ঢাকা, মে ২৫, ২০১৮, ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫
---
---
bbc24news.com
প্রথম পাতা » আর্ন্তজাতিক » মুক্তির পর রাজপ্রাসাদে মালয়েশিয়ার সাবেক উপ-প্রধানমন্ত্রী
বুধবার ● ১৬ মে ২০১৮, ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫
Email this News Print Friendly Version

মুক্তির পর রাজপ্রাসাদে মালয়েশিয়ার সাবেক উপ-প্রধানমন্ত্রী

---বিবিসি২৪নিউজ,আন্তর্জাতিক ডেস্ক:মুক্তি পাওয়া মালয়েশিয়ার সাবেক উপ-প্রধানমন্ত্রী আনোয়ার ইব্রাহিম। স্থানীয় সময় বেলা ১২টার দিকে তিনি হাসপাতাল (প্রিজন) থেকে বেরিয়ে আসেন।মুক্তির পর হাসপাতালের বাইরে অপেক্ষমাণ সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলে তিনি রাজপ্রাসাদে গেছেন। মালয়েশিয়ার রাজা ইয়াং ডি-পারতুয়ান আগং আগেই প্রধানমন্ত্রীর মাধ্যমে আনোয়ার ইব্রাহিমকে কারা মুক্তির পর সাক্ষাতের জন্য রাজপ্রাসাদে আমন্ত্রণ জানিয়েছিলেন।গতকাল জেল থেকে তার মুক্তি পাওয়ার কথা থাকলেও পরে তা স্থগিত করা হয়। স্থানীয় সময় আজ বেলা সাড়ে ১১টায় মুক্তির পর তিনি সরাসরি রাজপ্রাসাদের উদ্দেশে রওনা দেন। দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে রাজপ্রাসাদে রাজা ইয়াং ডি-পারতুয়ান আগং এর সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ করার কথা আগেই জানিয়েছেন উপ-প্রধানমন্ত্রী ও আনোয়ার ইব্রাহিমের স্ত্রী আজিজাহ ওয়ান ইসমাইল।

এর আগে রাজা ইয়াং ডি-পারতুয়ান আগং মঙ্গলবার তাকে সাধারণ ক্ষমা ঘোষণা করেন। এরপর এ বিষয়ে সরকারের সাধারণ ক্ষমা বিষয়ক বোর্ডের বৈঠক হওয়ার কথা ছিল মঙ্গলবারই। কিন্তু সেই বৈঠক স্থগিত করা হয় বুধবার সকাল পর্যন্ত। বুধবার সকালে বৈঠকে রাজা ঘোষিত সাধারণ ক্ষমা নিয়ে আলোচনার পর আনোয়ার মুক্তি পান। এরপরই জেল থেকে বেরিয়ে আসেন আনোয়ার ইব্রাহিম। তিনি ২০১৫ সাল থেকে জেলে রয়েছেন। এ বিষয়ে রাজা ইয়াং ডি-পারতুয়ান আগংয়ের অফিস থেকে একটি বিবৃতি দেয়া হয়েছে। তাতে বলা হয়েছে, আনোয়ার ইব্রাহিমের মুক্তির সব বিষয়ে সন্তুষ্ট তিনি।

এ বিষয়ে রাজপ্রাসাদের কর্মকর্তা আহমাদ দাহলান বলেছেন, ১৬ মে এ বিষয়টি চূড়ান্ত করার বিষয়ে যে অনুরোধ রাখা হয়েছে তাতে সম্মতি রয়েছে ইয়াং ডি-পারতুয়ান আগংয়ের। এ নিয়ে প্রধানমন্ত্রী মাহাথিরের সঙ্গে আলোচনা করেছেন উপ-প্রধানমন্ত্রী ও আনোয়ার ইব্রাহিমের স্ত্রী আজিজাহ ওয়ান ইসমাইল।

আনোয়ারের দল পার্টি কেদিলান রাকাইয়াত (পিকেআর) ও তার নিজের আইনজীবী আর সিবারাসা বলেছেন, পরিবারের পক্ষ থেকে আনোয়ার ইব্রাহিমের মুক্তি দাবি করে আবেদন জানানো হয়েছিল। বলা হয়েছিল, তিনি ভুল বিচারের শিকার হয়ে শাস্তি ভোগ করছেন। এ ছাড়া তার বর্তমান স্বাস্থ্যগত অবস্থার কথা তুলে ধরা হয়েছিল।

