ঢাকা, মে ২৫, ২০১৮, ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫
---
---
bbc24news.com
প্রথম পাতা » প্রিয়দেশ » হাঁটু ব্যথা নিয়ে বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকদের মতামত?
মঙ্গলবার ● ৮ মে ২০১৮, ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫
Email this News Print Friendly Version

হাঁটু ব্যথা নিয়ে বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকদের মতামত?

---বিবিসি২৪নিউজ,স্বাস্থ্য ডেস্ক:হাঁটু ব্যথা হলে কি করবেণ আসুন জেনে নেই।প্রশ্ন: হাঁটু ব্যথা কেন হয়?

উত্তর: বিভিন্ন কারণে হাঁটু ব্যথা হতে পারে। তার মধ্যে বয়সজনিত কারণেও হাঁটু ব্যথা হয়ে থাকে। হাঁটুতে থাকে এক ধরনের তরল। বয়স হলে সেই তরল কমে যায়। সেই থেকেই ব্যথা অনুভব হওয়া শুরু। বয়স হলে মানুষের শরীরে ক্যালসিয়ামের অভাব হয়। ফলে হাড় দুর্বল হয়ে ব্যথা হতে পারে। অনেক সময় আবার রক্তে ইউরিক অ্যাসিডের পরিমাণ বেড়ে গেলেও হাঁটু ব্যথা শুরু হয়ে থাকে। বয়সজনিত কারণ ছাড়া চোট-আঘাত লেগেও ব্যথা হয় হাঁটুতে। চোট লাগলে অনেক সময় লিগামেন্ট ছিঁড়ে যায়। বহু রোগী সেই রোগের সঙ্গে সঙ্গে চিকিৎসা করান না। ফলে পরে হাঁটুর সমস্যায় ভুগতে হয় তাঁদের। এ ছাড়া স্পন্ডেলাইটিস থেকেও হাঁটু ব্যথা হতে পারে।

প্রশ্ন: হাঁটু ব্যথার রোগীর সংখ্যা কেমন?

উত্তর: মালদহে হাঁটু ব্যথার রোগীর সংখ্যা ক্রমশ বাড়ছে। মালদহ মেডিক্যাল কলেজের বহির্বিভাগে দৈনিক গড়ে হাজার তিনেক রোগী আসেন চিকিৎসার জন্য। তাঁদের মধ্যে প্রায় ৪৫ শতাংশ রোগীই আসেন হাঁটু ব্যথার সমস্যা নিয়ে। তার মধ্যে মহিলাদের সংখ্যাই বেশি। তবে বয়স্ক মহিলা বা পুরুষদের মধ্যেই শুধু হাঁটু ব্যথা সীমাবদ্ধ নয়। অল্প বয়সীদেরও এই অসুবিধা হতে পারে। অল্প বয়সীদের দুর্ঘটনা জনিত কারণে হাঁটুতে চোট আঘাত লাগতে পারে। আর হাঁটুতে ব্যথা হলে বেশিরভাগ ক্ষেত্রে তা সারতেও সময় নেয়।

প্রশ্ন: মহিলাদের মধ্যে বেশি হাঁটু ব্যথার কারণ কী?

উত্তর: হাঁটু ব্যথায় মহিলারাই আক্রান্ত হন বেশি। এর একাধিক কারণ রয়েছে। মহিলাদের ৪৫ বছর বয়সের পর ইস্ট্রোজেন হরমোন ক্ষরণ বন্ধ হয়ে যায়। ফলে মেয়েদের হাড়ে ক্যালসিয়ামের পরিমাণ কমে যায়। মেয়েদের মধ্যে যাঁরা বাড়িতে বসে কাজ করেন, তাঁদের তো বটেই, এমনকী যাঁরা মাঠে কাজ করেন, তাঁদেরও অনেক সময়ে হাঁটু মুড়ে কাজ করতে হয়। ফলে হাঁটুতে হাড়ের সংযোগস্থলে চাপ অনেকটাই বেড়ে যায়। দিনের পর দিন হাড়ের সংযোগস্থল অর্থাৎ হাঁটুতে চাপ পড়ায় তার ক্ষমতা কমে যায়। তার থেকেই মেয়েদের এখানে ব্যথার সৃষ্টি হয়। পুরুষদের তুলনায় মহিলারা বেশি সংখ্যায় হাঁটু ব্যথার সমস্যায় ভোগেন। তাই যতটা সম্ভব হাঁটু না মুড়ে যাতে কাজ করেন, সে দিকে খেয়াল রাখতে হবে মেয়েদেরই।

প্রশ্ন: কেন বাড়ছে হাঁটু ব্যথার রোগীর সংখ্যা?

