ঢাকা, অক্টোবর ২১, ২০১৮, ৬ কার্তিক ১৪২৫
---
bbc24news.com
প্রথম পাতা » সম্পাদকীয় » শিল্পে গ্যাস সংযোগ না দেওয়া, আর্থিক ক্ষতির মুখে-সরকার
বৃহস্পতিবার ● ১৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৬ কার্তিক ১৪২৫
Email this News Print Friendly Version

শিল্পে গ্যাস সংযোগ না দেওয়া, আর্থিক ক্ষতির মুখে-সরকার

---এম ডি জালাল: সরকার ২০১৭ সালের ৯ ফেব্রুয়ারি এক আদেশে দেশের ২২০টি কোম্পানিতে গ্যাস সংযোগের অনুমোদন দেয়। এর আগে আরও সাড়ে ৫শ’র মতো শিল্পপ্রতিষ্ঠানে গ্যাস সংযোগের অনুমোদন দেয়া হলেও বিতরণ লাইনের অভাবে ওই দুই তালিকার অধিকাংশ শিল্পপ্রতিষ্ঠানে গ্যাস সংযোগ দেয়া সম্ভব হয়নি।

গ্যাস সংযোগের অনুমোদন পাওয়ার দীর্ঘদিন পরও বিতরণ বা সার্ভিস লাইন নির্মাণ না করার বিষয়টি উদ্বেগজনক। এর ফলে কেবল শিল্পকারখানার মালিক ও উদ্যোক্তারাই ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছেন না, একইসঙ্গে সরকারও বিপুল অঙ্কের আর্থিক ক্ষতির মুখে পড়ছে।

এরই মধ্যে এলএনজি আমদানি সামনে রেখে আরও ২ হাজারের বেশি শিল্পকারখানাকে গ্যাস সংযোগের অনুমোদন দেয়া হয়েছে, যাদের অধিকাংশেরই বিতরণ লাইন নেই। দীর্ঘ ২০ মাস অতিবাহিত হলেও সরকারের সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠান কেন বিতরণ লাইন নির্মাণ করেনি কিংবা শিল্পপ্রতিষ্ঠানগুলো নিজস্ব অর্থায়নে বিতরণ লাইন নির্মাণের অনুমতি চাইলেও অনুমোদন কেন দেয়া হয়নি- এ প্রশ্নের জবাব কী?

দুঃখজনক হল, বিতরণ লাইন না থাকায় একদিকে অনুমোদন পেয়েও সংশ্লিষ্ট গ্রাহকরা গ্যাস পাচ্ছেন না, অন্যদিকে সরকার উচ্চমূল্যের এলএনজি (তরল প্রাকৃতিক গ্যাস) আমদানি করে তা বিক্রি করতে পারছে না এবং এর ফলে সরকারের বিপুল পরিমাণ অর্থ গচ্চা যাচ্ছে।

উল্লেখ্য, এলএনজিবাহী প্রথম জাহাজ দেশে পৌঁছার পর গত রোববার ১ লাখ ৩৮ হাজার ঘনমিটার এলএনজি নিয়ে দ্বিতীয় জাহাজটি মহেশখালীর মাতারবাড়ি টার্মিনালে ভিড়েছে। সব ধরনের প্রস্তুতি থাকা সত্ত্বেও মাঠপর্যায়ে পর্যাপ্ত পাইপলাইন, সঞ্চালনলাইন ও অবকাঠামো না থাকায় এলএনজি সরবরাহ করা যাচ্ছে না।

এর ফলে শত শত কোটি টাকার গ্যাস নষ্ট হচ্ছে। বলার অপেক্ষা রাখে না, অনুমোদনপ্রাপ্ত শিল্পপ্রতিষ্ঠানের আঙিনা পর্যন্ত গ্যাস সরবরাহ লাইন নির্মাণ অথবা শিল্পকারখানাগুলোর নিজস্ব অর্থায়নে নির্মাণের অনুমতি দিলে এলএনজি সরবরাহ নিয়ে এমন বিপাকে পড়তে হতো না। আমরা মনে করি, এজন্য সংশ্লিষ্টদের জবাবদিহিতার আওতায় আনা উচিত।

