ঢাকা, মে ২৩, ২০১৮, ৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫
---
---
bbc24news.com
প্রথম পাতা » অর্থ–শেয়ারবাজার » ১২ কোটি টাকার চা বিক্রি শ্রীমঙ্গলে প্রথম নিলামে!
মঙ্গলবার ● ১৫ মে ২০১৮, ৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫
Email this News Print Friendly Version

১২ কোটি টাকার চা বিক্রি শ্রীমঙ্গলে প্রথম নিলামে!

---বিবিসি২৪নিউজ,স্পোর্টস ডেস্ক:আঠারো শতকের মাঝামাঝি সময়ে সিলেটের মালনিছড়ায় বাগান প্রতিষ্ঠার মধ্য দিয়ে উপমহাদেশে চা উত্পাদনের সূচনা হয়। পরে পুরো অঞ্চলে চা শিল্পের বিকাশ ঘটেছে।বর্তমানে সিলেট অঞ্চলের ১৩৫টি বাগান থেকে বছরে প্রায় ছয় কোটি কেজি চা উত্পাদন হয়। দেশের সিংহভাগ চা উত্পাদন হলেও এতদিন পানীয় পণ্যটি বিক্রির ব্যবস্থা ছিল না এ অঞ্চলে। চট্টগ্রামের আন্তর্জাতিক নিলাম কেন্দ্রে নিয়ে গিয়ে বিক্রি করতে হতো সিলেটের চা। ফলে পরিবহন-সংক্রান্ত ঝামেলার পাশাপাশি দাম বেড়ে যেত পণ্যটির।

এ সমস্যা সমাধানে ‘চায়ের রাজধানী’ খ্যাত মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গলে দেশের দ্বিতীয় আন্তর্জাতিক নিলাম কেন্দ্র চালু করা হয়। গতকাল এ কেন্দ্রে অনুষ্ঠিত হয়েছে প্রথম আন্তর্জাতিক নিলাম। প্রথম নিলামে প্রায় ১২ কোটি টাকার চা বিক্রি হয়।

গতকাল ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে শ্রীমঙ্গলে দেশের দ্বিতীয় আন্তর্জাতিক নিলাম কেন্দ্রে চা বিক্রির সূচনা করেন বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ। উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ চা বোর্ডের চেয়ারম্যান মেজর জেনারেল মো. জাহাঙ্গীর আল মুস্তাহিদুর রহমান। নিলামে দেশের বাগানগুলো থেকে সব মিলিয়ে সাড়ে পাঁচ লাখ কেজি চা সরবরাহ হয়েছিল। সরবরাহ করা চায়ের পুরোটাই বিক্রি হয়েছে, যার বাজারমূল্য প্রায় ১২ কোটি টাকা।

নিলামে অংশ নেয়া ইউনাইটেড ব্রোকার্স হাউজের ব্যবস্থাপনা পরিচালক সাজ্জাদ রায়হান বণিক বার্তাকে বলেন, চট্টগ্রামের বাইরে আজই প্রথম চায়ের আন্তর্জাতিক নিলাম অনুষ্ঠিত হয়েছে। দেশের চা শিল্পের জন্য আজ একটি তাত্পর্যময় দিন। ডানকান ব্রাদার্সের পরিচালক মো. শাহ আলম বলেন, সিলেটে উত্পাদিত চা চট্টগ্রামে নিয়ে নিলামে তুললে বিভিন্ন সমস্যায় পড়তে হয়। এটা সময়সাপেক্ষ। এতে চায়ের মান কমে যায়। পরিবহন ব্যয় যুক্ত হয়ে পণ্যটির দাম বাড়ে।

শ্রীমঙ্গলে নিয়মিত নিলাম অনুষ্ঠিত হলে এসব সমস্যার সমাধান করা সম্ভব হবে। বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মো. আব্দুর রউফ বণিক বার্তাকে বলেন, দেশের দ্বিতীয় আন্তর্জাতিক চা নিলাম কেন্দ্রের নিয়মিত কার্যক্রম শুরুর মধ্য দিয়ে চা শিল্পে গতি আসবে। এর মাধ্যমে ক্রেতা ও চা ব্যবসায়ী— উভয়েই লাভবান হবেন। একই সঙ্গে জাতীয় অর্থনীতিতে ইতিবাচক ভূমিকা রাখবে এ নিলাম কেন্দ্র।

