ঢাকা, নভেম্বর ১৩, ২০১৮, ২৯ কার্তিক ১৪২৫
---
bbc24news.com
প্রথম পাতা » আইন-আদালত » আত্মহত্যা করেছিলেন তাসফিয়া- পুলিশ
রবিবার ● ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ২৯ কার্তিক ১৪২৫
Email this News Print Friendly Version

আত্মহত্যা করেছিলেন তাসফিয়া- পুলিশ

---বিবিসি২৪নিউজ,চট্টগ্রাম প্রতিনিধি:চট্টগ্রামে কর্ণফুলীর তীরে লাশ উদ্ধারের পর তাসফিয়া আমিনের স্বজনরা খুনের সন্দেহ করলেও তদন্ত শেষে পুলিশ বলেছে, আত্মহত্যা করেছেন এই স্কুলছাত্রী।সাড়ে ৪ মাস ধরে তদন্তের পর রোববার চট্টগ্রামের মুখ্য মহানগর হাকিম আদালতে চূড়ান্ত প্রতিবেদন দেন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা স্বপন কুমার সরকার।

গোয়েন্দা পুলিশের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার (বন্দর) আবু বকর সিদ্দিক বলেন, “ঘটনার পারিপার্শ্বিকতা, ময়নাতদন্ত প্রতিবেদন, ভিসেরা প্রতিবেদন ও প্রত্যক্ষদর্শী ১৬ জনের সাক্ষ্য গ্রহণ করে আমরা নিশ্চিত হয়েছি, তাসফিয়া আত্মহত্যা করেছে।

তাসফিয়ার বাবার করা হত্যামামলার সন্দেহভাজন ছয় আসামিকেও অব্যাহতি দেওয়ার আবেদন জানানো হয় চূড়ান্ত প্রতিবেদনে।

আত্মহত্যার সিদ্ধান্ত নেওয়ার ক্ষেত্রে ফরেনসিক প্রতিবেদনে তাসফিয়ার শরীরে কোনো বিষক্রিয়া না পাওয়া এবং ডিএনএ প্রতিবেদনেও ‘ভিন্ন কিছু’ না পাওয়ার কথা জানান গোয়েন্দা কর্মকর্তা আবু বকর।তবে কী কারণে তাসফিয়া আত্মহত্যা করেন, সে বিষয়ে স্পষ্ট কোনো ভাষ্য পাওয়া যায়নি চূড়ান্ত প্রতিবেদনে।

গত ২ মে পতেঙ্গার ১৮ নম্বর ঘাট থেকে এক তরুণীর লাশ উদ্ধার করে পুলিশ; তখন তার পরিচয় জানা যায়নি।
বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে পাথরের ওপর উপুড় হয়ে পড়ে থাকা লাশের ছবি ছড়িয়ে পড়ার পর জানা যায়, এই তরুণী নগরীর ও আর নিজাম রোডের বাসিন্দা মো. আমিনের মেয়ে তাসফিয়া আমিন। তিনি পড়েন নগরীর সানশাইন ইংলিশ গ্রামার স্কুলের নবম শ্রেণিতে।

পুলিশের অনুসন্ধানে বেরিয়ে আসে, ফেইসবুকে অন্য একটি স্কুলের দশম শ্রেণির এক ছাত্রের সঙ্গে তাসফিয়ার প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠেছিল, যদিও তাতে আপত্তি ছিল এই তরুণীর পরিবারের।

লাশ উদ্ধারের আগের দিন ১ মে তারা বেড়াতে বের হয়ে গোলপাহাড় এলাকায় চায়না গ্রিল নামে একটি রেস্তোরাঁয় খাওয়া-দাওয়া করতে গিয়েছিলেন বলেও অনুসন্ধানে ধরা পড়ে।

তাসফিয়ার বাবা মোহাম্মদ আমিন পতেঙ্গায় থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করার পর তাসফিয়ার ওই বন্ধুকে পুলিশ গ্রেপ্তার করে। ওই তরুণের কথিত দুই বড় ভাইকেও পুলিশ গ্রেপ্তার করে।

