ঢাকা, ডিসেম্বর ১৮, ২০১৮, ৪ পৌষ ১৪২৫
---
bbc24news.com
প্রথম পাতা » অর্থ–শেয়ারবাজার » শেয়ারিং সেবা নিবন্ধনের আবেদন ১১ কোম্পানির অপেক্ষায়
রবিবার ● ১৪ অক্টোবর ২০১৮, ৪ পৌষ ১৪২৫
Email this News Print Friendly Version

শেয়ারিং সেবা নিবন্ধনের আবেদন ১১ কোম্পানির অপেক্ষায়

---বিবিসি২৪নিউজ,অর্থনীতি ডেস্ক:২০১৬ সালের নভেম্বরে ঢাকায় অ্যাপভিত্তিক ট্যাক্সি সেবা চালু করে উবার। এর পর পরই মোটরবাইক রাইডশেয়ারিং সেবা নিয়ে আসে ‘পাঠাও’। পরবর্তী সময়ে আরো বিস্তৃত হয় এ সেবার ব্যাপ্তি। শুরুতে যানজট কমিয়ে আনা ও পরিবেশ সুরক্ষার কথা বলে দেশে রাইডশেয়ারিং সেবা চালু হলেও বাস্তবে ব্যক্তিগত মোটরযান ও যানজট কোনোটিই কমছে না। উল্টো দিনে দিনে বাড়ছে সেবাদানকারী কোম্পানির সংখ্যা। রাইডশেয়ারিং সেবাদানকারী প্রতিষ্ঠান হিসেবে ‘এনলিস্টমেন্ট সার্টিফিকেট’ নিতে বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষের কাছে আবেদন করেছে ১১টি প্রতিষ্ঠান।

জানা গেছে, রাইডশেয়ার সেবা ‘পাঠাও’ নামে নিবন্ধন পেতে আবেদন করেছে পাঠাও লিমিটেড। একইভাবে ‘সহজ রাইডস’ নামে সহজ লিমিটেড, অটোরাইড’ নামে গোল্ডেন রেন লিমিটেড, ‘ওভাই’ নামে ওভাই সলিউশন লিমিটেড, ‘উবার’ নামে উবার বাংলাদেশ লিমিটেড, ‘রাইডার’ নামে রাইডার রাইডশেয়ার এন্টারপ্রাইজ ইনক লিমিটেড, ‘পিকমি’ নামে পিকমি লিমিটেড, ‘ইজিয়ার’ নামে ইজিয়ার টেকনোলজিস লিমিটেড।

বিআরটিএতে আবেদন করা এ ১১ কোম্পানি ছাড়াও ঢাকা ও ঢাকার বাইরে রাইডশেয়ার সেবা প্রদান করছে আরো অন্তত ১৫টি প্রতিষ্ঠান। এগুলো হলো— চলো, স্যাম, মুভ, আমার বাইক, ট্যাক্সিওয়ালা, বাহন, আমার রাইড, ঢাকা রাইডার্স, ঢাকা মটো, বিডি ক্যাবস, লেটস গো প্যাসেঞ্জার, ইয়েস বাইক, মেট্রো সিএনজি, ডাকো ও ট্রিপ্পো।

এ বিষয়ে বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক শামছুল হক বলেন, বাজার অর্থনীতিতেও একটা নিয়ন্ত্রণমুখী ব্যবস্থা থাকে। যেমন— সেলফোন অপারেটরের সংখ্যা পাঁচ-ছয়টার মধ্যে সীমাবদ্ধ রাখা হয়েছে। রাইডশেয়ারিং প্রতিষ্ঠানের ক্ষেত্রেও এ ধরনের নিয়ম চালু করা উচিত। এর ফলে প্রতিষ্ঠানগুলো করপোরেট বিনিয়োগ পাবে। তাদের ব্যবসার পরিসর বড় হবে। সেবার মান সন্তোষজনক পর্যায়ে থাকবে। এতকিছুর পরও ব্যবসাটি সহজভাবে পরিচালনা করা সম্ভব হবে। কিন্তু এটাকে যদি নিয়ন্ত্রণহীনভাবে ছেড়ে দেয়া হয়, তাহলে এ ব্যবস্থাটি খারাপ পর্যায়ে চলে যেতে পারে।

এদিকে পলিসি রিসার্চ ইনস্টিটিউটের এক গবেষণায় উঠে এসেছে, বাণিজ্যিক কার্যক্রমের সঙ্গে সম্পৃক্ত ঢাকার ব্যক্তিগত মোটরযানের ৩৩ শতাংশ চলে গেছে বিভিন্ন রাইডশেয়ার প্রতিষ্ঠানের দখলে। পিআরআইয়ের জ্যেষ্ঠ রিসার্চ ফেলো সৈয়দ মফিজ কামাল ও নূর এ আহসান সম্প্রতি এক নিবন্ধে এ তথ্য প্রকাশ করেন। এতে বলা হয়েছে, রাইডশেয়ারে চলা মোটরসাইকেলের দখলে রয়েছে ২১ শতাংশ ব্যক্তিগত মোটরযান। ১২ শতাংশ রয়েছে রাইডশেয়ারে চলা প্রাইভেট কারের দখলে। এছাড়া সিএনজি চালিত অটোরিকশার দখলে ৬৩ শতাংশ এবং বাকি ৪ শতাংশ রয়েছে অন্য যানবাহনের দখলে।

