ঢাকা, অক্টোবর ২০, ২০১৮, ৫ কার্তিক ১৪২৫
---
bbc24news.com
প্রথম পাতা » পরিবেশ ও জলবায়ু » টাকার নোটে আট ধরনের ব্যাক্টেরিয়া জীবাণু থাকে
মঙ্গলবার ● ২৪ জুলাই ২০১৮, ৫ কার্তিক ১৪২৫
Email this News Print Friendly Version

টাকার নোটে আট ধরনের ব্যাক্টেরিয়া জীবাণু থাকে

---বিবিসি২৪নিউজ,এম ডি জালাল: টাকা শব্দটির সঙ্গে শিশু থেকে বৃদ্ধ পর্যন্ত সবাই অতি পরিচিত। এ টাকাকে আমরা পরম যত্নের সঙ্গে সংরক্ষণ করি।ভারতের তিনজন বিজ্ঞানী এ নিয়ে দীর্ঘ গবেষণা করে আট ধরনের ব্যাক্টেরিয়া আবিষ্কার করতে সক্ষম হয়েছেন। এসব জীবাণু পেটে গিয়ে সৃষ্টি করতে পারে মারাত্মক সব রোগব্যাধি। সময়ের প্রয়োজনে বারবার ধরতে হয় টাকা।দৈনন্দিন জীবনে আমরা কতবার টাকা ব্যবহার করি তার হিসাব রাখা কঠিন। বিভিন্ন প্রয়োজনে বলতে গেলে জীবনের প্রতিটি ক্ষেত্রেই আমরা টাকা অর্থাৎ কাগজের নোট ব্যবহার করে থাকি।

সবাই হয়তো টাকার ইতিবাচক দিকটাই দেখি; কিন্তু এর যে একটা মারাত্মক নেতিবাচক দিক রয়েছে সে বিষয়ে কম মানুষই সচেতন।

টাকা যেমন আমাদের উপকার করে তেমনি মারাত্মক ক্ষতির কারণও হতে পারে। একটি কাগজের নোটে থাকতে পারে অসংখ্য রোগের জীবাণু, যা টাকা ধরার সময় আমাদের হাতে লাগে। অনেক সময় বিভিন্ন শুকনো খাবার আমরা হাত না ধুয়েই খেয়ে ফেলি।

হয়তো এ নিয়ে আমরা কখনও ভাবি না। তবে এটাই সত্য, সেই খাবার খাওয়ার সময় মনের অজান্তেই আমাদের পেটে চলে যায় অসংখ্য রোগের জীবাণু। এসব জীবাণু মানবদেহের ত্বক, খাদ্যনালী, শ্বাসনালী, রেচননালীর বিভিন্ন অংশে সংক্রমণ ঘটাতে পারে।

ডায়রিয়া, আমাশয়, টাইফয়েড, হেপাটাইটিস ও চর্মরোগসহ নানা ধরনের রোগ। আমরা খেয়াল করি আর নাই করি, একটা বিষয় কিন্তু আমরা দেখি যে, একজন মাছ বিক্রেতা মাছ বিক্রি করার সময় যখন টাকা লেনদেন করেন তখন তার মাছ ধরা ভেজা হাত দিয়েই টাকাটা ধরেন। সেখান থেকে টাকার গায়ে লাগে অসংখ্য জীবাণু।

একইভাবে ফল বিক্রেতা, সবজি বিক্রেতা, বাসের কন্ডাক্টর, ঘর্মক্লান্ত রিকশাওয়ালাসহ কতশত হাত বদল হয়ে টাকা আমাদের কাছে আসে তার হিসাব থাকে না। সবার হাতই কি জীবাণুমুক্ত থাকে? অবশ্যই না।

শুনতে খারাপ লাগলেও সত্য, অনেকেরই বদভ্যাস আছে আঙুলের মাথায় থুতু লাগিয়ে টাকা গোনার। আর থুতুতেও কিন্তু থাকে হরেকরকম জীবাণু। প্রশ্ন হতে পারে, তাহলে আমরা কি কাগজের নোট ব্যবহার করব না? অবশ্যই করব, এ ছাড়া উপায় কী! মানুষ টাকা ছাড়া অচল।

