ঢাকা, অক্টোবর ২০, ২০১৮, ৫ কার্তিক ১৪২৫
---
bbc24news.com
প্রথম পাতা » আর্ন্তজাতিক » বায়তুল মুকাদ্দাসে মার্কিন দূতাবাস চালু: গাজায় নিহত ৬০
মঙ্গলবার ● ১৫ মে ২০১৮, ৫ কার্তিক ১৪২৫
Email this News Print Friendly Version

বায়তুল মুকাদ্দাসে মার্কিন দূতাবাস চালু: গাজায় নিহত ৬০

---বিবিসি২৪নিউজ,আন্তর্জাতিক ডেস্ক:পবিত্র বায়তুল মুকাদ্দাসে (জেরুজালেম) মার্কিন দূতাবাস উদ্বোধনের দিনে ইহুদিবাদি ইসরাইলি সেনাদের গুলিতে অন্তত ৫৮ ফিলিস্তিনি শহীদ এবং ২,৮০০ জন আহত হয়েছেন। ২০১৪ সালের গাজা যুদ্ধের পর একদিনে ফিলিস্তিনি হতাহতের এটিই সর্বোচ্চ সংখ্যা।আজ ইসরাইলের স্থানীয় সময় বিকাল চারটার দিকে বায়তুল মুকাদ্দাসে মার্কিন দূতাবাস উদ্বোধন করা হয়। সেখানে উপস্থিত ছিলেন মার্কিন প্রেসিডেন্টের মেয়ে ইভানকা ট্রাম্প ও ইভানকার স্বামী জেরার্ড কুশনার। কুশনার-ইভানকা দম্পতির পাশাপাশি যুক্তরাষ্ট্রের অর্থমন্ত্রী স্টিফেন মিউচিন ও উপ-পরাষ্ট্রমন্ত্রী জন সুলিভান অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।উদ্বোধনী ঘোষণায় ইসরাইলে নিযুক্ত মার্কিন রাষ্ট্রদূত ডেভিড ফ্রেইডম্যান বলেন, “আজ আমরা ইসরাইলের জেরুজালেমে আমেরিকার দূতাবাস খুলছি।অনুষ্ঠানে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প বক্তব্য রাখেন ভিডিও লিংকের মাধ্যমে। তিনি বলেন, “ইসরাইল একটি সার্বভৌম জাতি। তাদের নিজেদের রাজধানী নির্ধারণের অধিকার আছে। কিন্তু বহুদিন ধরে আমরা এই সুষ্পষ্ট বিষয়টিকে স্বীকৃতি দিতে পারিনি।” একটি দীর্ঘস্থায়ী ‘শান্তি প্রক্রিয়া’ ত্বরান্বিত করার জন্যও ট্রাম্প প্রতিশ্রুতিব্ধ বলে জানান।

এদিকে, ইসরাইলের প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু দূতাবাসের উদ্বোধনী বক্তব্যে ট্রাম্পকে তার প্রতিশ্রুতি রক্ষা করার জন্য ধন্যবাদ জানান এবং দিনটিকে ইসরাইলের জন্য ‘গৌরবোজ্জ্বল দিন’ বলে বর্ণনা করেন।

অন্যদিকে, দূতাবাস খোলার আগে থেকেই গাজা সীমান্তে বিক্ষোভ করেছে ফিলিস্তিনিরা। এসময় নিরস্ত্র বিক্ষোভকারীর উপর গাজার আকাশ থেকে ইসরাইলি ড্রোন হামলা হয়। কাটাতাঁরের বেড়ার ওপার থেকে ইসরাইলি সেনারা ছুঁড়তে থাকে গুলি। বিক্ষোভকারীদের দমন করতে ইসরাইলি সেনাদের ছোঁড়া টিয়ারশেল আকাশ থেকে পড়তে থাকে বৃষ্টির মতো। আর এ ঘটনায় হাজারো বিক্ষোভরত ফিলিস্তিনি গুলি আর টিয়ারশেলের আঘাতে হতাহতের শিকার হয়।

স্থানীয় সাংবাদিকরা বলছেন, গত কয়েক সপ্তাহের তুলনায় এদিনের বিক্ষোভে অনেক বেশি ফিলিস্তিনি অংশ নিয়েছে। এছাড়া পশ্চিম তীর, বেথেলহেমেও বিক্ষোভ করেছে হাজারো ফিলিস্তিনি। সংঘর্ষে নিহতদের মধ্যে ১৮ বছরের কম বয়সী ৬ শিশু এবং হুইলচেয়ারে চলাফেরা করা এক ব্যক্তিও আছেন। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়া ছবিতে হুইলচেয়ারে বসা এক ফিলিস্তিনিকে গুলতি দিয়ে পাথর ছুড়তে দেখা যায়।

নিজ মাতৃভূমিতে ফিরে যাওয়ার লক্ষ্যে গত ৩০ মার্চ থেকে ভূমি দিবস পালন করছেন ফিলিস্তিনিরা। তখন থেকে আজকের আগ পর্যন্ত ইসরাইলি সেনারা গুলি করে ৪৫ ফিলিস্তিনিকে হত্যা করেছে।


বিচ্ছেদের পরেও রাজকে মনে করেন তার প্রথম স্ত্রী!

আজও খালেদার জামিনের রায় হলো না ?


এ বিভাগের আরো খবর...

