ঢাকা, ডিসেম্বর ১২, ২০১৮, ২৮ অগ্রহায়ন ১৪২৫
---
bbc24news.com
প্রথম পাতা » সম্পাদকীয় » ঋণ গ্রহণ সঞ্চয়পত্র থেকে
বুধবার ● ৭ মার্চ ২০১৮, ২৮ অগ্রহায়ন ১৪২৫
Email this News Print Friendly Version

ঋণ গ্রহণ সঞ্চয়পত্র থেকে

ঋণ গ্রহণ সঞ্চয়পত্র থেকেবিবিসি২৪নিউজ:অর্থ মন্ত্রণালয় ব্যাংক থেকে কমিয়ে সঞ্চয়পত্র থেকে সরকার অধিক হারে ঋণ নেয়ায় দেশের আর্থিক খাতে বড় ধরনের সংকটের আশঙ্কা করছে। ‘সরকারি ঋণ পোর্টফোলিও, ব্যয় ও ঝুঁকি বিশ্লেষণ’ শিরোনামে অর্থ মন্ত্রণালয়ের এক প্রতিবেদনে এমন আশঙ্কার কথা বলা হয়েছে।বলার অপেক্ষা রাখে না, সরকার সঞ্চয়পত্রের দিকে ঝুঁকে পড়ায় প্রাইমারি ডিলার ব্যাংকগুলোর তারল্য ব্যবস্থাপনায় জটিলতা সৃষ্টির পাশাপাশি ব্যয় বৃদ্ধিসহ ব্যাহত হচ্ছে ঋণ ব্যবস্থাপনার মূলনীতি। অর্থ মন্ত্রণালয়ের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বিগত পাঁচ বছরে সঞ্চয়পত্র খাত থেকে ঋণ নেয়ার হার বেড়েছে ২২ শতাংশ। একই সময়ে ব্যাংকিং খাত থেকে ঋণ নেয়ার হার কমেছে ২২ শতাংশ। উদ্বেগজনক হল, ব্যাংক থেকে ঋণ না নিয়ে উল্টো বকেয়া পরিশোধ করছে সরকার।ফলে ট্রেজারি সিকিউরিটিজের সেকেন্ডারি মার্কেট উন্নয়ন মারাত্মকভাবে বিঘ্নিত হচ্ছে। পাশাপাশি প্রাইমারি ডিলার ব্যাংকগুলোর তারল্য ব্যবস্থাপনায় সৃষ্টি হচ্ছে জটিলতা। এতে দেশের আর্থিক খাত বড় ধরনের সংকটের সম্মুখীন হচ্ছে।সাধারণত দীর্ঘমেয়াদি ঋণ কম ঝুঁকিপূর্ণ। অথচ সরকার দীর্ঘমেয়াদি ঋণ গ্রহণের পরিবর্তে অপেক্ষাকৃত স্বল্পমেয়াদি ঋণ অধিক মাত্রায় গ্রহণ করছে, যা মোটেই কাম্য নয়। চলতি ২০১৭-১৮ অর্থবছর সরকার সঞ্চয়পত্র থেকে ৩০ হাজার ১৫০ কোটি টাকা ঋণ গ্রহণের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করলেও গত জুলাই থেকে ডিসেম্বর পর্যন্ত সঞ্চয়পত্রের নিট বিক্রির পরিমাণ হচ্ছে ২৩ হাজার ৮২৪ কোটি টাকা।দেখা যাচ্ছে, এ সময়কালে মোট ঋণের প্রায় ৮০ ভাগই গ্রহণ করা হয়ে গেছে। আশঙ্কার বিষয় হল, বেশি মাত্রায় ঋণ গ্রহণের ফলে সঞ্চয়পত্রের সুদ পরিশোধের ক্ষেত্রে সরকারের ব্যয় অস্বাভাবিক হারে বৃদ্ধি পাওয়ায় সরকারের ঋণ পোর্টফোলিওতে ঝুঁকি ও ব্যয় বাড়ছে।বস্তুত পরিস্থিতি এমন আকার ধারণ করেছে যে, কম সুদ ব্যয়সম্পন্ন ট্রেজারি সিকিউরিটিজের মাধ্যমে ঋণ গ্রহণ না করে অতিরিক্ত সুদ পরিশোধ করে সঞ্চয়পত্র থেকে ঋণ গ্রহণ করতে হচ্ছে। আমরা মনে করি, এতে সরকারের ঋণ ব্যবস্থাপনার মূলনীতিও ব্যাহত হচ্ছে।অস্বাভাবিক হারে সঞ্চয়পত্র বিক্রি বৃদ্ধির স্বল্প ও দীর্ঘমেয়াদি প্রভাব রয়েছে। সঞ্চয়পত্রের সুদের হার বেশি হলে আমানতকারীরা ব্যাংকমুখী হবেন না। এতে ব্যাংকের আমানত কমবে। ফলে ব্যাংকগুলোর ঋণ দেয়ার সক্ষমতা হ্রাস পাবে। সবচেয়ে বড় কথা হল, এর বিরূপ প্রভাব পড়বে বেসরকারি খাতের ওপর।

বিনিয়োগকারীরা ব্যাংক ও পুঁজিবাজার ছেড়ে সঞ্চয়পত্রমুখী হলে দেশের সামগ্রিক অর্থনীতিতে বিরূপ প্রভাব পড়বে, যা অনাকাক্সিক্ষত।


‘ইয়েমেন যুদ্ধের জন্য সৌদিকে নিন্দা করুন- থেরেসা

দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নে নারীদের অবদান উল্লেখযোগ্য


এ বিভাগের আরো খবর...