হয়তো এমন এক সময় আসবে যখন আর কাগজের নোট ব্যবহার করার প্রয়োজন হবে না। সবাই ক্রেডিট কার্ড ব্যবহার করবে। এমনকি একজন সবজি বিক্রেতাকেও ক্রেডিট কার্ডের মাধ্যমে মূল্য পরিশোধ করা যাবে। তবে সেদিন এখনও ঢের দূরে।

টাকা অর্থাৎ কাগজের নোট আমাদের ব্যবহার করতেই হবে এবং টাকায় জীবাণু লাগবে এটাই স্বাভাবিক। তবে শুনেছি আল্ট্রা ভায়োলেট রশ্মি ব্যবহার করে টাকার জীবাণু ধ্বংস করা যায়। তবে এ কাজ আদৌ কি করা সম্ভব? আর করলেই কতবার করা সম্ভব বা কতগুলো নোট করা সম্ভব? যেহেতু টাকায় জীবাণু লাগা প্রতিরোধ করা সম্ভব নয়, সেহেতু আমাদের ব্যক্তিগতভাবেই সতর্ক হতে হবে।

টাকা ব্যবহারের পর এবং অবশ্যই খাওয়ার আগে আমাদের হাত সাবান অথবা হ্যান্ডওয়াশ দিয়ে ভালোভাবে ধুয়ে নেয়া উচিত। একমাত্র সতর্কতাই পারে টাকা থেকে লাগা জীবাণুর সংক্রমণ থেকে আমাদের বাঁচাতে।মেনিনজাইটিস ও সেপটিসেমিয়ার মতো জটিল রোগেও আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কা থাকে।


জার্মানিতে আার নতুন মসজিদ নির্মাণ হচ্ছে না!

নেত্রকোনায় হত্যার মামলায় ৩ জনের ফাঁসি, ১৯ জনের যাবজ্জীবন


এ বিভাগের আরো খবর...

প্রস্তুতি ম্যাচে ৮ উইকেটে জিতেছে সৌম্যর দল প্রস্তুতি ম্যাচে ৮ উইকেটে জিতেছে সৌম্যর দল
বাচ্চুর আকস্মিক প্রয়াণে শোকাহত নগরবাউলের কনসার্ট উৎসর্গ বাচ্চুর আকস্মিক প্রয়াণে শোকাহত নগরবাউলের কনসার্ট উৎসর্গ
রাজবাড়ীতে ট্রেনের ধাক্কায় নিহত ৩ রাজবাড়ীতে ট্রেনের ধাক্কায় নিহত ৩
আগামীকাল থেকে বাংলাদেশ-জিম্বাবুয়ে ম্যাচের টিকিট বিক্রি শুরু আগামীকাল থেকে বাংলাদেশ-জিম্বাবুয়ে ম্যাচের টিকিট বিক্রি শুরু
‘ঘ’ ইউনিটের ফল বাতিল ও ঢাবি ভিসির পদত্যাগ চেয়ে লিগ্যাল নোটিশ ‘ঘ’ ইউনিটের ফল বাতিল ও ঢাবি ভিসির পদত্যাগ চেয়ে লিগ্যাল নোটিশ
মান্নার অনুরোধেই সিনেমায় এসেছিলেন আইয়ুব বাচ্চু- কাজী হায়াত মান্নার অনুরোধেই সিনেমায় এসেছিলেন আইয়ুব বাচ্চু- কাজী হায়াত
রাজধানীতে এপিবিএন-৫ এর অভিযানে একটি প্রতিষ্ঠাকে ৭ লক্ষ টাকা জরিমানা রাজধানীতে এপিবিএন-৫ এর অভিযানে একটি প্রতিষ্ঠাকে ৭ লক্ষ টাকা জরিমানা
নদীশাসনের দুর্বলতা বিঘ্নিত হচ্ছে নৌপথে চলাচল নদীশাসনের দুর্বলতা বিঘ্নিত হচ্ছে নৌপথে চলাচল
বুঝতেই পারলাম না এভাবে চলে যাবেন বাচ্চু ভাই বুঝতেই পারলাম না এভাবে চলে যাবেন বাচ্চু ভাই
দুদকের মামলায় ইউএনও’র ৮ বছরের কারাদণ্ড দুদকের মামলায় ইউএনও’র ৮ বছরের কারাদণ্ড