ক্ষমতায় আসলে ৭ দিনের মধ্যে ডিজিটাল আইন বাতিল- মওদুদ ক্ষমতায় আসলে ৭ দিনের মধ্যে ডিজিটাল আইন বাতিল- মওদুদ
নির্বাচন বানচালের চক্রান্ত বাদ দিয়ে নির্বাচনের আসুন- ইনু নির্বাচন বানচালের চক্রান্ত বাদ দিয়ে নির্বাচনের আসুন- ইনু
দেশবাসীর কাছে দোয়া চাইলেন আইয়ুব বাচ্চুর ছেলে দেশবাসীর কাছে দোয়া চাইলেন আইয়ুব বাচ্চুর ছেলে
সুষ্ঠু নির্বাচনের জন্য সংলাপের বিকল্প নেই- ফখরুল সুষ্ঠু নির্বাচনের জন্য সংলাপের বিকল্প নেই- ফখরুল
জিম্বাবুয়ে সিরিজকে বড় চ্যালেঞ্জ হিসাবে দেখছেন- মাশরাফি জিম্বাবুয়ে সিরিজকে বড় চ্যালেঞ্জ হিসাবে দেখছেন- মাশরাফি
মহেশখালী-কুতুবদিয়াকে সন্ত্রাসীমুক্ত করা হবে- স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী মহেশখালী-কুতুবদিয়াকে সন্ত্রাসীমুক্ত করা হবে- স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী
ঐক্যফ্রন্টের কোনো আদর্শ নেই, লক্ষ্য নেই- তোফায়েল ঐক্যফ্রন্টের কোনো আদর্শ নেই, লক্ষ্য নেই- তোফায়েল
ঐক্যফ্রন্ট ‌অশুভ শক্তির জোট- কাদের ঐক্যফ্রন্ট ‌অশুভ শক্তির জোট- কাদের
জাপার ১৮ দফা ইশতেহার জাপার ১৮ দফা ইশতেহার
মায়ের কবরের পাশে দাফন করা হবে মায়ের কবরের পাশে দাফন করা হবে

সর্বাধিক পঠিত

ক্ষমতায় আসলে ৭ দিনের মধ্যে ডিজিটাল আইন বাতিল- মওদুদ ক্ষমতায় আসলে ৭ দিনের মধ্যে ডিজিটাল আইন বাতিল- মওদুদ
ইউরোপে শতকরা ৫০ ভাগ লেখক আক্রমণের শিকার ইউরোপে শতকরা ৫০ ভাগ লেখক আক্রমণের শিকার
আমাদের কী দিয়ে গেলেন কিংবদন্তী আইয়ুব বাচ্চু? আমাদের কী দিয়ে গেলেন কিংবদন্তী আইয়ুব বাচ্চু?
নির্বাচন বানচালের চক্রান্ত বাদ দিয়ে নির্বাচনের আসুন- ইনু নির্বাচন বানচালের চক্রান্ত বাদ দিয়ে নির্বাচনের আসুন- ইনু
অমিতাভ বচ্চন ও আমির খানের ভাসমাল্লে ঝড় তুলেছে ইউটিউবে অমিতাভ বচ্চন ও আমির খানের ভাসমাল্লে ঝড় তুলেছে ইউটিউবে
আইয়ুব বাচ্চুকে শেষবারের মতো দেখতে মাদারবাড়িতে হাজার হাজার ভক্ত-অনুরাগী আইয়ুব বাচ্চুকে শেষবারের মতো দেখতে মাদারবাড়িতে হাজার হাজার ভক্ত-অনুরাগী
দেশবাসীর কাছে দোয়া চাইলেন আইয়ুব বাচ্চুর ছেলে দেশবাসীর কাছে দোয়া চাইলেন আইয়ুব বাচ্চুর ছেলে
ফ্র্যাঞ্চাইজিটি ছেড়ে দিতে পারে মোস্তাফিজকে ফ্র্যাঞ্চাইজিটি ছেড়ে দিতে পারে মোস্তাফিজকে
সুষ্ঠু নির্বাচনের জন্য সংলাপের বিকল্প নেই- ফখরুল সুষ্ঠু নির্বাচনের জন্য সংলাপের বিকল্প নেই- ফখরুল
জিম্বাবুয়ে সিরিজকে বড় চ্যালেঞ্জ হিসাবে দেখছেন- মাশরাফি জিম্বাবুয়ে সিরিজকে বড় চ্যালেঞ্জ হিসাবে দেখছেন- মাশরাফি
নদীশাসনের দুর্বলতা বিঘ্নিত হচ্ছে নৌপথে চলাচল
শিল্পে গ্যাস সংযোগ না দেওয়া, আর্থিক ক্ষতির মুখে-সরকার
গুদামের খাদ্যদ্রব্য পাচারে-সক্রিয় চোর সিন্ডিকেট
প্যারিস জলবায়ু চুক্তি ৩০০ পৃষ্ঠার খসড়া অনুমোদন করেছে-ব্যাংকক
সড়ক শৃঙ্খলা-মূল সমস্যাটা রাজনীতিতেই: কাদের
বিশ্বের ভয়াবহ আবহাওয়া নিয়ে প্রযুক্তিগত আলোচনা চলছে
রোহিঙ্গা প্রশ্নে চীন-রাশিয়াকে-জাতিসংঘের কড়া হুুশিয়ারি!
খালেদা জিয়ার জামিন বহাল
বিমসটেক শীর্ষ সম্মেলনে নেপালে প্রধানমন্ত্রী
আওয়ামী লীগের জন্য যা পেয়েছি তা ভয়ংকর!