ঢাকা, অক্টোবর ২২, ২০১৮, ৭ কার্তিক ১৪২৫
---
bbc24news.com
প্রথম পাতা » পরিবেশ ও জলবায়ু » বিপজ্জনক রূপ নিয়েছে মনু এবং ধলাই নদীর পানি
বুধবার ● ১৩ জুন ২০১৮, ৭ কার্তিক ১৪২৫
Email this News Print Friendly Version

বিপজ্জনক রূপ নিয়েছে মনু এবং ধলাই নদীর পানি

---বিবিসি২৪নিউজ,শাহাদাত হোসেন:ভারত থেকে নেমে আসা উজানের পানিতে দ্রুত বাড়ছে মৌলভীবাজারের মনু এবং ধলাই নদীর পানি। নদীর প্রতিরক্ষা বাধ ভেঙে প্লাবিত হয়েছে আউশ ফসল ও সবজি ক্ষেতসহ ৫ ইউনিয়নের অন্তত ৩০টি গ্রাম। পানিবন্দি হয়ে পড়েছে হাজারো মানুষ।পানি উন্নয়ন বোর্ডের তথ্যমতে, মনু নদীর পানি বিপদসীমার ১৭৫ সেন্টিমিটার এবং ধলাই নদীর পানি ৫২ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। বিপজ্জনক অবস্থায় রয়েছে প্রতিরক্ষা বাঁধের অন্তত ২০টি এলাকা।সরজমিনে ঘুরে দেখা যায়, ধলাইনদীর কমলগঞ্জ উপজেলার লক্ষ্মীপুর, সানন্দপুর, কেওয়ালীঘাট, ঘোড়ামারা এবং বাদেওবাহাটা নামক ৫টি স্থানে প্রতিরক্ষা বাঁধ ভেঙে প্লাবিত হয়েছে ৩টি ইউনিয়ন। আকস্মিক বন্যায় ঈদের আগে চরম দুর্ভোগে পড়েছেন কমলগঞ্জ উপজেলার আদমপুর, মুন্সিগঞ্জ ও রহিমপুর ইউনিয়নের ২০ গ্রামের মানুষ।

মুন্সিবাজার ইউনিয়নের করিমপুর গ্রামের কৃষক আকবর মিয়া জানান, তার প্রায় ৫ একর আউস ফসল ডুবে গেছে।এদিকে জেলার কুলাউড়া উপজেলার শরিফপুর ও টিলাগাও ইউনিয়নে মনু নদীর ভাঙনে প্লাবিত হয়েছে টিলাগাও, বাগাজুরা,তেলগাও চাতলাপুরসহ ৫টি গ্রাম।

কুলাউড়ার হাজীপুরের ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল বাছিত বাচ্চু জানান, মনু নদী বিপজ্জনক রূপ নিয়েছে। লাগাতার ভারী বর্ষণ ও পাহাড়ি ঢলের কারণে নদীর পানি বাড়ছে। মাতাবপুর, মাদানগর, চক রণচাপ, হাসিমপুর, বাড়ইগাও ও মন্দিরাসহ ৬/৭ টি এলাকায় নদীর প্রতিরক্ষা বাঁধ ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে পড়েছে।চকরনচাপ বাড়ইগাও ও মাদানগরে এলাকাবাসী বাঁধ রক্ষায় প্রাণপণ চেষ্টা চালাচ্ছে। এছাড়া সাধনপুর, কাউকাপন, বাশউরী ও নোয়াগাও এলাকার নদীতীরবর্তী পরিবারগুলোর ঘরবাড়িতে পানি ওঠায় তারা নিরাপদ আশ্রয়ে চলে গেছেন।

জেলা পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী রনেন্দ্র শংকর চক্রবর্তী  জানান, বিপদসীমার ওপর দিয়ে মনু এবং ধলাই নদীর পানি প্রবাহিত হচ্ছে।


অবকাঠামো উন্নয়নে বিনিয়োগের তাগিদ আইএমএফের

ভারতের উত্তরপ্রদেশে সড়ক দুর্ঘটনায় ১৭ আহত ১২


এ বিভাগের আরো খবর...