সিলেট অঞ্চলে দেশের দ্বিতীয় আন্তর্জাতিক চা নিলাম কেন্দ্র চালুর বিষয়ে দীর্ঘদিন ধরে দাবি জানিয়ে আসছিলেন স্থানীয় খাতসংশ্লিষ্টরা। তাদের দাবির মুখে ও প্রধানমন্ত্রীর প্রতিশ্রুতি মোতাবেক ২০১৭ সালের ৮ ডিসেম্বর শ্রীমঙ্গলে দেশের দ্বিতীয় আন্তর্জাতিক চা নিলাম কেন্দ্র আনুষ্ঠানিকভাবে উদ্বোধন করা হয়।

প্রাথমিকভাবে একটি ভাড়া করা ভবনে এ কেন্দ্রের কার্যক্রম শুরু হলেও পরে তা স্থায়ী ভবনে স্থানান্তরের পরিকল্পনা রয়েছে। তবে উদ্বোধন হলেও এতদিন এ কেন্দ্রে কোনো নিলাম অনুষ্ঠিত হয়নি। এ বিষয়ে টি ট্রেডার্স অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের (টিটিএবি) সহসভাপতি মো. ইউসুফ জানান, গত ডিসেম্বরে উদ্বোধনের পর চা বোর্ডের পক্ষ থেকে মৌলভীবাজারে পাঁচটি ব্রোকার হাউজের লাইসেন্স ইস্যু করা হয়েছে। শ্রীমঙ্গলে চা বিক্রির জন্য অনুমতিপ্রাপ্ত প্রতিষ্ঠানের তালিকায় রয়েছে জালালাবাদ টি ব্রোকার্স, এসটি ব্রোকার্স লিমিটেড, এসটিএলটি ব্রোকার্স লিমিটেড, গ্রেটার সিলেট টি ব্রোকার্স লিমিটেড ও শ্রীমঙ্গল টি ব্রোকার্স লিমিটেড। একই সঙ্গে চা মজুদের জন্য শ্রীমঙ্গলে তিনটি ওয়্যারহাউজ নির্মাণ করা হয়েছে।

পরবর্তীতে এখানে আন্তর্জাতিক নিলাম আয়োজনের জন্য আনুষ্ঠানিকভাবে দায়িত্ব পায় টি প্লান্টার্স অ্যান্ড ট্রেডার্স অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (টিপিটিএবি)। গত এপ্রিলে টি সেলস কো-অর্ডিনেশনের বৈঠক শেষে শ্রীমঙ্গলে প্রথম নিলাম (পরীক্ষামূলক) আয়োজনের জন্য ১৫ মে তারিখ ঘোষণা করা হয়। সেই সময় জানানো হয়, শ্রীমঙ্গলের চা নিলাম কেন্দ্রে পরপর তিনটি আন্তর্জাতিক নিলাম অনুষ্ঠিত হবে।

পরবর্তী দুটি আন্তর্জাতিক নিলাম অনুষ্ঠিত হবে যথাক্রমে ২৬ জুন ও ১৭ জুলাই। এ সময় চট্টগ্রামে চলতি মৌসুমের পূর্বনির্ধারিত আন্তর্জাতিক নিলাম অনুষ্ঠিত হবে না। তিনটি পরীক্ষামূলক নিলাম অনুষ্ঠানের পর পর্যালোচনা শেষে দেশের দ্বিতীয় আন্তর্জাতিক নিলাম কেন্দ্রের পরবর্তী কার্যক্রমবিষয়ক সিদ্ধান্ত নেয়া হবে বলে জানিয়েছে বাংলাদেশ চা বোর্ড।


সূচকের নিম্নমুখী প্রবণতায় শেষ হয়েছে লেনদেন!

বাজেটে শিক্ষা ও যোগাযোগে বেশি গুরুত্ব দেয়া উচিত!


এ বিভাগের আরো খবর...

