ঢাকা, ডিসেম্বর ১৮, ২০১৮, ৪ পৌষ ১৪২৫
---
bbc24news.com
প্রথম পাতা » পরিবেশ ও জলবায়ু » রোহিঙ্গাদের সুরক্ষায় বিশ্ব সম্প্রদায় ব্যর্থ হয়েছে-গুতেরেস
শনিবার ● ১৪ জুলাই ২০১৮, ৪ পৌষ ১৪২৫
Email this News Print Friendly Version

রোহিঙ্গাদের সুরক্ষায় বিশ্ব সম্প্রদায় ব্যর্থ হয়েছে-গুতেরেস

---এম ডি জালাল:রোহিঙ্গাদের সুরক্ষায় বিশ্ব সম্প্রদায় ব্যর্থ হয়েছে। সীমিত সম্পদ নিয়ে বাংলাদেশ রোহিঙ্গাদের পাশে যেভাবে দাঁড়িয়েছে, তার প্রশংসা করে গুতেরেস বলেছেন, রোহিঙ্গা সংকট একটি বৈশ্বিক সমস্যা, তাই বৈশ্বিকভাবেই এ সংকট উত্তরণের দায়িত্ব ভাগ করে নিতে হবে।
বাংলাদেশ সফর শেষে ফিরে গিয়ে জাতিসংঘের মহাসচিব অ্যান্তেনিও গুতেরেস যুক্তরাষ্ট্রের ‘ওয়াশিংটন পোস্টে’ একটি নিবন্ধ লিখেছেন।তার লেখায় সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ যে কথাটি স্থান পেয়েছে তা হল, তিনি লিখেছেন, এ নিবন্ধে তিনি কক্সবাজারের রোহিঙ্গা কেন্দ্রে যে অমানবিক দৃশ্যাবলী দেখেছেন, তার মর্মস্পর্শী অভিজ্ঞতা বর্ণনা করেছেন।রোহিঙ্গাদের সহায়তার আবেদনে বিশ্ববাসীকে অবশ্যই সাড়া দিয়ে কাজে নামার আহ্বান জানিয়েছেন গুতেরেস।

জাতিসংঘ মহাসচিবের নিবন্ধটি নিঃসন্দেহে নিপীড়িত-নির্যাতিত রোহিঙ্গাদের প্রতি তার পরম মমত্ববোধের পরিচয় বহন করে। একইসঙ্গে রোহিঙ্গাদের সুরক্ষায় বিশ্ব সম্প্রদায় ব্যর্থ হয়েছে- এ চরম সত্যও উদ্ভাসিত হয়েছে তার নিবন্ধে। সত্যিই তো, ১০০ কোটি ডলারের আন্তর্জাতিক মানবিক সহায়তার আহ্বানে এ পর্যন্ত মাত্র এর ২৬ শতাংশ জোগাড় হয়েছে।

আশ্রিত রোহিঙ্গাদের পানি, স্যানিটেশন, শিক্ষা, পুষ্টি ইত্যাদি যথাযথভাবে সরবরাহ করা যায়নি এখনও। অভাব রয়েছে নিরাপদ আশ্রয়স্থানেরও। সবচেয়ে বড় কথা, রোহিঙ্গাদের স্বদেশে নিরাপদ প্রত্যাবাসনের ব্যাপারে এখনও কার্যকর পদক্ষেপ নেয়া সম্ভব হয়নি। এ পর্যন্ত আমরা যা দেখেছি তা হল, বিশ্ব সম্প্রদায় সমবেদনা জ্ঞাপন করে আর্থিক সহায়তা প্রদান করেছে।

সেই সহায়তাও অপ্রতুল। মিয়ানমারের ওপর কার্যকর চাপ প্রয়োগ করা হয়নি। এমনকি মানবতাবিরোধী অপরাধের দায়ে অভিযুক্তদের বিচারের মুখোমুখিও করা যায়নি। জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদ একাধিকবার বৈঠকে বসেছে; কিন্তু ওই পর্যন্তই। আমরা পৌনঃপুনিকভাবে বলে এসেছি, রোহিঙ্গা একটি আন্তর্জাতিক ইস্যু।

নিকটতম প্রতিবেশী হিসেবে তারা বাংলাদেশে আসতে বাধ্য হয়েছে; কিন্তু তার মানে এই নয় যে বাংলাদেশকে এককভাবেই মোকাবেলা করতে হবে এ সমস্যা। এক্ষেত্রে বিশ্ববাসীর নৈতিক সমর্থনই যথেষ্ট নয়। আমরা লক্ষ করেছি, মিয়ানমার সরকার রোহিঙ্গাদের ফেরত নেয়ার ব্যাপারে আন্তরিক নয়।এ পর্যন্ত যা করেছে তা আই-ওয়াশের অতিরিক্ত কিছু নয়।রোহিঙ্গাদের সুরক্ষায় বিশ্ববাসী যে ব্যর্থতার পরিচয় দিয়েছে, রোহিঙ্গাদের নিরাপদে স্বদেশে ফেরত পাঠানোর ব্যাপারে সবাইকে কার্যকর ব্যবস্থা নিতে হবে।


রাজশাহীতে বাংলাদেশ-ভারত মৈত্রী ভবন উদ্বোধন

গ্রীনল্যান্ডের একটি গ্রামের দিকে ভেসে আসছে বিশাল আইসবার্গ


এ বিভাগের আরো খবর...