সর্বাধিক পঠিত

নির্বাচন বানচালের চক্রান্ত বাদ দিয়ে নির্বাচনের আসুন- ইনু নির্বাচন বানচালের চক্রান্ত বাদ দিয়ে নির্বাচনের আসুন- ইনু
অমিতাভ বচ্চন ও আমির খানের ভাসমাল্লে ঝড় তুলেছে ইউটিউবে অমিতাভ বচ্চন ও আমির খানের ভাসমাল্লে ঝড় তুলেছে ইউটিউবে
আইয়ুব বাচ্চুকে শেষবারের মতো দেখতে মাদারবাড়িতে হাজার হাজার ভক্ত-অনুরাগী আইয়ুব বাচ্চুকে শেষবারের মতো দেখতে মাদারবাড়িতে হাজার হাজার ভক্ত-অনুরাগী
দেশবাসীর কাছে দোয়া চাইলেন আইয়ুব বাচ্চুর ছেলে দেশবাসীর কাছে দোয়া চাইলেন আইয়ুব বাচ্চুর ছেলে
ফ্র্যাঞ্চাইজিটি ছেড়ে দিতে পারে মোস্তাফিজকে ফ্র্যাঞ্চাইজিটি ছেড়ে দিতে পারে মোস্তাফিজকে
সুষ্ঠু নির্বাচনের জন্য সংলাপের বিকল্প নেই- ফখরুল সুষ্ঠু নির্বাচনের জন্য সংলাপের বিকল্প নেই- ফখরুল
জিম্বাবুয়ে সিরিজকে বড় চ্যালেঞ্জ হিসাবে দেখছেন- মাশরাফি জিম্বাবুয়ে সিরিজকে বড় চ্যালেঞ্জ হিসাবে দেখছেন- মাশরাফি
মহেশখালী-কুতুবদিয়াকে সন্ত্রাসীমুক্ত করা হবে- স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী মহেশখালী-কুতুবদিয়াকে সন্ত্রাসীমুক্ত করা হবে- স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী
ঐক্যফ্রন্টের কোনো আদর্শ নেই, লক্ষ্য নেই- তোফায়েল ঐক্যফ্রন্টের কোনো আদর্শ নেই, লক্ষ্য নেই- তোফায়েল
ঐক্যফ্রন্ট ‌অশুভ শক্তির জোট- কাদের ঐক্যফ্রন্ট ‌অশুভ শক্তির জোট- কাদের
নদীশাসনের দুর্বলতা বিঘ্নিত হচ্ছে নৌপথে চলাচল
শিল্পে গ্যাস সংযোগ না দেওয়া, আর্থিক ক্ষতির মুখে-সরকার
গুদামের খাদ্যদ্রব্য পাচারে-সক্রিয় চোর সিন্ডিকেট
প্যারিস জলবায়ু চুক্তি ৩০০ পৃষ্ঠার খসড়া অনুমোদন করেছে-ব্যাংকক
সড়ক শৃঙ্খলা-মূল সমস্যাটা রাজনীতিতেই: কাদের
বিশ্বের ভয়াবহ আবহাওয়া নিয়ে প্রযুক্তিগত আলোচনা চলছে
রোহিঙ্গা প্রশ্নে চীন-রাশিয়াকে-জাতিসংঘের কড়া হুুশিয়ারি!
খালেদা জিয়ার জামিন বহাল
বিমসটেক শীর্ষ সম্মেলনে নেপালে প্রধানমন্ত্রী
আওয়ামী লীগের জন্য যা পেয়েছি তা ভয়ংকর!