ঢাকা, ডিসেম্বর ১৮, ২০১৮, ৪ পৌষ ১৪২৫
---
bbc24news.com
প্রথম পাতা » সম্পাদকীয় » পরিবহন-নৈরাজ্যের বিরুদ্ধে পদক্ষেপ নিন!
রবিবার ● ৫ আগস্ট ২০১৮, ৪ পৌষ ১৪২৫
Email this News Print Friendly Version

পরিবহন-নৈরাজ্যের বিরুদ্ধে পদক্ষেপ নিন!

---এম ডি জালাল, বাংলাদেশে উদ্বেগের বিষয়, ফিটনেস-সনদবিহীন, লাইসেন্স ছাড়া ১৬ লাখের বেশি বাস-ট্রাক গাড়ি সড়কে চলছে।আমাদের সড়ক পথে বছরের পর বছর নৈরাজ্য চলছে, এমনকি সড়ক মৃত্যুফাঁদে পরিণত হয়েছে তাতে সংশ্লিষ্ট দায়িত্বশীল মহলের কোনো মাথাব্যথা আছে বলে মনে হয় না।দায়িত্বশীল মহল যদি যত্নবান হতো তবে কোনোভাবেই দেশে এ অবস্থা হতো না। আরও উদ্বেগের বিষয়, ফিটনেস সনদবিহীন ও লাইসেন্সধারী চালকবিহীন এসব গাড়ি চলছে পুলিশ ও পরিবহন সমিতিগুলোকে ‘ম্যানেজ’ করেই। পরিস্থিতি এমন বেপরোয়া হলে সড়ক মৃত্যুফাঁদে পরিণত হওয়াটা অস্বাভাবিক নয়। দেশবাসীর দাবি- যথেষ্ট হয়েছে, এবার যে কোনো মূল্যে সড়ক নিরাপদ করতে হবে।

সম্প্রতি রাজধানীর বিমানবন্দর রোডে দুটি বাস পাড়াপাড়ি করতে গিয়ে জাবালে নূর পরিবহনের একটি বাস ফুটপাতে উঠে শহীদ রমিজউদ্দিন ক্যান্টনমেন্ট কলেজের এক ছাত্র ও এক ছাত্রীকে চাপা দিয়ে হত্যার পর স্কুল-কলেজের ছাত্রছাত্রীদের রাস্তায় নেমে আসা এবং গাড়ির চালকদের লাইসেন্স চেক করার ঘটনা বার্তা দিয়েছে যে সাধারণ মানুষ তো বটেই, পুলিশের কর্মকর্তা থেকে মন্ত্রী পর্যন্ত লাইসেন্সবিহীন চালক ও ফিটনেসবিহীন গাড়ি ব্যবহার করছেন দেদার।

রাস্তায় লেন এবং অ্যাম্বুলেন্সের জন্য পৃথক লেন বানিয়ে ছাত্ররা সবাইকে চোখে আঙুল দিয়ে দেখিয়ে দিয়েছে রাস্তার শৃঙ্খলা কেমন হওয়া দরকার। এখন বিআরটিএ, যোগাযোগ মন্ত্রণালয়সহ দায়িত্বশীল সব পক্ষকে সড়কে নৈরাজ্য রোধে ফিটনেস সনদবিহীন গাড়ি ও লাইসেন্সবিহীন চালকদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে এগিয়ে আসা দরকার।

সড়ককে মৃত্যুফাঁদ বানিয়ে ফেলার পেছনের কারণ সড়ক দুর্ঘটনা, এমনকি সড়কে হত্যার শাস্তির জন্য কঠোর কোনো আইন না থাকা। এতদিন পুরনো মোটরযান আইনে সড়ক দুর্ঘটনায় মৃত্যুর ক্ষতিপূরণ ছিল মাত্র ২০ হাজার টাকা এবং নানা ফাঁকফোকরে পড়ে তা-ও বাস্তবায়ন হতো না।

আশার কথা, চূড়ান্ত হতে যাচ্ছে ‘সড়ক পরিবহন আইন-২০১৮’। এতে সড়ক দুর্ঘটনায় মৃত্যু হলে দণ্ডবিধি অনুযায়ী মৃত্যুদণ্ড, যাবজ্জীবন ও বিভিন্ন সাজার বিধান রাখা হচ্ছে। এছাড়া ফিটনেস সনদবিহীন গাড়ি, লাইসেন্সবিহীন চালক এবং অন্যান্য নিয়ম-কানুন ভঙ্গের শাস্তিও বাড়ানো হচ্ছে।

আমরা মনে করি, কেবল আইন করলে হবে না, চূড়ান্ত হওয়ার পর আইনটি দ্রুত কার্যকর করার উদ্যোগও থাকতে হবে। দুর্ভাগ্যজনকভাবে, বিভিন্ন সময় সংঘবদ্ধ হয়ে মানুষকে জিম্মি করে নিজেদের অন্যায় দাবি, এমনকি স্বার্থের জন্য খোদ আদালতের রায়ের বিরুদ্ধেও অবস্থান নিতে দেখা গেছে পরিবহন শ্রমিকদের। যখনই তাদের স্বার্থের বিরুদ্ধে গেছে, তখনই তারা ধর্মঘট করে মানুষকে জিম্মি করে ফেলেছে।বর্তমান সময়ে এমন নৈরাজ্য কোনোভাবেই মেনে নেয়া যায় না।

সরকারের দায়িত্বশীল মহলের উচিত ফিটনেস সনদবিহীন গাড়ি, লাইসেন্সবিহীন চালকদের এবং এরূপ গাড়ির মালিকদের শাস্তির পাশাপাশি শ্রমিক সংগঠনগুলোকেও জবাবদিহির আওতায় আনা।


ফার্মগেটে শিক্ষার্থীদের ওপর হামলা!