নির্বাচনী ইশতেহার ঘোষণা করেছে- বিএনপি নির্বাচনী ইশতেহার ঘোষণা করেছে- বিএনপি
গ্রামে নগর সুবিধা পৌঁছে দেয়ার অঙ্গীকার করেছে- আ’লীগ গ্রামে নগর সুবিধা পৌঁছে দেয়ার অঙ্গীকার করেছে- আ’লীগ
আজ আ’লীগের নির্বাচনী ইশতেহার ঘোষণা আজ আ’লীগের নির্বাচনী ইশতেহার ঘোষণা
বিএনপির  ইশতেহারে  তরুণ ও নারী সমাজ গুরুত্ব পাচ্ছে বিএনপির ইশতেহারে তরুণ ও নারী সমাজ গুরুত্ব পাচ্ছে
নেইমারের সমালোচনায় পেলে নেইমারের সমালোচনায় পেলে
আমার লাশ নিয়ে ভোট দিতে যাবে- ড. কামাল আমার লাশ নিয়ে ভোট দিতে যাবে- ড. কামাল
বাড়ছে চাল উৎপাদন - নেপাল বাড়ছে চাল উৎপাদন - নেপাল
ঐক্যফ্রন্টের  ইশতেহারে ১৪ প্রতিশ্রুতি ঐক্যফ্রন্টের ইশতেহারে ১৪ প্রতিশ্রুতি
ঐক্যফ্রন্টের ইশতেহার ঘোষণা আজ ঐক্যফ্রন্টের ইশতেহার ঘোষণা আজ
নির্বাচন কমিশনের দৃশ্যমান কোনো পদক্ষেপ নেই নির্বাচন কমিশনের দৃশ্যমান কোনো পদক্ষেপ নেই

সর্বাধিক পঠিত

মা ক্যানসারে আক্রান্ত ছেলে আসছেন কেকেআরএ মা ক্যানসারে আক্রান্ত ছেলে আসছেন কেকেআরএ
চাহিদার অতিরিক্ত কফি: ইউএসডিএ চাহিদার অতিরিক্ত কফি: ইউএসডিএ
দেশে ১০১৬ প্লাটুন বিজিবি মোতায়েন দেশে ১০১৬ প্লাটুন বিজিবি মোতায়েন
মাহবুব তালুকদারের কথা সত্য নয়- সিইসি মাহবুব তালুকদারের কথা সত্য নয়- সিইসি
আইসিএসবিতে বিজয় দিবস পালন আইসিএসবিতে বিজয় দিবস পালন
নিলামে বড় প্রশ্ন যুবরাজকে নিয়ে নিলামে বড় প্রশ্ন যুবরাজকে নিয়ে
ঢাকায় ধানের শীষের প্রার্থী সালাহউদ্দিনের প্রচারে হামলা! ঢাকায় ধানের শীষের প্রার্থী সালাহউদ্দিনের প্রচারে হামলা!
নির্বাচনী ইশতেহার ঘোষণা করেছে- বিএনপি নির্বাচনী ইশতেহার ঘোষণা করেছে- বিএনপি
আইপিএলের নিলাম শুরু আইপিএলের নিলাম শুরু
ছয় মাসের  জামিন পেয়েছে- মইনুল ছয় মাসের জামিন পেয়েছে- মইনুল
নেইমারের সমালোচনায় পেলে
জলবায়ু পরিবর্তনে বিশ্বব্যাংক-আইএফসি ২২ বিলিয়ন ডলার দিবে
জলবায়ু পরিবর্তনের যুদ্ধে নারীর অংশগ্রহণ করতে হবে-প্যাট্রিসিয়া
বিএনপির দুটি আসনের পরিবর্তন
কলেজ শিক্ষক আলী হোসেন হত্যা দুইজনের ত্যুদণ্ড
নির্বাচনে সবার অংশগ্রহণ-গণতন্ত্রের জন্য ইতিবাচক
বহুল প্রত্যাশিত সংলাপে কি ছিল?
একটি অর্থবহ ও সফল সংলাপের প্রত্যাশা করছি
শেখ হাসিনা বার্ন ইন্সটিটিউটের: প্রত্যাশিত স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত হবে কি?
নদীশাসনের দুর্বলতা বিঘ্নিত হচ্ছে নৌপথে চলাচল