আনোয়ার ইব্রাহিম রাজধানী কুয়ালালামপুরে ছেরাস রিহ্যাবিলিটেশন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন। তার কাঁধে একটি অপারেশন হয়েছে। আস্তে আস্তে তিনি সুস্থ হয়ে উঠছেন।এর আগে আনোয়ার ইব্রাহিমের মেয়ে নুরুল ইজ্জাহকে উদ্ধৃত করে শনিবার জানিয়েছিল, আনোয়ার ইব্রাহিমকে মঙ্গলবারই মুক্তি দেয়া হবে। ওদিকে তিনি মুক্তি পেলেই কি মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী হবেন কিনা এমন গুঞ্জনও আছে।

তবে তার স্ত্রী ও উপ-প্রধানমন্ত্রী আজিজা বলেছেন, তাকে প্রধানমন্ত্রী করার জন্য কোনো তাড়াহুড়ো নেই। তিনি বর্তমান প্রধানমন্ত্রী মাহাথিরের ওপর আস্থাশীল।গত বুধবারের নির্বাচনে মাহাথিরের নেতৃত্বাধীন পাকাতান হারাপান জোট ২২২ আসনের পার্লামেন্টে ১১৩ আসনে বিজয়ী হয়। এর মধ্যে আনোয়ারের পিকেআর পায় ৪৮ আসন।

এখন মাহাথির প্রধানমন্ত্রিত্ব থেকে সরে দাঁড়ালে তিনিই হবেন মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী- জোট গড়ার আগে এমনই চুক্তি হয়েছে তাদের মধ্যে। কিন্তু এরই মধ্যে বলা হয়েছে, ক্ষমতার প্রথম দু’বছর দায়িত্বে থাকবেন মাহাথির।

এসময়ে সাধারণ ক্ষমার মাধ্যমে আনোয়ারকে তিনি মুক্তি দেবেন। একটি আসনে উপনির্বাচনে তাকে বিজয়ী করে আনবেন। তারপর তার হাতে ক্ষমতা তুলে দেবেন। আনোয়ার ইব্রাহিমের বয়স এখন ৭০ বছর। সমকামিতার অভিযোগে ২০১৫ সালে তাকে ৫ বছরের জেল দেয়া হয়।


বিএনপি আবোল-তাবোল বকছে: খালেক

শাকিবের অন্যতম সহযোগী সম্রাট!


এ বিভাগের আরো খবর...

শীর্ষ বৈঠক পুনঃ বিবেচনার হুমকি দিয়েছে উ. কোরিয়া শীর্ষ বৈঠক পুনঃ বিবেচনার হুমকি দিয়েছে উ. কোরিয়া
শেখ হাসিনার প্রতি কৃতজ্ঞ প্রিয়াঙ্কা চোপড়া শেখ হাসিনার প্রতি কৃতজ্ঞ প্রিয়াঙ্কা চোপড়া
টেলিফোনে প্যালেস্টাইনের রাষ্ট্রপতির খোঁজ নিলেন- প্রধানমন্ত্রী টেলিফোনে প্যালেস্টাইনের রাষ্ট্রপতির খোঁজ নিলেন- প্রধানমন্ত্রী
উ. কোরিয়া পারমাণবিক পরীক্ষাকেন্দ্রের সুড়ঙ্গ ধ্বংস করল উ. কোরিয়া পারমাণবিক পরীক্ষাকেন্দ্রের সুড়ঙ্গ ধ্বংস করল
মালয়েশীয় যাত্রীবাহী বিমানে রুশ ক্ষেপণাস্ত্রের আঘাত! মালয়েশীয় যাত্রীবাহী বিমানে রুশ ক্ষেপণাস্ত্রের আঘাত!
সিরিয়ার সেনা অবস্থানে ফের মার্কিন হামলা! সিরিয়ার সেনা অবস্থানে ফের মার্কিন হামলা!
প্রধানমন্ত্রীর ভারত সফরে তিস্তা পানি নিয়ে এজেন্ডা নেই: রিজভী প্রধানমন্ত্রীর ভারত সফরে তিস্তা পানি নিয়ে এজেন্ডা নেই: রিজভী
খাসজমি ভূমিহীন কৃষকদের দেয়ার নির্দেশ খাসজমি ভূমিহীন কৃষকদের দেয়ার নির্দেশ
খালেদার জামিনের আদেশ রোববার খালেদার জামিনের আদেশ রোববার
সিটি নির্বাচনে প্রচারণার সুযোগ পাচ্ছেন- এমপিরা সিটি নির্বাচনে প্রচারণার সুযোগ পাচ্ছেন- এমপিরা