উত্তর: মানুষ দিনকে দিন ঘরকুনো হয়ে পড়ছে। ঘরের মধ্যে কাজ করতেই বেশি স্বচ্ছন্দবোধ করছেন মানুষ। মহিলাদের পাশাপাশি পুরুষেরাও অনেক ক্ষেত্রে বাড়ি থেকে বিশেষ বার হতে চান না। সূর্যের আলো থেকে ভিটামিন-ডি পাওয়া যায়। অধিকাংশ সময়ে বাড়িতে থাকায় সেই ভিটামিন-ডি এর অভাব হচ্ছে। শুধু তাই নয়, আমরা ক্রমশ হাঁটতে ভুলে যাচ্ছি। বাড়ি থেকে ১০০ মিটার দূরে বাজার হলেও আমরা মোটরবাইক, সাইকেল বা টোটোয় করে যাচ্ছি। চলাফেরা কম করার ফলে আমাদের হাড় দুর্বল হয়ে যাচ্ছে। যার জন্য সামান্য চোট আঘাত লাগলেই হাড় ভেঙে যাচ্ছে বা ব্যথা দীর্ঘদিন ধরে থেকে যাচ্ছে। হাঁটু ব্যথার মতো সমস্যাকে আমরা অনেক সময় গুরুত্বই দিচ্ছি না। ব্যথা যখন হচ্ছে, সেই সময়ই ওষুধ খাচ্ছি। তার পরে সব ভুলে যাচ্ছি। আর তাই ফিরে আসছে ব্যথা।

প্রশ্ন: হাঁটু ব্যথা হলে কী করা উচিত?

উত্তর: এখন আমরা শরীরে কোথাও কোনও ব্যথা হলে সহ্য করতে পারি না। আমাদের সহ্য ক্ষমতা কমে গিয়েছে। তাই হাঁটু ব্যথা হলে আমরা পাড়া কিংবা বাড়ির আশে-পাশের ওষুধের দোকানে ছুটে যাই। ব্যথার ওষুধ খেয়ে সাময়িক ভাবে রোগ থেকে মুক্তি পাই। তবে তাতে আমাদের আরও ক্ষতি হচ্ছে। তাই হাঁটুর মতো গুরত্বপূর্ণ স্থানে ব্যথা অনুভব হলে চিকিৎসকের পরামর্শ মতো ওষুধ খেতে হবে। ব্যথার ওষুধ বেশি খেলে আবার কিডনির সমস্যা হতে পারে। এমনকী, হতে পারে আলসারও। তবে সব থেকে ভাল দাওয়াই হল ব্যায়াম। নিয়মিত ব্যায়াম করতে হবে। হাঁটুর ব্যথা হলে পা লম্বা করে একবার শক্ত এবং একবার ঢিল দিতে হবে। এমন করলে হাঁটুর হাড়ের শক্তি বেড়ে যায়।

প্রশ্ন: হাঁটু ব্যথা থেকে কি পুরোপুরি মুক্তি পাওয়া সম্ভব?

উত্তর: প্রথমেই বলেছি, দু’টি কারণে হাঁটু ব্যথা হয়ে থাকে। বয়স জনিত কারণে হাঁটু ব্যথা হলে সহজে দূর করা যায় না। তবে দুর্ঘটনাজনিত কারণে হলে তা কতটা মারাত্মক সেটা দেখে বলা যায় তা পুরোপুরি ঠিক হবে কিনা। তবে ঠিক হওয়ার সম্ভাবনা থাকে। এবং সেটা সম্ভব সঠিক চিকিৎসার মাধ্যমে। প্রয়োজনে নতুন করে হাঁটুর হাড় প্রতিস্থাপনও করা যায়। লিগামেন্ট ছিঁড়ে গেলে তা-ও মেরামত করা যায়। লিগামেন্টের সমস্যা হলে হাঁটার সময়ে সতর্ক থাকতে হবে। সেই রোগের চিকিৎসা মালদহ মেডিক্যাল কলেজেই করা সম্ভব। এ ছাড়া বয়স্কদের ব্যথাও নিয়ম মতো চিকিৎসকদের পরামর্শ নিলে সারানো সম্ভব। তবে একই সঙ্গে অবশ্য মানুষের জীবনযাত্রাতেও বদল আনতে হবে।


শেয়ারবাজারে সূচক ও লেনদেন কমেছে

গোয়েন্দা থেকে রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট হয়েছেন- ভ্লাদিমির পুতিন


এ বিভাগের আরো খবর...

