ঢাকা, অক্টোবর ১৫, ২০১৮, ৩০ আশ্বিন ১৪২৫
---
bbc24news.com
প্রথম পাতা » আর্ন্তজাতিক » তিন তালাক ফতোয়া: ইসলাম থেকে বের করার অধিকার কারও নেই
বুধবার ● ১৮ জুলাই ২০১৮, ৩০ আশ্বিন ১৪২৫
Email this News Print Friendly Version

তিন তালাক ফতোয়া: ইসলাম থেকে বের করার অধিকার কারও নেই

---বিবিসি২৪নিউজস,আন্তর্জাতিক ডেস্ক:ভারতের উত্তরপ্রদেশে ইসলাম ধর্মের তিন তালাক ও ‘নিকা হালালা’ বা হিল্লাহ্‌ বিয়ের প্রথার শিকার দুজন মুসলিম নারীর বিরুদ্ধে ধর্মীয় নেতারা ফতোয়া জারি করার পর তারা রুখে দাঁড়িয়ে বলেছেন ইসলাম থেকে তাদের বের করার অধিকার কারও নেই।বেরিলির গৃহবধূ শাহবিনাকে তার স্বামী তিন তালাক দেওয়ার পর হিল্লাহ্‌ বিয়ের মাধ্যমে তার শ্বশুরের সঙ্গে এক রাতের জন্য শুতে বাধ্য করা হয়েছিল - যাতে তিনি নিজের স্বামীকে আবার বিয়ে করতে পারেন।কিন্তু সেই স্বামী আবার তাকে তালাক দিলে যখন তাকে বলা হয় দেবরের সঙ্গে রাত কাটালে তবেই তিনি আবার স্বামীকে বিয়ে করতে পারবেন, তখন শাহবিনা প্রতিবাদে ফেটে পড়েন।দেবরের সঙ্গে শুতে না-চাওয়ায় তাকে বাড়ি থেকেও বের করে দেওয়া হয়।

শাহবিনা এরপর যোগাযোগ করেন লখনৌতে ‘আলা হজরত হেল্পিং সোসাইটি’র প্রতিষ্ঠাতা নিদা খানের সঙ্গে - যার জীবনের অভিজ্ঞতাও প্রায় একই রকম।নিদা খানের বিয়ে হয়েছিল উত্তরপ্রদেশের একটি অভিজাত মুসলিম পরিবারের সন্তান উসমান রেজা খানের সঙ্গে। কিন্তু ২০১৬ সালে তাদের বিচ্ছেদ হয়ে যায়।

নিদা খান তার স্বামীর দেওয়া তিন তালাকের বিরুদ্ধে ফৌজদারি আদালতে যান আর সেই মামলাও জেতেন। আদালতে তিনি বলেছিলেন, তার স্বামী এত শারীরিক ও মানসিক অত্যাচার করতেন যে তার গর্ভপাতও হয়ে গিয়েছিল।

বিবাহ-বিচ্ছিন্না নিদা খান অবশ্য তার লড়াই চালিয়ে যাচ্ছেন। নিজের এনজিও তৈরি করে তিনি তিন তালাক ও নিকা হালালের ভিক্টিমদের পাশে দাঁড়াচ্ছেন - আর বেরিলির শাহবিনার পাশে দাঁড়াতেও তিনি এগিয়ে গিয়েছিলেন।কিন্তু এর পরই সোমবার বেরিলির শহর ইমাম মুফতি খুরশিদ আলম নিদা খান ও শাহবিনা - দুজনের বিরুদ্ধেই ফতোয়া জারি করে প্রকাশ্য বিবৃতি দিয়েছেন, যাতে বলা হয়েছে ইসলামকে অপমান করার জন্য তাদের ধর্ম থেকে বিতাড়িত করা হচ্ছে।

“নিদা খান অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে কোনও ওষুধ দেওয়া যাবে না। সে মারা গেলে তার জন্য কেউ নামাজ পড়বে না, কেউ তার জানাজায় যেতে পারবে না,” বলা হয়েছে ওই ফতোয়ায়, “এমন কী, কবরস্থানেও তাকে দাফন করা যাবে না। যারা তাকে সমর্থন করবে বা তার পাশে দাঁড়াবে, তাদেরও ঠিক এই একই শাস্তি হবে।দারুল উলুম দেওবন্দের স্বীকৃত দারুল ইফতা ওই ফতোয়া জারি করার পর থেকেই শাহবিনা ও নিদা খানকে মেরে ফেলার হুমকি দেওয়া হচ্ছে বলেও তারা অভিযোগ করেছেন।পাঁচ ব্যক্তির বিরুদ্ধে তারা একটি এফআইআর-ও দায়ের করেছেন।

বেরিলির পুলিশ প্রধান অভিনন্দন সিং জানিয়েছেন, ওই অভিযোগের ভিত্তিতে তারা তদন্তও শুরু করেছেন।নিদা খান নিজে অবশ্য দাবি করেছেন এই সব হুমকি-ধমকিকে তিনি মোটেই ভয় পাচ্ছেন না।যারা এই সব ফতোয়া দিচ্ছে তারা পাকিস্তানে গিয়ে ওসব করুক, এ দেশে ওসবের ঠাঁই হবে না। আর আমাদের ইসলাম থেকে বের করে দেওয়ার অধিকারও কারও নেই”, বলেছেন তিনি।তিন তালাকের বিরুদ্ধে একটি বিল এখন ভারতের পার্লামেন্টের উচ্চকক্ষ রাজ্যসভায় বিবেচনাধীন আছে।

নিকা হালালা বা হিল্লাহ্‌ বিয়ে প্রথার বিরুদ্ধে একটি আবেদনের শুনানি চলছে সুপ্রিম কোর্টেও।


গুগলের ৫শ’ কোটি ডলার জরিমানা!

