ঢাকা, জুলাই ১৬, ২০১৮, ৩১ আষাঢ় ১৪২৫
---
---
bbc24news.com
প্রথম পাতা » আইন-আদালত » বিচার বিলম্বিত হওয়া, বিচার বিভাগের ব্যর্থতা- আইনমন্ত্রী
মঙ্গলবার ● ১০ জুলাই ২০১৮, ৩১ আষাঢ় ১৪২৫
Email this News Print Friendly Version

বিচার বিলম্বিত হওয়া, বিচার বিভাগের ব্যর্থতা- আইনমন্ত্রী

---বিবিসি২৪নিউজ,নিজস্ব প্রতিবেদক:আমরা চাই বিচারকার্যে যাতে বিলম্ব না হয়, আইন, বিচার ও সংসদবিষয়ক মন্ত্রী আনিসুল হক বলেছেন। কারণ বিচার বিলম্বিত হওয়ায় শুধু যে বিচারপ্রার্থী জনগণ ভোগান্তির শিকার হচ্ছেন তা নয়।বিচার বিলম্বিত হওয়া মানে হচ্ছে বিচার বিভাগের ব্যর্থতা এবং বিচার বিভাগের ব্যর্থতার শেষে যেটা হয় তাহলো বিচার বিভাগের ওপর জনগণের আস্থা হারিয়ে ফেলা। সেটা যদি হয় তার পরিণতি হতে পারে ভয়াবহ। এই ভয়াবহ পরিণতি হচ্ছে স্ট্রিট জাস্টিস।তিনি বলেন, আমি নিশ্চয়ই স্ট্রিট জাস্টিসের পক্ষপাতী না। আমি আইন নিজের হাতে তুলে নিতে নিরুৎসাহিত করবো এবং কেউ আইন নিজের হাতে তুলে নিলে সেটার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেব। কিন্তু সেটার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে গেলে বিচার বিভাগের প্রতি জনগণের আস্থাহীনতা কমাতে হবে। আর বিচার বিভাগের প্রতি যাতে জনগণের আস্থা না কমে সেজন্যই আমাদের কাজ করা উচিত।

আজ আইন মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে জাতীয় পর্যায়ের শিশু সংগঠন ন্যাশনাল চিলড্রেন’স টাস্কফোর্স (এনসিটিএফ) এর অ্যাডভোকেসি ফোরাম চাইল্ড পার্লামেন্টের বার সদস্যের একটি প্রতিনিধি দলের সঙ্গে বৈঠকে মন্ত্রী এসব কথা বলেন।আনিসুল হক বলেন, মামলা জট নিরসনে সরকার বিভিন্ন পদক্ষেপ নিয়েছে এবং শিগগিরই আর একটি সিস্টেম চালু করতে হবে সেটা হচ্ছে জাস্টিস অডিট।

তিনি বলেন, এই জাস্টিস অডিট সিস্টেমে আমরা ঘরে বসেই মামলার ধরণ ও মামলার অবস্থা সম্বন্ধে জানতে পারবো এবং মামলার অবস্থা অনুযায়ী ব্যবস্থা নিতে পারবো। এই জাস্টিস অডিট সিস্টেম চালু করলে আমাদের অনেক অগ্রগতি হবে।মন্ত্রী বলেন, শিশু অপরাধ সম্পর্কিত মামলাগুলো দ্রুত নিষ্পত্তির লক্ষ্যে সরকার যথেষ্ট গুরুত্ব সহকারে কাজ করে যাচ্ছে। এ মামলাগুলো দ্রুত নিষ্পত্তির জন্য সারাদেশের সরকারি প্রসিকিউটরদের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। সরকারের কার্যকর পদক্ষেপ নেওয়ার ফলে শিশু রাজন হত্যা মামলাসহ বেশ কয়েকটি হত্যা মামলার বিচার অতি দ্রুত সম্পন্ন হয়েছে। আমরা চেষ্টা করছি মামলার দীর্ঘসূত্রতা দূর করার জন্য।

তিনি বলেন, শিশু রাজন হত্যা মামলা, রাকিব হত্যা মামলাসহ বেশ কয়েকটি হত্যা মামলার দ্রুত বিচার করায় বর্তমানে শিশু নির্যাতন কমেছে। সরকার শিশু নির্যাতন কমানোর বিষয়ে সবসময় সচেষ্ট থাকবে।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকারই প্রথম গৃহ নির্যাতন আইন প্রণয়ন করছে। স্কুলে ছাত্র-ছাত্রীদের নির্যাতন বন্ধে নীতিমালা করেছে। আমরা মনে করি শিশুরা হচ্ছে দেশের ভবিষ্যৎ। সেইক্ষেত্রে তারা ঠিকভাবে গড়ে উঠুক এটা আমাদের চিন্তা ভাবনার মধ্যে আছে।


সেলিমসহ দুজনকে বহিষ্কার করেছে- বিএনপি

ঝড় ঠেকাতে প্রস্তুত লরিস-কুর্তোয়া


এ বিভাগের আরো খবর...

