ঢাকা, জানুয়ারী ২২, ২০১৯, ৯ মাঘ ১৪২৫
---
bbc24news.com
প্রথম পাতা » প্রধান সংবাদ » পাঁচ জেলায় বন্যার পূর্বাভাস, জেলা প্রশাসনকে প্রস্তুত থাকার নির্দেশ
বুধবার ● ১৩ জুন ২০১৮, ৯ মাঘ ১৪২৫
Email this News Print Friendly Version

পাঁচ জেলায় বন্যার পূর্বাভাস, জেলা প্রশাসনকে প্রস্তুত থাকার নির্দেশ

---বিবিসি২৪নিউজ,নিজস্ব প্রতিবেদক:কক্সবাজার, রাঙামাটি, খাগড়াছড়ি, বান্দরবান ও মৌলভীবাজার পাঁচ জেলায় বন্যার পদধ্বনি শোনা যাচ্ছে। বন্যায় জানমালের ক্ষয়ক্ষতিসহ যেকোনও ধরনের দুর্ঘটনা এড়াতে এই পাঁচ জেলা প্রশাসনকে সার্বক্ষণিক প্রস্তুত থাকার নির্দেশ দিয়েছে ত্রাণ ও দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা মন্ত্রণালয়।ইতোমধ্যেই মন্ত্রণালয়ে কন্ট্রোল রুম খোলা হয়েছে। কন্ট্রোল রুম থেকে এই জেলাগুলোসহ দেশের সব জেলা প্রশাসনের সঙ্গে যাগাযোগ রাখা হচ্ছে। দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা মন্ত্রণালয়ের কন্ট্রোল রুম ইন চার্জ (উপ-সচিব) আব্দুল কাদের এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

জানতে চাইলে আবদুল কাদের বলেন, ‘বন্যাপ্রবণ পাঁচ জেলার প্রত্যন্ত-ঝুকিপূর্ণ এলাকায় বসবাসকারী জনসাধারণকে সরিয়ে আনতে বলা হয়েছে। পাশাপাশি চট্টগ্রামের দুই উপজেলা—ফটিকছড়ি ও রাউজানের বাসিন্দাদেরও সরিয়ে নিতে বলা হয়েছে। তাদের বন্যা শেষ না হওয়া পর্যন্ত তাদের থাকা খাওয়ার ব্যবস্থা নিশ্চিত করতেও বলা হয়েছে। রাঙামাটির নানিয়ারচরে পাহাড়ধসে নিহতদের সাহাযার্থে জেলা প্রশাসনের তহবিল থেকে প্রতি পরিবারকে ২০ থেকে ২৫ হাজার টাকা অনুদানের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।’ এছাড়া বন্যাকবলিতদের সাহাযার্থে সব ধরনের ব্যবস্থা রাখা হয়েছে বলেও জানান তিনি।

উপ-সচিব জানান, ইতোমধ্যেই জেলাগুলোর বন্ধ হয়ে যাওয়া স্কুল কলেজের রুমগুলো বসবাসের উপযোগী করে খোলা রাখার জন্য সংশ্লিষ্টদের বলা হয়েছে।এ দিকে রাঙামাটির জেলা প্রশাসক এ কে এম মামুনুর রশিদ বাংলা ট্রিবিউনকে জানিয়েছেন, ‘জানমালের নিরাপত্তায় সব ধরনের ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। নানিয়ারচরে যেখানে পাহাড়ধসের ঘটনা ঘটেছে, সেটি অত্যন্ত দুর্গম এলাকা। আমি নিজে ঘটনাস্থল পরিদর্শনে গিয়েও আবহাওয়ার প্রতিকূলতার কারণে সেখানে পৌঁছাতে না পেরে ফিরে এসেছি। তবে জেলার সর্বত্র স্থানীয় প্রশাসনকে সতর্কাবস্থায় রাখা হয়েছে। আশা করছি, আর কোনও দুর্ঘটনা যেন না ঘটে, সে ব্যাপারে সবাইকে সতর্ক থাকতে বলেছি।’