নির্বাচন কমিশনকে লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড নিশ্চিত করতে হবে নির্বাচন কমিশনকে লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড নিশ্চিত করতে হবে
ভিকারুননিসার ছাত্রী-অরিত্রীর আত্মহত্যা-দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি হওয়া উচিত! ভিকারুননিসার ছাত্রী-অরিত্রীর আত্মহত্যা-দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি হওয়া উচিত!
শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে লাগেজ চুরি ঘটনা আবারও বেড়ে গেছে শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে লাগেজ চুরি ঘটনা আবারও বেড়ে গেছে
বাংলাদেশে দুর্নীতি নিয়ন্ত্রণ করতে হবে-এমসিসির মূল্যায়ন বাংলাদেশে দুর্নীতি নিয়ন্ত্রণ করতে হবে-এমসিসির মূল্যায়ন
নির্বাচনে সবার অংশগ্রহণ-গণতন্ত্রের জন্য ইতিবাচক নির্বাচনে সবার অংশগ্রহণ-গণতন্ত্রের জন্য ইতিবাচক
বাংলাদেশের রাজনৈতিতে সংলাপের কতটুকু গুরুত্ব পায়? বাংলাদেশের রাজনৈতিতে সংলাপের কতটুকু গুরুত্ব পায়?
বহুল প্রত্যাশিত সংলাপে কি ছিল? বহুল প্রত্যাশিত সংলাপে কি ছিল?
একটি অর্থবহ ও সফল সংলাপের প্রত্যাশা করছি একটি অর্থবহ ও সফল সংলাপের প্রত্যাশা করছি
বিশ্বের সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের অপব্যবহার নয় বিশ্বের সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের অপব্যবহার নয়
শেখ হাসিনা বার্ন ইন্সটিটিউটের: প্রত্যাশিত স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত হবে কি? শেখ হাসিনা বার্ন ইন্সটিটিউটের: প্রত্যাশিত স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত হবে কি?

সর্বাধিক পঠিত

২ কর্মীকে খুন করেছে বিএনপি , প্রমাণও আছে- কাদের ২ কর্মীকে খুন করেছে বিএনপি , প্রমাণও আছে- কাদের
ভোটারদের মন জয় করতে নেমেছি: মির্জা আব্বাস ভোটারদের মন জয় করতে নেমেছি: মির্জা আব্বাস
১৮ বছরের সর্বোচ্চে পাম অয়েল মজুদ - মালয়েশিয়া ১৮ বছরের সর্বোচ্চে পাম অয়েল মজুদ - মালয়েশিয়া
১৬৩ দিনে  ৫৯ লাখ টন সয়াবিন আমদানি ইইউর ১৬৩ দিনে ৫৯ লাখ টন সয়াবিন আমদানি ইইউর
যতই নির্যাতন করুক মাঠ ছাড়ব না- মওদুদ যতই নির্যাতন করুক মাঠ ছাড়ব না- মওদুদ
নাজিবের বিরুদ্ধে নতুন দুর্নীতির মামলা নাজিবের বিরুদ্ধে নতুন দুর্নীতির মামলা
আইপিওর অর্থ অনিয়ম : প্যাসিফিক এমডিকে কোম্পানির অর্থ ফেরত দেয়ার নির্দেশ আইপিওর অর্থ অনিয়ম : প্যাসিফিক এমডিকে কোম্পানির অর্থ ফেরত দেয়ার নির্দেশ
ডিসি-কমিশনারদের রিটার্নিং কর্মকর্তা নিয়োগ কেন অবৈধ নয়- হাইকোর্ট ডিসি-কমিশনারদের রিটার্নিং কর্মকর্তা নিয়োগ কেন অবৈধ নয়- হাইকোর্ট
জ্বালানির মূল্যযুদ্ধ করছে ইরান ? জ্বালানির মূল্যযুদ্ধ করছে ইরান ?
আ’লীগ ভোট চুরি করতে পারে: ফখরুল আ’লীগ ভোট চুরি করতে পারে: ফখরুল
জলবায়ু পরিবর্তনে বিশ্বব্যাংক-আইএফসি ২২ বিলিয়ন ডলার দিবে
জলবায়ু পরিবর্তনের যুদ্ধে নারীর অংশগ্রহণ করতে হবে-প্যাট্রিসিয়া
বিএনপির দুটি আসনের পরিবর্তন
কলেজ শিক্ষক আলী হোসেন হত্যা দুইজনের ত্যুদণ্ড
নির্বাচনে সবার অংশগ্রহণ-গণতন্ত্রের জন্য ইতিবাচক
বহুল প্রত্যাশিত সংলাপে কি ছিল?
একটি অর্থবহ ও সফল সংলাপের প্রত্যাশা করছি
শেখ হাসিনা বার্ন ইন্সটিটিউটের: প্রত্যাশিত স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত হবে কি?
নদীশাসনের দুর্বলতা বিঘ্নিত হচ্ছে নৌপথে চলাচল
শিল্পে গ্যাস সংযোগ না দেওয়া, আর্থিক ক্ষতির মুখে-সরকার