ঢাকা, ডিসেম্বর ১৮, ২০১৮, ৪ পৌষ ১৪২৫
---
bbc24news.com
প্রথম পাতা » প্রিয়দেশ » ইন্টারনেট আসক্তি, মুক্তির উপায় কী?
সোমবার ● ৬ আগস্ট ২০১৮, ৪ পৌষ ১৪২৫
Email this News Print Friendly Version

ইন্টারনেট আসক্তি, মুক্তির উপায় কী?

---বিবিসি২৪নিউজ,স্বাস্থ্য কথা:জাতীয়, আন্তর্জাতিক, শিক্ষা, বিনোদন ও খেলাধুলাসহ সব বিষয়ের ভাণ্ডার হচ্ছে ইন্টারনেট। এখন আমাদের কোনো তথ্যের জন্য কোনো ব্যক্তির ওপর নির্ভর করতে হয় না।ইন্টারনেটে সার্চ দিলে সহজেই সব পাওয়া যায় মুহূর্তের ব্যবধানে। অর্থাৎ বলা যায়, ইন্টারনেট আমাদের জীবনের এক অবিচ্ছেদ্য অংশে পরিণত হয়েছে।বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশনের (বিটিআরসি) দেয়া তথ্যমতে, বর্তমানে দেশে ইন্টারনেট ব্যবহারকারীর সংখ্যা ৮ লাখ ৫৯ হাজার। এ সংখ্যা দিন দিন বাড়ছে।

ইন্টারনেটের কল্যাণে মানুষের জীবন অনেক সহজ ও গতিশীল হচ্ছে, একথা অস্বীকার করা যায় না। কিন্তু প্রতিটি বিষয়ের ভালো ও খারাপ দুটি দিকই রয়েছে। ইন্টারনেটের খারাপ দিক হল এর অপব্যবহার। তরুণ সমাজ তাদের মূল্যবান সময় অপচয় করছে ফেসবুক, হোয়াটস অ্যাপ ও ইউটিউবের মতো সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোতে। কেউ যদি এগুলোতে অতিমাত্রায় নির্ভরশীল হয়ে পড়ে এবং এ কারণে যদি তার স্বাভাবিক জীবনযাত্রা বিঘ্নিত হয়, তখনই বাধে সমস্যা।

এর ফলে ভুক্তভোগীর পাশাপাশি সমস্যায় পড়তে হয় বন্ধু, পরিবার ও সমাজকে। অতিরিক্ত ইন্টারনেট ব্যবহার অনেকটা মাদকাসক্তির মতো। এতে করে স্থূলতা দেখা দেয়া, ঘুম কমে যাওয়া, সৃজনশীল চিন্তাভাবনায় প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি হওয়া, মানসিক অস্থিরতা সৃষ্টি হওয়াসহ নানা সমস্যা দেখা দেয়। বাংলা সাহিত্যের একজন লেখক বলেছেন, ‘বিজ্ঞান মানুষকে দিয়েছে বেগ, কিন্তু কেড়ে নিয়েছে আবেগ।’

আজকাল বন্ধু-বান্ধবদের সঙ্গে আড্ডায় বসলে দেখা যায়, যে যার মতো স্মার্টফোন নিয়ে ব্যস্ত। বাস বা ট্রেনে চলার সময় অনেককেই দেখা যায় ফেসবুকিং বা ব্রাউজিং করে দীর্ঘ সময় পার করতে। অথচ এই দীর্ঘ সময়ে একটা ভালো বই পড়া যেতে পারে।

বর্তমান বাংলাদেশ ও ভারতে ফেসবুক সাংবাদিকতা বেড়ে যাচ্ছে। ভুল তথ্য দিয়ে মানুষকে হয়রান করা হচ্ছে। অনেকে বিভিন্ন নামে-বেনামে ফেসবুক ফেক আইডি খুলছে এবং খারাপ তথ্য শেয়ার করছে। এসব বিষয়ে আমাদের সবাইকে সচেতন থাকতে হবে।

ইন্টারনেট আসক্তি থেকে রেহাই দিতে তরুণদের সমাজকল্যাণমূলক কার্যক্রমে অংশগ্রহণে উদ্বুদ্ধ করতে হবে। বই পড়ার অভ্যাস গড়ে তুলতে হবে। খেলাধুলা ও চিত্তবিনোদনের ব্যবস্থা করতে হবে। এছাড়া অভিভাবকরা সন্তানদের কাছে ইন্টারনেটের ভালো ও ক্ষতিকর দুটি দিক নিয়ে আলোচনা করতে পারেন।শুধু অ্যান্ড্রয়েড মোবাইল দিয়ে নিজেদের দায়িত্ব শেষ না করে সন্তানদের সময় দিতে হবে। এতে তরুণ-তরুণীরা সচেতন হবে।


প্রেমিককে চিঠিতে কি লিখেছিলেন সেলেনা?

