ঢাকা, ডিসেম্বর ১৪, ২০১৮, ৩০ অগ্রহায়ন ১৪২৫
---
bbc24news.com
প্রথম পাতা » ইউরোপ » ৯ বছরের শিশু সন্তানকে যৌনকর্মী হিসেবে বিক্রি করলেন মা
মঙ্গলবার ● ৭ আগস্ট ২০১৮, ৩০ অগ্রহায়ন ১৪২৫
Email this News Print Friendly Version

৯ বছরের শিশু সন্তানকে যৌনকর্মী হিসেবে বিক্রি করলেন মা

---বিবিসি২৪নিউজ, ডেস্ক: শিশু সন্তানকে অনলাইনে যৌন নির্যাতনকারীদের কাছে বিক্রি করার দায়ে এক জার্মান নারী ও তার সঙ্গীকে কারাদণ্ড দিয়েছে আদালত৷ তদন্তকারীরা বলছেন, তাঁদের দেখা সবচেয়ে ভয়াবহ ৯ বছরের শিশু নির্যাতনের ঘটনা এটি৷

বেরিন টি. নামের ৪৮ বছরের ওই নারীকে সাড়ে ১২ বছরের জেল দিয়েছে জার্মানির এক আদালত৷ ৩৯ বছর বয়সি ক্রিশ্চিয়ান এল. নামের সঙ্গীকে দেয়া হয়েছে ১২ বছরের কারাদণ্ড৷ তারা দু’জন মিলে তাদের ৯ বছরের ছেলেকে অর্থের বিনিময়ে অনলাইনেশিশু যৌন নির্যাতনকারীদেরহাতে তুলে দিতেন৷

ফ্রাইবুর্গ শহরের কাছে সটাউফেন নামক জায়গায় এক যৌন নির্যাতন চক্রের মূল হোতা ছিলেন তারা৷
তদন্তকারীরা বলছেন শুধু অন্যদের হাতে তুলে দেয়া না, এই দু’জন নিজেরাই তাদের সন্তানকে যৌন নির্যাতন করতেন৷

বেরিন টি. ও তার সঙ্গীর বিরুদ্ধে ৬০ ধরনের নির্যাতনের অভিযোগ আনা হয়৷ এর মধ্যে জোর করে যৌনকর্মে বাধ্য করা, মৌখিক নির্যাতন, ধর্ষণও আছে৷

তদন্তকারীরা বলছেন, অনলাইনে যোগাযোগ হওয়া বেশ কিছু জার্মান ও বিদেশি নাগরিককে তারা ৯ বছরের এই শিশুকে ধর্ষণ করার সুযোগ করে দিয়েছেন৷ দুই বছর ধরে এই কাজ করে তারা হাজার হাজার ইউরো উপার্যন করেছেন৷

এ ধরনের অনেক নির্যাতনের দৃশ্য রেকর্ড করে ভিডিও অনলাইনে বিক্রি করা হয়েছে যেখানে দেখা যাচ্ছে ছেলেটিকে মুখোশ পড়িয়ে হাত-পা বেঁধে রাখা হয়েছে৷

অজ্ঞাত এক ফোনে তথ্য পেয়ে ২০১৭ সালের সেপ্টেম্বরে পুলিশ এই চক্রকে সনাক্ত করে৷ বেরিন টি. ও তার সঙ্গীসহ মোট আটজনকে এই ঘটনায় গ্রেপ্তার করা হয়েছে,জার্মানির তিন নাগরিক, সুইজারল্যান্ডের একজন এবং স্পেনের এক নাগরিককে এই মামলায় ৮ থেকে ১০ বছরের জেল দেয়া হয়েছে৷ যাদের বিরুদ্ধে এ ধরনের শিশু নির্যাতনের আরো অভিযোগ রয়েছে৷


রাজধানীতে ২ লাখ প্রি-পেমেন্ট বৈদ্যুতিক মিটার

কূটনীতিকদের সঙ্গে বৈঠকে বসেছে বিএনপি


এ বিভাগের আরো খবর...

