ঢাকা, মার্চ ২৩, ২০১৯, ৯ চৈত্র ১৪২৫
---
bbc24news.com
প্রথম পাতা » পরিবেশ ও জলবায়ু » মৌসুমি বায়ু দুর্বল থাকায় কারণেই বৃষ্টিপাত কম?
বুধবার ● ১৮ জুলাই ২০১৮, ৯ চৈত্র ১৪২৫
Email this News Print Friendly Version

মৌসুমি বায়ু দুর্বল থাকায় কারণেই বৃষ্টিপাত কম?

---বিবিসি২৪নিউজস,শাহাদাত হোসেন:মৌসুমি বায়ু এবার বেশিরভাগ সময় দুর্বল থাকার কারণেই বৃষ্টিপাত কম হচ্ছে।যা বাড়বে আরো সপ্তাহখানেক পর। ফলে আমন চাষে কিছুটা অসুবিধার সম্মুখীন হচ্ছেন কৃষকরা। তবে এ সমস্যা কেটে যাবে শিগগিরই।কৃষকরা এরইমধ্যে আমনের জমি প্রস্তুত করা শুরু করেছেন। কিন্তু বর্ষণ তেমন না হওয়ায় তাদের ভরসা রাখতে হচ্ছে সেচের ওপর। কৃষিবিদরা বলছেন, এই অবস্থা অব্যাহত থাকলে আমন চাষে প্রভাব পড়বে।রংপুরের বদরগঞ্জ উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মাহাবুবর রহমান জানিয়েছেন, মৌসুমের শুরুতে বৃষ্টি নেই। এই অবস্থা যদি আরও ১০-১৫ দিন চলতে থাকে তবে আমনের উপর অবশ্যই প্রভাব পড়বে। আমন চাষে লক্ষ্যমাত্র পূরণ হবে না।

তবে আবহাওয়া অফিস কৃষক এবং কৃষিবিদদের আশঙ্কাকে উড়িয়ে দিয়ে জানিয়েছে, আগামী ২০-২১ জুলাইয়ের দিকে বৃষ্টিপাত বাড়বে। আমন চাষে তেমন সমস্যা হবে না।

আবহাওয়াবিদরা বলছেন, বর্ষাটা আসলে থাকে জুলাই-আগস্টজুড়ে। বর্ষাকাল শুরু হলেও বর্ষণ স্বাভাবিকের চেয়ে এখন পর্যন্ত কম। আগামী সপ্তাহের শেষের দিকে বর্ষণ কিছুটা বাড়বে। ফলে আমন চাষে তেমন প্রভাব পড়বে না। আগস্টে বন্যার সম্ভাবনাও তৈরি হতে পারে।

আবহাওয়াবিদ আব্দুর রহমান জানান, এক বছর বৃষ্টিপাত বেশি হলে পরের বছর কিছুটা কম হয়। এটাই প্রকৃতির নিয়ম। গত বছর অতিরিক্ত বৃষ্টিপাত হওয়ায় এবার কিছুটা কম হচ্ছে। এমনকি এখন পর্যন্ত স্বাভাবিকের চেয়ে বর্ষণ কম হচ্ছে।মৌসুমি বায়ু শক্তিশালীভাবে সক্রিয় থাকলে বর্ষণ বেশি হয়। আর দুর্বল থাকলে বৃষ্টিপাত কম হয়। এবার মৌসুমি বায়ু বেশিরভাগ সময় দুর্বল অবস্থায় বিরাজ করছে। তাই বর্ষাকাল শুরু হলেও বৃষ্টিপাত এখনো তেমন হচ্ছে না। বৃষ্টিপাত এখনো স্বাভাবিকের চেয়ে কম।

আগামী ২০-২১ জুলাইয়ের দিকে বৃষ্টিপাত বাড়বে। আমন চাষ নিয়ে চিন্তার তেমন কারণ নেই। বৃষ্টিপাত দু’দিন থেকে কিছুটা বেড়েছে।আবহাওয়া অধিদফতর এক পূর্বাভাসে জানিয়েছে, পশ্চিমবঙ্গ ও উড়িষ্যা উপকূল এবং তৎসংলগ্ন উত্তর-পশ্চিম বঙ্গোপসাগর এলাকায় সৃষ্ট সুস্পষ্ট লঘুচাপটি বর্তমানে ঝাড়খণ্ড এবং তৎসংলগ্ন এলাকায় অবস্থান করছে।যার প্রভাবে উত্তর বঙ্গোপসাগরে বায়ুচাপের তারতম্যের আধিক্য বিরাজ করছে।

মৌসুমি বায়ুর অক্ষ রাজস্থান, মধ্য প্রদেশ, সুষ্পষ্ট লঘুচাপের কেন্দ্রস্থল, পশ্চিমবঙ্গ ও বাংলাদেশের মধ্যাঞ্চল হয়ে উত্তর-পূর্ব দিকে আসাম পর্যন্ত বিস্তৃত রয়েছে। মৌসুমি বায়ু বাংলাদেশের উপর মোটামুটি এবং উত্তর বঙ্গোপসাগরে মাঝারি অবস্থায় বিরাজ করছে।

এই অবস্থায় সাগর উত্তাল থাকায় চট্টগ্রাম, কক্সবাজার, মোংলা এবং পায়রা সমুদ্রবন্দরগুলোতে তিন নম্বর স্থানীয় সতর্কতা সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে। পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত মাছ ধরা নৌকা ও ট্রলারগুলোকে উপকূলের কাছাকাছি থেকে সাবধানে চলাচল করতে বলা হয়েছে।

