ঢাকা, আগস্ট ১৬, ২০১৮, ১ ভাদ্র ১৪২৫
---
bbc24news.com
প্রথম পাতা » অর্থ–শেয়ারবাজার » সস্তায় কয়লা বিক্রির চেষ্টায় উত্তর কোরিয়া
বৃহস্পতিবার ● ১৭ মে ২০১৮, ১ ভাদ্র ১৪২৫
Email this News Print Friendly Version

সস্তায় কয়লা বিক্রির চেষ্টায় উত্তর কোরিয়া

---বিবিসি২৪নিউজ,অর্থনীতি ডেস্ক:আন্তর্জাতিক রাজনীতির মঞ্চে বর্তমানে বহুল উচ্চারিত নাম উত্তর কোরিয়া। নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করে পারমাণবিক কর্মসূচি ও ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা চালিয়ে যাওয়ায় বহুমুখী চাপে রয়েছে দেশটি। এ-সংক্রান্ত আন্তর্জাতিক নিষেধাজ্ঞায় উত্তর কোরিয়া থেকে কয়লা রফতানি বন্ধ হয়ে গেছে। প্রধান রফতানি পণ্য কয়লার ওপর বিদ্যমান নিষেধাজ্ঞা বাড়তি চাপ তৈরি করেছে উত্তরের অর্থনীতিতে। সম্প্রতি দক্ষিণ কোরিয়া ও যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে পিয়ংইয়ংয়ের বরফ গলতে শুরু করেছে। আগামী ১২ জুন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সঙ্গে সিঙ্গাপুরে বৈঠকে বসতে যাচ্ছেন উত্তর কোরিয়ার সর্বোচ্চ নেতা কিম জং-উন। বৈঠক কেন্দ্র করে উত্তর কোরিয়ার বিরুদ্ধে আরোপিত নিষেধাজ্ঞা আংশিক কিংবা পুরোটা প্রত্যাহারের জোরালো সম্ভাবনা তৈরি হয়েছে। এ সম্ভাবনা সামনে রেখে আন্তর্জাতিক মূল্যের তুলনায় অনেক কম দামে কয়লা বিক্রির চেষ্টা করছেন উত্তরের রফতানিকারকরা। মূলত কয়লা রফতানির অর্থে চাপে থাকা অর্থনীতি পুনরুদ্ধারের চেষ্টা করবে দেশটি— এমনটাই মনে করছেন বিশ্লেষকরা।উত্তর কোরিয়ার প্রধান বাণিজ্য অংশীদার চীন। ২০১৬ সালে চীনে মোট ২ কোটি ২৫ লাখ টন কয়লা রফতানি করেছিল পিয়ংইয়ং। এ বাবদ দেশটি ২০০ কোটি ডলারের বেশি আয় করেছিল। তবে জাতিসংঘের নিষেধাজ্ঞার মুখে গত অক্টোবর থেকে উত্তর কোরিয়ার কয়লা আমদানি বন্ধ রেখেছে বেইজিং। এটা পিয়ংইয়ংয়ের অর্থনীতির জন্য বড় একটি ধাক্কা হিসেবে বিবেচনা করেছিলেন বিশেষজ্ঞরা। বর্তমানে এ ধাক্কা কাটিয়ে উঠতে আগ্রহী দেশটি। ট্রাম্পের সঙ্গে আসন্ন বৈঠকের আগেই বেইজিং সফর করেন কিম জং-উন। কিমের সফরকালে চীনের বাজারে কয়লা রফতানি নতুন করে শুরু করতে উদ্যোগী হয়েছেন উত্তরের রফতানিকারকরা। চীনের উত্তরাঞ্চলের একজন কয়লা ব্যবসায়ী রয়টার্সকে বলেন, ‘কিম জং-উনের সফরের সময়ই আমরা উত্তর কোরিয়ার রফতানিকারকদের কাছ থেকে কম দামে কয়লা বিক্রির প্রস্তাব পেয়েছি। তারা মাত্র ৩০-৪০ ডলারে প্রতি টন কয়লা বিক্রি করতে আগ্রহী বলে জানিয়েছেন। চীনে উত্তোলন হওয়া কয়লার তুলনায় এ দাম প্রায় এক-তৃতীয়াংশ কম। তাই এটা বেশ লাভজনক প্রস্তাব। এ বিষয়ে আমরা সরকারি (চীন সরকার) অনুমোদনের অপেক্ষায় রয়েছি।’

