ঢাকা, জুলাই ২০, ২০১৮, ৪ শ্রাবণ ১৪২৫
---
---
bbc24news.com
প্রথম পাতা » আইন-আদালত » ক্ষমতায় থাকাকালীন দুর্নীতির বিচার কঠোর হয়: অ্যাটর্নি জেনারেল
রবিবার ● ১৮ মার্চ ২০১৮, ৪ শ্রাবণ ১৪২৫
Email this News Print Friendly Version

ক্ষমতায় থাকাকালীন দুর্নীতির বিচার কঠোর হয়: অ্যাটর্নি জেনারেল

অ্যাটর্নি জেনারেলবিবিসি২৪নিউজ,নিজস্ব প্রতিবেদক:রাষ্ট্রীয় ক্ষমতায় থাকাকালীন দুর্নীতির বিচার কঠোর হয়,জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলায় বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার জামিনের বিরোধিতা করে অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম মন্তব্য করেছেন। আজ দুপুর ১২টার দিকে খালেদা জিয়ার জামিন আবেদনের ওপর শুনানি শেষে আপিল বিভাগ থেকে বেরিয়ে নিজ কার্যালয়ে সাংবাদিকদের এ কথা বলেন অ্যাটর্নি জেনারেল।মাহবুবে আলম বলেন, ‘দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) খালেদা জিয়াসহ অন্যান্যদের বিরুদ্ধে যে মামলা দায়ের করেছিল, সেই মামলায় অন্যান্য সব আসামির ১০ বছর জেল এবং খালেদা জিয়ার পাঁচ বছর জেল হয়েছে। তার (খালেদা জিয়ার) এই সাজার বিরুদ্ধে আপিল করে হাইকোর্টে জামিন চেয়েছিলেন। হাইকোর্ট চার মাসের জামিন দিয়েছিল। হাইকোর্টের এ আদেশের বিরুদ্ধে দুর্নীতি দমন কমিশন এবং রাষ্ট্রপক্ষ যে লিভ টু আপিল করেছিলাম, তার শুনানি আজ হলো।আমরা আমাদের বক্তব্য উপস্থাপন করেছি। বলেছি, হাইকোর্ট যে যুক্তিতে খালেদা জিয়াকে জামিন দিয়েছে, সেটা সঠিক হয়নি। তার কারণ খালেদা জিয়ার দণ্ড পাঁচ বছর। এর মধ্যে সাজা ভোগ করা সময় শেষ হয়ে যাবে, অথচ আপিল শুনানি হবে না-এ রকম কোনো ঘটনা ঘটেনি। অথচ আপিলটার শিগগিরই শুনানি করা সম্ভব।

খালেদা জিয়ার সাজা নিয়ে অ্যাটর্নি জেনারেল বলেন, ‘তার বয়স এবং সামাজিক মর্যাদার যে বিষয়গুলো হাইকোর্ট বিবেচনায় নিয়েছে, সে বিষয়ে আমরা বলেছি, তাকে ১০ বছরই সাজা দেওয়ার কথা। কিন্তু বয়স, সামাজিক মর্যাদার চিন্তা করেই নিম্ন আদালত তাকে পাঁচ বছর সাজা দিয়েছে। যে বিবেচনা করে নিম্ন আদালত সাজা কমিয়ে দিয়েছে, সেই একই বিবেচনা করে হাইকোর্ট তাকে জামিন দিয়েছে।
সবচেয়ে বড় কথা হলো, রাষ্ট্রীয় ক্ষমতায় থেকে যারা দুর্নীতির সঙ্গে জড়িত হন, আদালত কঠোরভাবে তার বিচার করে। বিভিন্ন দেশে দেখা গেছে যে, রাষ্ট্রনায়করা দেশ থেকেই পালিয়ে গেছেন দণ্ড ভয়ে বা দণ্ড এড়ানোর জন্য। এখানে যে পাঁচ বছর সাজা দেওয়া হয়েছে, এই পাঁচ বছরের মধ্যে মাত্র দুই মাস-আড়াই মাস গেছে। অন্য একজন হুসাইন মোহাম্মদ এরশাদ। তারও পাঁচ বছর সাজা হয়েছিল। তাকে সাড়ে তিন বছর সাজা ভোগ করতে হয়েছে।