ইতিহাস গড়ে চ্যাম্পিয়ন হলো ফরাসিরা! ইতিহাস গড়ে চ্যাম্পিয়ন হলো ফরাসিরা!
বিশ্বকাপে ৩৮ মিলিয়ন ডলারের লড়াই শুরু বিশ্বকাপে ৩৮ মিলিয়ন ডলারের লড়াই শুরু
উ’ কোরিয়া এবং যুক্তরাষ্ট্রের ঊর্ধ্বতন সামরিক কর্মকর্তাদের বৈঠক উ’ কোরিয়া এবং যুক্তরাষ্ট্রের ঊর্ধ্বতন সামরিক কর্মকর্তাদের বৈঠক
পুতিনকে ক্রোয়েশিয়া প্রেসিডেন্টের জার্সি উপহার পুতিনকে ক্রোয়েশিয়া প্রেসিডেন্টের জার্সি উপহার
অতীতে বাংলাদেশ-ক্রোয়েশিয়া ছিল একই মানের দল? অতীতে বাংলাদেশ-ক্রোয়েশিয়া ছিল একই মানের দল?
বিএনপি রাজনীতি থেকে মাইনাস- দীপু মনি বিএনপি রাজনীতি থেকে মাইনাস- দীপু মনি
মিয়ানমার রাজি থাকলেও দুর্ভাগ্যজনকভাবে বাস্তবে নেই- প্রধানমন্ত্রী মিয়ানমার রাজি থাকলেও দুর্ভাগ্যজনকভাবে বাস্তবে নেই- প্রধানমন্ত্রী
হযরত শাহজালাল বিমানবন্দরে অাগুন! হযরত শাহজালাল বিমানবন্দরে অাগুন!
১৯৯৮ বিশ্বকাপেরই পুনরাবৃত্তি যেন এই ফাইনাল ১৯৯৮ বিশ্বকাপেরই পুনরাবৃত্তি যেন এই ফাইনাল
আমাকে যারা নিরাপত্তা দেয় তাদের নিয়ে আমি চিন্তিত- প্রধানমন্ত্রী আমাকে যারা নিরাপত্তা দেয় তাদের নিয়ে আমি চিন্তিত- প্রধানমন্ত্রী

সর্বাধিক পঠিত

ইতিহাস গড়ে চ্যাম্পিয়ন হলো ফরাসিরা! ইতিহাস গড়ে চ্যাম্পিয়ন হলো ফরাসিরা!
বিশ্বকাপে ৩৮ মিলিয়ন ডলারের লড়াই শুরু বিশ্বকাপে ৩৮ মিলিয়ন ডলারের লড়াই শুরু
উ’ কোরিয়া এবং যুক্তরাষ্ট্রের ঊর্ধ্বতন সামরিক কর্মকর্তাদের বৈঠক উ’ কোরিয়া এবং যুক্তরাষ্ট্রের ঊর্ধ্বতন সামরিক কর্মকর্তাদের বৈঠক
পুতিনকে ক্রোয়েশিয়া প্রেসিডেন্টের জার্সি উপহার পুতিনকে ক্রোয়েশিয়া প্রেসিডেন্টের জার্সি উপহার
অতীতে বাংলাদেশ-ক্রোয়েশিয়া ছিল একই মানের দল? অতীতে বাংলাদেশ-ক্রোয়েশিয়া ছিল একই মানের দল?
বিএনপি রাজনীতি থেকে মাইনাস- দীপু মনি বিএনপি রাজনীতি থেকে মাইনাস- দীপু মনি
মিয়ানমার রাজি থাকলেও দুর্ভাগ্যজনকভাবে বাস্তবে নেই- প্রধানমন্ত্রী মিয়ানমার রাজি থাকলেও দুর্ভাগ্যজনকভাবে বাস্তবে নেই- প্রধানমন্ত্রী
হযরত শাহজালাল বিমানবন্দরে অাগুন! হযরত শাহজালাল বিমানবন্দরে অাগুন!
১৯৯৮ বিশ্বকাপেরই পুনরাবৃত্তি যেন এই ফাইনাল ১৯৯৮ বিশ্বকাপেরই পুনরাবৃত্তি যেন এই ফাইনাল
আমাকে যারা নিরাপত্তা দেয় তাদের নিয়ে আমি চিন্তিত- প্রধানমন্ত্রী আমাকে যারা নিরাপত্তা দেয় তাদের নিয়ে আমি চিন্তিত- প্রধানমন্ত্রী
রোহিঙ্গাদের সুরক্ষায় বিশ্ব সম্প্রদায় ব্যর্থ হয়েছে-গুতেরেস
শিশু মৃত্যু দায়ী চিকিৎসকের বিরুদ্ধে দ্রুত ব্যবস্থা নিন?
প্রকল্প বাস্তবায়নে-দুর্নীতির দিকে নজর দিন?
মানি লন্ডারিং প্রতিরোধ আইন- আমলে নিন?
আর্জেন্টিনা ১-০ নাইজেরিয়া, ক্রোয়েশিয়া ০-০ আইসল্যান্ড
ডোনাল্ড ট্রাম্প যুক্তরাষ্ট্রের কূটনীতিকে কোন পথে নিয়ে যাচ্ছেন?
প্রধানমন্ত্রীর বিমানে ত্রুটির মামলার প্রকৌশলীদের জামিন মঞ্জুর
কাঙ্খিত ফল পেতে হলে,ভেজালবিরোধী অভিযান চালু রাখতে হবে?
মাদকযুদ্ধে কেন হারবে বাংলাদেশ?
টাঙ্গাইল-বঙ্গবন্ধু সেতু মহাসড়কের দুই ট্রাকের সংঘর্ষে নিহত ৩