মাত্র দুই বছরের মধ্যে বাংলাদেশে দ্রুত বিস্তার ঘটেছে অনলাইনভিত্তিক রাইডশেয়ারিং সেবার। ঢাকা ও ঢাকার বাইরে সব মিলিয়ে ২৫-২৬টি প্রতিষ্ঠান রাইডশেয়ার সেবা প্রদান করছে। অথচ প্রতিবেশী দেশ ভারতে রাইডশেয়ারের বাজার নিয়ন্ত্রণ করছে মাত্র পাঁচটি কোম্পানি। অনলাইনভিত্তিক বাজার গবেষণা প্রতিষ্ঠান স্ট্যাটিস্টা’র হিসাব বলছে, ভারতের রাইডশেয়ার বাজারে ছড়ি ঘোরাচ্ছে ওলা। ২০১৭ সালের ডিসেম্বর শেষে এই ভারতীয় কোম্পানিটির দখলে রয়েছে দেশটির রাইডশেয়ার বাজারের ৫৬ দশমিক ২ শতাংশ।

এমন পরিপ্রেক্ষিতে বাংলাদেশে গড়ে ওঠা ২৫-২৬টি রাইডশেয়ার কোম্পানির মধ্যে বাজার দখল নিয়ে অশুভ প্রতিযোগিতা তৈরি হতে পারে বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা। বিষয়টি সম্পর্কে পরিবহন ও ট্রাফিক ব্যবস্থা বিশেষজ্ঞ এবং বুয়েটের অ্যাক্সিডেন্ট রিসার্চ ইনস্টিটিউটের পরিচালক অধ্যাপক ড. মিজানুর রহমান বলেন, রাইডশেয়ার কোম্পানির সংখ্যা বেশি হলে সেগুলোর কারণে সড়কে বিশৃঙ্খলা বেড়ে যেতে পারে। বর্তমানে ঢাকায় বাস কোম্পানি রয়েছে প্রায় ২৮০টি। বিপুলসংখ্যক কোম্পানি হওয়ায় সেগুলোর মধ্যে যাত্রী তোলার জন্য অশুভ প্রতিযোগিতায় লিপ্ত হতে দেখা যায়।

অ্যাপভিত্তিক রাইডশেয়ারিং সেবাকে নিয়ন্ত্রণের মধ্যে আনতে এরই মধ্যে একটি নীতিমালা প্রণয়ন করেছে সরকার, যা গত মার্চ থেকে কার্যকর হয়েছে। ‘রাইডশেয়ারিং নীতিমালা-২০১৭’-এ রাইডশেয়ার সম্পর্কে বলা হয়েছে, ‘রাইডশেয়ারিং সার্ভিস এমন একটি সেবা ব্যবস্থা, যেখানে ব্যক্তিগত মোটরযানের মালিক নিজের প্রয়োজন মিটিয়ে স্মার্টফোনের মাধ্যমে ব্যক্তিগত মোটরযানকে ভাড়ায় পরিচালনা করে থাকেন।’

নীতিমালায় রাইডশেয়ার সেবা চালুর উদ্দেশ্য হিসেবে ‘ব্যক্তিগত মোটরযানের সংখ্যা ক্রমবৃদ্ধির প্রবণতা হ্রাস করা’র কথা বলা আছে। এখানেও ঘটছে উল্টো ঘটনা। আইএলডিসি ফিন্যান্স লিমিটেডের এক গবেষণায় উঠে এসেছে, ২০১৫ সালে সারা দেশে মোটরসাইকেল বিক্রির সংখ্যা ছিল ১ লাখ ৪৩ হাজার। ২০১৭ সালে তা বেড়ে দাঁড়ায় ৩ লাখ ৬০ হাজারে। বিআরটিএর নিবন্ধন তালিকাতেও মোটরসাইকেল বৃদ্ধির বিষয়টি উঠে এসেছে। ২০১৫ সালে শুধু ঢাকা মহানগরীতে নিবন্ধন পেয়েছিল ৪৬ হাজার ৭৬৪টি মোটরসাইকেল। ২০১৭ সালে নিবন্ধনের সংখ্যা ৭৫ হাজার ছাড়িয়ে গেছে। একইভাবে ২০১৫ সালে প্রাইভেট কার নিবন্ধন পেয়েছিল ১৮ হাজার ৪২২টি। ২০১৭ সালে নিবন্ধন পেয়েছে ১৯ হাজার ৫২২টি।