একই অঞ্চলের অন্য দুই চীনা ব্যবসায়ীও উত্তর কোরিয়ার কাছ থেকে ছাড়কৃত মূল্যে (ডিসকাউন্ট) কয়লা কেনার প্রস্তাব পাওয়ার কথা রয়টার্সকে জানিয়েছেন। তারা জানান, ট্রাম্প-কিম বৈঠক কেন্দ্র করে বিদ্যমান নিষেধাজ্ঞা উঠে যাওয়ার জোরালো সম্ভাবনা দেখছেন উত্তর কোরিয়ার রফতানিকারকরা। এজন্য সীমান্তের ওপারে তারা কয়লার মজুদ বাড়াচ্ছেন। নিষেধাজ্ঞা উঠলেই তুলনামূলক কম দামে এসব কয়লা রফতানি করা হবে।

চায়না সাবলাইম ইনফরমেশন গ্রুপের এক নোটে বলা হয়, চীনা ইস্পাত কারখানাগুলো বর্তমানে শাংসি প্রদেশ থেকে প্রতি টন কয়লা ১৬০-১৭২ ডলারে কিনছে। এমন পরিস্থিতিতে টনপ্রতি ৩০-৪০ ডলারে কয়লাপ্রাপ্তি এসব কারখানার জন্য বেশ লাভজনক হবে। তবে এক্ষেত্রে মূল বাধা আন্তর্জাতিক নিষেধাজ্ঞা। তাই বিদ্যমান নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহারের জন্য অপেক্ষা করছেন দুপক্ষের ব্যবসায়ীরা। এ বিষয়ে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক চীনা আমদানিকারক বলেন, ‘এর আগে উত্তর কোরিয়া থেকে আসা পণ্যবাহী জাহাজ জব্দের ঘটনা ঘটেছে। এ কারণে দাম অনেক কম থাকা সত্ত্বেও আমরা দেশটি থেকে কয়লা আমদানি করতে পারছি না।’

ক্যালির্ফোনিয়ার জেমস মার্টিন সেন্টার ফর নন-প্রোলিফারেশন স্টাডিজের গবেষণা সহকারী ক্যাথেরিন ডিল বলেন, আন্তর্জাতিক নিষেধাজ্ঞার ফলে অর্থনীতির ওপর তৈরি হওয়া বাড়তি চাপ থেকে বেরিয়ে আসতে চাইছে উত্তর কোরিয়া। এক্ষেত্রে কয়লা রফতানি বাড়ানো ছাড়া দেশটির সামনে আর কোনো বিকল্প নেই। এ কারণে নিষেধাজ্ঞা ওঠার পর পুরনো বাজারে ছাড়কৃত মূল্যে কয়লা বিক্রির জন্য তোড়জোর শুরু করেছেন দেশটির রফতানিকারকরা। চীনা আমদানিকারকদের সঙ্গে তারা যোগাযোগ স্থাপন করেছেন। দুপক্ষের কথাবার্তাও হয়েছে। এখন শুধু নিষেধাজ্ঞা উঠে যাওয়ার অপেক্ষা। এ কারণে আগামী ১২ জুন ট্রাম্প-কিম বৈঠকের দিকে সবার দৃষ্টি নিবন্ধিত। বৈঠক থেকে ভালো কোনো সিদ্ধান্তের অপেক্ষায় রয়েছেন দুপক্ষের খাতসংশ্লিষ্টরা।


নিম্নমুখী সূচকে লেনদেন বেড়েছে!

সেবা খাতে রফতানি আয় বেড়েছে ২০ দশমিক ৫৩ শতাংশ!


এ বিভাগের আরো খবর...