এদিকে এ বছরও দেশের ৩৭টি জেলায় বন্যার আশঙ্কা রয়েছে বলে পূর্বাভাস দিয়েছে আবহাওয়া অধিদফতর। অতি বৃষ্টি ও ভারী বৃষ্টির ফলে এ সব জেলায় বন্যার সৃষ্টি হতে পারে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অধিদফতর। সপ্তাহের পাঁচদিনই সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান, সংস্থার কর্মকর্তাদেও সঙ্গে বৈঠক করেছেন ত্রাণ ও দুর্যোগ ব্যবস্থাপনামন্ত্রী মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া ও মন্ত্রণালয়ের সচিব শাহ্ কামাল।গত ১ মে অনুষ্ঠিত ওই বৈঠকে যেকোনও দুর্যোগ মোকাবিলায় সেনাবাহিনী ও নৌ-বাহিনীকে প্রস্তুত থাকার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। দেশের ৬৪ জেলা প্রশাসককের কাছে জরুরি বার্তা দেওয়া হয়েছে। তাদেরকে বন্যাসহ যেকোনও দুর্যোগ মোকাবিলায় সতর্কাবস্থায় রাখা হয়েছে। বন্যার সময় জরুরি পরিস্থিতি মোকাবিলায় সব জেলার ডিসির ত্রাণ ভাণ্ডারে দুই লাখ টন চাল, নগদ ৫ লাখ টাকা ও দুই বান্ডিল ঢেউটিন দেওয়া হয়েছে।

আবহাওয়া অধিদফতর সূত্রে জানা গেছে, এ বছর বর্ষা মৌসুম আসার আগেই দেশব্যাপী ভারীবর্ষণ শুরু হয়েছে। অতিবর্ষণে পাহাড়ধসের আশঙ্কাও রয়েছে। গতবছর পাহাড়ধসে পার্বত্য অঞ্চলে ১৬৬ জন মারা গেছেন। অতিবর্ষণ-ভারী বর্ষণে এ বছরও পাহাড় ধসের আশঙ্কা রয়েছে। এমন পরিস্থিতিতে কক্সবাজার, চট্টগ্রাম, রাঙামাটি, বান্দরবান ও খাগড়াছড়ি এই পাঁচ জেলায় জরুরি সভা করে যেকোনও পরিস্থিতিতে জরুরি করণীয় নির্ধারণ করেছেন। এ বছরের বৃষ্টিপাতের প্রবণতা স্বাভাবিক নয় বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অধিদফতর। এ কারণে অধিক বৃষ্টিবহুল এলাকার জেলা প্রশাসকদের সতর্ক থাকার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

এদিকে, ত্রাণ ও দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা মন্ত্রণালয সূত্র জানিয়েছে, অতি বর্ষণ ও ভারী বর্ষণের সঙ্গে রয়েছে অতিরিক্ত শিলা বৃষ্টি। আগে বৃষ্টির সঙ্গে মার্বেল সাইজের শিলা বর্ষিত হলেও এ বছর বড় আকারের শিলাও বর্ষিত হয়েছে। এতে টিনের ঘরের চাল ছিদ্র হয়ে মানুষের গায়ে পড়েছে। এতে মানুষ আহত হওয়ার সংবাদও পাওয়া গেছে। এর সঙ্গে নতুন করে দুর্যোগ হিসেবে যুক্ত হয়েছে বজ্রপাত। আবহমান কাল ধরেই বজ্রপাত একটি প্রাকৃতিক দুর্যোগ। বর্তমানে বজ্রপাতের ঝুঁকিতে রয়েছে বাংলাদেশ। বংলাদেশে বজ্রপাতের পরিমাণ বাড়ছে। বাড়ছে মৃত্যুর ঘটনাও।


বিশ্বকাপের আগেই বহিষ্কার স্পেন কোচ !

কমলাপুরে যাত্রীদের বিদায় জানালেন রেলমন্ত্রী


এ বিভাগের আরো খবর...