এসব বিষয়ে বিআরটিএর পরিচালক (ইঞ্জিনিয়ারিং) নুরুল ইসলামের দৃষ্টি আকর্ষণ করা হলে তিনি বলেন, যেসব প্রতিষ্ঠান নিবন্ধনের জন্য আবেদন করেছে, সেগুলো আমরা যাচাই-বাছাই করছি। এর মধ্যে যেগুলো শর্ত পূরণ করতে পারবে, সেগুলোকে নিবন্ধন দেয়া হবে।


আর্জেন্টিনার বিপক্ষে নিজেদের খেলায় আরও উন্নতি চান তিতে

তৈলাক্ত লিপস্টিককে ম্যাট বানানো!


এ বিভাগের আরো খবর...

চাহিদার অতিরিক্ত কফি: ইউএসডিএ চাহিদার অতিরিক্ত কফি: ইউএসডিএ
আইসিএসবিতে বিজয় দিবস পালন আইসিএসবিতে বিজয় দিবস পালন
৭০ কোটি টাকা ক্ষতির বিপরীতে বীমাদাবি সায়হাম টেক্সটাইল ৭০ কোটি টাকা ক্ষতির বিপরীতে বীমাদাবি সায়হাম টেক্সটাইল
সবচেয়ে দামি চা সবচেয়ে দামি চা
চীনে আকরিক লোহা কমল ৯% চীনে আকরিক লোহা কমল ৯%
পর্যাপ্ত সরবরাহে দাম কমছে চালের পর্যাপ্ত সরবরাহে দাম কমছে চালের
নতুন কোন ব্যাংক অনুমোদন দেওয়া হবে না: অর্থমন্ত্রী নতুন কোন ব্যাংক অনুমোদন দেওয়া হবে না: অর্থমন্ত্রী
বাড়ছে চাল উৎপাদন - নেপাল বাড়ছে চাল উৎপাদন - নেপাল
পর্যবেক্ষণ অব্যাহত রাখবে অ্যালায়েন্স পর্যবেক্ষণ অব্যাহত রাখবে অ্যালায়েন্স
এসিআই লিমিটেডের বিক্রি ১৮% এসিআই লিমিটেডের বিক্রি ১৮%

সর্বাধিক পঠিত

মা ক্যানসারে আক্রান্ত ছেলে আসছেন কেকেআরএ মা ক্যানসারে আক্রান্ত ছেলে আসছেন কেকেআরএ
চাহিদার অতিরিক্ত কফি: ইউএসডিএ চাহিদার অতিরিক্ত কফি: ইউএসডিএ
দেশে ১০১৬ প্লাটুন বিজিবি মোতায়েন দেশে ১০১৬ প্লাটুন বিজিবি মোতায়েন
মাহবুব তালুকদারের কথা সত্য নয়- সিইসি মাহবুব তালুকদারের কথা সত্য নয়- সিইসি
আইসিএসবিতে বিজয় দিবস পালন আইসিএসবিতে বিজয় দিবস পালন
নিলামে বড় প্রশ্ন যুবরাজকে নিয়ে নিলামে বড় প্রশ্ন যুবরাজকে নিয়ে
ঢাকায় ধানের শীষের প্রার্থী সালাহউদ্দিনের প্রচারে হামলা! ঢাকায় ধানের শীষের প্রার্থী সালাহউদ্দিনের প্রচারে হামলা!
নির্বাচনী ইশতেহার ঘোষণা করেছে- বিএনপি নির্বাচনী ইশতেহার ঘোষণা করেছে- বিএনপি
আইপিএলের নিলাম শুরু আইপিএলের নিলাম শুরু
ছয় মাসের  জামিন পেয়েছে- মইনুল ছয় মাসের জামিন পেয়েছে- মইনুল
নেইমারের সমালোচনায় পেলে
জলবায়ু পরিবর্তনে বিশ্বব্যাংক-আইএফসি ২২ বিলিয়ন ডলার দিবে
জলবায়ু পরিবর্তনের যুদ্ধে নারীর অংশগ্রহণ করতে হবে-প্যাট্রিসিয়া
বিএনপির দুটি আসনের পরিবর্তন
কলেজ শিক্ষক আলী হোসেন হত্যা দুইজনের ত্যুদণ্ড
নির্বাচনে সবার অংশগ্রহণ-গণতন্ত্রের জন্য ইতিবাচক
বহুল প্রত্যাশিত সংলাপে কি ছিল?
একটি অর্থবহ ও সফল সংলাপের প্রত্যাশা করছি
শেখ হাসিনা বার্ন ইন্সটিটিউটের: প্রত্যাশিত স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত হবে কি?
নদীশাসনের দুর্বলতা বিঘ্নিত হচ্ছে নৌপথে চলাচল