দেখা যাচ্ছে, সরকার ব্যবসাবান্ধব হলেও দেশের গ্যাস ও জ্বালানি খাতের দায়িত্বপ্রাপ্ত প্রতিষ্ঠান পেট্রোবাংলা যেন তার উল্টো পথে হাঁটছে। এর পেছনে সুগভীর কোনো ষড়যন্ত্র রয়েছে কিনা, তা খতিয়ে দেখা দরকার। অর্থনৈতিক উন্নয়ন গতিশীল করতে হলে অবশ্যই বেসরকারি খাতে বিনিয়োগ বাড়াতে হবে।

বেসরকারি খাতে আশানুরূপ বিনিয়োগ না হওয়ার অন্যতম কারণ চাহিদা অনুযায়ী শিল্পকারখানায় গ্যাস ও বিদ্যুৎ সংযোগ না পাওয়া। অনেক উদ্যোক্তা শিল্প স্থাপন করে বিদ্যুৎ ও গ্যাসের অভাবে সেগুলো চালু করতে পারছেন না, যা মেনে নেয়া কষ্টকর। দেশের উন্নয়নে মন্থরগতি বা স্থবিরতার কারণ অনুসন্ধান করেছেন অনেকে।

সুপরিকল্পিত উন্নয়ন প্রক্রিয়ার আওতায় বিনিয়োগবান্ধব পরিবেশ তথা অবকাঠামোগত উন্নয়ন ঘটিয়ে দেশের বিপুল জনগোষ্ঠীর দক্ষতা কাজে লাগানো সম্ভব হলে আমাদের উন্নয়নের স্বপ্ন বাস্তবে রূপলাভ করবে, এতে কোনো সন্দেহ নেই।

বস্তুত নিরবচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ ও গ্যাস সরবরাহে এবং রেল, সড়ক ও নৌপথের যথাযথ উন্নয়নে কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহণ করা হলে বেসরকারি খাতের উদ্যোক্তাদের মুনাফা নিয়ে দুশ্চিন্তায় পড়তে হবে না।


শার্লট এডওয়ার্ডসকে পেছনে ফেলে ইতিহাস গড়লেন মিতালি

প্রায় ২ মাস পর বড়পুকুরিয়া তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্রে উৎপাদন শুরু


এ বিভাগের আরো খবর...

নদীশাসনের দুর্বলতা বিঘ্নিত হচ্ছে নৌপথে চলাচল নদীশাসনের দুর্বলতা বিঘ্নিত হচ্ছে নৌপথে চলাচল
দৃষ্টিহীনদের জন্য পুজো কতটা আনন্দদায়ক? দৃষ্টিহীনদের জন্য পুজো কতটা আনন্দদায়ক?
অবৈধ হাসপাতালগুলো আদালতের নির্দেশ মানছে না কেন? অবৈধ হাসপাতালগুলো আদালতের নির্দেশ মানছে না কেন?
শিল্পে গ্যাস সংযোগ না দেওয়া, আর্থিক ক্ষতির মুখে-সরকার শিল্পে গ্যাস সংযোগ না দেওয়া, আর্থিক ক্ষতির মুখে-সরকার
গুদামের খাদ্যদ্রব্য পাচারে-সক্রিয় চোর সিন্ডিকেট গুদামের খাদ্যদ্রব্য পাচারে-সক্রিয় চোর সিন্ডিকেট
প্যারিস জলবায়ু চুক্তি ৩০০ পৃষ্ঠার খসড়া অনুমোদন করেছে-ব্যাংকক প্যারিস জলবায়ু চুক্তি ৩০০ পৃষ্ঠার খসড়া অনুমোদন করেছে-ব্যাংকক
সড়ক শৃঙ্খলা-মূল সমস্যাটা রাজনীতিতেই: কাদের সড়ক শৃঙ্খলা-মূল সমস্যাটা রাজনীতিতেই: কাদের
নিম্নমানের ওষুধ মনিটরিংয়ে শক্তিশালী পদক্ষেপ নিন? নিম্নমানের ওষুধ মনিটরিংয়ে শক্তিশালী পদক্ষেপ নিন?
বিশ্বের ভয়াবহ আবহাওয়া নিয়ে প্রযুক্তিগত আলোচনা চলছে বিশ্বের ভয়াবহ আবহাওয়া নিয়ে প্রযুক্তিগত আলোচনা চলছে
রোহিঙ্গা প্রশ্নে চীন-রাশিয়াকে-জাতিসংঘের কড়া হুুশিয়ারি! রোহিঙ্গা প্রশ্নে চীন-রাশিয়াকে-জাতিসংঘের কড়া হুুশিয়ারি!