রাষ্ট্রীয় অর্থ আত্মসাতের ঘটনায় বিদেশের কিছু নজির তুলে ধরে মাহবুবে আলম বলেন, ‘উপমহাদেশের আরেকজনের প্রসঙ্গ টেনেছি। তিনি লালু প্রসাদ যাদব। পশুখাদ্যে ৮৯ লক্ষ টাকা দুর্নীতির অভিযোগে তাকে সাড়ে তিন বছরের জেল দেওয়া হয়েছে। কয়েক দিন আগে ঝাড়খন্ড হাইকোর্ট তাকে জামিন দিতে অস্বীকৃতি জানিয়েছে।

যেখানে নাকি এতিমদের অর্থ আত্মসাৎ হয়ে যাবে, সেখানে জামিন দেওয়া সঠিক হবে না। আরেকটা কথা বলেছি, এই ট্রাস্টের টাকা উঠানো বা জমা দেওয়ার বিষয়ে তিনি কিছুই জানতেন না। কিন্তু আদালত সাক্ষ্যের ভিত্তিতে ভালোভাবে পর্যালোচনা করে সিদ্ধান্তে এসেছে। ফলে তিনি কিছু জানতেনা না, এটা সঠিক না।

খালেদা জিয়ার বিষয়ে অ্যাটর্নি জেনারেল বলেন, ‘সবচেয়ে বড় কথা হলো উনি এবং উনার পুত্র তারেক রহমান একই বাড়িতে থাকতেন। যে চেকের মাধ্যমে তারেক রহমান এবং মিজানুর রহমান ছয়টি চেকের টাকাগুলো তুলে নিয়েছে, এফডিআর করেছে, এগুলোতে একেবারে অস্বীকার করার মতো কিছু নাই। ছেলে-মা একই বাড়িতে থাকবেন আর টাকা উত্তোলনের কথা উনি জানেন না, এটা অবিশ্বাস্য এবং নিম্ন আদালত এটা বিশ্বাস করেননি।

আপিলটা যদি দীর্ঘ সময় শুনানি হয়, সে ক্ষেত্রে তার জামিন বিচেনা করা যেতে পারে। আমরা বারবার বলছি আপিলটার শুনানি হোক। চার মাস সময় বেঁধে দিয়েছে হাইকোর্ট। আমি বলেছি প্রয়োজনে আরও সংক্ষিপ্ত সময় বেঁধে দেওয়া হোক আপিলের পেপারবুক তৈরি করার জন্য।


জনসভার অনুমতি পায়নি- বিএন‌পি

ভারতকে ১৬৭ রানের টার্গেট দিয়েছে টাইগাররা


এ বিভাগের আরো খবর...

