ঢাকা, জানুয়ারী ২২, ২০১৯, ৯ মাঘ ১৪২৫
---
bbc24news.com
প্রথম পাতা » অর্থ–শেয়ারবাজার » চতুর্থ কার্যদিবসে ঊর্ধ্বমুখী প্রবণতায় ফিরেছে সূচক
বৃহস্পতিবার ● ২৬ এপ্রিল ২০১৮, ৯ মাঘ ১৪২৫
Email this News Print Friendly Version

চতুর্থ কার্যদিবসে ঊর্ধ্বমুখী প্রবণতায় ফিরেছে সূচক

চতুর্থ কার্যদিবসে ঊর্ধ্বমুখী প্রবণতায় ফিরেছে সূচকবিবিসি২৪নিউজ,নিজস্ব প্রতিেবদক:দেশের উভয় স্টক এক্সচেঞ্জের মূল্যসূচক দিনের শুরু থেকে ওঠানামার মধ্যে ছিল, সূচক সপ্তাহের চতুর্থ কার্যদিবসে ঊর্ধ্বমুখী প্রবণতায় ফিরেছে। অধিকাংশ সিকিউরিটিজের দরবৃদ্ধির পাশাপাশি দিন শেষে সবগুলো সূচকই ছিল ঊর্ধ্বমুখী।বাজার পর্যবেক্ষণে দেখা যায়, ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) ব্রড ইনডেক্স ডিএসইএক্স ২৪ দশমিক ৬৭ পয়েন্ট বা দশমিক ৪৩ শতাংশ বেড়ে দাঁড়ায় ৫ হাজার ৮০২ দশমিক শূন্য ৩ পয়েন্টে।

এদিকে ১ দশমিক ৯৯ পয়েন্ট বা দশমিক শূন্য ৯ শতাংশ বেড়ে ২ হাজার ১৬৬ দশমিক ৬৯ পয়েন্টে উঠেছে স্টক এক্সচেঞ্জটির ব্লু-চিপ সূচক ডিএস ৩০। আর ২ দশমিক ৬২ পয়েন্ট বা দশমিক ২ শতাংশ বেড়ে ১ হাজার ৩৪২ দশমিক ৫৩ পয়েন্টে অবস্থান করছে শরিয়াহ সূচক ডিএসইএস।

সারা দিনে ডিএসইতে ১২ কোটি ৪৩ লাখ ২ হাজার ৯১৯টি শেয়ার, করপোরেট বন্ড ও মিউচুয়াল ফান্ড ইউনিট হাতবদল হয়, যার বাজারদর ছিল ৪৮৫ কোটি ৭ লাখ ১৮ হাজার টাকা। আগের কার্যদিবসে তা ছিল ৪৯৫ কোটি ৩৫ লাখ ১৯ হাজার টাকা।

লেনদেনকৃত সিকিউরিটিজের মধ্যে দিন শেষে দাম বেড়েছে ১৫৬টির, কমেছে ১৩৪টির ও অপরিবর্তিত ছিল ৪৫টির বাজারদর।

দেশের আরেক শেয়ারবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) ব্রড ইনডেক্স সিএসসিএক্স ৪৮ দশমিক ৮৯ পয়েন্ট বেড়ে ১০ হাজার ৮১৬ দশমিক ৩৯ পয়েন্টে উন্নীত হয়।

সিএসইতে কেনাবেচা হয়েছে ৯৮ কোটি ২১ লাখ ৬০ হাজার ৪৭০ টাকার সিকিউরিটিজ, যা এর আগের কার্যদিবসে ছিল ৩২ কোটি ২ লাখ ৭১ হাজার ৪৪৬ টাকা। এদিন লেনদেনকৃত সিকিউরিটিজের মধ্যে দাম বেড়েছে ১০৯টির, কমেছে ৮৯টির ও অপরিবর্তিত ছিল ২৯টির বাজারদর।


ঘন ও লম্বা চুল করতে রসুনের জুড়ি মেলা ভার

এই মাসে প্রজ্ঞাপন জারি না হলে ফের আন্দোলন!


এ বিভাগের আরো খবর...

