ঢাকা, ডিসেম্বর ১৭, ২০১৮, ২ পৌষ ১৪২৫
---
bbc24news.com
প্রথম পাতা » আইন-আদালত » ক্ষমতায় থাকাকালীন দুর্নীতির বিচার কঠোর হয়: অ্যাটর্নি জেনারেল
রবিবার ● ১৮ মার্চ ২০১৮, ২ পৌষ ১৪২৫
Email this News Print Friendly Version

ক্ষমতায় থাকাকালীন দুর্নীতির বিচার কঠোর হয়: অ্যাটর্নি জেনারেল

অ্যাটর্নি জেনারেলবিবিসি২৪নিউজ,নিজস্ব প্রতিবেদক:রাষ্ট্রীয় ক্ষমতায় থাকাকালীন দুর্নীতির বিচার কঠোর হয়,জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলায় বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার জামিনের বিরোধিতা করে অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম মন্তব্য করেছেন। আজ দুপুর ১২টার দিকে খালেদা জিয়ার জামিন আবেদনের ওপর শুনানি শেষে আপিল বিভাগ থেকে বেরিয়ে নিজ কার্যালয়ে সাংবাদিকদের এ কথা বলেন অ্যাটর্নি জেনারেল।মাহবুবে আলম বলেন, ‘দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) খালেদা জিয়াসহ অন্যান্যদের বিরুদ্ধে যে মামলা দায়ের করেছিল, সেই মামলায় অন্যান্য সব আসামির ১০ বছর জেল এবং খালেদা জিয়ার পাঁচ বছর জেল হয়েছে। তার (খালেদা জিয়ার) এই সাজার বিরুদ্ধে আপিল করে হাইকোর্টে জামিন চেয়েছিলেন। হাইকোর্ট চার মাসের জামিন দিয়েছিল। হাইকোর্টের এ আদেশের বিরুদ্ধে দুর্নীতি দমন কমিশন এবং রাষ্ট্রপক্ষ যে লিভ টু আপিল করেছিলাম, তার শুনানি আজ হলো।আমরা আমাদের বক্তব্য উপস্থাপন করেছি। বলেছি, হাইকোর্ট যে যুক্তিতে খালেদা জিয়াকে জামিন দিয়েছে, সেটা সঠিক হয়নি। তার কারণ খালেদা জিয়ার দণ্ড পাঁচ বছর। এর মধ্যে সাজা ভোগ করা সময় শেষ হয়ে যাবে, অথচ আপিল শুনানি হবে না-এ রকম কোনো ঘটনা ঘটেনি। অথচ আপিলটার শিগগিরই শুনানি করা সম্ভব।

খালেদা জিয়ার সাজা নিয়ে অ্যাটর্নি জেনারেল বলেন, ‘তার বয়স এবং সামাজিক মর্যাদার যে বিষয়গুলো হাইকোর্ট বিবেচনায় নিয়েছে, সে বিষয়ে আমরা বলেছি, তাকে ১০ বছরই সাজা দেওয়ার কথা। কিন্তু বয়স, সামাজিক মর্যাদার চিন্তা করেই নিম্ন আদালত তাকে পাঁচ বছর সাজা দিয়েছে। যে বিবেচনা করে নিম্ন আদালত সাজা কমিয়ে দিয়েছে, সেই একই বিবেচনা করে হাইকোর্ট তাকে জামিন দিয়েছে।
সবচেয়ে বড় কথা হলো, রাষ্ট্রীয় ক্ষমতায় থেকে যারা দুর্নীতির সঙ্গে জড়িত হন, আদালত কঠোরভাবে তার বিচার করে। বিভিন্ন দেশে দেখা গেছে যে, রাষ্ট্রনায়করা দেশ থেকেই পালিয়ে গেছেন দণ্ড ভয়ে বা দণ্ড এড়ানোর জন্য। এখানে যে পাঁচ বছর সাজা দেওয়া হয়েছে, এই পাঁচ বছরের মধ্যে মাত্র দুই মাস-আড়াই মাস গেছে। অন্য একজন হুসাইন মোহাম্মদ এরশাদ। তারও পাঁচ বছর সাজা হয়েছিল। তাকে সাড়ে তিন বছর সাজা ভোগ করতে হয়েছে।

রাষ্ট্রীয় অর্থ আত্মসাতের ঘটনায় বিদেশের কিছু নজির তুলে ধরে মাহবুবে আলম বলেন, ‘উপমহাদেশের আরেকজনের প্রসঙ্গ টেনেছি। তিনি লালু প্রসাদ যাদব। পশুখাদ্যে ৮৯ লক্ষ টাকা দুর্নীতির অভিযোগে তাকে সাড়ে তিন বছরের জেল দেওয়া হয়েছে। কয়েক দিন আগে ঝাড়খন্ড হাইকোর্ট তাকে জামিন দিতে অস্বীকৃতি জানিয়েছে।

যেখানে নাকি এতিমদের অর্থ আত্মসাৎ হয়ে যাবে, সেখানে জামিন দেওয়া সঠিক হবে না। আরেকটা কথা বলেছি, এই ট্রাস্টের টাকা উঠানো বা জমা দেওয়ার বিষয়ে তিনি কিছুই জানতেন না। কিন্তু আদালত সাক্ষ্যের ভিত্তিতে ভালোভাবে পর্যালোচনা করে সিদ্ধান্তে এসেছে। ফলে তিনি কিছু জানতেনা না, এটা সঠিক না।

