ঢাকা, জুন ২২, ২০১৮, ৭ আষাঢ় ১৪২৫
---
---
bbc24news.com
প্রথম পাতা » পরিবেশ ও জলবায়ু » বিপজ্জনক রূপ নিয়েছে মনু এবং ধলাই নদীর পানি
বুধবার ● ১৩ জুন ২০১৮, ৭ আষাঢ় ১৪২৫
Email this News Print Friendly Version

বিপজ্জনক রূপ নিয়েছে মনু এবং ধলাই নদীর পানি

---বিবিসি২৪নিউজ,শাহাদাত হোসেন:ভারত থেকে নেমে আসা উজানের পানিতে দ্রুত বাড়ছে মৌলভীবাজারের মনু এবং ধলাই নদীর পানি। নদীর প্রতিরক্ষা বাধ ভেঙে প্লাবিত হয়েছে আউশ ফসল ও সবজি ক্ষেতসহ ৫ ইউনিয়নের অন্তত ৩০টি গ্রাম। পানিবন্দি হয়ে পড়েছে হাজারো মানুষ।পানি উন্নয়ন বোর্ডের তথ্যমতে, মনু নদীর পানি বিপদসীমার ১৭৫ সেন্টিমিটার এবং ধলাই নদীর পানি ৫২ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। বিপজ্জনক অবস্থায় রয়েছে প্রতিরক্ষা বাঁধের অন্তত ২০টি এলাকা।সরজমিনে ঘুরে দেখা যায়, ধলাইনদীর কমলগঞ্জ উপজেলার লক্ষ্মীপুর, সানন্দপুর, কেওয়ালীঘাট, ঘোড়ামারা এবং বাদেওবাহাটা নামক ৫টি স্থানে প্রতিরক্ষা বাঁধ ভেঙে প্লাবিত হয়েছে ৩টি ইউনিয়ন। আকস্মিক বন্যায় ঈদের আগে চরম দুর্ভোগে পড়েছেন কমলগঞ্জ উপজেলার আদমপুর, মুন্সিগঞ্জ ও রহিমপুর ইউনিয়নের ২০ গ্রামের মানুষ।

মুন্সিবাজার ইউনিয়নের করিমপুর গ্রামের কৃষক আকবর মিয়া জানান, তার প্রায় ৫ একর আউস ফসল ডুবে গেছে।এদিকে জেলার কুলাউড়া উপজেলার শরিফপুর ও টিলাগাও ইউনিয়নে মনু নদীর ভাঙনে প্লাবিত হয়েছে টিলাগাও, বাগাজুরা,তেলগাও চাতলাপুরসহ ৫টি গ্রাম।

কুলাউড়ার হাজীপুরের ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল বাছিত বাচ্চু জানান, মনু নদী বিপজ্জনক রূপ নিয়েছে। লাগাতার ভারী বর্ষণ ও পাহাড়ি ঢলের কারণে নদীর পানি বাড়ছে। মাতাবপুর, মাদানগর, চক রণচাপ, হাসিমপুর, বাড়ইগাও ও মন্দিরাসহ ৬/৭ টি এলাকায় নদীর প্রতিরক্ষা বাঁধ ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে পড়েছে।চকরনচাপ বাড়ইগাও ও মাদানগরে এলাকাবাসী বাঁধ রক্ষায় প্রাণপণ চেষ্টা চালাচ্ছে। এছাড়া সাধনপুর, কাউকাপন, বাশউরী ও নোয়াগাও এলাকার নদীতীরবর্তী পরিবারগুলোর ঘরবাড়িতে পানি ওঠায় তারা নিরাপদ আশ্রয়ে চলে গেছেন।

জেলা পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী রনেন্দ্র শংকর চক্রবর্তী  জানান, বিপদসীমার ওপর দিয়ে মনু এবং ধলাই নদীর পানি প্রবাহিত হচ্ছে।


অবকাঠামো উন্নয়নে বিনিয়োগের তাগিদ আইএমএফের

ভারতের উত্তরপ্রদেশে সড়ক দুর্ঘটনায় ১৭ আহত ১২


এ বিভাগের আরো খবর...

