ঢাকা, আগস্ট ১৮, ২০১৮, ৩ ভাদ্র ১৪২৫
---
bbc24news.com
প্রথম পাতা » আইন-আদালত » বকশিশের নামে নীরব চাঁদাবাজি নেই- ডিএমপি
বুধবার ● ১৩ জুন ২০১৮, ৩ ভাদ্র ১৪২৫
Email this News Print Friendly Version

বকশিশের নামে নীরব চাঁদাবাজি নেই- ডিএমপি

---বিবিসি২৪নিউজ,নিজস্ব প্রতিবেদক: ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ (ডিএমপি) কমিশনার আছাদুজ্জামান মিয়া জানিয়েছেন, নির্দিষ্ট হারের চেয়ে বেশি ভাড়া যাতে কেউ নিতে না পারে, সে বিষয়ে নজরদারি রয়েছে। তিনি বলেন, ‘ঈদের বকশিশের নাম করে কোনও নীরব চাঁদাবাজি আছে কিনা, সেজন্য আমি প্রতিটি কাউন্টার পরিদর্শন করেছি। নীরব চাঁদাবাজি জিরো-নিল।আজ দুপুরে রাজধানীর সায়েদাবাদে বাস কাউন্টার পরিদর্শনের পর সাংবাদিকদের এ কথা বলেন তিনি।ডিএমপি কমিশনার বলেন, ‘প্রতিটি কাউন্টারে ভাড়ার তালিকা রয়েছে। এখানে বাস মালিক সমিতির লোক আছে, বিভিন্ন নেতাসহ আমাদের পুলিশ সদস্যরাও রয়েছেন। কেউ যাতে যাত্রীদের কাছ থেকে নির্দিষ্ট হারের বেশি ভাড়া নিতে না পারে, সেজন্য মোবাইল কোর্ট রয়েছে। আমি নিজে যাত্রীদের সঙ্গে কথা বলেছি, তারা পরিষ্কার বলেছেন— কাউন্টারে নির্দিষ্ট হারের বেশি ভাড়া নিচ্ছে না।তিনি বলেন, ‘ঈদের বকশিশের নাম করে কোনও নীরব চাঁদাবাজি আছে কিনা, সেজন্য আমি প্রতিটি কাউন্টার পরিদর্শন করেছি। নীরব চাঁদাবাজি জিরো-নিল।’

ডিএমপি কমিশনার হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেন, ‘ঢাকা মহানগরীতে যদি আমরা থাকি, তবে কোনও চাঁদাবাজ থাতে পারবে না। আর চাঁদাবাজ যে-ই হোক না কেন, তাকে আইনের আওতায় আনা হবেই। এ বিষয়ে আমাদের অবস্থান জিরো টলারেন্স।ঈদের ছুটি প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘ঈদের ছুটি হবে, এসময় আমরা প্রতিটি বাড়িতে গিয়ে যে পাহারা দিতে পারবো, এটি সম্ভব নয়। তবে আমরা সবাইকে অনুরোধ করে বলেছি— আপনারা নিজেদের বাসস্থান, প্রতিষ্ঠানে মিনিমাম সিকিউরিটি ব্যবস্থা রেখে যাবেন।আমরা প্রতিটি এলাকায় শপিং মলের ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানের সামনে নিরাপত্তা নিশ্চিতে পুলিশ মোতায়েন করবো। এছাড়া, বিভিন্ন এলাকায় পুলিশের টহল টিম থাকবে। প্রতিটি মহল্লায় পুলিশের কয়েক স্তরে তল্লাশি চৌকি থাকবে। প্রতিটি এলাকা সিসিটিভির আওতায় রাখা হবে।’

তিনি উদাহরণ দিয়ে বলেন, ‘গত ঈদ-উল-আজহায় কোনও এলাকায়, শপিং মলে, স্বর্ণের দোকানে চুরি ও ডাকাতি বা লুটের ঘটনা ঘটেনি। ওই সময় আমাদের নিরাপত্তা জোরদার ছিল। এবারও আমরা সর্বশক্তি প্রয়োগ করে জনমানুষের জানমালের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে তৎপর থাকবো। আমরা প্রতিটি এলাকা ও পাড়া-মহল্লার সিকিউরিটি গার্ডদের সঙ্গে সমন্বয় করে নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করবো।মাদকের বিরুদ্ধে আমাদের জিহা ও যুদ্ধ চলছে উল্লেখ করে ডিএমপি কমিশনার বলেন, ‘মাদকের বিরুদ্ধে আমাদের যে অভিযান চলছে, বলবো সেটি আমাদের জিহাদ বা যুদ্ধ। ইতোমধ্যে রাজধানীর শত শত মাদক স্পট আমরা ভেঙে গুড়িয়ে দিয়েছি। মাদকের সঙ্গে যারাই জড়িত থাকবে, তাদের কোনও রকম ছাড় দেওয়া হবে না।ঈদে ঘরমুখো মানুষেরা যাতে নির্বিঘ্নে যেতে পারেন, সেজন্য রাজধানীর সব প্রবেশ এবং বাহির পথগুলো যানজট মুক্ত রাখতে পুলিশ কাজ করছে। বিভিন্ন বাস কাউন্টার, লঞ্চ ঘাট ও রেলওয়ে স্টেশনে যাতে কোনও যাত্রী হয়রানি ও ভোগান্তির শিকার না হন, সেজন্য পর্যাপ্ত পুলিশের পাশাপাশি ভ্রাম্যমাণ আদালতও রয়েছে।’

ডিএমপি কমিশনার বলেন,‘ইতোমধ্যে অজ্ঞান পার্টির একটি বড় চক্রকে আমরা গ্রেফতার করেছি, বিভিন্ন প্রতারক চক্রের সদস্যদের গ্রেফতার করা হয়েছে, জালটাকার চক্রও ধরেছি। তারা যাতে সক্রিয় হতে না পারে, সে জন্য আমরা তৎপর রয়েছি।


পশ্চিমবঙ্গে ঝড়ের কবলে ১৫ জনের মৃত্যু

সিএমএইচে এখনও সম্মতি দেননি খালেদা- স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী


এ বিভাগের আরো খবর...

