ঢাকা, জুলাই ১৬, ২০১৮, ৩১ আষাঢ় ১৪২৫
---
---
bbc24news.com
প্রথম পাতা » আর্ন্তজাতিক » ইরানের ক্ষেপণাস্ত্র নিয়ে ফ্রান্সের বিরূপ মন্তব্য
রবিবার ● ৮ জুলাই ২০১৮, ৩১ আষাঢ় ১৪২৫
Email this News Print Friendly Version

ইরানের ক্ষেপণাস্ত্র নিয়ে ফ্রান্সের বিরূপ মন্তব্য

---বিবিসি২৪নিউজ,আন্তর্জাতিক ডেস্ক:ফরাসি পররাষ্ট্রমন্ত্রী ইরানের ক্ষেপণাস্ত্র কর্মসূচিকে হুমকি হিসেবে উল্লেখ করে যে বক্তব্য দিয়েছেন তার জবাবে ইরানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র এ কথা বলেছেন। ফ্রান্সের পররাষ্ট্রমন্ত্রী জ্যঁ-ইভস লা দ্রিয়াঁ আরটি রেডিওকে দেয়া সাক্ষাতকারে দাবি করেছেন, ইরানের ক্ষেপণাস্ত্র কেবল প্রতিরক্ষার জন্য নয়।এর প্রতিক্রিয়ায় ইরানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র বাহরাম কাসেমি তার দেশের ক্ষেপণাস্ত্র কর্মসূচি কোনো দেশের বিরুদ্ধে নয় উল্লেখ করে বলেছেন, ইরাকের সাবেক স্বৈরশাসক সাদ্দামের চাপিয়ে দেয়া যুদ্ধের অভিজ্ঞতাসহ গত কয়েক দশকে তেহরান সামরিক দিক দিয়ে ব্যাপক স্বয়ংসম্পূর্ণতা অর্জন করেছে। তিনি বলেন, শত্রুদের হুমকি ও অশুভ চক্রান্ত রুখে দেয়ার জন্য ইরান সামরিক শক্তি অর্জন করেছে।

পর্যবেক্ষকরা বলছেন, পাশ্চাত্য এখন ইরানের ক্ষেপণাস্ত্র সক্ষমতাকে টার্গেট করেছে। এ লক্ষ্যে একদিকে তারা ইরানের ক্ষেপণাস্ত্রকে মধ্যপ্রাচ্যসহ সারা বিশ্বের জন্য হুমকি হিসেবে তুলে ধরার চেষ্টা চালাচ্ছে। অন্যদিকে ইরানের ওপর চাপ সৃষ্টি করে এ ক্ষেত্রে ইরানের শক্তিকে দুর্বল করার পায়তারা করছে।

বিশ্লেষকরা পাশ্চাত্যের এ আচরণকে দু’দিক থেকে মূল্যায়ন করছেন। প্রথমত, জাতীয় স্বার্থ রক্ষা এবং যে কোনো হুমকি মোকাবেলায় নিজের নিরাপত্তা ব্যবস্থা প্রস্তুত রাখা জরুরি। এ অবস্থায় পাল্টা আক্রমণের যোগ্যতাসম্পন্ন প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা একটি বৈধ বিষয় এবং এ নিয়ে কোনো সংলাপ কিংবা আপোষ হবে না। আর দ্বিতীয় বিষয়টি হচ্ছে, সম্মিলিতভাবে আঞ্চলিক নিরাপত্তা রক্ষা।দুঃখজনকভাবে সৌদি আরবসহ মধ্যপ্রাচ্যের কয়েকটি আরব দেশের সম্মিলিতভাবে নিরাপত্তা রক্ষার ব্যাপারে কোনো আগ্রহ নেই। সব কিছুতে তারা কেবল পাশ্চাত্যের সাহায্য ও সমর্থনের ওপর নির্ভরশীল। পাশ্চাত্যের ইন্ধনে এ দেশগুলো মধ্যপ্রাচ্য জুড়ে নিরাপত্তাহীনতা ও অস্থিতিশীলতা সৃষ্টি করে চলেছে। আমেরিকান এন্টারপ্রাইজ ইন্সটিটিউট গত আগস্টে এক প্রতিবেদনে বলেছে, ইরান ব্যালেস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র তৈরিতে স্বয়ংসম্পূর্ণতা অর্জন করেছে এবং এটা তাদের আত্মরক্ষার প্রধান মাধ্যম।

