ঢাকা, ফেব্রুয়ারী ২৩, ২০১৯, ১১ ফাল্গুন ১৪২৫
---
bbc24news.com
প্রথম পাতা » পরিবেশ ও জলবায়ু » রোহিঙ্গারা কিভাবে বাংলাদেশি ভুয়া পাসপোর্ট পায়?
রবিবার ● ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১১ ফাল্গুন ১৪২৫
Email this News Print Friendly Version

রোহিঙ্গারা কিভাবে বাংলাদেশি ভুয়া পাসপোর্ট পায়?

---বিবিসি২৪নিউজ,অর্পনা রায়:প্রায় আড়াই লাখ রোহিঙ্গা অবৈধ প্রক্রিয়ায় বাংলাদেশি পাসপোর্ট সংগ্রহ করে বিদেশে পাড়ি জমিয়েছেন৷মিয়ানমার থেকে আসা রোহিঙ্গাদের ভুয়া পরিচয়ে বাংলাদেশি পাসপোর্ট করার বিষয়টি খুলে বলেন কক্সবাজারের উখিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবুল খায়ের৷

তিনি বলেন, ‘‘ধরুন, ময়মনসিংহে এক নারীর নাম মরিয়ম৷তিনি বাংলাদেশেরই নাগরিক৷ তাঁর একটি ন্যাশনাল আইডি কার্ড আছে৷ ওই ন্যাশনাল আইডি কার্ডটি জোগাড় করা হয়৷

নাম ঠিকানা, পিতা বা স্বামীর নাম সবই ঠিক থাকে৷ ছবিও তাঁর৷ এই একটি ডকুমেন্ট ধরেই আরো প্রয়োজনীয় ডকুমেন্ট পাওয়া যায়৷

এরপর ওই নামেই আরেক রোহিঙ্গা নারীর জন্য পাসপোর্টের আবেদন করা হয়৷ কেউ ফিঙ্গার প্রিন্ট দিতে গিয়ে ধরা পড়েন, কেউবা অন্য কোনো পর্যায়ে৷ আর যারা ধরা পড়েন না, তারা পাসপোর্ট পেয়ে যান৷

রোহিঙ্গাদের কারা বাংলাদেশি পাসপোর্ট পেতে সহায়তা করেন? এ বিষয়ে তিনি বলেন, ‘‘রোহিঙ্গাদের অনেক আত্মীয়-স্বজন মালয়েশিয়াসহ বিশ্বের আরো অনেক দেশে থাকেন৷

তাদের সঙ্গে বাংলাদেশি নাগরিকদের পরিচয় হয়৷ তাদেরই কেউ কেউ দেশে লোক ধরে এই প্রক্রিয়ায় সহায়তা করেন৷ এর বাইরে একটি দালালচক্রও গড়ে উঠেছে৷

তবে এর সঙ্গে পাসপোর্ট অফিসের একশ্রেণির কর্মচারীদের যোগসাজশেরও অভিযোগ আছে৷ কারণ, তা না থাকলে ছবির সঙ্গে মিলিয়ে দেখলেই ধরা পড়ে যাওয়ার কথা৷

তাছাড়া পুলিশও সহায়তা করে, কারণ পুলিশ ভেরিফিকেশন রিপোর্ট ছাড়া পাসপোর্ট হয় না৷

তিনি আরো জানান, ‘‘ভাষার কারণে অনেক রোহিঙ্গা ধরা পড়ে৷ যারা ভাষা রপ্ত করতে পারেন, তাদের ধরা কঠিন৷

জানা গেছে, গত অক্টোবর থেকে কক্সবাজার পুলিশ ও জেলা প্রশাসন অবৈধভাবে বাংলাদেশি জাতীয় পরিচয়পত্রধারী ৩ শতাধিক রোহিঙ্গাকে শনাক্ত করেছে৷

শুধু কক্সবাজার নয়, দেশের বিভিন্ন জেলা থেকে প্রায় প্রতিদিন পাসপোর্ট নিতে গিয়ে রোহিঙ্গা আটকের খবর আসে৷

বগুড়ায় গত ১২ অক্টোবর আটক হন ইন্দোনেশিয়া প্রবাসী রোহিঙ্গা আবু সালেহ’র স্ত্রী হাজেরা বিবি (২২), তাঁর ছেলে ওসমান গণি (৫) ও হাজেরার মা আমেনা খাতুন ওরফে রমিজা (৪৫)৷ তারা চট্টগ্রামের ট্রেনখালী রোহিঙ্গা ক্যাম্পে থাকতেন৷

বগুড়া আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিসের সহকারী পরিচালক শাহজাহান কবির জানান, হাজেরা বিবি ও তাঁর পরিবারের কয়েকজন সদস্য পাসপোর্ট করার জন্য অনলাইনে আবেদন করেন৷