খালেদা জিয়ার বিষয়ে অ্যাটর্নি জেনারেল বলেন, ‘সবচেয়ে বড় কথা হলো উনি এবং উনার পুত্র তারেক রহমান একই বাড়িতে থাকতেন। যে চেকের মাধ্যমে তারেক রহমান এবং মিজানুর রহমান ছয়টি চেকের টাকাগুলো তুলে নিয়েছে, এফডিআর করেছে, এগুলোতে একেবারে অস্বীকার করার মতো কিছু নাই। ছেলে-মা একই বাড়িতে থাকবেন আর টাকা উত্তোলনের কথা উনি জানেন না, এটা অবিশ্বাস্য এবং নিম্ন আদালত এটা বিশ্বাস করেননি।

আপিলটা যদি দীর্ঘ সময় শুনানি হয়, সে ক্ষেত্রে তার জামিন বিচেনা করা যেতে পারে। আমরা বারবার বলছি আপিলটার শুনানি হোক। চার মাস সময় বেঁধে দিয়েছে হাইকোর্ট। আমি বলেছি প্রয়োজনে আরও সংক্ষিপ্ত সময় বেঁধে দেওয়া হোক আপিলের পেপারবুক তৈরি করার জন্য।


জনসভার অনুমতি পায়নি- বিএন‌পি

ভারতকে ১৬৭ রানের টার্গেট দিয়েছে টাইগাররা


এ বিভাগের আরো খবর...

জামায়াতের সঙ্গ ছাড়তে ড. কামালকে শিক্ষার্থীদের আহ্বান জামায়াতের সঙ্গ ছাড়তে ড. কামালকে শিক্ষার্থীদের আহ্বান
সাতক্ষীরা-৪ আসনের বিএনপি প্রার্থী গ্রেফতার! সাতক্ষীরা-৪ আসনের বিএনপি প্রার্থী গ্রেফতার!
বীর শহীদদের প্রতি রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা বীর শহীদদের প্রতি রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা
আজ গৌরবময় বিজয় দিবস আজ গৌরবময় বিজয় দিবস
ড. কামালের হামলাকারীদের গ্রেফতার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি ড. কামালের হামলাকারীদের গ্রেফতার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি
আমি পালিয়ে যাওয়ার মানুষ নই-কনকচাঁপা আমি পালিয়ে যাওয়ার মানুষ নই-কনকচাঁপা
কথা রাখেনি সরকার: ফখরুল কথা রাখেনি সরকার: ফখরুল
৬ কেজি স্বর্ণ জব্দ সিলেট ওসমানী বিমানবন্দরে ৬ কেজি স্বর্ণ জব্দ সিলেট ওসমানী বিমানবন্দরে
দুঃখ প্রকাশ করলেন ড. কামাল দুঃখ প্রকাশ করলেন ড. কামাল
ঐক্যফ্রন্ট সোমবার রাষ্ট্রপতির সাক্ষাৎ চেয়েছে ঐক্যফ্রন্ট সোমবার রাষ্ট্রপতির সাক্ষাৎ চেয়েছে

সর্বাধিক পঠিত

জামায়াতের সঙ্গ ছাড়তে ড. কামালকে শিক্ষার্থীদের আহ্বান জামায়াতের সঙ্গ ছাড়তে ড. কামালকে শিক্ষার্থীদের আহ্বান
সাতক্ষীরা-৪ আসনের বিএনপি প্রার্থী গ্রেফতার! সাতক্ষীরা-৪ আসনের বিএনপি প্রার্থী গ্রেফতার!
ঐক্যফ্রন্টের ইশতেহারে যে বিষয়গুলো অগ্রাধিকার পাচ্ছে ঐক্যফ্রন্টের ইশতেহারে যে বিষয়গুলো অগ্রাধিকার পাচ্ছে
ফখরুলের পোস্টার ছেঁড়াকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষ ফখরুলের পোস্টার ছেঁড়াকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষ
বিয়ের পিঁড়িতে বসতে চলেছেন পরিণীতি! বিয়ের পিঁড়িতে বসতে চলেছেন পরিণীতি!
শাহরুখের ক্যাপশন ক্যাটরিনা হট! শাহরুখের ক্যাপশন ক্যাটরিনা হট!
রণবীর বাবা হচ্ছেন কবে? রণবীর বাবা হচ্ছেন কবে?
একসঙ্গে দীপিকা ও রাজকুমার একসঙ্গে দীপিকা ও রাজকুমার
জীবনকৃতি সম্মাননায় ভূষিত হলেন আবুল খায়ের জীবনকৃতি সম্মাননায় ভূষিত হলেন আবুল খায়ের
আজকের খেলা সূচি আজকের খেলা সূচি
জলবায়ু পরিবর্তনে বিশ্বব্যাংক-আইএফসি ২২ বিলিয়ন ডলার দিবে
জলবায়ু পরিবর্তনের যুদ্ধে নারীর অংশগ্রহণ করতে হবে-প্যাট্রিসিয়া
বিএনপির দুটি আসনের পরিবর্তন
কলেজ শিক্ষক আলী হোসেন হত্যা দুইজনের ত্যুদণ্ড
নির্বাচনে সবার অংশগ্রহণ-গণতন্ত্রের জন্য ইতিবাচক
বহুল প্রত্যাশিত সংলাপে কি ছিল?
একটি অর্থবহ ও সফল সংলাপের প্রত্যাশা করছি
শেখ হাসিনা বার্ন ইন্সটিটিউটের: প্রত্যাশিত স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত হবে কি?
নদীশাসনের দুর্বলতা বিঘ্নিত হচ্ছে নৌপথে চলাচল
শিল্পে গ্যাস সংযোগ না দেওয়া, আর্থিক ক্ষতির মুখে-সরকার