আবহাওয়ার এই অবস্থানে কারণে আজ সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত খুলনা, চট্টগ্রাম ও বরিশাল বিভাগের অনেক জায়গায় এবং রাজশাহী, রংপুর, ঢাকা, ময়মনসিংহ ও সিলেট বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় অস্থায়ী দমকা হাওয়া ও বিজলি চমকানোসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি অথবা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। সেই সঙ্গে দেশের কোথাও কোথাও মাঝারি ধরনের ভারী থেকে ভারী বর্ষণ হতে পারে। আগামী পাঁচদিনের বজ্রসহ বৃষ্টিপাত বাড়বে।গতকাল সন্ধ্যা ৬টা থেকে আগের ২৪ ঘণ্টায় দেশে সর্বোচ্চ ১২৩ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত হয়েছে সন্দ্বীপে।


বিএমডব্লিউ ফেরত দিলেন ওবায়দুল কাদের

পরিবেশ রক্ষায় গাছ লাগানোর কোনও বিকল্প নেই- প্রধানমন্ত্রী


এ বিভাগের আরো খবর...

২৮ বছর পর অভিষেক হলো ডাকসু কমিটির ২৮ বছর পর অভিষেক হলো ডাকসু কমিটির
চিকিৎসাধীন ওবায়দুল কাদের শঙ্কামুক্ত চিকিৎসাধীন ওবায়দুল কাদের শঙ্কামুক্ত
জাসিন্ডা আরডার্নের নোবেল পুরস্কারের পক্ষে পিটিশন জাসিন্ডা আরডার্নের নোবেল পুরস্কারের পক্ষে পিটিশন
টাইগারেদর হুট করে বিয়ের রহস্য উদঘাটন টাইগারেদর হুট করে বিয়ের রহস্য উদঘাটন
জাবালে নূর ও সুপ্রভাত বাসের চলাচলে নিষেধাজ্ঞা কতদিনের? জাবালে নূর ও সুপ্রভাত বাসের চলাচলে নিষেধাজ্ঞা কতদিনের?
মুসলিমদের সাথে একাত্মতায় নিউজিল্যান্ডে নারীদের মাথায় স্কার্ফ মুসলিমদের সাথে একাত্মতায় নিউজিল্যান্ডে নারীদের মাথায় স্কার্ফ
ধর্ষণ মামলার আসামির জামিন পাওয়ার রহস্য কী? ধর্ষণ মামলার আসামির জামিন পাওয়ার রহস্য কী?
নুরুল ডাকসুর ভিপির  দায়িত্ব নিচ্ছেন আজ নুরুল ডাকসুর ভিপির দায়িত্ব নিচ্ছেন আজ
আপত্তি নেই জাতিসংঘের রোহিঙ্গাদের ভাসানচরে স্থানান্তর নিয়ে আপত্তি নেই জাতিসংঘের রোহিঙ্গাদের ভাসানচরে স্থানান্তর নিয়ে
কাদেরকে কো-চেয়ারম্যান পদ থেকে অব্যাহতি কাদেরকে কো-চেয়ারম্যান পদ থেকে অব্যাহতি

সর্বাধিক পঠিত

ফায়ার সার্ভিস ৫৮৩ জনকে নিয়োগ দিচ্ছে ফায়ার সার্ভিস ৫৮৩ জনকে নিয়োগ দিচ্ছে
কী করবেন নাকে অ্যালার্জি হলে? কী করবেন নাকে অ্যালার্জি হলে?
স্বাস্থ্য অধিদফতরে নিয়োগ! স্বাস্থ্য অধিদফতরে নিয়োগ!
বিমানবন্দরে ময়লার ঝুড়িতে মিলল ৪৮ স্বর্ণের বার বিমানবন্দরে ময়লার ঝুড়িতে মিলল ৪৮ স্বর্ণের বার
যশোরে টাকা নিয়ে বিরোধে ছেলরে হাতে বাবা খুন যশোরে টাকা নিয়ে বিরোধে ছেলরে হাতে বাবা খুন
২৮ বছর পর অভিষেক হলো ডাকসু কমিটির ২৮ বছর পর অভিষেক হলো ডাকসু কমিটির
চিকিৎসাধীন ওবায়দুল কাদের শঙ্কামুক্ত চিকিৎসাধীন ওবায়দুল কাদের শঙ্কামুক্ত
বিভিন্ন স্থানে সড়ক দুর্ঘটনায় কলেজ ছাত্রীসহ নিহত ৭ বিভিন্ন স্থানে সড়ক দুর্ঘটনায় কলেজ ছাত্রীসহ নিহত ৭
জাসিন্ডা আরডার্নের নোবেল পুরস্কারের পক্ষে পিটিশন জাসিন্ডা আরডার্নের নোবেল পুরস্কারের পক্ষে পিটিশন
টাইগারেদর হুট করে বিয়ের রহস্য উদঘাটন টাইগারেদর হুট করে বিয়ের রহস্য উদঘাটন
প্রকৃত মুক্তিযোদ্ধাদের তালিকা তৈরি করতে পারছে না কেন?
শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ-ভারত সম্পর্ক বিশ্বে একটি রোল মডেল?
সীমাহীন দুর্নীতিগ্রস্ত বিমান
নানা সমস্যায় জর্জরিত ব্যাংকিং খাত!
উত্তপ্ত কাশ্মীর সমস্যার স্থায়ী সমাধান প্রয়োজন!
দেশকে দ্রুত উন্নতির জন্য কারিগরি শিক্ষার বিকল্প নেই!
প্রধানমন্ত্রীর জার্মানি সফর উন্নয়ন- কূটনৈতিক সম্পর্ক জোরদার হবে!
খেলাপি ঋণে ‘জিরো টলারেন্স’ চাই
৫ জনই ছাত্রলীগ-যুবলীগ নেতা
দুর্নীতির বিরুদ্ধে প্রকৃত অর্থেই নিতে হবে জিরো টলারেন্স