১২ অক্টোবর বিকেলে তাঁরা অফিসে ফরম জমা দিতে আসেন৷ এ সময় হাজেরা বিবিকে তাঁর নাম, বাবার নাম ও ঠিকানা জানতে চাইলে অসংলগ্ন আচরণ করেন৷সন্দেহ হলে তখন ফরমসহ হাজেরাকে আটক করে সদর থানা পুলিশে দেয়া হয়৷

বগুড়ার সাংবাদিক নাজমুল হুদা নাসিম জানান, ‘‘এই প্রক্রিয়ায় আব্দুল মান্নান নামে একজন দালাল জড়িত৷ তার গ্রামের বাড়ি বগুড়ার দুপচাঁচিয়া৷ সে এখন পলাতক৷ সেই জাতীয় পরিচয়পত্রসহ অন্যান্য কাগজপত্র জোগাড় করে দেয়৷’’

জানা গেছে, দালালরা প্রথমে তাদের মক্কেলের সমবয়সি স্থানীয় বাংলাদেশির আসল জাতীয় পরিচয়পত্র সংগ্রহ করে৷ এরপর ওই পরিচয়পত্র দিয়ে ইউনিয়ন পরিষদ থেকে জন্ম নিবন্ধন সনদ সংগ্রহ করে৷

পরবর্তীতে আসল পরিচয়পত্র, প্রকৃত ব্যক্তির ছবি ও জন্মনিবন্ধন সনদ দিয়ে পাসপোর্টের জন্য আবেদন করে৷ রোহিঙ্গার আসল পরিচয় তখন গোপন করা হয়৷

এরপর তারা পাসপোর্ট অফিসে গিয়ে বায়োমেট্রিক নিবন্ধন করে ও পাসপোর্টের জন্য ছবি তোলে৷ অসাধু কর্মকর্তারা টাকার বিনিময়ে তাদের সাহায্য করেন৷

রোহিঙ্গাদের একটি বাংলাদেশি পাসপোর্ট করে দেয়ার জন্য ৪০-৫০ হাজার টাকা দাবি করে দালালরা৷

ইংরেজি দৈনিক ঢাকা ট্রিবিউন তাদের এক প্রতিবেদনে ভুয়া পরিচয়ে বাংলাদেশি পাসপোর্ট পাওয়া মোশাররফ মিয়া নামে এক রোহিঙ্গার কথা জানিয়েছে৷

মোশাররফ মিয়া মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্য থেকে ২০০১ সালে বাংলাদেশে আসেন ও কুতুপালং শরণার্থী ক্যাম্পে আশ্রয় নেন৷ কয়েক মাসের মধ্যে তিনি স্থানীয় একটি রেস্টুরেন্টে কাজ পান৷ এর পরের এক দশক ধরে স্থানীয় বাসিন্দা ও বেশ কয়েকজন সরকারি কর্মকর্তার সঙ্গে সখ্য গড়ে তোলেন৷

২০১২ সালের শেষ দিকে নিজের জন্য বাংলাদেশি জাতীয় পরিচয়পত্র জোগাড় করতে সক্ষম হন তিনি৷ তারপর বাংলাদেশি পাসপোর্ট জোগাড় করে সৌদি আরব চলে যান৷

মোশাররফের স্ত্রী খাদিজাও ২০০২ সালে বাংলাদেশে পালিয়ে আসেন৷ এখন খাদিজা ও তার দুই ছেলেরও বাংলাদেশি জাতীয় পরিচয়পত্র রয়েছে৷ তার দুই ছেলেই বাংলাদেশে জন্মগ্রহণ করেছে আর তারা স্থানীয় স্কুলে পড়াশোনা করছে৷

খাদিজার ২৩ বছর বয়সি ছোটভাই শহিদুল্লাহ ২০১৩ সাল থেকে কক্সবাজারের একটি মাদ্রাসায় পড়ালেখা করছে৷ শহিদুল্লাহ জানান, তাদের গ্রামের অনেকেই বাংলাদেশে পড়াশোনা করতে এসেছে৷ তবে তিনি বলেন, ‘‘অনেকেই দেশে ফিরে গেছে আর আমার মতো অনেকেই বিদেশ যাওয়ার জন্য বাংলাদেশি পাসপোর্ট জোগাড়ের চেষ্টা করছে৷’’


নান্নুর খালি বাসায় চোরদের হানা

হেরে গেলেই টুর্নামেন্ট থেকে বিদায় নেবে বাংলাদেশ


এ বিভাগের আরো খবর...

