ঢাকা, জানুয়ারী ২১, ২০১৯, ৮ মাঘ ১৪২৫
---
bbc24news.com
প্রথম পাতা » প্রধান সংবাদ » সহাবস্থান নিশ্চিত করে ডাকসু নির্বাচন চায় ছাত্র সংগঠন গুলো
রবিবার ● ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৮ মাঘ ১৪২৫
Email this News Print Friendly Version

সহাবস্থান নিশ্চিত করে ডাকসু নির্বাচন চায় ছাত্র সংগঠন গুলো

---বিবিসি২৪নিউজ,নিজস্ব প্রতিনিধি:ঢাবি ক্যাম্পাসে সব ছাত্র সংগঠনের নেতাদের সহাবস্থান নিশ্চিত করার পর ডাকসু নির্বাচন চেয়েছে ছাত্রদল ও ছাত্র ইউনিয়ন। ছাত্রলীগ কোনও সময় বেঁধে না দিয়ে তা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনের ওপর ছেড়ে দিয়েছে।মতবিনিময় সভা শেষে উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান সাংবাদিকদের বলেন, ‘প্রত্যেকটি ক্রিয়াশীল সংগঠনের নেতাদের উপস্থিতিতে আলোচনা অনুষ্ঠিত হয়ছে। সব সংগঠনের নেতারাই গণতান্ত্রিক মূল্যবোধ মেনে আলোচনায় অংশ নিয়েছে।

গণতান্ত্রিক রীতিনীতি সংসদীয় মূল্যবোধ সংরক্ষণ করে শিক্ষার্থীরা আলোচনা করেছেন। তাদের আলোচিত বিষয়গুলো আমাদের প্রক্টর ও প্রক্টরিয়াল বডির সদস্যরা লিখে নিয়েছেন। এটা নিয়ে পরে পর্যালোচনা করে আমরা পরবর্তীতে সিদ্ধান্ত নেব। আলোচনা শেষে সবাই সন্তোষ প্রকাশ করছেন।

আলোচনাকে সবাই সাধুবাদ জানিয়েছেন। তাদের সঙ্গে কথা বলে কবে নাগাদ ডাকসু ইলকেশন দেওয়া যায়, ক্যাম্পাসে সহাবস্থান ও নির্বাচনের সম্ভাব্য তারিখ নিয়ে আমরা পরে আলোচনা করবো।

কবে নাগাদ ডাকসু নির্বাচন দেওয়া হবে এমন প্রশ্নের জবাবে উপাচার্য বলেন, ‘প্রভোস্ট কমিটি, শৃঙ্খলা পরিষদ ও সিন্ডিকেট থেকে তো এ বিষয়ে একটি নির্দেশনা আগেই দেওয়া আছে।’

ডাকসু নির্বাচনের জন্য কারা ভোটার হতে পারবে এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন,‘ ডাকসুর যে গঠনতন্ত্র আছে সে অনুযায়ীই ভোটার তালিকা করা হবে।

ডাকসু নির্বাচন দেওয়ার আগে বিশ্ববিদ্যালয়ের হলে সব দলের সহাবস্থান নিশ্চিত করা নিয়ে ছাত্রদের দাবির বিষয়ে উপাচার্য বলেন, ‘হলগুলোতে অবস্থানের জন্য প্রভোস্টরা ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন। মধুর ক্যান্টিনকেন্দ্রিক যে রাজনৈতিক চর্চা সেটি সকলের জন্য উন্মুক্ত। সেখানে ক্রিয়াশীল ছাত্র সংগঠনগুলো তাদের কার্যক্রম চালাবে।

সভা শেষে ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানী বলেন, ‘ডাকসু নির্বাচনটা যেন একটি যৌক্তিক সময়ে হয় সে দাবি আমাদের থাকবে। অনেকে এই বছরের নভেম্বরের মধ্যেই নির্বাচন করার দাবি জানিয়েছে।

আমরা বলেছি কোনও সময় বেঁধে দেবো না। কারণ, এটি নির্দিষ্ট করার দায়িত্ব বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের। বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন যে সময় ডাকসু নির্বাচন করতে চায়, সে সময়ে আমরা নির্বাচন করতে প্রস্তুত আছি।

‘ক্যাম্পাসে সহাবস্থান নেই’- ছাত্র সংগঠনগুলোর পক্ষ থেকে করা অভিযোগের বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘প্রত্যেকটি হলে ছাত্রলীগের সংখ্যা ৩০ শতাংশ। এ

