেনি সাকিবের ঢাকা
রাতভর নেচে অসুস্থ বিপাশা রাতভর নেচে অসুস্থ বিপাশা
বিশ্ব ইজতেমা অনুষ্ঠানের নির্দেশনা চেয়ে হাইকোর্টে রিট বিশ্ব ইজতেমা অনুষ্ঠানের নির্দেশনা চেয়ে হাইকোর্টে রিট
রাষ্ট্রপতির সঙ্গে নৌবাহিনী প্রধানের বিদায়ী সাক্ষাৎ রাষ্ট্রপতির সঙ্গে নৌবাহিনী প্রধানের বিদায়ী সাক্ষাৎ
প্রচণ্ড শীত ও ঘন কুয়াশায় ৩১ রোহিঙ্গা শূন্যরেখায় প্রচণ্ড শীত ও ঘন কুয়াশায় ৩১ রোহিঙ্গা শূন্যরেখায়
বুধবারের বৈঠকে ইজতেমা নিয়ে সিদ্ধান্ত:স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বুধবারের বৈঠকে ইজতেমা নিয়ে সিদ্ধান্ত:স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী
বেআইনি ব্যাংকিং কার্যক্রমের বিরুদ্ধে বহুমুখী পদক্ষেপ নিন
খাদ্যে অতিরিক্ত ট্রান্সফ্যাটের কারণে, প্রতি বছর বিশ্বে পাঁচ লাখ মানুষের মৃত্যু হয়
স্বাধীনতার পর প্রথমবার ‘মন্ত্রীশূন্য’ কিশোরগঞ্জ
মন চুরির অভিযোগ পুলিশের কাছে!
সৈয়দ আশরাফ যে কবরে সমাহিত হবেন
ব্যবসায়ীদের বিনিয়োগের বাধা দূর করতে হবে?
মহাজোটের মহাজয়ে শেখ হাসিনা
বাংলাদেশে নির্বাচন-পরবর্তী সহিংসতা রোধ করুন!
নেইমারের সমালোচনায় পেলে
জলবায়ু পরিবর্তনে বিশ্বব্যাংক-আইএফসি ২২ বিলিয়ন ডলার দিবে