সনাতন ছাড়া সব ধরনের সোনার দাম কমেছে সনাতন ছাড়া সব ধরনের সোনার দাম কমেছে
মিয়ানমারের রাখাইনে বিশ্ববিদ্যালয় চালু হচ্ছে মিয়ানমারের রাখাইনে বিশ্ববিদ্যালয় চালু হচ্ছে
সব দলের অংশগ্রহণ মূলক নির্বাচন চায়- ইইউ সব দলের অংশগ্রহণ মূলক নির্বাচন চায়- ইইউ
বামপন্থী জোট বেশি, ভোট কম দুর্বলতা নিজেদেরই বামপন্থী জোট বেশি, ভোট কম দুর্বলতা নিজেদেরই
উষ্ণতম দিন পার করল রাজধানীবাসী উষ্ণতম দিন পার করল রাজধানীবাসী
সিলেটে আরিফকে সমর্থন দিলেন সেলিম সিলেটে আরিফকে সমর্থন দিলেন সেলিম
ই-পাসপোর্ট চালু করছে বাংলাদেশ ই-পাসপোর্ট চালু করছে বাংলাদেশ
আমরা গুণগত মানের দিকটায় গুরুত্ব দিচ্ছি- শিক্ষামন্ত্রী আমরা গুণগত মানের দিকটায় গুরুত্ব দিচ্ছি- শিক্ষামন্ত্রী
সোনায় হেরফেরের সমস্যা দ্রুত সমাধানের নির্দেশ- প্রধানমন্ত্রীর সোনায় হেরফেরের সমস্যা দ্রুত সমাধানের নির্দেশ- প্রধানমন্ত্রীর
সোনা নিয়ে কথা বলা বিএনপির মুখে শোভা পায় না- কাদের সোনা নিয়ে কথা বলা বিএনপির মুখে শোভা পায় না- কাদের

সর্বাধিক পঠিত

সনাতন ছাড়া সব ধরনের সোনার দাম কমেছে সনাতন ছাড়া সব ধরনের সোনার দাম কমেছে
মিয়ানমারের রাখাইনে বিশ্ববিদ্যালয় চালু হচ্ছে মিয়ানমারের রাখাইনে বিশ্ববিদ্যালয় চালু হচ্ছে
সব দলের অংশগ্রহণ মূলক নির্বাচন চায়- ইইউ সব দলের অংশগ্রহণ মূলক নির্বাচন চায়- ইইউ
বামপন্থী জোট বেশি, ভোট কম দুর্বলতা নিজেদেরই বামপন্থী জোট বেশি, ভোট কম দুর্বলতা নিজেদেরই
জীবনের সব গল্প নাটকের সাথে মিলে না? জীবনের সব গল্প নাটকের সাথে মিলে না?
লন্ডনে গানে গানে চিরকুট ব্যান্ড লন্ডনে গানে গানে চিরকুট ব্যান্ড
‘টুইটারম্যান’ নেইমার–এমবাপ্পে ‘টুইটারম্যান’ নেইমার–এমবাপ্পে
এশিয়ান গেমসে থাকছেন না মামুনুল এশিয়ান গেমসে থাকছেন না মামুনুল
ধোনি কি অবসর নিয়ে ফেলছেন? ধোনি কি অবসর নিয়ে ফেলছেন?
উষ্ণতম দিন পার করল রাজধানীবাসী উষ্ণতম দিন পার করল রাজধানীবাসী
প্রবাসীরা অধিকার প্রতিষ্ঠায় সরকারের পদক্ষেপ চায়- ইউকে মানিকগঞ্জ সমিতি
ভূমি মন্ত্রণালয়ের অফিসগুলো দুর্নীতির আখড়া!
রোহিঙ্গাদের সুরক্ষায় বিশ্ব সম্প্রদায় ব্যর্থ হয়েছে-গুতেরেস
শিশু মৃত্যু দায়ী চিকিৎসকের বিরুদ্ধে দ্রুত ব্যবস্থা নিন?
প্রকল্প বাস্তবায়নে-দুর্নীতির দিকে নজর দিন?
মানি লন্ডারিং প্রতিরোধ আইন- আমলে নিন?
আর্জেন্টিনা ১-০ নাইজেরিয়া, ক্রোয়েশিয়া ০-০ আইসল্যান্ড
ডোনাল্ড ট্রাম্প যুক্তরাষ্ট্রের কূটনীতিকে কোন পথে নিয়ে যাচ্ছেন?
প্রধানমন্ত্রীর বিমানে ত্রুটির মামলার প্রকৌশলীদের জামিন মঞ্জুর
কাঙ্খিত ফল পেতে হলে,ভেজালবিরোধী অভিযান চালু রাখতে হবে?