ঢাকা, অক্টোবর ১৫, ২০১৮, ৩০ আশ্বিন ১৪২৫
---
bbc24news.com
প্রথম পাতা » জেলার খবর » ছোট ছেলের বাসায় ফিরলেন সেই শিক্ষক বাবা?
বুধবার ● ৮ আগস্ট ২০১৮, ৩০ আশ্বিন ১৪২৫
Email this News Print Friendly Version

ছোট ছেলের বাসায় ফিরলেন সেই শিক্ষক বাবা?

---বিবিসি২৪নিউজ,রাজশাহী প্রতিনিধি:রাজশাহীর স্যাটেলাইন টাউন হাইস্কুলের অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক মাজহার হোসেন ছোট ছেলের বাসায় উঠেছেন।আজ সকাল ৯টার দিকে স্বজনরা তাকে নগরীর বিনোদপুর ধরমপুরের বাসায় নিয়ে যান। হাসিমুখেই বিদ্যালয় ছেড়ে গেছেন পৌঢ় এ অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক। যাওয়ার সময় সঙ্গে নিয়ে গেছেন বিছানাসহ যাবতীয় জিনিসপত্র।সকালে বাবাকে ফেরাতে বিদ্যালয়ে যান মেয়ে মমতাজ বেগম, তার স্বামী রফিক উদ্দিন, বড় ছেলে আক্তারুজ্জামান মুকুল, তার স্ত্রী মাহমুদা বেগম এবং ছোট ছেলে আসাদুজ্জামান আপেল।

স্বাধীনতার আগে ভারতের মালদাহের একটি মাদরাসায় শিক্ষকতা করতেন মাজহার হোসেন। সেখান থেকে রাজশাহী এসে বাড়ি বাড়ি গিয়ে চাঁদা তুলে প্রতিষ্ঠা করেন স্যাটেলাইট টাউন হাইস্কুল। বিদ্যালয়টির প্রতিষ্ঠাতা প্রধান হিসেবে প্রায় ২৮ বছর দায়িত্ব পালনের পর ১৯৯৮ সালের ৫ এপ্রিল তিনি অবসরে যান।

পরিবার বিচ্ছিন্ন হয়ে ২০১০ সালের শেষ দিকে বিদ্যালয়ে এসে ওঠেন অসহায় ওই শিক্ষক। এরপর থেকে একা সেখানেই বসবাস করে আসছিলেন তিনি।

খবর পেয়ে গত ৫ আগস্ট রাজশাহী জেলা প্রশাসক এসএম আবদুল কাদের ওই শিক্ষকের কাছে ছুটে যান। ওই শিক্ষককে সঙ্গে নিয়ে তিনি নগরীর নিউ মার্কেট এলাকার বড় ছেলে আক্তারুজ্জামান মুকুলের বাসায় গিয়েছিলেন। কিন্তু বহুতল হওয়ায় সেই বাসায় থাকতে রাজি হননি তিনি। পরে ওই শিক্ষক বিদ্যালয়ের পরিত্যক্ত বারান্দায় গিয়েই ওঠেন।

শেষ পর্যন্ত রোগাক্রান্ত ওই শিক্ষকের চিকিৎসার দায়িত্বভার নেয় জেলা প্রশাসন। ছেলেরা তার ভরণ-পোষণের দায়িত্বভার না নিলে আইনি ব্যবস্থা নেয়ার হুঁশিয়ারিও দেন জেলা প্রশাসক।

গত তিন দিন ধরে মাজহার হোসেনের খাবারের দায়িত্ব নিয়েছেন রাজশাহী নগর পুলিশের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার শিরিন আক্তার জাহান। মঙ্গলবার তিনিও ছেলেদের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেয়ার হুঁশিয়ারি দেন।এরপর তড়িঘড়ি করে বুধবার ওই শিক্ষককে বাসায় নিয়ে যান ছেলেরা।

জানতে চাইলে ছোট ছেলে আসাদুজ্জামান আপেল বলেন, বাবা নিচতলা খোলামেলা বাসা চাইছিলেন। তার বাসাটি তেমনই। বাসায় আসতে আপত্তি জানাননি বাবা। পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে হাসিমুখেই বাড়ি ফিরেছেন তিনি। সকাল ৮টার দিকে তিন ভাই-বোন গিয়ে বাড়ি নিয়ে এসেছি বাবাকে।

এ বিষয়ে বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক তারিকুল ইসলাম বলেন, সকালে স্বজনরা এসে তাকে নিয়ে গেছেন। যাওয়ার সময় বেশ হাসিখুশি মনে হয়েছে তাকে। আবার ফিরবেন কি না জানতেই চেয়েছিলেন তিনি জানিয়েছেন আর ফিরবেন না।

দুই ছেলে এবং এক মেয়ের জনক মাজহার হোসেন নগরীর বিনোদনপুর ধরমপুর এলাকার বাসিন্দা। সেই ভিটেতে ছোট ছেলে আসাদুজ্জামান আপেল মাকে নিয়ে বসবাস করছেন। আপেল নগরীর মদিনাতুল কামিল মাদরাসার গণিতের প্রভাষক।


বিএনপি বাংলাদেশ নালিশ পার্টি- কাদের

ট্রেনে কাটা পড়ে চবি শিক্ষার্থীর দুই পা হারাল


এ বিভাগের আরো খবর...

