ঢাকা, সেপ্টেম্বর ২১, ২০১৮, ৫ আশ্বিন ১৪২৫
---
bbc24news.com
প্রথম পাতা » জাতীয় » আবারও কমলাপুরে রাজধানীমুখী মানুষের ভিড়
বুধবার ● ২০ জুন ২০১৮, ৫ আশ্বিন ১৪২৫
Email this News Print Friendly Version

আবারও কমলাপুরে রাজধানীমুখী মানুষের ভিড়

---বিবিসি২৪নিউজ,নিজস্ব প্রতিবেদক: ঈদ উপলক্ষে গত কয়েকদিন ঢাকা রুপ নেয় কোলাহল মুক্ত শহরে। রাস্তায় ছিল না কোনো যানজট কিংবা অফিস-আদালতগামী মানুষের ভিড়।কয়েকদিন বিরতি দিয়ে আবারও ব্যস্ততম নগরী হতে চলেছে রাজধানী। নিজ নিজ কার্যালয়ে ফিরতে শুরু করেছে কর্মমুখী মানুষ। যদিও সরকারি অফিস আরও দু’দিন আগেই (সোমবার থেকে) খুলেছে।
আজ রাজধানীর কমলাপুর রেলস্টেশনে রাজধানীমুখী মানুষের সংখ্যা ছিল চোখে পড়ার মতো। সকাল থেকে দেশের বিভিন্ন জেলা থেকে ঢাকামুখী ট্রেনগুলোতে ছিল খুব ভিড়। এ যেনো ফাঁকা ঢাকা আবারও চিরচেনায় ফিরতে শুরু করেছে।আকবার আলী প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রণালয়ে চাকরি করেন। তার অফিস সোমবার থেকে খুললেও তিনি এদিন ঢাকায় চলে এসেছেন।

তিনি বলেন, সোমবার সরকারি ছুটি শেষ হয়, আমার অন্য কলিগরা সোমবার থেকে অফিস শুরু করেছেন। আমি দু’দিন অতিরিক্ত ছুটি নিয়েছিলাম। বৃহস্পতিবার থেকে আমি অফিস করবো। পরিবার নিয়ে ঝামেলা এড়াতে একদিন আগেই ঢাকায় চলে এলাম।

জামালপুর থেকে ঈদের ছুটি কাটিয়ে ঢাকায় ফিরলেন রাজমিস্ত্রী শফিক। ঈদের ছুটি গ্রামে কেমন কাটলেন এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ঈদ মানে বাড়তি আনন্দ। গ্রামে সবার সঙ্গে ঈদ করায় এ আনন্দ আরও বেড়ে যায়। এ কয়দিন পরিবার, বন্ধু-বান্ধবী নিয়ে খুব ভালো কাটল। মঙ্গলবার (১৯ জুন) রাতে যখন ঢাকার উদ্দেশে রওয়ানা দেবো তখন মনটা খারাপ ছিল।

তিনি আরও বলেন, সবাইকে ছেড়ে আসতে ইচ্ছা করছিল না। তবুও আসতে হলো পরিবার ছেড়ে কাজের উদ্দেশে। আবারও কোরবানির ঈদে বাড়ি যাবো তখনও আনন্দ করবো।

মো. রবিন ঢাকায় বিশ্ববিদ্যালয় কোচিং করেন। তিনি বলেন, দীর্ঘদিন ছুটি কাটিয়ে বুধবার ঢাকায় ফিরলাম। আরও কিছুদিন থাকার ইচ্ছা ছিল কিন্তু কোচিং শুরু হওয়ায় সেটা হলো না। তিনি বলেন, এই কয়েকটা দিন পরিবার ও বন্ধুদের সঙ্গে অনেক ভালো কাটল। গ্রামে ঈদ করার মজাই আলাদা, সবার বাড়িতে যাওয়া হয়। আজ ঢাকায় এলাম এখন সবাইকে অনেক মিস করছি ।

হাসিনা বেগম যাত্রাবাড়ি এলাকায় একটি সাবকন্ট্রাক পোশাক কারখানায় কাজ করেন বুধবার থেকে তার অফিস শুরু। এজন্য সকালে ময়মনসিংহ থেকে ঢাকায় আসলেন।

এবার তার ঈদ কেমন কাটলেন জানতে চাইলে তিনি বলেন, খুব ভালো ঈদ কেটেছে। তবে বাড়ি ফেরার দিন খুব কষ্ট হয়েছিল।পরে প্রিয়জনদের মুখ দেখ সব কষ্ট দূর হয়েছে। আজ ঢাকায় এলাম কিন্তু পরিবারের জন্য খুব কষ্ট হচ্ছে। তাদের কথা বার বার মনে পড়ছে। তবুও ঢাকায় আসা কাজ করতে হবে আয় করতে হবে।ঈদের আগে বেতন-বোনাস পেয়েছিলেন কিনা জানতে চাইলে তিনি বলেন, ছুটির শেষ দিন বেতন পেয়েছি, বোনাস পেয়েছিলাম আরও আগে।


বছরে ৭ কোটি মানুষ শরণার্থী হচ্ছে-ইইএনএইচসিআর

প্রচারণায় মুখরিত গাজীপুর নগরী


এ বিভাগের আরো খবর...