সর্বাধিক পঠিত

শীর্ষ বৈঠক পুনঃ বিবেচনার হুমকি দিয়েছে উ. কোরিয়া শীর্ষ বৈঠক পুনঃ বিবেচনার হুমকি দিয়েছে উ. কোরিয়া
শেখ হাসিনার প্রতি কৃতজ্ঞ প্রিয়াঙ্কা চোপড়া শেখ হাসিনার প্রতি কৃতজ্ঞ প্রিয়াঙ্কা চোপড়া
টেলিফোনে প্যালেস্টাইনের রাষ্ট্রপতির খোঁজ নিলেন- প্রধানমন্ত্রী টেলিফোনে প্যালেস্টাইনের রাষ্ট্রপতির খোঁজ নিলেন- প্রধানমন্ত্রী
উ. কোরিয়া পারমাণবিক পরীক্ষাকেন্দ্রের সুড়ঙ্গ ধ্বংস করল উ. কোরিয়া পারমাণবিক পরীক্ষাকেন্দ্রের সুড়ঙ্গ ধ্বংস করল
মালয়েশীয় যাত্রীবাহী বিমানে রুশ ক্ষেপণাস্ত্রের আঘাত! মালয়েশীয় যাত্রীবাহী বিমানে রুশ ক্ষেপণাস্ত্রের আঘাত!
জামালপুরে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে ৩ শ্রমিকের ‘মৃত্যু’ জামালপুরে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে ৩ শ্রমিকের ‘মৃত্যু’
সিরিয়ার সেনা অবস্থানে ফের মার্কিন হামলা! সিরিয়ার সেনা অবস্থানে ফের মার্কিন হামলা!
প্রধানমন্ত্রীর ভারত সফরে তিস্তা পানি নিয়ে এজেন্ডা নেই: রিজভী প্রধানমন্ত্রীর ভারত সফরে তিস্তা পানি নিয়ে এজেন্ডা নেই: রিজভী
পুঁজিবাজারে ঊর্ধ্বমুখী প্রবণতা! পুঁজিবাজারে ঊর্ধ্বমুখী প্রবণতা!
বিরাটের কাউন্টি খেলা অনিশ্চিত! বিরাটের কাউন্টি খেলা অনিশ্চিত!
‘মাদক ব্যবসার চেয়েও ক্রসফায়ার বড় অপরাধ?
অসহনীয় যানজট নিরসনে দ্রুত কার্যকর পদক্ষেপ নিন?
বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট মহাকাশযাত্রা বাংলাদেশের জন্য মাইলফলক
বন জলবায়ু আলোচনায় যে সিদ্ধান্ত হয়েছে
জলবায়ু পরিবর্তনে প্যারিস চুক্তির সাথে চারশো বড় কোম্পানি প্রতিশ্রুতিবদ্ধ হয়েছে
আবারও অশান্ত হয়ে উঠছে পাহাড়ি এলাকা?
কিম-মুনের ঐতিহাসিক বৈঠক-গোটা বিশ্বে এটি শান্তির পরিবেশ তৈরি করবে!
অবর্ণনীয় দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে রাজধানীবাসীকে
বিড়ি শিল্পে তামাকের ভয়াবহতা আর শিশুশ্রম বাড়ছে
প্লাস্টিক বিপর্যয়ের মুখে বাংলাদেশ, খাবারে ঢুকে পড়ছে প্লাস্টিক !