কয়েকটি ইস্পাত পণ্যের জন্য শুল্ক ছাড় দেবে- যুক্তরাষ্ট্র কয়েকটি ইস্পাত পণ্যের জন্য শুল্ক ছাড় দেবে- যুক্তরাষ্ট্র
আগামী সপ্তাহে যুক্তরাষ্ট্র ও দক্ষিণ কোরিয়ার প্রতিরক্ষামন্ত্রীদের বৈঠক আগামী সপ্তাহে যুক্তরাষ্ট্র ও দক্ষিণ কোরিয়ার প্রতিরক্ষামন্ত্রীদের বৈঠক
আইসিআরসি প্রেসিডেন্ট বাংলাদেশ সফরে আসছেন আইসিআরসি প্রেসিডেন্ট বাংলাদেশ সফরে আসছেন
২০০ মার্কিন সেনার দেহাবশেষ ফেরত দিয়েছে- উ. কোরিয়া ২০০ মার্কিন সেনার দেহাবশেষ ফেরত দিয়েছে- উ. কোরিয়া
ক্ষেপনাস্ত্র আক্রমণ থেকে রক্ষার মহড়া বাতিল করেছে- জাপান ক্ষেপনাস্ত্র আক্রমণ থেকে রক্ষার মহড়া বাতিল করেছে- জাপান
বিএনপির মেয়র পদে সাক্ষাৎকার শুরু বিএনপির মেয়র পদে সাক্ষাৎকার শুরু
দুর্যোগ মোকাবেলায় বিশ্বব্যাংকের ঋণ ১৬০০ মিলিয়ন ডলার- অর্থমন্ত্রী দুর্যোগ মোকাবেলায় বিশ্বব্যাংকের ঋণ ১৬০০ মিলিয়ন ডলার- অর্থমন্ত্রী
গুছিয়ে মিথ্যা বলার গুণ আছে মওদুদের- হাছান মাহমুদ গুছিয়ে মিথ্যা বলার গুণ আছে মওদুদের- হাছান মাহমুদ
প্রতিষ্ঠানকে কম সুদে ঋণ না দিলে সুবিধা পাবে না ব্যাংক- এনবিআর প্রতিষ্ঠানকে কম সুদে ঋণ না দিলে সুবিধা পাবে না ব্যাংক- এনবিআর
আগামী ডিসেম্বরের মধ্যে শতভাগ বিদ্যুতায়ন- নসরুল হামিদ আগামী ডিসেম্বরের মধ্যে শতভাগ বিদ্যুতায়ন- নসরুল হামিদ

সর্বাধিক পঠিত

কয়েকটি ইস্পাত পণ্যের জন্য শুল্ক ছাড় দেবে- যুক্তরাষ্ট্র কয়েকটি ইস্পাত পণ্যের জন্য শুল্ক ছাড় দেবে- যুক্তরাষ্ট্র
আগামী সপ্তাহে যুক্তরাষ্ট্র ও দক্ষিণ কোরিয়ার প্রতিরক্ষামন্ত্রীদের বৈঠক আগামী সপ্তাহে যুক্তরাষ্ট্র ও দক্ষিণ কোরিয়ার প্রতিরক্ষামন্ত্রীদের বৈঠক
আইসিআরসি প্রেসিডেন্ট বাংলাদেশ সফরে আসছেন আইসিআরসি প্রেসিডেন্ট বাংলাদেশ সফরে আসছেন
ডেনমার্ক অস্ট্রেলিয়ার ম্যাচ ড্র ডেনমার্ক অস্ট্রেলিয়ার ম্যাচ ড্র
২০০ মার্কিন সেনার দেহাবশেষ ফেরত দিয়েছে- উ. কোরিয়া ২০০ মার্কিন সেনার দেহাবশেষ ফেরত দিয়েছে- উ. কোরিয়া
ক্ষেপনাস্ত্র আক্রমণ থেকে রক্ষার মহড়া বাতিল করেছে- জাপান ক্ষেপনাস্ত্র আক্রমণ থেকে রক্ষার মহড়া বাতিল করেছে- জাপান
বিএনপির মেয়র পদে সাক্ষাৎকার শুরু বিএনপির মেয়র পদে সাক্ষাৎকার শুরু
দুর্যোগ মোকাবেলায় বিশ্বব্যাংকের ঋণ ১৬০০ মিলিয়ন ডলার- অর্থমন্ত্রী দুর্যোগ মোকাবেলায় বিশ্বব্যাংকের ঋণ ১৬০০ মিলিয়ন ডলার- অর্থমন্ত্রী
বিটিভির জনপ্রিয়তা বেড়েছে বিটিভির জনপ্রিয়তা বেড়েছে
গুছিয়ে মিথ্যা বলার গুণ আছে মওদুদের- হাছান মাহমুদ গুছিয়ে মিথ্যা বলার গুণ আছে মওদুদের- হাছান মাহমুদ
প্রধানমন্ত্রীর বিমানে ত্রুটির মামলার প্রকৌশলীদের জামিন মঞ্জুর
কাঙ্খিত ফল পেতে হলে,ভেজালবিরোধী অভিযান চালু রাখতে হবে?
মাদকযুদ্ধে কেন হারবে বাংলাদেশ?
টাঙ্গাইল-বঙ্গবন্ধু সেতু মহাসড়কের দুই ট্রাকের সংঘর্ষে নিহত ৩
ঈদযাত্রা নির্বিঘ্নে মহাসড়কে পদক্ষেপ নিন
হাইকোর্টে ১৮ অতিরিক্ত বিচারক নিয়োগ
বাংলাদেশে দু’কোটি মানুষ আর্সেনিকের ঝুঁকিতে?
প্রধানমন্ত্রীকে ২০৪১সাল পর্যন্ত ভারতের পূর্ণ সমর্থনের কারন কি?
‘মাদক ব্যবসার চেয়েও ক্রসফায়ার বড় অপরাধ?
অসহনীয় যানজট নিরসনে দ্রুত কার্যকর পদক্ষেপ নিন?