মশা নিধনে ব্যর্থ ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন? মশা নিধনে ব্যর্থ ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন?
১০ কোটি টাকার হিসাব চায় ঢাবি- শিক্ষার্থীরা ১০ কোটি টাকার হিসাব চায় ঢাবি- শিক্ষার্থীরা
এখনও আতঙ্ক কাটছে না চকবাজার বাসীর! এখনও আতঙ্ক কাটছে না চকবাজার বাসীর!
সব পুড়ে ছাই, আগুনের ছোঁয়াও লাগেনি মসজিদে! সব পুড়ে ছাই, আগুনের ছোঁয়াও লাগেনি মসজিদে!
শ্রদ্ধা-ভালোবাসায় ভাষা শহীদদের স্মরণ শ্রদ্ধা-ভালোবাসায় ভাষা শহীদদের স্মরণ
উপজেলা নির্বাচন: ৩৩ উপজেলায় কোনো প্রতিদ্বন্দ্বী নেই উপজেলা নির্বাচন: ৩৩ উপজেলায় কোনো প্রতিদ্বন্দ্বী নেই
শপথ নিলেন সংরক্ষিত আসনের নারী এমপিরা শপথ নিলেন সংরক্ষিত আসনের নারী এমপিরা
সৌদি আরবের কাছ থেকে কী কী পেলেন- ইমরান খান সৌদি আরবের কাছ থেকে কী কী পেলেন- ইমরান খান
বাংলাদেশ বিনিয়োগের নতুন বড় ক্ষেত্র: আবর-আমিরাত বাংলাদেশ বিনিয়োগের নতুন বড় ক্ষেত্র: আবর-আমিরাত
বিশ্বে যানজটে প্রথম ঢাকা বিশ্বে যানজটে প্রথম ঢাকা

সর্বাধিক পঠিত

পাকিস্তান শান্তিপ্রিয় জাতি কিন্তু হুমকির মুখে ভীত না: পাক সেনাপ্রধান পাকিস্তান শান্তিপ্রিয় জাতি কিন্তু হুমকির মুখে ভীত না: পাক সেনাপ্রধান
যুদ্ধে বিজয়ী হতে সব উপায় অবলম্বন করবে- ভারত যুদ্ধে বিজয়ী হতে সব উপায় অবলম্বন করবে- ভারত
কেলি ক্র্যাফটকে জাতিসংঘে রাষ্ট্রদূত নিয়োগ দিলেন- ট্রাম্প কেলি ক্র্যাফটকে জাতিসংঘে রাষ্ট্রদূত নিয়োগ দিলেন- ট্রাম্প
সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে লড়াই, কাশ্মীরের বিরুদ্ধে নয়- মোদি সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে লড়াই, কাশ্মীরের বিরুদ্ধে নয়- মোদি
৮ লাখ রোহিঙ্গাকে ফেরত পাঠানোর চেষ্টা চলছে : পররাষ্ট্রমন্ত্রী ৮ লাখ রোহিঙ্গাকে ফেরত পাঠানোর চেষ্টা চলছে : পররাষ্ট্রমন্ত্রী
যবিপ্রবির ২০ বিভাগের চেয়ারম্যানের একযোগে পদত্যাগ! যবিপ্রবির ২০ বিভাগের চেয়ারম্যানের একযোগে পদত্যাগ!
গণশুনানির নামে ‘ঘুমানো চক্র’ ষড়যন্ত্র করছে: আইনমন্ত্রী গণশুনানির নামে ‘ঘুমানো চক্র’ ষড়যন্ত্র করছে: আইনমন্ত্রী
সাবেক মন্ত্রীর সাথে বিয়ের পিঁড়িতে সানাই সাবেক মন্ত্রীর সাথে বিয়ের পিঁড়িতে সানাই
কেন শ্রীদেবীর শাড়ি নিলামে তুললেন তার স্বামী ? কেন শ্রীদেবীর শাড়ি নিলামে তুললেন তার স্বামী ?
বানসালী-সালমান ১৯ বছর পর এক সঙ্গে ! বানসালী-সালমান ১৯ বছর পর এক সঙ্গে !
প্রধানমন্ত্রীর জার্মানি সফর উন্নয়ন- কূটনৈতিক সম্পর্ক জোরদার হবে!
খেলাপি ঋণে ‘জিরো টলারেন্স’ চাই
৫ জনই ছাত্রলীগ-যুবলীগ নেতা
দুর্নীতির বিরুদ্ধে প্রকৃত অর্থেই নিতে হবে জিরো টলারেন্স
বেআইনি ব্যাংকিং কার্যক্রমের বিরুদ্ধে বহুমুখী পদক্ষেপ নিন
খাদ্যে অতিরিক্ত ট্রান্সফ্যাটের কারণে, প্রতি বছর বিশ্বে পাঁচ লাখ মানুষের মৃত্যু হয়
স্বাধীনতার পর প্রথমবার ‘মন্ত্রীশূন্য’ কিশোরগঞ্জ
মন চুরির অভিযোগ পুলিশের কাছে!
সৈয়দ আশরাফ যে কবরে সমাহিত হবেন
ব্যবসায়ীদের বিনিয়োগের বাধা দূর করতে হবে?