ইরানে নৈরাজ্য ও বিশৃঙ্খলা সৃষ্টির চেষ্টা করছেন- ট্রাম্প


এ বিভাগের আরো খবর...

আবারও ইসির বৈঠক থেকে বেরিয়ে গেলেন- মাহবুব তালুকদার আবারও ইসির বৈঠক থেকে বেরিয়ে গেলেন- মাহবুব তালুকদার
”ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন” সংশোধন চেয়ে সম্পাদক পরিষদের মানববন্ধন ”ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন” সংশোধন চেয়ে সম্পাদক পরিষদের মানববন্ধন
দু্ই জেলায় ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত ২ দু্ই জেলায় ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত ২
প্রধানমন্ত্রীত্বের পথে আনোয়ার ইব্রাহিম প্রধানমন্ত্রীত্বের পথে আনোয়ার ইব্রাহিম
খাশোগি হত্যায় সৌদি শেয়ার বাজারে ধস খাশোগি হত্যায় সৌদি শেয়ার বাজারে ধস
গুজরাটের হিন্দু-মুসলিম দাঙ্গা: অভিযোগের তীর মুসলিম জেনারেলের দিকে গুজরাটের হিন্দু-মুসলিম দাঙ্গা: অভিযোগের তীর মুসলিম জেনারেলের দিকে
জলবায়ু সংরক্ষণে মাংস খাওয়ার হার কমিয়ে আনতে হবে জলবায়ু সংরক্ষণে মাংস খাওয়ার হার কমিয়ে আনতে হবে
ভােটের আগে নেয়া  প্রকল্পগুলো কতটা বাস্তবায়নযোগ্য? ভােটের আগে নেয়া প্রকল্পগুলো কতটা বাস্তবায়নযোগ্য?
ট্রাম্পকে পাল্টা হুমকি দিল সৌদি আরব ট্রাম্পকে পাল্টা হুমকি দিল সৌদি আরব
বিলাসবহুল বিএমডব্লিউ গাড়ি পেলেন- সিইসি বিলাসবহুল বিএমডব্লিউ গাড়ি পেলেন- সিইসি

সর্বাধিক পঠিত

সিমেন্টের দাম ১০% বাড়তে পারে-ভারতে সিমেন্টের দাম ১০% বাড়তে পারে-ভারতে
সিনেমায় শাবনূরের ২৫ বছর পার হল সিনেমায় শাবনূরের ২৫ বছর পার হল
পাকিস্তানে চাল উৎপাদন কমবে ১ লাখ টন পাকিস্তানে চাল উৎপাদন কমবে ১ লাখ টন
মূলধন বেড়েছে ব্যাংক বীমা ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানের মূলধন বেড়েছে ব্যাংক বীমা ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানের
দায়িত্বশীল আচরণ দিয়ে যাত্রাকে নির্বিঘ্ন ও সুন্দর করে তুলতে পারি দায়িত্বশীল আচরণ দিয়ে যাত্রাকে নির্বিঘ্ন ও সুন্দর করে তুলতে পারি
এফএএস ফিন্যান্সের ডিএমডি মো. নূরুল হক গাজী এফএএস ফিন্যান্সের ডিএমডি মো. নূরুল হক গাজী
আবারও ইসির বৈঠক থেকে বেরিয়ে গেলেন- মাহবুব তালুকদার আবারও ইসির বৈঠক থেকে বেরিয়ে গেলেন- মাহবুব তালুকদার
জেনভায়ো ফার্মার আয়োজনে ক্যানসার সচেতনতাবিষয়ক কর্মসূচি জেনভায়ো ফার্মার আয়োজনে ক্যানসার সচেতনতাবিষয়ক কর্মসূচি
”ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন” সংশোধন চেয়ে সম্পাদক পরিষদের মানববন্ধন ”ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন” সংশোধন চেয়ে সম্পাদক পরিষদের মানববন্ধন
রাহসান নূর পাহাড়ি মেয়ে খোঁজে আছেন রাহসান নূর পাহাড়ি মেয়ে খোঁজে আছেন
শিল্পে গ্যাস সংযোগ না দেওয়া, আর্থিক ক্ষতির মুখে-সরকার
গুদামের খাদ্যদ্রব্য পাচারে-সক্রিয় চোর সিন্ডিকেট
প্যারিস জলবায়ু চুক্তি ৩০০ পৃষ্ঠার খসড়া অনুমোদন করেছে-ব্যাংকক
সড়ক শৃঙ্খলা-মূল সমস্যাটা রাজনীতিতেই: কাদের
বিশ্বের ভয়াবহ আবহাওয়া নিয়ে প্রযুক্তিগত আলোচনা চলছে
রোহিঙ্গা প্রশ্নে চীন-রাশিয়াকে-জাতিসংঘের কড়া হুুশিয়ারি!
খালেদা জিয়ার জামিন বহাল
বিমসটেক শীর্ষ সম্মেলনে নেপালে প্রধানমন্ত্রী
আওয়ামী লীগের জন্য যা পেয়েছি তা ভয়ংকর!
‘ট্যঁর দ্যে ফ্যাম’ রিপোর্ট: জার্মানিতে যৌনাঙ্গচ্ছেদে শিকার-৬৫হাজার নারী