রাজধানীতে চলছে বাস, কমেনি ভোগান্তি?


এ বিভাগের আরো খবর...

দুঃস্বপ্নের এক ম্যাচ টাইগারদের দুঃস্বপ্নের এক ম্যাচ টাইগারদের
আমলকি দৃষ্টিশক্তি বৃদ্ধি করে আমলকি দৃষ্টিশক্তি বৃদ্ধি করে
কুমিল্লায় বাবার ট্রাকের চাকায় প্রাণ গেল দুই ভাইয়ের কুমিল্লায় বাবার ট্রাকের চাকায় প্রাণ গেল দুই ভাইয়ের
ভাতিজার হাত ধরে পালিয়ে গেলেন চাচী ভাতিজার হাত ধরে পালিয়ে গেলেন চাচী
ঝুঁকি নেই সাকিবের: টাইগার কোচ ঝুঁকি নেই সাকিবের: টাইগার কোচ
১১ বছরের শিশুকে ধর্ষণের পর হত্যা! ১১ বছরের শিশুকে ধর্ষণের পর হত্যা!
স্ত্রী ও ২ মেয়েকে হত্যার পর স্বামীর আত্মহত্যা স্ত্রী ও ২ মেয়েকে হত্যার পর স্বামীর আত্মহত্যা
সাগর উত্তাল; ঘূর্ণিঝড় ‘ফেথাইয়ের’ প্রভাবে সাগর উত্তাল; ঘূর্ণিঝড় ‘ফেথাইয়ের’ প্রভাবে
না ফেরার দেশে চলে গেলেন পরিচালক আমজাদ হোসেন না ফেরার দেশে চলে গেলেন পরিচালক আমজাদ হোসেন
জয় পেতে যা করণীয় তাই করা হবে- মাশরাফি জয় পেতে যা করণীয় তাই করা হবে- মাশরাফি

সর্বাধিক পঠিত

মিয়ানমারের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেবে- জাতিসংঘ মিয়ানমারের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেবে- জাতিসংঘ
মা ক্যানসারে আক্রান্ত ছেলে আসছেন কেকেআরএ মা ক্যানসারে আক্রান্ত ছেলে আসছেন কেকেআরএ
চাহিদার অতিরিক্ত কফি: ইউএসডিএ চাহিদার অতিরিক্ত কফি: ইউএসডিএ
দেশে ১০১৬ প্লাটুন বিজিবি মোতায়েন দেশে ১০১৬ প্লাটুন বিজিবি মোতায়েন
মাহবুব তালুকদারের কথা সত্য নয়- সিইসি মাহবুব তালুকদারের কথা সত্য নয়- সিইসি
আইসিএসবিতে বিজয় দিবস পালন আইসিএসবিতে বিজয় দিবস পালন
নিলামে বড় প্রশ্ন যুবরাজকে নিয়ে নিলামে বড় প্রশ্ন যুবরাজকে নিয়ে
ঢাকায় ধানের শীষের প্রার্থী সালাহউদ্দিনের প্রচারে হামলা! ঢাকায় ধানের শীষের প্রার্থী সালাহউদ্দিনের প্রচারে হামলা!
নির্বাচনী ইশতেহার ঘোষণা করেছে- বিএনপি নির্বাচনী ইশতেহার ঘোষণা করেছে- বিএনপি
আইপিএলের নিলাম শুরু আইপিএলের নিলাম শুরু
নেইমারের সমালোচনায় পেলে
জলবায়ু পরিবর্তনে বিশ্বব্যাংক-আইএফসি ২২ বিলিয়ন ডলার দিবে
জলবায়ু পরিবর্তনের যুদ্ধে নারীর অংশগ্রহণ করতে হবে-প্যাট্রিসিয়া
বিএনপির দুটি আসনের পরিবর্তন
কলেজ শিক্ষক আলী হোসেন হত্যা দুইজনের ত্যুদণ্ড
নির্বাচনে সবার অংশগ্রহণ-গণতন্ত্রের জন্য ইতিবাচক
বহুল প্রত্যাশিত সংলাপে কি ছিল?
একটি অর্থবহ ও সফল সংলাপের প্রত্যাশা করছি
শেখ হাসিনা বার্ন ইন্সটিটিউটের: প্রত্যাশিত স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত হবে কি?
নদীশাসনের দুর্বলতা বিঘ্নিত হচ্ছে নৌপথে চলাচল