মামলাটি প্রথমে পতেঙ্গা থানা পুলিশ তদন্ত করে। এক মাস পর ৭ জুলাই তদন্তের ভার যায় গোয়েন্দা পুলিশের কাছে।

ডিবি কর্মকর্তা বকর বলেন, “মামলার দায়িত্ব নেওয়ার পর আমরা ঘটনাস্থলের আশে পাশে থাকা লোকজন ও দোকানিদের সাথে কথা বলি।

“তারা জানিয়েছে, তাসফিয়া বেশ কিছুক্ষণ একা বসে থাকার পর পাথরের ওপর দিয়ে হেঁটে নদীর দিকে গিয়েছিল। পরে নদীর দিক থেকে একটি আওয়াজ শুনতে পেয়ে তারা টর্চ নিয়ে খুঁজেছিলেন।

চূড়ান্ত প্রতিবেদনে বলা হয়, গত ১ মে তাসফিয়া তার বন্ধু প্রেমের এক মাস পূর্তি পালন করতে সন্ধ্যা ৬টায় চায়না গ্রিল রেস্তোরাঁয় গিয়েছিলেন। তখন তাসফিয়ার মা তাকে খুঁজে না পেয়ে ওই তরুণের বন্ধুকে ফোন করেন।

চূড়ান্ত প্রতিবেদনে বলা হয়, আদনানের সাথে সম্পর্কটি তাসফিয়ার পরিবার জানতে পেরে তার কাছ থেকে মোবাইল ও সিম নিয়ে ফেলেন। তারপরও তারা গোপনে যোগাযোগ রাখছিলেন।

চায়না গ্রিলের সিসি ক্যামেরার ফুটেজ দেখে পুলিশ আগে জানিয়েছিল, সেখান থেকে বেরিয়ে দুজন দুটি অটোরিকশায় করে দুদিকে চলে গিয়েছিলেন।

চূড়ান্ত প্রতিবেদনে বলা হয়, ঘটনার দিন তাসফিয়ার ধারণা হয়েছিল, তার মা সব জেনে গেছেন।

“সেই ভেবে সে (তাসফিয়া) পতেঙ্গা নেভাল বিচে চলে যায়। কিছুক্ষণ আইল্যান্ডে বসে থেকে সে নদীর পাড়ে পাথরের উপর গিয়ে বসে। রাত সাড়ে ৮টার দিকে কর্ণফুলী নদীর দিকে তাসফিয়া হেঁটে যায় এবং তারপরই একটি চিৎকারের শব্দ আসে।


পরিবেশ দূষণে বাংলাদেশে ১ বছরে মারা গেছে ৮০ হাজার মানুষ!

সিলেট কারাগার থেকে মুক্তি পেল ১৪২ আসামি


এ বিভাগের আরো খবর...

মিস ওয়ার্ল্ডের প্রতিযোগিতায় অংশ নিতে চীনে- ঐশী মিস ওয়ার্ল্ডের প্রতিযোগিতায় অংশ নিতে চীনে- ঐশী
নান্দাইলে ব্যতিক্রমী উদ্যোগে যুবলীগের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত নান্দাইলে ব্যতিক্রমী উদ্যোগে যুবলীগের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত
আজ খালেদা জিয়ার সঙ্গে সাক্ষাৎ করবেন বিএনপি নেতারা আজ খালেদা জিয়ার সঙ্গে সাক্ষাৎ করবেন বিএনপি নেতারা
টিভি পর্দার খেলার সূচী টিভি পর্দার খেলার সূচী
দারুণ ব্যাটিংয়ে তিনশ রানের স্বস্তিতে বাংলাদেশ দারুণ ব্যাটিংয়ে তিনশ রানের স্বস্তিতে বাংলাদেশ
কুমিল্লায় খালেদার জামিন শুনানি, পরবর্তীতে আদেশ কুমিল্লায় খালেদার জামিন শুনানি, পরবর্তীতে আদেশ
মুশফিক ১০৯ ও মুমিনুল ১৪৮ রান নিয়ে ব্যাট করছেন মুশফিক ১০৯ ও মুমিনুল ১৪৮ রান নিয়ে ব্যাট করছেন
জয়পুরহাটে ছাত্র ইউনিয়নের উদ্যোগে দেয়াল পত্রিকা উন্মোচন জয়পুরহাটে ছাত্র ইউনিয়নের উদ্যোগে দেয়াল পত্রিকা উন্মোচন
সিরিজ জয়ের ব্যাপারে আত্মবিশ্বাসী মাসাকাদজা সিরিজ জয়ের ব্যাপারে আত্মবিশ্বাসী মাসাকাদজা
আব্দুস সোবাহানের কাছে মনোনায়ন জমা দিয়েছেন- এমপি তুহিন আব্দুস সোবাহানের কাছে মনোনায়ন জমা দিয়েছেন- এমপি তুহিন