সিলেট সীমান্তে  বন্ধ কয়লা আমদানি সিলেট সীমান্তে বন্ধ কয়লা আমদানি
না ফেরার দেশে চলে গেলেন গীতিকার আহমেদ ইমতিয়াজ বুলবুল না ফেরার দেশে চলে গেলেন গীতিকার আহমেদ ইমতিয়াজ বুলবুল
হাসপাতাল পরিদর্শনে গিয়ে স্বাস্থ্য পরিদর্শক নিহত হাসপাতাল পরিদর্শনে গিয়ে স্বাস্থ্য পরিদর্শক নিহত
টিভি পর্দায় আজকের খেলা টিভি পর্দায় আজকের খেলা
অপু বিশ্বাস এমপি হতে মনোনয়নপত্র জমা দিলেন অপু বিশ্বাস এমপি হতে মনোনয়নপত্র জমা দিলেন
আজ পূর্ণ চন্দ্রগ্রহণ আজ পূর্ণ চন্দ্রগ্রহণ
রিজার্ভ চুরির ঘটনায় যুক্তরাষ্ট্রে এ মাসেই মামলা- অর্থমন্ত্রী রিজার্ভ চুরির ঘটনায় যুক্তরাষ্ট্রে এ মাসেই মামলা- অর্থমন্ত্রী
৩ মন্ত্রণালয়ে নতুন সচিব ৩ মন্ত্রণালয়ে নতুন সচিব
নাটোরে পৌর কাউন্সিলরকে কুপিয়ে হত্যা নাটোরে পৌর কাউন্সিলরকে কুপিয়ে হত্যা
আবারও ঢাকাই ছবিতে মুনমুন আবারও ঢাকাই ছবিতে মুনমুন

সর্বাধিক পঠিত

ওস্তাদের মার শেষ রাতেকিন্তু ‘ওস্তাদ’ হতে পারলেন না গেইল ওস্তাদের মার শেষ রাতেকিন্তু ‘ওস্তাদ’ হতে পারলেন না গেইল
কঙ্গনা ফুঁসে উঠলেন কঙ্গনা ফুঁসে উঠলেন
ব্র্যাড পিট-থেরন প্রেম করছেন ব্র্যাড পিট-থেরন প্রেম করছেন
শান্ত আজ হঠাৎ করেই একটু অশান্ত শান্ত আজ হঠাৎ করেই একটু অশান্ত
বাংলাদেশের কেউ নেই আইসিসির বর্ষসেরা টেস্ট দলে বাংলাদেশের কেউ নেই আইসিসির বর্ষসেরা টেস্ট দলে
বিএনপি জয়নুলের কাদায় আটকে পড়া গরুর গাড়ি: কাদের বিএনপি জয়নুলের কাদায় আটকে পড়া গরুর গাড়ি: কাদের
আইসিসিও মেনে নিচ্ছে কোহলির শ্রেষ্ঠত্ব আইসিসিও মেনে নিচ্ছে কোহলির শ্রেষ্ঠত্ব
অনৈতিকতার পথে হেঁটে কখনো ভালো ফল পাওয়া যায় না- শিক্ষামন্ত্রী অনৈতিকতার পথে হেঁটে কখনো ভালো ফল পাওয়া যায় না- শিক্ষামন্ত্রী
রাশিয়ার উপকূলে ২ জাহাজে আগুন, নিহত ১৪ রাশিয়ার উপকূলে ২ জাহাজে আগুন, নিহত ১৪
সিরাজগঞ্জে গৃহবধূ হত্যায় স্বামীসহ ৪ জনের মৃত্যুদণ্ড দিয়েছে- আদালত সিরাজগঞ্জে গৃহবধূ হত্যায় স্বামীসহ ৪ জনের মৃত্যুদণ্ড দিয়েছে- আদালত
দুর্নীতির বিরুদ্ধে প্রকৃত অর্থেই নিতে হবে জিরো টলারেন্স
বেআইনি ব্যাংকিং কার্যক্রমের বিরুদ্ধে বহুমুখী পদক্ষেপ নিন
খাদ্যে অতিরিক্ত ট্রান্সফ্যাটের কারণে, প্রতি বছর বিশ্বে পাঁচ লাখ মানুষের মৃত্যু হয়
স্বাধীনতার পর প্রথমবার ‘মন্ত্রীশূন্য’ কিশোরগঞ্জ
মন চুরির অভিযোগ পুলিশের কাছে!
সৈয়দ আশরাফ যে কবরে সমাহিত হবেন
ব্যবসায়ীদের বিনিয়োগের বাধা দূর করতে হবে?
মহাজোটের মহাজয়ে শেখ হাসিনা
বাংলাদেশে নির্বাচন-পরবর্তী সহিংসতা রোধ করুন!
নেইমারের সমালোচনায় পেলে