জাতীয় সম্পদ কেলেঙ্কারির ঘটনা উদ্ঘাটিত হবে কি?


এ বিভাগের আরো খবর...

নেইমারের সমালোচনায় পেলে নেইমারের সমালোচনায় পেলে
বাড়ছে চাল উৎপাদন - নেপাল বাড়ছে চাল উৎপাদন - নেপাল
সবদলকে নির্বাচনী আচরণবিধি মেনে চলা উচিত সবদলকে নির্বাচনী আচরণবিধি মেনে চলা উচিত
জলবায়ু পরিবর্তনে বিশ্বব্যাংক-আইএফসি ২২ বিলিয়ন ডলার দিবে জলবায়ু পরিবর্তনে বিশ্বব্যাংক-আইএফসি ২২ বিলিয়ন ডলার দিবে
জলবায়ু পরিবর্তনের যুদ্ধে নারীর অংশগ্রহণ করতে হবে-প্যাট্রিসিয়া জলবায়ু পরিবর্তনের যুদ্ধে নারীর অংশগ্রহণ করতে হবে-প্যাট্রিসিয়া
নির্বাচন কমিশনকে লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড নিশ্চিত করতে হবে নির্বাচন কমিশনকে লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড নিশ্চিত করতে হবে
বিএনপির দুটি আসনের পরিবর্তন বিএনপির দুটি আসনের পরিবর্তন
ভিকারুননিসার ছাত্রী-অরিত্রীর আত্মহত্যা-দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি হওয়া উচিত! ভিকারুননিসার ছাত্রী-অরিত্রীর আত্মহত্যা-দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি হওয়া উচিত!
কলেজ শিক্ষক আলী হোসেন হত্যা দুইজনের ত্যুদণ্ড কলেজ শিক্ষক আলী হোসেন হত্যা দুইজনের ত্যুদণ্ড
শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে লাগেজ চুরি ঘটনা আবারও বেড়ে গেছে শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে লাগেজ চুরি ঘটনা আবারও বেড়ে গেছে

সর্বাধিক পঠিত

মা ক্যানসারে আক্রান্ত ছেলে আসছেন কেকেআরএ মা ক্যানসারে আক্রান্ত ছেলে আসছেন কেকেআরএ
চাহিদার অতিরিক্ত কফি: ইউএসডিএ চাহিদার অতিরিক্ত কফি: ইউএসডিএ
দেশে ১০১৬ প্লাটুন বিজিবি মোতায়েন দেশে ১০১৬ প্লাটুন বিজিবি মোতায়েন
মাহবুব তালুকদারের কথা সত্য নয়- সিইসি মাহবুব তালুকদারের কথা সত্য নয়- সিইসি
আইসিএসবিতে বিজয় দিবস পালন আইসিএসবিতে বিজয় দিবস পালন
নিলামে বড় প্রশ্ন যুবরাজকে নিয়ে নিলামে বড় প্রশ্ন যুবরাজকে নিয়ে
ঢাকায় ধানের শীষের প্রার্থী সালাহউদ্দিনের প্রচারে হামলা! ঢাকায় ধানের শীষের প্রার্থী সালাহউদ্দিনের প্রচারে হামলা!
নির্বাচনী ইশতেহার ঘোষণা করেছে- বিএনপি নির্বাচনী ইশতেহার ঘোষণা করেছে- বিএনপি
আইপিএলের নিলাম শুরু আইপিএলের নিলাম শুরু
ছয় মাসের  জামিন পেয়েছে- মইনুল ছয় মাসের জামিন পেয়েছে- মইনুল
নেইমারের সমালোচনায় পেলে
জলবায়ু পরিবর্তনে বিশ্বব্যাংক-আইএফসি ২২ বিলিয়ন ডলার দিবে
জলবায়ু পরিবর্তনের যুদ্ধে নারীর অংশগ্রহণ করতে হবে-প্যাট্রিসিয়া
বিএনপির দুটি আসনের পরিবর্তন
কলেজ শিক্ষক আলী হোসেন হত্যা দুইজনের ত্যুদণ্ড
নির্বাচনে সবার অংশগ্রহণ-গণতন্ত্রের জন্য ইতিবাচক
বহুল প্রত্যাশিত সংলাপে কি ছিল?
একটি অর্থবহ ও সফল সংলাপের প্রত্যাশা করছি
শেখ হাসিনা বার্ন ইন্সটিটিউটের: প্রত্যাশিত স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত হবে কি?
নদীশাসনের দুর্বলতা বিঘ্নিত হচ্ছে নৌপথে চলাচল