বাংলাদেশে বাণিজ্য ঘাটতি ৯০ শতাংশ বাংলাদেশে বাণিজ্য ঘাটতি ৯০ শতাংশ
যেকোনও সময় সাইবার হামলার ঝুকিঁতে ব্যাংক গুলো- কেন্দ্রীয় ব্যাংক যেকোনও সময় সাইবার হামলার ঝুকিঁতে ব্যাংক গুলো- কেন্দ্রীয় ব্যাংক
বাজারে পেঁয়াজের দাম স্থিতিশীল রয়েছে- সাঈদ খোকন বাজারে পেঁয়াজের দাম স্থিতিশীল রয়েছে- সাঈদ খোকন
জনতা ব্যাংকের নিয়োগ পরীক্ষা বাতিল! জনতা ব্যাংকের নিয়োগ পরীক্ষা বাতিল!
শেষ কার্যদিবস পুঁজিবাজারে বড় উত্থান শেষ কার্যদিবস পুঁজিবাজারে বড় উত্থান
১০০ বাস-৫০০ ট্রাক সংগ্রহে বিআরটিসি’র সঙ্গে টাটার চুক্তি ১০০ বাস-৫০০ ট্রাক সংগ্রহে বিআরটিসি’র সঙ্গে টাটার চুক্তি
বন্দরে এলো ৩টি গ্যান্ট্রি ক্রেন বন্দরে এলো ৩টি গ্যান্ট্রি ক্রেন
অর্থবছরের শুরুতে রপ্তানি আয়ে বেড়েছে অর্থবছরের শুরুতে রপ্তানি আয়ে বেড়েছে
নিষিদ্ধ সময়ে শেয়ার লেনদেন, ৭ জনের জরিমানা! নিষিদ্ধ সময়ে শেয়ার লেনদেন, ৭ জনের জরিমানা!
ঈদের আগেই পেঁয়াজের মাসে দাম বেড়ে দ্বিগুণ ঈদের আগেই পেঁয়াজের মাসে দাম বেড়ে দ্বিগুণ

সর্বাধিক পঠিত

ভারতে মৌসুমী বৃষ্টিতে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৯০০ ভারতে মৌসুমী বৃষ্টিতে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৯০০
বাণিজ্য বিরোধে আলোচনায় বসবে: চীন-যুক্তরাষ্ট্র বাণিজ্য বিরোধে আলোচনায় বসবে: চীন-যুক্তরাষ্ট্র
বিএনপি কোনো প্রহসনের নির্বাচনে যাবে না- নজরুল বিএনপি কোনো প্রহসনের নির্বাচনে যাবে না- নজরুল
ঘুষের টাকাসহ এলজিইডির প্রকৌশলী গ্রেফতার! ঘুষের টাকাসহ এলজিইডির প্রকৌশলী গ্রেফতার!
বার্নিকাটের উপর হামলার ঘটনায় ব্যবস্থা নেবে- পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বার্নিকাটের উপর হামলার ঘটনায় ব্যবস্থা নেবে- পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়
বঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ডের ষড়যন্ত্রে খালেদা জিয়াও জড়িত- প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ডের ষড়যন্ত্রে খালেদা জিয়াও জড়িত- প্রধানমন্ত্রী
দীপিকা-রনভীরের বিয়েতে মোবাইল নিষিদ্ধ দীপিকা-রনভীরের বিয়েতে মোবাইল নিষিদ্ধ
ভারতের সাবেক প্রধানমন্ত্রী বাজপেয়ীর আর নেই ভারতের সাবেক প্রধানমন্ত্রী বাজপেয়ীর আর নেই
আমীর খসরুকে দুদকে তলব? আমীর খসরুকে দুদকে তলব?
ইরানের পাশে ইউরোপ, কোনঠাসা আমেরিকা ইরানের পাশে ইউরোপ, কোনঠাসা আমেরিকা
বিশ্বের বসবাসের জন্য অযোগ্য শহর ঢাকা কেন?
অবশেষে খুঁজে পাওয়া গেল এলিয়েন?
তৃতীয় লিঙ্গদের আইনি স্বীকৃতি দিল-জার্মান
রাশেদ চৌধুরীকে ফেরত দিতে পারে-ট্রাম্প প্রশাসন
খেলাপি ঋণের বৃত্তে ব্যাংকিং খাত
বাংলাদেশের টিভি চ্যানেলগুলোতে বিদেশি ছবির হিড়িক
জার্মানের নদীতে ভেসে উঠছে দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের অস্ত্র-শস্ত্র
জলবায়ু পরিবর্তনে-নিউ ইয়র্ক ও সিডনির কোন দ্বীপে বসতি থাকবে না
পরীক্ষার খাতায় ‘উই ওয়ান্ট জাস্টিস’ লিখলেন শিক্ষার্থীরা!
শিক্ষার্থীদের আন্দোলনে ফায়দা লুঠতে ব্যস্ত কারা!