ঢাকা, মার্চ ২৩, ২০১৯, ৯ চৈত্র ১৪২৫
---
bbc24news.com
প্রথম পাতা » সম্পাদকীয় » পরিবহন-নৈরাজ্যের বিরুদ্ধে পদক্ষেপ নিন!
রবিবার ● ৫ আগস্ট ২০১৮, ৯ চৈত্র ১৪২৫
Email this News Print Friendly Version

পরিবহন-নৈরাজ্যের বিরুদ্ধে পদক্ষেপ নিন!

---এম ডি জালাল, বাংলাদেশে উদ্বেগের বিষয়, ফিটনেস-সনদবিহীন, লাইসেন্স ছাড়া ১৬ লাখের বেশি বাস-ট্রাক গাড়ি সড়কে চলছে।আমাদের সড়ক পথে বছরের পর বছর নৈরাজ্য চলছে, এমনকি সড়ক মৃত্যুফাঁদে পরিণত হয়েছে তাতে সংশ্লিষ্ট দায়িত্বশীল মহলের কোনো মাথাব্যথা আছে বলে মনে হয় না।দায়িত্বশীল মহল যদি যত্নবান হতো তবে কোনোভাবেই দেশে এ অবস্থা হতো না। আরও উদ্বেগের বিষয়, ফিটনেস সনদবিহীন ও লাইসেন্সধারী চালকবিহীন এসব গাড়ি চলছে পুলিশ ও পরিবহন সমিতিগুলোকে ‘ম্যানেজ’ করেই। পরিস্থিতি এমন বেপরোয়া হলে সড়ক মৃত্যুফাঁদে পরিণত হওয়াটা অস্বাভাবিক নয়। দেশবাসীর দাবি- যথেষ্ট হয়েছে, এবার যে কোনো মূল্যে সড়ক নিরাপদ করতে হবে।

সম্প্রতি রাজধানীর বিমানবন্দর রোডে দুটি বাস পাড়াপাড়ি করতে গিয়ে জাবালে নূর পরিবহনের একটি বাস ফুটপাতে উঠে শহীদ রমিজউদ্দিন ক্যান্টনমেন্ট কলেজের এক ছাত্র ও এক ছাত্রীকে চাপা দিয়ে হত্যার পর স্কুল-কলেজের ছাত্রছাত্রীদের রাস্তায় নেমে আসা এবং গাড়ির চালকদের লাইসেন্স চেক করার ঘটনা বার্তা দিয়েছে যে সাধারণ মানুষ তো বটেই, পুলিশের কর্মকর্তা থেকে মন্ত্রী পর্যন্ত লাইসেন্সবিহীন চালক ও ফিটনেসবিহীন গাড়ি ব্যবহার করছেন দেদার।

রাস্তায় লেন এবং অ্যাম্বুলেন্সের জন্য পৃথক লেন বানিয়ে ছাত্ররা সবাইকে চোখে আঙুল দিয়ে দেখিয়ে দিয়েছে রাস্তার শৃঙ্খলা কেমন হওয়া দরকার। এখন বিআরটিএ, যোগাযোগ মন্ত্রণালয়সহ দায়িত্বশীল সব পক্ষকে সড়কে নৈরাজ্য রোধে ফিটনেস সনদবিহীন গাড়ি ও লাইসেন্সবিহীন চালকদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে এগিয়ে আসা দরকার।

সড়ককে মৃত্যুফাঁদ বানিয়ে ফেলার পেছনের কারণ সড়ক দুর্ঘটনা, এমনকি সড়কে হত্যার শাস্তির জন্য কঠোর কোনো আইন না থাকা। এতদিন পুরনো মোটরযান আইনে সড়ক দুর্ঘটনায় মৃত্যুর ক্ষতিপূরণ ছিল মাত্র ২০ হাজার টাকা এবং নানা ফাঁকফোকরে পড়ে তা-ও বাস্তবায়ন হতো না।

আশার কথা, চূড়ান্ত হতে যাচ্ছে ‘সড়ক পরিবহন আইন-২০১৮’। এতে সড়ক দুর্ঘটনায় মৃত্যু হলে দণ্ডবিধি অনুযায়ী মৃত্যুদণ্ড, যাবজ্জীবন ও বিভিন্ন সাজার বিধান রাখা হচ্ছে। এছাড়া ফিটনেস সনদবিহীন গাড়ি, লাইসেন্সবিহীন চালক এবং অন্যান্য নিয়ম-কানুন ভঙ্গের শাস্তিও বাড়ানো হচ্ছে।

আমরা মনে করি, কেবল আইন করলে হবে না, চূড়ান্ত হওয়ার পর আইনটি দ্রুত কার্যকর করার উদ্যোগও থাকতে হবে। দুর্ভাগ্যজনকভাবে, বিভিন্ন সময় সংঘবদ্ধ হয়ে মানুষকে জিম্মি করে নিজেদের অন্যায় দাবি, এমনকি স্বার্থের জন্য খোদ আদালতের রায়ের বিরুদ্ধেও অবস্থান নিতে দেখা গেছে পরিবহন শ্রমিকদের। যখনই তাদের স্বার্থের বিরুদ্ধে গেছে, তখনই তারা ধর্মঘট করে মানুষকে জিম্মি করে ফেলেছে।বর্তমান সময়ে এমন নৈরাজ্য কোনোভাবেই মেনে নেয়া যায় না।

সরকারের দায়িত্বশীল মহলের উচিত ফিটনেস সনদবিহীন গাড়ি, লাইসেন্সবিহীন চালকদের এবং এরূপ গাড়ির মালিকদের শাস্তির পাশাপাশি শ্রমিক সংগঠনগুলোকেও জবাবদিহির আওতায় আনা।


ফার্মগেটে শিক্ষার্থীদের ওপর হামলা!

