ঢাকা, আগস্ট ১৮, ২০১৮, ৩ ভাদ্র ১৪২৫
---
bbc24news.com
প্রথম পাতা » পরিবেশ ও জলবায়ু » বিপজ্জনক রূপ নিয়েছে মনু এবং ধলাই নদীর পানি
বুধবার ● ১৩ জুন ২০১৮, ৩ ভাদ্র ১৪২৫
Email this News Print Friendly Version

বিপজ্জনক রূপ নিয়েছে মনু এবং ধলাই নদীর পানি

---বিবিসি২৪নিউজ,শাহাদাত হোসেন:ভারত থেকে নেমে আসা উজানের পানিতে দ্রুত বাড়ছে মৌলভীবাজারের মনু এবং ধলাই নদীর পানি। নদীর প্রতিরক্ষা বাধ ভেঙে প্লাবিত হয়েছে আউশ ফসল ও সবজি ক্ষেতসহ ৫ ইউনিয়নের অন্তত ৩০টি গ্রাম। পানিবন্দি হয়ে পড়েছে হাজারো মানুষ।পানি উন্নয়ন বোর্ডের তথ্যমতে, মনু নদীর পানি বিপদসীমার ১৭৫ সেন্টিমিটার এবং ধলাই নদীর পানি ৫২ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। বিপজ্জনক অবস্থায় রয়েছে প্রতিরক্ষা বাঁধের অন্তত ২০টি এলাকা।সরজমিনে ঘুরে দেখা যায়, ধলাইনদীর কমলগঞ্জ উপজেলার লক্ষ্মীপুর, সানন্দপুর, কেওয়ালীঘাট, ঘোড়ামারা এবং বাদেওবাহাটা নামক ৫টি স্থানে প্রতিরক্ষা বাঁধ ভেঙে প্লাবিত হয়েছে ৩টি ইউনিয়ন। আকস্মিক বন্যায় ঈদের আগে চরম দুর্ভোগে পড়েছেন কমলগঞ্জ উপজেলার আদমপুর, মুন্সিগঞ্জ ও রহিমপুর ইউনিয়নের ২০ গ্রামের মানুষ।

মুন্সিবাজার ইউনিয়নের করিমপুর গ্রামের কৃষক আকবর মিয়া জানান, তার প্রায় ৫ একর আউস ফসল ডুবে গেছে।এদিকে জেলার কুলাউড়া উপজেলার শরিফপুর ও টিলাগাও ইউনিয়নে মনু নদীর ভাঙনে প্লাবিত হয়েছে টিলাগাও, বাগাজুরা,তেলগাও চাতলাপুরসহ ৫টি গ্রাম।

কুলাউড়ার হাজীপুরের ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল বাছিত বাচ্চু জানান, মনু নদী বিপজ্জনক রূপ নিয়েছে। লাগাতার ভারী বর্ষণ ও পাহাড়ি ঢলের কারণে নদীর পানি বাড়ছে। মাতাবপুর, মাদানগর, চক রণচাপ, হাসিমপুর, বাড়ইগাও ও মন্দিরাসহ ৬/৭ টি এলাকায় নদীর প্রতিরক্ষা বাঁধ ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে পড়েছে।চকরনচাপ বাড়ইগাও ও মাদানগরে এলাকাবাসী বাঁধ রক্ষায় প্রাণপণ চেষ্টা চালাচ্ছে। এছাড়া সাধনপুর, কাউকাপন, বাশউরী ও নোয়াগাও এলাকার নদীতীরবর্তী পরিবারগুলোর ঘরবাড়িতে পানি ওঠায় তারা নিরাপদ আশ্রয়ে চলে গেছেন।

জেলা পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী রনেন্দ্র শংকর চক্রবর্তী  জানান, বিপদসীমার ওপর দিয়ে মনু এবং ধলাই নদীর পানি প্রবাহিত হচ্ছে।


অবকাঠামো উন্নয়নে বিনিয়োগের তাগিদ আইএমএফের

ভারতের উত্তরপ্রদেশে সড়ক দুর্ঘটনায় ১৭ আহত ১২


এ বিভাগের আরো খবর...