মুসলিমদের অভ্যন্তরীণ বিষয়ে মোদি সরকারের স্বৈরাচারী পন্থা মুসলিমদের অভ্যন্তরীণ বিষয়ে মোদি সরকারের স্বৈরাচারী পন্থা
উ’ কোরিয়ার সাথে আলোচনা ফের শুরু করতে যুক্তরাষ্ট্রের প্রস্তাব উ’ কোরিয়ার সাথে আলোচনা ফের শুরু করতে যুক্তরাষ্ট্রের প্রস্তাব
সংসদে জাতীয় ক্রীড়া পরিষদ বিল পাস সংসদে জাতীয় ক্রীড়া পরিষদ বিল পাস
আজকে আইন প্রশাসনের অধীনে না: নজরুল আজকে আইন প্রশাসনের অধীনে না: নজরুল
রাধানীতে যানজট নিরসনে পরিকল্পনা হলেও বাস্তবায়ন নেই রাধানীতে যানজট নিরসনে পরিকল্পনা হলেও বাস্তবায়ন নেই
একমাসে রফতানি আয় কমেছে ৩৭ কোটি মার্কিন ডলার একমাসে রফতানি আয় কমেছে ৩৭ কোটি মার্কিন ডলার
ড. কামাল প্রত্যেক দলের প্রতিনিধি চান ড. কামাল প্রত্যেক দলের প্রতিনিধি চান
৩ লাখ মানুষ বছরে ক্যান্সারে আক্রান্ত হচ্ছে- নাসিম ৩ লাখ মানুষ বছরে ক্যান্সারে আক্রান্ত হচ্ছে- নাসিম
ইরান নয় সৌদি আরবই বিশ্বের জন্য হুমকি- বেঞ্জামিন ইরান নয় সৌদি আরবই বিশ্বের জন্য হুমকি- বেঞ্জামিন
উ’ কোরিয়াকে জ্বালানী দেয়ার অভিযোগ প্রত্যাখ্যান করল- রাশিয়া উ’ কোরিয়াকে জ্বালানী দেয়ার অভিযোগ প্রত্যাখ্যান করল- রাশিয়া

সর্বাধিক পঠিত

বাংলাদেশে ইন্টারনেট গ্রাহক ৯ কোটি, ৮ কোটি মোবাইলে বাংলাদেশে ইন্টারনেট গ্রাহক ৯ কোটি, ৮ কোটি মোবাইলে
মুসলিমদের অভ্যন্তরীণ বিষয়ে মোদি সরকারের স্বৈরাচারী পন্থা মুসলিমদের অভ্যন্তরীণ বিষয়ে মোদি সরকারের স্বৈরাচারী পন্থা
চারটি চরিত্রে ইশরাত রয় চৈতি চারটি চরিত্রে ইশরাত রয় চৈতি
উ’ কোরিয়ার সাথে আলোচনা ফের শুরু করতে যুক্তরাষ্ট্রের প্রস্তাব উ’ কোরিয়ার সাথে আলোচনা ফের শুরু করতে যুক্তরাষ্ট্রের প্রস্তাব
সংসদে জাতীয় ক্রীড়া পরিষদ বিল পাস সংসদে জাতীয় ক্রীড়া পরিষদ বিল পাস
ফেনীতে বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্টের বিজয়ী সদর ফেনীতে বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্টের বিজয়ী সদর
রজনীকান্ত ও অক্ষয়-মুখোমুখি রজনীকান্ত ও অক্ষয়-মুখোমুখি
আজকে আইন প্রশাসনের অধীনে না: নজরুল আজকে আইন প্রশাসনের অধীনে না: নজরুল
পার্টি ডাকলে সাড়া দেবো, সিনেমা নিয়ে ব্যস্ত-জ্যোতি পার্টি ডাকলে সাড়া দেবো, সিনেমা নিয়ে ব্যস্ত-জ্যোতি
রাধানীতে যানজট নিরসনে পরিকল্পনা হলেও বাস্তবায়ন নেই রাধানীতে যানজট নিরসনে পরিকল্পনা হলেও বাস্তবায়ন নেই
শিল্পে গ্যাস সংযোগ না দেওয়া, আর্থিক ক্ষতির মুখে-সরকার
গুদামের খাদ্যদ্রব্য পাচারে-সক্রিয় চোর সিন্ডিকেট
প্যারিস জলবায়ু চুক্তি ৩০০ পৃষ্ঠার খসড়া অনুমোদন করেছে-ব্যাংকক
সড়ক শৃঙ্খলা-মূল সমস্যাটা রাজনীতিতেই: কাদের
বিশ্বের ভয়াবহ আবহাওয়া নিয়ে প্রযুক্তিগত আলোচনা চলছে
রোহিঙ্গা প্রশ্নে চীন-রাশিয়াকে-জাতিসংঘের কড়া হুুশিয়ারি!
খালেদা জিয়ার জামিন বহাল
বিমসটেক শীর্ষ সম্মেলনে নেপালে প্রধানমন্ত্রী
আওয়ামী লীগের জন্য যা পেয়েছি তা ভয়ংকর!
‘ট্যঁর দ্যে ফ্যাম’ রিপোর্ট: জার্মানিতে যৌনাঙ্গচ্ছেদে শিকার-৬৫হাজার নারী