সর্বাধিক পঠিত

৩০ ডিসেম্বরের পর নির্বাচন পেছানোর সুযোগ নেই: সিইসি ৩০ ডিসেম্বরের পর নির্বাচন পেছানোর সুযোগ নেই: সিইসি
পুলিশ প্লাজায় ফ্লোর কিনবে এসিআই পুলিশ প্লাজায় ফ্লোর কিনবে এসিআই
বিএনপির কাছে যে ১০০ আসন চায় ঐক্যফ্রন্ট বিএনপির কাছে যে ১০০ আসন চায় ঐক্যফ্রন্ট
খাসোগির হত্যাকারীদের বিচারের মুখোমুখি করবে- আমেরিকা খাসোগির হত্যাকারীদের বিচারের মুখোমুখি করবে- আমেরিকা
সৎমায়ের কাছ থেকে পেশাদারত্ব শিখতে চাই-সারা সৎমায়ের কাছ থেকে পেশাদারত্ব শিখতে চাই-সারা
সৌদির বাদশাহ হচ্ছেন আহমেদ! সৌদির বাদশাহ হচ্ছেন আহমেদ!
পাকিস্তানের আসিয়া বিবিকে আশ্রয় দিতে চায়- কানাডা পাকিস্তানের আসিয়া বিবিকে আশ্রয় দিতে চায়- কানাডা
বিনিয়োগকারী সব স্টেকহোল্ডারের আলাদা আলাদা দায়িত্ব —বিএসইসি চেয়ারম্যান বিনিয়োগকারী সব স্টেকহোল্ডারের আলাদা আলাদা দায়িত্ব —বিএসইসি চেয়ারম্যান
অ্যাকশন দৃশ্যে কঙ্গনা টম ক্রুজের মতো অ্যাকশন দৃশ্যে কঙ্গনা টম ক্রুজের মতো
হোন্ডার নতুন কারখানা উদ্বোধন মোনেম ইকোনমিক হোন্ডার নতুন কারখানা উদ্বোধন মোনেম ইকোনমিক
বহুল প্রত্যাশিত সংলাপে কি ছিল?
একটি অর্থবহ ও সফল সংলাপের প্রত্যাশা করছি
শেখ হাসিনা বার্ন ইন্সটিটিউটের: প্রত্যাশিত স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত হবে কি?
নদীশাসনের দুর্বলতা বিঘ্নিত হচ্ছে নৌপথে চলাচল
শিল্পে গ্যাস সংযোগ না দেওয়া, আর্থিক ক্ষতির মুখে-সরকার
গুদামের খাদ্যদ্রব্য পাচারে-সক্রিয় চোর সিন্ডিকেট
প্যারিস জলবায়ু চুক্তি ৩০০ পৃষ্ঠার খসড়া অনুমোদন করেছে-ব্যাংকক
সড়ক শৃঙ্খলা-মূল সমস্যাটা রাজনীতিতেই: কাদের
বিশ্বের ভয়াবহ আবহাওয়া নিয়ে প্রযুক্তিগত আলোচনা চলছে
রোহিঙ্গা প্রশ্নে চীন-রাশিয়াকে-জাতিসংঘের কড়া হুুশিয়ারি!