অভিনেত্রী তাজিন আহমেদ আর নেই অভিনেত্রী তাজিন আহমেদ আর নেই
পদ্মা সেতু রেলসংযোগ প্রকল্পের ব্যয় বেড়েছে! পদ্মা সেতু রেলসংযোগ প্রকল্পের ব্যয় বেড়েছে!
সরকারি ব্যাংকের টাকাও ঋণ খেলাপি! সরকারি ব্যাংকের টাকাও ঋণ খেলাপি!
খাবার তালিকা থেকে তেল-ঘি-মশলা বাদ রাখুন খাবার তালিকা থেকে তেল-ঘি-মশলা বাদ রাখুন
মায়ের উপর অভিমান করে স্কুল ছাত্রীর আত্মহত্যা মায়ের উপর অভিমান করে স্কুল ছাত্রীর আত্মহত্যা
খালি হাতেই ফিরছেন ফিজ? খালি হাতেই ফিরছেন ফিজ?
নিজের অবস্থানের দিকে যাচ্ছে বঙ্গবন্ধু-১ স্যাটেলাইট নিজের অবস্থানের দিকে যাচ্ছে বঙ্গবন্ধু-১ স্যাটেলাইট
দরপতন অব্যাহত দেশের পুঁজিবাজারে দরপতন অব্যাহত দেশের পুঁজিবাজারে
যুবশক্তিকে কাজে লাগাতে খাদ্য ও কৃষি খাত বড় ভূমিকা রাখতে পারে! যুবশক্তিকে কাজে লাগাতে খাদ্য ও কৃষি খাত বড় ভূমিকা রাখতে পারে!
সয়াবিন উৎপাদনে শীর্ষ অবস্থানে উঠতে যাচ্ছে ব্রাজিল! সয়াবিন উৎপাদনে শীর্ষ অবস্থানে উঠতে যাচ্ছে ব্রাজিল!

সর্বাধিক পঠিত

চীন-উত্তর কোরীয় সীমান্তে কড়া নজরদারির আহবান ট্রাম্পের চীন-উত্তর কোরীয় সীমান্তে কড়া নজরদারির আহবান ট্রাম্পের
প্রাথমিকে ট্রাফিক আইন শিক্ষার তাগিদ প্রধানমন্ত্রীর প্রাথমিকে ট্রাফিক আইন শিক্ষার তাগিদ প্রধানমন্ত্রীর
ডিজিটালআইন নিয়ে উদ্বেগ দূর করার প্রতিশ্রুতি ডিজিটালআইন নিয়ে উদ্বেগ দূর করার প্রতিশ্রুতি
বিশেষ বিসিএসের লিখিত পরীক্ষা আগামী জুলাইয়ে বিশেষ বিসিএসের লিখিত পরীক্ষা আগামী জুলাইয়ে
অভিনেত্রী তাজিন আহমেদ আর নেই অভিনেত্রী তাজিন আহমেদ আর নেই
অর্থপাচারের অভিযোগে নাজিবকে জিজ্ঞাসাবাদ অর্থপাচারের অভিযোগে নাজিবকে জিজ্ঞাসাবাদ
দুই মামলায় খালেদার জামিন শুনানি আগামীকাল পর্যন্ত মুলতবি দুই মামলায় খালেদার জামিন শুনানি আগামীকাল পর্যন্ত মুলতবি
পদ্মা সেতু রেলসংযোগ প্রকল্পের ব্যয় বেড়েছে! পদ্মা সেতু রেলসংযোগ প্রকল্পের ব্যয় বেড়েছে!
সুহানার ১৮ তম জন্মদিনে শাহরুখ-গৌরির বিশেষ পরিকল্পনা! সুহানার ১৮ তম জন্মদিনে শাহরুখ-গৌরির বিশেষ পরিকল্পনা!
তদন্তেই প্রকৃত সত্য বের হবে- এ কে আজাদ তদন্তেই প্রকৃত সত্য বের হবে- এ কে আজাদ
অসহনীয় যানজট নিরসনে দ্রুত কার্যকর পদক্ষেপ নিন?
বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট মহাকাশযাত্রা বাংলাদেশের জন্য মাইলফলক
বন জলবায়ু আলোচনায় যে সিদ্ধান্ত হয়েছে
জলবায়ু পরিবর্তনে প্যারিস চুক্তির সাথে চারশো বড় কোম্পানি প্রতিশ্রুতিবদ্ধ হয়েছে
আবারও অশান্ত হয়ে উঠছে পাহাড়ি এলাকা?
কিম-মুনের ঐতিহাসিক বৈঠক-গোটা বিশ্বে এটি শান্তির পরিবেশ তৈরি করবে!
অবর্ণনীয় দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে রাজধানীবাসীকে
বিড়ি শিল্পে তামাকের ভয়াবহতা আর শিশুশ্রম বাড়ছে
প্লাস্টিক বিপর্যয়ের মুখে বাংলাদেশ, খাবারে ঢুকে পড়ছে প্লাস্টিক !
শিক্ষাকে কখনো পণ্য হিসেবে বিবেচনা করা উচিত নয়