বিএনপি জয়নুলের কাদায় আটকে পড়া গরুর গাড়ি: কাদের বিএনপি জয়নুলের কাদায় আটকে পড়া গরুর গাড়ি: কাদের
অনৈতিকতার পথে হেঁটে কখনো ভালো ফল পাওয়া যায় না- শিক্ষামন্ত্রী অনৈতিকতার পথে হেঁটে কখনো ভালো ফল পাওয়া যায় না- শিক্ষামন্ত্রী
রাশিয়ার উপকূলে ২ জাহাজে আগুন, নিহত ১৪ রাশিয়ার উপকূলে ২ জাহাজে আগুন, নিহত ১৪
ওবায়দুল কাদের সর্বকালের ব্যর্থ একজন সড়কমন্ত্রী- রিজভী ওবায়দুল কাদের সর্বকালের ব্যর্থ একজন সড়কমন্ত্রী- রিজভী
ছিন্নমূল শিশুরা শিক্ষার অধিকার কতটা পাচ্ছে ! ছিন্নমূল শিশুরা শিক্ষার অধিকার কতটা পাচ্ছে !
ডিএনসিসির মেয়র পদে নির্বাচনের সিদ্ধান্ত বিকালে- সিইসি ডিএনসিসির মেয়র পদে নির্বাচনের সিদ্ধান্ত বিকালে- সিইসি
আহমেদ ইমতিয়াজ বুলবুলের মৃত্যুতে প্রধানমন্ত্রীর শোক আহমেদ ইমতিয়াজ বুলবুলের মৃত্যুতে প্রধানমন্ত্রীর শোক
এরশাদ সুস্থ আছেন, দেশবাসীর কাছে দোয়া চেয়েছে- জাপা এরশাদ সুস্থ আছেন, দেশবাসীর কাছে দোয়া চেয়েছে- জাপা
প্রকল্প বাস্তবায়নের স্বচ্ছতা ও জবাবদিহি নিশ্চিতে নির্দেশ দিয়েছে- প্রধানমন্ত্রী প্রকল্প বাস্তবায়নের স্বচ্ছতা ও জবাবদিহি নিশ্চিতে নির্দেশ দিয়েছে- প্রধানমন্ত্রী
জঙ্গি আস্তানা সন্দেহে চাঁপাইনবাবগঞ্জে ১৫ বাড়িতে র‌্যাবের অভিযান, আটক ১ জঙ্গি আস্তানা সন্দেহে চাঁপাইনবাবগঞ্জে ১৫ বাড়িতে র‌্যাবের অভিযান, আটক ১

সর্বাধিক পঠিত

ওস্তাদের মার শেষ রাতেকিন্তু ‘ওস্তাদ’ হতে পারলেন না গেইল ওস্তাদের মার শেষ রাতেকিন্তু ‘ওস্তাদ’ হতে পারলেন না গেইল
কঙ্গনা ফুঁসে উঠলেন কঙ্গনা ফুঁসে উঠলেন
ব্র্যাড পিট-থেরন প্রেম করছেন ব্র্যাড পিট-থেরন প্রেম করছেন
শান্ত আজ হঠাৎ করেই একটু অশান্ত শান্ত আজ হঠাৎ করেই একটু অশান্ত
বাংলাদেশের কেউ নেই আইসিসির বর্ষসেরা টেস্ট দলে বাংলাদেশের কেউ নেই আইসিসির বর্ষসেরা টেস্ট দলে
বিএনপি জয়নুলের কাদায় আটকে পড়া গরুর গাড়ি: কাদের বিএনপি জয়নুলের কাদায় আটকে পড়া গরুর গাড়ি: কাদের
আইসিসিও মেনে নিচ্ছে কোহলির শ্রেষ্ঠত্ব আইসিসিও মেনে নিচ্ছে কোহলির শ্রেষ্ঠত্ব
অনৈতিকতার পথে হেঁটে কখনো ভালো ফল পাওয়া যায় না- শিক্ষামন্ত্রী অনৈতিকতার পথে হেঁটে কখনো ভালো ফল পাওয়া যায় না- শিক্ষামন্ত্রী
রাশিয়ার উপকূলে ২ জাহাজে আগুন, নিহত ১৪ রাশিয়ার উপকূলে ২ জাহাজে আগুন, নিহত ১৪
সিরাজগঞ্জে গৃহবধূ হত্যায় স্বামীসহ ৪ জনের মৃত্যুদণ্ড দিয়েছে- আদালত সিরাজগঞ্জে গৃহবধূ হত্যায় স্বামীসহ ৪ জনের মৃত্যুদণ্ড দিয়েছে- আদালত
দুর্নীতির বিরুদ্ধে প্রকৃত অর্থেই নিতে হবে জিরো টলারেন্স
বেআইনি ব্যাংকিং কার্যক্রমের বিরুদ্ধে বহুমুখী পদক্ষেপ নিন
খাদ্যে অতিরিক্ত ট্রান্সফ্যাটের কারণে, প্রতি বছর বিশ্বে পাঁচ লাখ মানুষের মৃত্যু হয়
স্বাধীনতার পর প্রথমবার ‘মন্ত্রীশূন্য’ কিশোরগঞ্জ
মন চুরির অভিযোগ পুলিশের কাছে!
সৈয়দ আশরাফ যে কবরে সমাহিত হবেন
ব্যবসায়ীদের বিনিয়োগের বাধা দূর করতে হবে?
মহাজোটের মহাজয়ে শেখ হাসিনা
বাংলাদেশে নির্বাচন-পরবর্তী সহিংসতা রোধ করুন!
নেইমারের সমালোচনায় পেলে