র বাইরে যারা আছেন তারা কিন্তু বিভিন্ন ছাত্র সংগঠনগুলোর কর্মী এবং সাধারণ ছাত্র। ক্যাম্পাসে সহাবস্থান অবশ্যই প্রয়োজন, তবে যারা বিশ্ববিদ্যালয়ের নিয়মিত ছাত্র শুধু তারাই ক্যাম্পাসে আসতে পারবে। যারা নিয়মিত ছাত্র নয় এবং যারা ক্যাম্পাসে শৃঙ্খলায় বিঘ্ন ঘটাতে চাইবে, তারা ক্যাম্পাসে থাকার কোনও অধিকার রাখে না।’

জাতীয়তাবাদী ছাত্রদলের কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি রাজিব আহসান বলেন, ‘আমরা ডাকসু নির্বাচনের উদ্যোগকে সাধুবাদ জানাই। ডাকসু নির্বাচনের বিষয়ে আমাদের একটি দাবি ছিল, নির্বাচনের জন্য একটি সুষ্ঠু পরিবেশ নিশ্চিত করতে হবে।

একইসঙ্গে সব দলের সহাবস্থান নিশ্চিত করতে হবে। কারণ, ডাকসু নির্বাচনের জন্য এটি খুবই গুরুত্বপূর্ণ। বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে সব দলের রাজনীতি করার পরিবেশ তৈরি করতে হবে। ডাকসু নির্বাচনের জন্য একটি যৌক্তিক সময় ঠিক করতে হবে। এর আগে ডাকসুর কার্যক্রমগুলো চালু করতে হবে।

আমরা আবারও বলছি, যদি ক্যাম্পাসে সবার সহাবস্থান নিশ্চিত করা যায় তাহলে কেবল ডাকসু নির্বাচন করা যাবে বলে আমরা আশা করছি।

আমরা বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের কাছে আমাদের দাবিগুলো জানিয়েছি, ক্যাম্পাসে সহাবস্থান ফিরিয়ে আনার বিষয়ে আমরা বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের কাছে দাবি জানিয়েছি। কর্তৃপক্ষ তা নিশ্চিত করবে বলে আমাদের আশ্বস্তও করেছেন।

ছাত্র ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক লিটন নন্দী বলেন, ‘নির্বাচনের সম্ভাব্য তারিখ ও তফসিল ঘোষণার কথা বলেছি। এর আগে সব রাজনৈতিক দলের সহাবস্থান নিশ্চিত করে নির্বাচনের পরিবেশ সৃষ্টি করতে হবে। আমরা বলেছি ডাকসু নির্বাচন নিয়ে জাতীয় নির্বাচনের ওপর নির্ভর করা উচিত নয়। কেননা এটি স্বতন্ত্র।

তাই জাতীয় নির্বাচনের দিকে না তাকিয়ে শুধু ডাকসু নির্বাচনের দিকে নজর দেওয়া উচিত। স্বৈরাচারবিরোধী আন্দোলন ও আইয়ুব খান-বিরোধী আন্দোলনের সময় ডাকসু নির্বাচন হতে পারলে এখন কেন তা সম্ভব নয়? এর আগে ডাকসু নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করা হলেও নির্বাচন হয়নি।


সিলেট কারাগার থেকে মুক্তি পেল ১৪২ আসামি

দেশে ফিরলেন মির্জা ফখরুল


এ বিভাগের আরো খবর...