মার্কিন সিনেটর পদে বিজয়ী বাংলাদেশি মোজাহিদুর মার্কিন সিনেটর পদে বিজয়ী বাংলাদেশি মোজাহিদুর
তানিয়াকে বিয়ের ঘোষণা দিলেন বাপ্পা মজুমদার! তানিয়াকে বিয়ের ঘোষণা দিলেন বাপ্পা মজুমদার!
অভিনেত্রী হয়ে সবার মনে জায়গা করে নিতে চান ! অভিনেত্রী হয়ে সবার মনে জায়গা করে নিতে চান !
জাজের ‘দহন’ সিনেমায় পূর্ণিমা! জাজের ‘দহন’ সিনেমায় পূর্ণিমা!
রুটিন মেনে চললেই সজীব থাকবে ত্বক! রুটিন মেনে চললেই সজীব থাকবে ত্বক!
বাবার কবরে সমাহিত করা হবে তাজিন আহমেদকে! বাবার কবরে সমাহিত করা হবে তাজিন আহমেদকে!
রাজশাহীতে সরকারি খাস সম্পত্তি নিয়ে বাণিজ্য! রাজশাহীতে সরকারি খাস সম্পত্তি নিয়ে বাণিজ্য!
অভিনেত্রী তাজিন আহমেদ আর নেই অভিনেত্রী তাজিন আহমেদ আর নেই
পদ্মা সেতু রেলসংযোগ প্রকল্পের ব্যয় বেড়েছে! পদ্মা সেতু রেলসংযোগ প্রকল্পের ব্যয় বেড়েছে!
খাবার তালিকা থেকে তেল-ঘি-মশলা বাদ রাখুন খাবার তালিকা থেকে তেল-ঘি-মশলা বাদ রাখুন

সর্বাধিক পঠিত

শীর্ষ বৈঠক পুনঃ বিবেচনার হুমকি দিয়েছে উ. কোরিয়া শীর্ষ বৈঠক পুনঃ বিবেচনার হুমকি দিয়েছে উ. কোরিয়া
শেখ হাসিনার প্রতি কৃতজ্ঞ প্রিয়াঙ্কা চোপড়া শেখ হাসিনার প্রতি কৃতজ্ঞ প্রিয়াঙ্কা চোপড়া
টেলিফোনে প্যালেস্টাইনের রাষ্ট্রপতির খোঁজ নিলেন- প্রধানমন্ত্রী টেলিফোনে প্যালেস্টাইনের রাষ্ট্রপতির খোঁজ নিলেন- প্রধানমন্ত্রী
উ. কোরিয়া পারমাণবিক পরীক্ষাকেন্দ্রের সুড়ঙ্গ ধ্বংস করল উ. কোরিয়া পারমাণবিক পরীক্ষাকেন্দ্রের সুড়ঙ্গ ধ্বংস করল
মালয়েশীয় যাত্রীবাহী বিমানে রুশ ক্ষেপণাস্ত্রের আঘাত! মালয়েশীয় যাত্রীবাহী বিমানে রুশ ক্ষেপণাস্ত্রের আঘাত!
জামালপুরে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে ৩ শ্রমিকের ‘মৃত্যু’ জামালপুরে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে ৩ শ্রমিকের ‘মৃত্যু’
সিরিয়ার সেনা অবস্থানে ফের মার্কিন হামলা! সিরিয়ার সেনা অবস্থানে ফের মার্কিন হামলা!
প্রধানমন্ত্রীর ভারত সফরে তিস্তা পানি নিয়ে এজেন্ডা নেই: রিজভী প্রধানমন্ত্রীর ভারত সফরে তিস্তা পানি নিয়ে এজেন্ডা নেই: রিজভী
পুঁজিবাজারে ঊর্ধ্বমুখী প্রবণতা! পুঁজিবাজারে ঊর্ধ্বমুখী প্রবণতা!
বিরাটের কাউন্টি খেলা অনিশ্চিত! বিরাটের কাউন্টি খেলা অনিশ্চিত!
‘মাদক ব্যবসার চেয়েও ক্রসফায়ার বড় অপরাধ?
অসহনীয় যানজট নিরসনে দ্রুত কার্যকর পদক্ষেপ নিন?
বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট মহাকাশযাত্রা বাংলাদেশের জন্য মাইলফলক
বন জলবায়ু আলোচনায় যে সিদ্ধান্ত হয়েছে
জলবায়ু পরিবর্তনে প্যারিস চুক্তির সাথে চারশো বড় কোম্পানি প্রতিশ্রুতিবদ্ধ হয়েছে
আবারও অশান্ত হয়ে উঠছে পাহাড়ি এলাকা?
কিম-মুনের ঐতিহাসিক বৈঠক-গোটা বিশ্বে এটি শান্তির পরিবেশ তৈরি করবে!
অবর্ণনীয় দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে রাজধানীবাসীকে
বিড়ি শিল্পে তামাকের ভয়াবহতা আর শিশুশ্রম বাড়ছে
প্লাস্টিক বিপর্যয়ের মুখে বাংলাদেশ, খাবারে ঢুকে পড়ছে প্লাস্টিক !