খাশোগি হত্যার সত্য ঘটনা প্রকাশ করবেন- এর্দোগান খাশোগি হত্যার সত্য ঘটনা প্রকাশ করবেন- এর্দোগান
খাশোগজি খুন হওয়ার ঘটনাটি মারাত্মক ভুল- সৌদি পররাষ্ট্রমন্ত্রী খাশোগজি খুন হওয়ার ঘটনাটি মারাত্মক ভুল- সৌদি পররাষ্ট্রমন্ত্রী
দুদকের সংশোধিত বিধিমালা আসছে দুদকের সংশোধিত বিধিমালা আসছে
চাঁদপুরে ট্রাকচাপায় নিহত ৩ চাঁদপুরে ট্রাকচাপায় নিহত ৩
বুধবারে বিশ্বের সবচেয়ে বড় বার্ন হাসপাতালের উদ্বোধন বুধবারে বিশ্বের সবচেয়ে বড় বার্ন হাসপাতালের উদ্বোধন
ভোটের আগে ৮৪ হাজার ইভিএম কিনছে - ইসি ভোটের আগে ৮৪ হাজার ইভিএম কিনছে - ইসি
শরীরের ভেতরে গোপন ১২টি‘দেহঘড়ি’ শরীরের ভেতরে গোপন ১২টি‘দেহঘড়ি’
কলকাতায় মদ নিয়ে বিতর্ক এত বির্তক কেন? কলকাতায় মদ নিয়ে বিতর্ক এত বির্তক কেন?
ভোটের আগে সাঁড়াশি অভিযান-গায়েবি মামলা নিয়ে শঙ্কা ভোটের আগে সাঁড়াশি অভিযান-গায়েবি মামলা নিয়ে শঙ্কা
২৩তম অধিবেশনে সংসদে ৬ বিল উত্থাপন ২৩তম অধিবেশনে সংসদে ৬ বিল উত্থাপন

সর্বাধিক পঠিত

ইমরুলের ব্যাটিং ঝড়ে বাংলাদেশের জয় ইমরুলের ব্যাটিং ঝড়ে বাংলাদেশের জয়
দেশের অন্যতম বৃহৎ প্রকল্প মাতারবাড়ী দেশের অন্যতম বৃহৎ প্রকল্প মাতারবাড়ী
খাশোগি হত্যার সত্য ঘটনা প্রকাশ করবেন- এর্দোগান খাশোগি হত্যার সত্য ঘটনা প্রকাশ করবেন- এর্দোগান
খুলনা টেক্সটাইল পল্লী : প্লটের ক্রেতা পাবেন খুলনা টেক্সটাইল পল্লী : প্লটের ক্রেতা পাবেন
যুদ্ধজাহাজের ওপর ভেঙে পড়েছে হেলিকপ্টার যুদ্ধজাহাজের ওপর ভেঙে পড়েছে হেলিকপ্টার
খাশোগজি খুন হওয়ার ঘটনাটি মারাত্মক ভুল- সৌদি পররাষ্ট্রমন্ত্রী খাশোগজি খুন হওয়ার ঘটনাটি মারাত্মক ভুল- সৌদি পররাষ্ট্রমন্ত্রী
দুদকের সংশোধিত বিধিমালা আসছে দুদকের সংশোধিত বিধিমালা আসছে
চাঁদপুরে ট্রাকচাপায় নিহত ৩ চাঁদপুরে ট্রাকচাপায় নিহত ৩
বুধবারে বিশ্বের সবচেয়ে বড় বার্ন হাসপাতালের উদ্বোধন বুধবারে বিশ্বের সবচেয়ে বড় বার্ন হাসপাতালের উদ্বোধন
ভোটের আগে ৮৪ হাজার ইভিএম কিনছে - ইসি ভোটের আগে ৮৪ হাজার ইভিএম কিনছে - ইসি
নদীশাসনের দুর্বলতা বিঘ্নিত হচ্ছে নৌপথে চলাচল
শিল্পে গ্যাস সংযোগ না দেওয়া, আর্থিক ক্ষতির মুখে-সরকার
গুদামের খাদ্যদ্রব্য পাচারে-সক্রিয় চোর সিন্ডিকেট
প্যারিস জলবায়ু চুক্তি ৩০০ পৃষ্ঠার খসড়া অনুমোদন করেছে-ব্যাংকক
সড়ক শৃঙ্খলা-মূল সমস্যাটা রাজনীতিতেই: কাদের
বিশ্বের ভয়াবহ আবহাওয়া নিয়ে প্রযুক্তিগত আলোচনা চলছে
রোহিঙ্গা প্রশ্নে চীন-রাশিয়াকে-জাতিসংঘের কড়া হুুশিয়ারি!
খালেদা জিয়ার জামিন বহাল
বিমসটেক শীর্ষ সম্মেলনে নেপালে প্রধানমন্ত্রী
আওয়ামী লীগের জন্য যা পেয়েছি তা ভয়ংকর!