উত্তেজনার মধ্যে রাজধানীতে বিএনপি-ঐক্যফ্রন্টের প্রচারণা শুরু উত্তেজনার মধ্যে রাজধানীতে বিএনপি-ঐক্যফ্রন্টের প্রচারণা শুরু
আগামীকাল জাপার ইশতেহার, ঘোষণা করবেন- হাওলাদার আগামীকাল জাপার ইশতেহার, ঘোষণা করবেন- হাওলাদার
নির্বাচনে তিন স্তরের নিরাপত্তা, সেনা মোতায়েন ২৪ ডিসেম্বর নির্বাচনে তিন স্তরের নিরাপত্তা, সেনা মোতায়েন ২৪ ডিসেম্বর
প্রতিকূলতা পেরিয়ে টিকে গেলেন মে প্রতিকূলতা পেরিয়ে টিকে গেলেন মে
ফের সুযোগ চেয়ে শেখ হাসিনার প্রচারণা শুরু ফের সুযোগ চেয়ে শেখ হাসিনার প্রচারণা শুরু
খালেদার প্রার্থিতা নিয়ে একক বেঞ্চে শুনানি দুপুরে খালেদার প্রার্থিতা নিয়ে একক বেঞ্চে শুনানি দুপুরে
সিলেটে কামালসহ ঐক্যফ্রন্ট নেতারা সিলেটে কামালসহ ঐক্যফ্রন্ট নেতারা
ইসিতে বিএনপির প্রতিনিধিদল ইসিতে বিএনপির প্রতিনিধিদল
মামলা নিয়ে ভোটের মাঠে যারা! মামলা নিয়ে ভোটের মাঠে যারা!
ঢাকায় আটকে গেল বিএনপি প্রার্থীর ভোট ঢাকায় আটকে গেল বিএনপি প্রার্থীর ভোট

সর্বাধিক পঠিত

ভিডিও কনফারেন্সে নির্বাচনি প্রচার চালাবেন-শেখ হাসিনা ভিডিও কনফারেন্সে নির্বাচনি প্রচার চালাবেন-শেখ হাসিনা
উত্তেজনার মধ্যে রাজধানীতে বিএনপি-ঐক্যফ্রন্টের প্রচারণা শুরু উত্তেজনার মধ্যে রাজধানীতে বিএনপি-ঐক্যফ্রন্টের প্রচারণা শুরু
বিএন‌পি-জামায়াতকে ভোট দিয়ে লাভ নেই- শামীম বিএন‌পি-জামায়াতকে ভোট দিয়ে লাভ নেই- শামীম
চাকরি না হওয়া পযর্ন্ত বেকার যুবকদের ভাতা দেয়া হবে- ফখরুল চাকরি না হওয়া পযর্ন্ত বেকার যুবকদের ভাতা দেয়া হবে- ফখরুল
সবদলকে নির্বাচনী আচরণবিধি মেনে চলা উচিত সবদলকে নির্বাচনী আচরণবিধি মেনে চলা উচিত
নৌকা হচ্ছে শান্তির প্রতীক, নৌকা হচ্ছে উন্নয়নের প্রতীক- শেখ হাসিনা নৌকা হচ্ছে শান্তির প্রতীক, নৌকা হচ্ছে উন্নয়নের প্রতীক- শেখ হাসিনা
স্লোভাকিয়ার সামরিক অ্যাটাশে বহিষ্কার করল- রাশিয়া স্লোভাকিয়ার সামরিক অ্যাটাশে বহিষ্কার করল- রাশিয়া
ধানের শীষের গণজোয়ার সৃষ্টি হয়েছে- খসরু ধানের শীষের গণজোয়ার সৃষ্টি হয়েছে- খসরু
জয় পেতে যা করণীয় তাই করা হবে- মাশরাফি জয় পেতে যা করণীয় তাই করা হবে- মাশরাফি
আ’লীগ নয়, আমাদের প্রতিপক্ষ পুলিশ- বিএনপি আ’লীগ নয়, আমাদের প্রতিপক্ষ পুলিশ- বিএনপি
জলবায়ু পরিবর্তনে বিশ্বব্যাংক-আইএফসি ২২ বিলিয়ন ডলার দিবে
জলবায়ু পরিবর্তনের যুদ্ধে নারীর অংশগ্রহণ করতে হবে-প্যাট্রিসিয়া
বিএনপির দুটি আসনের পরিবর্তন
কলেজ শিক্ষক আলী হোসেন হত্যা দুইজনের ত্যুদণ্ড
নির্বাচনে সবার অংশগ্রহণ-গণতন্ত্রের জন্য ইতিবাচক
বহুল প্রত্যাশিত সংলাপে কি ছিল?
একটি অর্থবহ ও সফল সংলাপের প্রত্যাশা করছি
শেখ হাসিনা বার্ন ইন্সটিটিউটের: প্রত্যাশিত স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত হবে কি?
নদীশাসনের দুর্বলতা বিঘ্নিত হচ্ছে নৌপথে চলাচল
শিল্পে গ্যাস সংযোগ না দেওয়া, আর্থিক ক্ষতির মুখে-সরকার