আফগান সেনা ঘাঁটিতে তালেবান হামলা, নিহত শতাধিক আফগান সেনা ঘাঁটিতে তালেবান হামলা, নিহত শতাধিক
বিশ্ব ইজতেমা নিয়ে এখনও সংশয় কাটেনি বিশ্ব ইজতেমা নিয়ে এখনও সংশয় কাটেনি
ভারতে ষাঁড়ের রেসলিং উৎসবে নিহত ২ ভারতে ষাঁড়ের রেসলিং উৎসবে নিহত ২
ফ্রাঙ্কলিংকের ঝড়ে উড়ে গেল ঢাকা ডায়নামাইটস ফ্রাঙ্কলিংকের ঝড়ে উড়ে গেল ঢাকা ডায়নামাইটস
বড় সংগ্রহ গড়তে পারেনি সাকিবের ঢাকা বড় সংগ্রহ গড়তে পারেনি সাকিবের ঢাকা
বিশ্ব ইজতেমা অনুষ্ঠানের নির্দেশনা চেয়ে হাইকোর্টে রিট বিশ্ব ইজতেমা অনুষ্ঠানের নির্দেশনা চেয়ে হাইকোর্টে রিট
রাষ্ট্রপতির সঙ্গে নৌবাহিনী প্রধানের বিদায়ী সাক্ষাৎ রাষ্ট্রপতির সঙ্গে নৌবাহিনী প্রধানের বিদায়ী সাক্ষাৎ
বুধবারের বৈঠকে ইজতেমা নিয়ে সিদ্ধান্ত:স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বুধবারের বৈঠকে ইজতেমা নিয়ে সিদ্ধান্ত:স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী
এবারের নির্বাচনের পরিবেশ ছিল সম্পূর্ণ শান্তিপূর্ণ- তথ্যমন্ত্রী এবারের নির্বাচনের পরিবেশ ছিল সম্পূর্ণ শান্তিপূর্ণ- তথ্যমন্ত্রী
পাঁচ প্রতিষ্ঠানের পানি ‘মানহীন’ আদলতকে- বিএসটিআই পাঁচ প্রতিষ্ঠানের পানি ‘মানহীন’ আদলতকে- বিএসটিআই

সর্বাধিক পঠিত

আফগান সেনা ঘাঁটিতে তালেবান হামলা, নিহত শতাধিক আফগান সেনা ঘাঁটিতে তালেবান হামলা, নিহত শতাধিক
বিশ্ব ইজতেমা নিয়ে এখনও সংশয় কাটেনি বিশ্ব ইজতেমা নিয়ে এখনও সংশয় কাটেনি
ভারতে ষাঁড়ের রেসলিং উৎসবে নিহত ২ ভারতে ষাঁড়ের রেসলিং উৎসবে নিহত ২
ফ্রাঙ্কলিংকের ঝড়ে উড়ে গেল ঢাকা ডায়নামাইটস ফ্রাঙ্কলিংকের ঝড়ে উড়ে গেল ঢাকা ডায়নামাইটস
বড় সংগ্রহ গড়তে পারেনি সাকিবের ঢাকা বড় সংগ্রহ গড়তে পারেনি সাকিবের ঢাকা
রাতভর নেচে অসুস্থ বিপাশা রাতভর নেচে অসুস্থ বিপাশা
বিশ্ব ইজতেমা অনুষ্ঠানের নির্দেশনা চেয়ে হাইকোর্টে রিট বিশ্ব ইজতেমা অনুষ্ঠানের নির্দেশনা চেয়ে হাইকোর্টে রিট
রাষ্ট্রপতির সঙ্গে নৌবাহিনী প্রধানের বিদায়ী সাক্ষাৎ রাষ্ট্রপতির সঙ্গে নৌবাহিনী প্রধানের বিদায়ী সাক্ষাৎ
প্রচণ্ড শীত ও ঘন কুয়াশায় ৩১ রোহিঙ্গা শূন্যরেখায় প্রচণ্ড শীত ও ঘন কুয়াশায় ৩১ রোহিঙ্গা শূন্যরেখায়
বুধবারের বৈঠকে ইজতেমা নিয়ে সিদ্ধান্ত:স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বুধবারের বৈঠকে ইজতেমা নিয়ে সিদ্ধান্ত:স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী
বেআইনি ব্যাংকিং কার্যক্রমের বিরুদ্ধে বহুমুখী পদক্ষেপ নিন
খাদ্যে অতিরিক্ত ট্রান্সফ্যাটের কারণে, প্রতি বছর বিশ্বে পাঁচ লাখ মানুষের মৃত্যু হয়
স্বাধীনতার পর প্রথমবার ‘মন্ত্রীশূন্য’ কিশোরগঞ্জ
মন চুরির অভিযোগ পুলিশের কাছে!
সৈয়দ আশরাফ যে কবরে সমাহিত হবেন
ব্যবসায়ীদের বিনিয়োগের বাধা দূর করতে হবে?
মহাজোটের মহাজয়ে শেখ হাসিনা
বাংলাদেশে নির্বাচন-পরবর্তী সহিংসতা রোধ করুন!
নেইমারের সমালোচনায় পেলে
জলবায়ু পরিবর্তনে বিশ্বব্যাংক-আইএফসি ২২ বিলিয়ন ডলার দিবে