সর্বাধিক পঠিত

আমেরিকা চুক্তি থেকে বেরিয়ে আসলে পাল্টা ব্যবস্থা নেবে- মস্কো আমেরিকা চুক্তি থেকে বেরিয়ে আসলে পাল্টা ব্যবস্থা নেবে- মস্কো
মার্কিন জোটের যুদ্ধাপরাধে ব্যবস্থা নিন- জাতিসংঘকে সিরিয়া মার্কিন জোটের যুদ্ধাপরাধে ব্যবস্থা নিন- জাতিসংঘকে সিরিয়া
নিরাপত্তা পরিষদের নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করুন: ইয়েমেন নিরাপত্তা পরিষদের নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করুন: ইয়েমেন
ইরান থেকে তেল আমদানি বাড়াচ্ছে- তুরস্ক ইরান থেকে তেল আমদানি বাড়াচ্ছে- তুরস্ক
সিলেটে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের সমাবেশের অনুমতি সিলেটে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের সমাবেশের অনুমতি
দশম সংসদের শেষ অধিবেশন শুরু, চলবে বৃহস্পতিবার পর্যন্ত দশম সংসদের শেষ অধিবেশন শুরু, চলবে বৃহস্পতিবার পর্যন্ত
প্রধানমন্ত্রীর সংবাদ সম্মেলন আগামীকাল প্রধানমন্ত্রীর সংবাদ সম্মেলন আগামীকাল
চীনের অ্যালুমিনিয়াম রফতানি ৩৭% বেড়েছে চীনের অ্যালুমিনিয়াম রফতানি ৩৭% বেড়েছে
চোখ হারানো প্রত্যেককে ১০ লাখ করে ক্ষতিপূরণ দেয়ার নির্দেশ চোখ হারানো প্রত্যেককে ১০ লাখ করে ক্ষতিপূরণ দেয়ার নির্দেশ
স্টিয়ারিং ও সমন্বয়ক কমিটির যৌথসভায় জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট স্টিয়ারিং ও সমন্বয়ক কমিটির যৌথসভায় জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট
নদীশাসনের দুর্বলতা বিঘ্নিত হচ্ছে নৌপথে চলাচল
শিল্পে গ্যাস সংযোগ না দেওয়া, আর্থিক ক্ষতির মুখে-সরকার
গুদামের খাদ্যদ্রব্য পাচারে-সক্রিয় চোর সিন্ডিকেট
প্যারিস জলবায়ু চুক্তি ৩০০ পৃষ্ঠার খসড়া অনুমোদন করেছে-ব্যাংকক
সড়ক শৃঙ্খলা-মূল সমস্যাটা রাজনীতিতেই: কাদের
বিশ্বের ভয়াবহ আবহাওয়া নিয়ে প্রযুক্তিগত আলোচনা চলছে
রোহিঙ্গা প্রশ্নে চীন-রাশিয়াকে-জাতিসংঘের কড়া হুুশিয়ারি!
খালেদা জিয়ার জামিন বহাল
বিমসটেক শীর্ষ সম্মেলনে নেপালে প্রধানমন্ত্রী
আওয়ামী লীগের জন্য যা পেয়েছি তা ভয়ংকর!