মোদির পথে হাঁটলেন ইমরান খান মোদির পথে হাঁটলেন ইমরান খান
মুক্তিযোদ্ধা কোটা থাকছে, বাকী সব বাতিল- নাসিম মুক্তিযোদ্ধা কোটা থাকছে, বাকী সব বাতিল- নাসিম
যাত্রীদের চাপ এখনো পুরোপুরি নেই? যাত্রীদের চাপ এখনো পুরোপুরি নেই?
প্রাকৃতিক গ্যাস এলএনজি যুগে প্রবেশ করল- বাংলাদেশ প্রাকৃতিক গ্যাস এলএনজি যুগে প্রবেশ করল- বাংলাদেশ
জামিন পেতে ‘ছিনতাইকারী কল্যাণ ফান্ড’ জামিন পেতে ‘ছিনতাইকারী কল্যাণ ফান্ড’
সাবেক জাতিসংঘ মহাসচিব কফি আনান আর নেই সাবেক জাতিসংঘ মহাসচিব কফি আনান আর নেই
নিরাপদ সড়ক নিশ্চিতে সরেজমিনে প্রধানমন্ত্রীর মুখ্যসচিব নিরাপদ সড়ক নিশ্চিতে সরেজমিনে প্রধানমন্ত্রীর মুখ্যসচিব
ইরান তৈরী করবে এস-৩০০ ক্ষেপণাস্ত্র ইরান তৈরী করবে এস-৩০০ ক্ষেপণাস্ত্র
যাত্রীদের গন্তব্যে পৌঁছানো আমাদের চ্যালেঞ্জ- আমজাদ হোসেন যাত্রীদের গন্তব্যে পৌঁছানো আমাদের চ্যালেঞ্জ- আমজাদ হোসেন
সাংবিধানিক প্রক্রিয়া থেকে সরে আসার সুযোগ নেই- কাদের সাংবিধানিক প্রক্রিয়া থেকে সরে আসার সুযোগ নেই- কাদের

সর্বাধিক পঠিত

মোদির পথে হাঁটলেন ইমরান খান মোদির পথে হাঁটলেন ইমরান খান
মুক্তিযোদ্ধা কোটা থাকছে, বাকী সব বাতিল- নাসিম মুক্তিযোদ্ধা কোটা থাকছে, বাকী সব বাতিল- নাসিম
যাত্রীদের চাপ এখনো পুরোপুরি নেই? যাত্রীদের চাপ এখনো পুরোপুরি নেই?
নেইমারের জন্য ২৯০০ কোটি টাকা দিতে রাজি রিয়াল! নেইমারের জন্য ২৯০০ কোটি টাকা দিতে রাজি রিয়াল!
প্রাকৃতিক গ্যাস এলএনজি যুগে প্রবেশ করল- বাংলাদেশ প্রাকৃতিক গ্যাস এলএনজি যুগে প্রবেশ করল- বাংলাদেশ
জামিন পেতে ‘ছিনতাইকারী কল্যাণ ফান্ড’ জামিন পেতে ‘ছিনতাইকারী কল্যাণ ফান্ড’
সাবেক জাতিসংঘ মহাসচিব কফি আনান আর নেই সাবেক জাতিসংঘ মহাসচিব কফি আনান আর নেই
নিরাপদ সড়ক নিশ্চিতে সরেজমিনে প্রধানমন্ত্রীর মুখ্যসচিব নিরাপদ সড়ক নিশ্চিতে সরেজমিনে প্রধানমন্ত্রীর মুখ্যসচিব
ইরান তৈরী করবে এস-৩০০ ক্ষেপণাস্ত্র ইরান তৈরী করবে এস-৩০০ ক্ষেপণাস্ত্র
যাত্রীদের গন্তব্যে পৌঁছানো আমাদের চ্যালেঞ্জ- আমজাদ হোসেন যাত্রীদের গন্তব্যে পৌঁছানো আমাদের চ্যালেঞ্জ- আমজাদ হোসেন
বিশ্বের বসবাসের জন্য অযোগ্য শহর ঢাকা কেন?
অবশেষে খুঁজে পাওয়া গেল এলিয়েন?
তৃতীয় লিঙ্গদের আইনি স্বীকৃতি দিল-জার্মান
রাশেদ চৌধুরীকে ফেরত দিতে পারে-ট্রাম্প প্রশাসন
খেলাপি ঋণের বৃত্তে ব্যাংকিং খাত
বাংলাদেশের টিভি চ্যানেলগুলোতে বিদেশি ছবির হিড়িক
জার্মানের নদীতে ভেসে উঠছে দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের অস্ত্র-শস্ত্র
জলবায়ু পরিবর্তনে-নিউ ইয়র্ক ও সিডনির কোন দ্বীপে বসতি থাকবে না
পরীক্ষার খাতায় ‘উই ওয়ান্ট জাস্টিস’ লিখলেন শিক্ষার্থীরা!
শিক্ষার্থীদের আন্দোলনে ফায়দা লুঠতে ব্যস্ত কারা!