জাতীয় সম্পদ কেলেঙ্কারির ঘটনা উদ্ঘাটিত হবে কি?


এ বিভাগের আরো খবর...

প্রকৃত মুক্তিযোদ্ধাদের তালিকা তৈরি করতে পারছে না কেন? প্রকৃত মুক্তিযোদ্ধাদের তালিকা তৈরি করতে পারছে না কেন?
শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ-ভারত সম্পর্ক বিশ্বে একটি রোল মডেল? শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ-ভারত সম্পর্ক বিশ্বে একটি রোল মডেল?
সীমাহীন দুর্নীতিগ্রস্ত বিমান সীমাহীন দুর্নীতিগ্রস্ত বিমান
নানা সমস্যায় জর্জরিত ব্যাংকিং খাত! নানা সমস্যায় জর্জরিত ব্যাংকিং খাত!
উত্তপ্ত কাশ্মীর সমস্যার স্থায়ী সমাধান প্রয়োজন! উত্তপ্ত কাশ্মীর সমস্যার স্থায়ী সমাধান প্রয়োজন!
দেশকে দ্রুত উন্নতির জন্য কারিগরি শিক্ষার বিকল্প নেই! দেশকে দ্রুত উন্নতির জন্য কারিগরি শিক্ষার বিকল্প নেই!
প্রধানমন্ত্রীর জার্মানি সফর উন্নয়ন- কূটনৈতিক সম্পর্ক জোরদার হবে! প্রধানমন্ত্রীর জার্মানি সফর উন্নয়ন- কূটনৈতিক সম্পর্ক জোরদার হবে!
খেলাপি ঋণে ‘জিরো টলারেন্স’ চাই খেলাপি ঋণে ‘জিরো টলারেন্স’ চাই
জনতা ব্যাংকে নেতৃত্ব সংকট দেখা দিয়েছে জনতা ব্যাংকে নেতৃত্ব সংকট দেখা দিয়েছে
খাদ্যদ্রব্যে ভেজাল ও ক্ষতিকর উপাদান রোধে নিতে হবে কঠোর পদক্ষেপ! খাদ্যদ্রব্যে ভেজাল ও ক্ষতিকর উপাদান রোধে নিতে হবে কঠোর পদক্ষেপ!

সর্বাধিক পঠিত

কী করবেন নাকে অ্যালার্জি হলে? কী করবেন নাকে অ্যালার্জি হলে?
স্বাস্থ্য অধিদফতরে নিয়োগ! স্বাস্থ্য অধিদফতরে নিয়োগ!
বিমানবন্দরে ময়লার ঝুড়িতে মিলল ৪৮ স্বর্ণের বার বিমানবন্দরে ময়লার ঝুড়িতে মিলল ৪৮ স্বর্ণের বার
যশোরে টাকা নিয়ে বিরোধে ছেলরে হাতে বাবা খুন যশোরে টাকা নিয়ে বিরোধে ছেলরে হাতে বাবা খুন
২৮ বছর পর অভিষেক হলো ডাকসু কমিটির ২৮ বছর পর অভিষেক হলো ডাকসু কমিটির
চিকিৎসাধীন ওবায়দুল কাদের শঙ্কামুক্ত চিকিৎসাধীন ওবায়দুল কাদের শঙ্কামুক্ত
বিভিন্ন স্থানে সড়ক দুর্ঘটনায় কলেজ ছাত্রীসহ নিহত ৭ বিভিন্ন স্থানে সড়ক দুর্ঘটনায় কলেজ ছাত্রীসহ নিহত ৭
জাসিন্ডা আরডার্নের নোবেল পুরস্কারের পক্ষে পিটিশন জাসিন্ডা আরডার্নের নোবেল পুরস্কারের পক্ষে পিটিশন
টাইগারেদর হুট করে বিয়ের রহস্য উদঘাটন টাইগারেদর হুট করে বিয়ের রহস্য উদঘাটন
কেমন যাবে আজকের দিনটি ? কেমন যাবে আজকের দিনটি ?
প্রকৃত মুক্তিযোদ্ধাদের তালিকা তৈরি করতে পারছে না কেন?
শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ-ভারত সম্পর্ক বিশ্বে একটি রোল মডেল?
সীমাহীন দুর্নীতিগ্রস্ত বিমান
নানা সমস্যায় জর্জরিত ব্যাংকিং খাত!
উত্তপ্ত কাশ্মীর সমস্যার স্থায়ী সমাধান প্রয়োজন!
দেশকে দ্রুত উন্নতির জন্য কারিগরি শিক্ষার বিকল্প নেই!
প্রধানমন্ত্রীর জার্মানি সফর উন্নয়ন- কূটনৈতিক সম্পর্ক জোরদার হবে!
খেলাপি ঋণে ‘জিরো টলারেন্স’ চাই
৫ জনই ছাত্রলীগ-যুবলীগ নেতা
দুর্নীতির বিরুদ্ধে প্রকৃত অর্থেই নিতে হবে জিরো টলারেন্স