মোদির পথে হাঁটলেন ইমরান খান মোদির পথে হাঁটলেন ইমরান খান
মুক্তিযোদ্ধা কোটা থাকছে, বাকী সব বাতিল- নাসিম মুক্তিযোদ্ধা কোটা থাকছে, বাকী সব বাতিল- নাসিম
যাত্রীদের চাপ এখনো পুরোপুরি নেই? যাত্রীদের চাপ এখনো পুরোপুরি নেই?
প্রাকৃতিক গ্যাস এলএনজি যুগে প্রবেশ করল- বাংলাদেশ প্রাকৃতিক গ্যাস এলএনজি যুগে প্রবেশ করল- বাংলাদেশ
জামিন পেতে ‘ছিনতাইকারী কল্যাণ ফান্ড’ জামিন পেতে ‘ছিনতাইকারী কল্যাণ ফান্ড’
সাবেক জাতিসংঘ মহাসচিব কফি আনান আর নেই সাবেক জাতিসংঘ মহাসচিব কফি আনান আর নেই
নিরাপদ সড়ক নিশ্চিতে সরেজমিনে প্রধানমন্ত্রীর মুখ্যসচিব নিরাপদ সড়ক নিশ্চিতে সরেজমিনে প্রধানমন্ত্রীর মুখ্যসচিব
ইরান তৈরী করবে এস-৩০০ ক্ষেপণাস্ত্র ইরান তৈরী করবে এস-৩০০ ক্ষেপণাস্ত্র
যাত্রীদের গন্তব্যে পৌঁছানো আমাদের চ্যালেঞ্জ- আমজাদ হোসেন যাত্রীদের গন্তব্যে পৌঁছানো আমাদের চ্যালেঞ্জ- আমজাদ হোসেন
সাংবিধানিক প্রক্রিয়া থেকে সরে আসার সুযোগ নেই- কাদের সাংবিধানিক প্রক্রিয়া থেকে সরে আসার সুযোগ নেই- কাদের

সর্বাধিক পঠিত

মোদির পথে হাঁটলেন ইমরান খান মোদির পথে হাঁটলেন ইমরান খান
মুক্তিযোদ্ধা কোটা থাকছে, বাকী সব বাতিল- নাসিম মুক্তিযোদ্ধা কোটা থাকছে, বাকী সব বাতিল- নাসিম
যাত্রীদের চাপ এখনো পুরোপুরি নেই? যাত্রীদের চাপ এখনো পুরোপুরি নেই?
নেইমারের জন্য ২৯০০ কোটি টাকা দিতে রাজি রিয়াল! নেইমারের জন্য ২৯০০ কোটি টাকা দিতে রাজি রিয়াল!
প্রাকৃতিক গ্যাস এলএনজি যুগে প্রবেশ করল- বাংলাদেশ প্রাকৃতিক গ্যাস এলএনজি যুগে প্রবেশ করল- বাংলাদেশ
জামিন পেতে ‘ছিনতাইকারী কল্যাণ ফান্ড’ জামিন পেতে ‘ছিনতাইকারী কল্যাণ ফান্ড’
সাবেক জাতিসংঘ মহাসচিব কফি আনান আর নেই সাবেক জাতিসংঘ মহাসচিব কফি আনান আর নেই
নিরাপদ সড়ক নিশ্চিতে সরেজমিনে প্রধানমন্ত্রীর মুখ্যসচিব নিরাপদ সড়ক নিশ্চিতে সরেজমিনে প্রধানমন্ত্রীর মুখ্যসচিব
ইরান তৈরী করবে এস-৩০০ ক্ষেপণাস্ত্র ইরান তৈরী করবে এস-৩০০ ক্ষেপণাস্ত্র
যাত্রীদের গন্তব্যে পৌঁছানো আমাদের চ্যালেঞ্জ- আমজাদ হোসেন যাত্রীদের গন্তব্যে পৌঁছানো আমাদের চ্যালেঞ্জ- আমজাদ হোসেন
বিশ্বের বসবাসের জন্য অযোগ্য শহর ঢাকা কেন?
অবশেষে খুঁজে পাওয়া গেল এলিয়েন?
তৃতীয় লিঙ্গদের আইনি স্বীকৃতি দিল-জার্মান
রাশেদ চৌধুরীকে ফেরত দিতে পারে-ট্রাম্প প্রশাসন
খেলাপি ঋণের বৃত্তে ব্যাংকিং খাত
বাংলাদেশের টিভি চ্যানেলগুলোতে বিদেশি ছবির হিড়িক
জার্মানের নদীতে ভেসে উঠছে দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের অস্ত্র-শস্ত্র
জলবায়ু পরিবর্তনে-নিউ ইয়র্ক ও সিডনির কোন দ্বীপে বসতি থাকবে না
পরীক্ষার খাতায় ‘উই ওয়ান্ট জাস্টিস’ লিখলেন শিক্ষার্থীরা!
শিক্ষার্থীদের আন্দোলনে ফায়দা লুঠতে ব্যস্ত কারা!