ফ্রান্সসহ ইউরোপীয় ইউনিয়নের দেশগুলো যদিও পরমাণু সমঝোতা ইস্যুতে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের নীতির বিরোধিতা করেছে কিন্তু তারপরও এই চুক্তিতে তেহরানকে ধরে রাখার জন্য ইউরোপের সঙ্গে চলমান সংলাপে তারা ইরানের ক্ষেপণাস্ত্র কর্মসূচির উদ্দেশ্য নিয়ে উদ্বেগ ও সন্দেহ প্রকাশ করেছে। ইউরোপের ধারণা হয়তো এভাবে পরমাণু সমঝোতা টিকিয়ে রাখার পাশাপাশি আমেরিকা ও মধ্যপ্রাচ্যে তাদের মিত্রদের খুশী রাখা যাবে। যদিও তাদের এ ধরণের চিন্তা একেবারেই ভুল।মার্কিন প্রেসিডেন্ট পরমাণু সমঝোতা থেকে বেরিয়ে যাওয়ার পর ইরানের সর্বোচ্চ নেতা আয়াতুল্লাহিল উজমা খামেনেয়ী এই চুক্তি টিকিয়ে রাখার অজুহাতে ক্ষেপণাস্ত্র কর্মসূচি ও মধ্যপ্রাচ্যে ইরানের উপস্থিতির বিষয়ে কোনো আপোষ করা যাবে না বলে সতর্ক করে দিয়েছেন।


থাই গুহা থেকে প্রথম দফায় তিন কিশোর উদ্ধার

২০১৬ চলচ্চিত্র শিল্পীদের পুরস্কার দিলেন- প্রধানমন্ত্রী


এ বিভাগের আরো খবর...

ইতিহাস গড়ে চ্যাম্পিয়ন হলো ফরাসিরা! ইতিহাস গড়ে চ্যাম্পিয়ন হলো ফরাসিরা!
বিশ্বকাপে ৩৮ মিলিয়ন ডলারের লড়াই শুরু বিশ্বকাপে ৩৮ মিলিয়ন ডলারের লড়াই শুরু
উ’ কোরিয়া এবং যুক্তরাষ্ট্রের ঊর্ধ্বতন সামরিক কর্মকর্তাদের বৈঠক উ’ কোরিয়া এবং যুক্তরাষ্ট্রের ঊর্ধ্বতন সামরিক কর্মকর্তাদের বৈঠক
পুতিনকে ক্রোয়েশিয়া প্রেসিডেন্টের জার্সি উপহার পুতিনকে ক্রোয়েশিয়া প্রেসিডেন্টের জার্সি উপহার
অতীতে বাংলাদেশ-ক্রোয়েশিয়া ছিল একই মানের দল? অতীতে বাংলাদেশ-ক্রোয়েশিয়া ছিল একই মানের দল?
বিএনপি রাজনীতি থেকে মাইনাস- দীপু মনি বিএনপি রাজনীতি থেকে মাইনাস- দীপু মনি
মিয়ানমার রাজি থাকলেও দুর্ভাগ্যজনকভাবে বাস্তবে নেই- প্রধানমন্ত্রী মিয়ানমার রাজি থাকলেও দুর্ভাগ্যজনকভাবে বাস্তবে নেই- প্রধানমন্ত্রী
হযরত শাহজালাল বিমানবন্দরে অাগুন! হযরত শাহজালাল বিমানবন্দরে অাগুন!
১৯৯৮ বিশ্বকাপেরই পুনরাবৃত্তি যেন এই ফাইনাল ১৯৯৮ বিশ্বকাপেরই পুনরাবৃত্তি যেন এই ফাইনাল
আমাকে যারা নিরাপত্তা দেয় তাদের নিয়ে আমি চিন্তিত- প্রধানমন্ত্রী আমাকে যারা নিরাপত্তা দেয় তাদের নিয়ে আমি চিন্তিত- প্রধানমন্ত্রী