জেনভায়ো ফার্মার আয়োজনে ক্যানসার সচেতনতাবিষয়ক কর্মসূচি জেনভায়ো ফার্মার আয়োজনে ক্যানসার সচেতনতাবিষয়ক কর্মসূচি
আবারও মনোবিদের দ্বারস্ত বাংলাদেশ দল আবারও মনোবিদের দ্বারস্ত বাংলাদেশ দল
মাঠে ফিরতে পারি অনুমিত সময়ের আগেই:সাকিব মাঠে ফিরতে পারি অনুমিত সময়ের আগেই:সাকিব
নিজেরাই সিনেমাকে শেষ করে দিচ্ছি নিজেরাই সিনেমাকে শেষ করে দিচ্ছি
বিলাসবহুল বিএমডব্লিউ গাড়ি পেলেন- সিইসি বিলাসবহুল বিএমডব্লিউ গাড়ি পেলেন- সিইসি
পরিস্থিতিগুলো আমার জন্য চ্যালেঞ্জিং- মুশফিক পরিস্থিতিগুলো আমার জন্য চ্যালেঞ্জিং- মুশফিক
মঙ্গলবার থেকে ডেন্টালে আবেদন শুরু মঙ্গলবার থেকে ডেন্টালে আবেদন শুরু
ফের চট্টগ্রাম-কক্সবাজার বাস বন্ধ ফের চট্টগ্রাম-কক্সবাজার বাস বন্ধ
সুসংবাদ অপারেশন নাও লাগতে পারে সাকিবের সুসংবাদ অপারেশন নাও লাগতে পারে সাকিবের
জিম্বাবুয়ে সিরিজ থেকে বাদ পড়লেন মোসাদ্দেক জিম্বাবুয়ে সিরিজ থেকে বাদ পড়লেন মোসাদ্দেক

সর্বাধিক পঠিত

সিমেন্টের দাম ১০% বাড়তে পারে-ভারতে সিমেন্টের দাম ১০% বাড়তে পারে-ভারতে
সিনেমায় শাবনূরের ২৫ বছর পার হল সিনেমায় শাবনূরের ২৫ বছর পার হল
পাকিস্তানে চাল উৎপাদন কমবে ১ লাখ টন পাকিস্তানে চাল উৎপাদন কমবে ১ লাখ টন
মূলধন বেড়েছে ব্যাংক বীমা ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানের মূলধন বেড়েছে ব্যাংক বীমা ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানের
দায়িত্বশীল আচরণ দিয়ে যাত্রাকে নির্বিঘ্ন ও সুন্দর করে তুলতে পারি দায়িত্বশীল আচরণ দিয়ে যাত্রাকে নির্বিঘ্ন ও সুন্দর করে তুলতে পারি
এফএএস ফিন্যান্সের ডিএমডি মো. নূরুল হক গাজী এফএএস ফিন্যান্সের ডিএমডি মো. নূরুল হক গাজী
আবারও ইসির বৈঠক থেকে বেরিয়ে গেলেন- মাহবুব তালুকদার আবারও ইসির বৈঠক থেকে বেরিয়ে গেলেন- মাহবুব তালুকদার
জেনভায়ো ফার্মার আয়োজনে ক্যানসার সচেতনতাবিষয়ক কর্মসূচি জেনভায়ো ফার্মার আয়োজনে ক্যানসার সচেতনতাবিষয়ক কর্মসূচি
”ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন” সংশোধন চেয়ে সম্পাদক পরিষদের মানববন্ধন ”ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন” সংশোধন চেয়ে সম্পাদক পরিষদের মানববন্ধন
রাহসান নূর পাহাড়ি মেয়ে খোঁজে আছেন রাহসান নূর পাহাড়ি মেয়ে খোঁজে আছেন
শিল্পে গ্যাস সংযোগ না দেওয়া, আর্থিক ক্ষতির মুখে-সরকার
গুদামের খাদ্যদ্রব্য পাচারে-সক্রিয় চোর সিন্ডিকেট
প্যারিস জলবায়ু চুক্তি ৩০০ পৃষ্ঠার খসড়া অনুমোদন করেছে-ব্যাংকক
সড়ক শৃঙ্খলা-মূল সমস্যাটা রাজনীতিতেই: কাদের
বিশ্বের ভয়াবহ আবহাওয়া নিয়ে প্রযুক্তিগত আলোচনা চলছে
রোহিঙ্গা প্রশ্নে চীন-রাশিয়াকে-জাতিসংঘের কড়া হুুশিয়ারি!
খালেদা জিয়ার জামিন বহাল
বিমসটেক শীর্ষ সম্মেলনে নেপালে প্রধানমন্ত্রী
আওয়ামী লীগের জন্য যা পেয়েছি তা ভয়ংকর!
‘ট্যঁর দ্যে ফ্যাম’ রিপোর্ট: জার্মানিতে যৌনাঙ্গচ্ছেদে শিকার-৬৫হাজার নারী