সর্বাধিক পঠিত

ইতিহাস গড়ে চ্যাম্পিয়ন হলো ফরাসিরা! ইতিহাস গড়ে চ্যাম্পিয়ন হলো ফরাসিরা!
বিশ্বকাপে ৩৮ মিলিয়ন ডলারের লড়াই শুরু বিশ্বকাপে ৩৮ মিলিয়ন ডলারের লড়াই শুরু
উ’ কোরিয়া এবং যুক্তরাষ্ট্রের ঊর্ধ্বতন সামরিক কর্মকর্তাদের বৈঠক উ’ কোরিয়া এবং যুক্তরাষ্ট্রের ঊর্ধ্বতন সামরিক কর্মকর্তাদের বৈঠক
পুতিনকে ক্রোয়েশিয়া প্রেসিডেন্টের জার্সি উপহার পুতিনকে ক্রোয়েশিয়া প্রেসিডেন্টের জার্সি উপহার
অতীতে বাংলাদেশ-ক্রোয়েশিয়া ছিল একই মানের দল? অতীতে বাংলাদেশ-ক্রোয়েশিয়া ছিল একই মানের দল?
বিএনপি রাজনীতি থেকে মাইনাস- দীপু মনি বিএনপি রাজনীতি থেকে মাইনাস- দীপু মনি
মিয়ানমার রাজি থাকলেও দুর্ভাগ্যজনকভাবে বাস্তবে নেই- প্রধানমন্ত্রী মিয়ানমার রাজি থাকলেও দুর্ভাগ্যজনকভাবে বাস্তবে নেই- প্রধানমন্ত্রী
হযরত শাহজালাল বিমানবন্দরে অাগুন! হযরত শাহজালাল বিমানবন্দরে অাগুন!
১৯৯৮ বিশ্বকাপেরই পুনরাবৃত্তি যেন এই ফাইনাল ১৯৯৮ বিশ্বকাপেরই পুনরাবৃত্তি যেন এই ফাইনাল
আমাকে যারা নিরাপত্তা দেয় তাদের নিয়ে আমি চিন্তিত- প্রধানমন্ত্রী আমাকে যারা নিরাপত্তা দেয় তাদের নিয়ে আমি চিন্তিত- প্রধানমন্ত্রী
রোহিঙ্গাদের সুরক্ষায় বিশ্ব সম্প্রদায় ব্যর্থ হয়েছে-গুতেরেস
শিশু মৃত্যু দায়ী চিকিৎসকের বিরুদ্ধে দ্রুত ব্যবস্থা নিন?
প্রকল্প বাস্তবায়নে-দুর্নীতির দিকে নজর দিন?
মানি লন্ডারিং প্রতিরোধ আইন- আমলে নিন?
আর্জেন্টিনা ১-০ নাইজেরিয়া, ক্রোয়েশিয়া ০-০ আইসল্যান্ড
ডোনাল্ড ট্রাম্প যুক্তরাষ্ট্রের কূটনীতিকে কোন পথে নিয়ে যাচ্ছেন?
প্রধানমন্ত্রীর বিমানে ত্রুটির মামলার প্রকৌশলীদের জামিন মঞ্জুর
কাঙ্খিত ফল পেতে হলে,ভেজালবিরোধী অভিযান চালু রাখতে হবে?
মাদকযুদ্ধে কেন হারবে বাংলাদেশ?
টাঙ্গাইল-বঙ্গবন্ধু সেতু মহাসড়কের দুই ট্রাকের সংঘর্ষে নিহত ৩