ঢাকা, নভেম্বর ২০, ২০১৮, ৬ অগ্রহায়ন ১৪২৫
---
bbc24news.com
প্রথম পাতা » সম্পাদকীয় » শেখ হাসিনা বার্ন ইন্সটিটিউটের: প্রত্যাশিত স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত হবে কি?
বৃহস্পতিবার ● ২৫ অক্টোবর ২০১৮, ৬ অগ্রহায়ন ১৪২৫
Email this News Print Friendly Version

শেখ হাসিনা বার্ন ইন্সটিটিউটের: প্রত্যাশিত স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত হবে কি?

---আশরাফ আলী: রাজধানীর চানখাঁরপুলে ১৮ তলাবিশিষ্ট ৫০০ শয্যার ‘শেখ হাসিনা বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইন্সটিটিউট’ উদ্বোধন করেছেন প্রধানমন্ত্রী।এটি বিশ্বে বড় ধরনের সর্ববৃহৎ ইন্সটিটিউট।

দেশে এ ইন্সটিটিউট নির্মিত হওয়ায় অগ্নিদগ্ধ রোগীদের চিকিৎসায় যে নবযুগের সূচনা হয়েছে, তা বলাই বাহুল্য। আশার কথা, প্রতিষ্ঠানটিতে কেবল হাজার হাজার অগ্নিদগ্ধ রোগীর সুচিকিৎসাই হবে না, একইসঙ্গে এটি চিকিৎসক ও নার্সদের এ বিষয়ে পেশাগত দক্ষতা বৃদ্ধি এবং বিশেষজ্ঞ ডাক্তার তৈরির ক্ষেত্রেও সহায়ক ভূমিকা রাখবে।

আগে দেশের অগ্নিদগ্ধ রোগীদের চিকিৎসার জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালের (ঢামেক) বার্ন ইউনিট ছিল একমাত্র ভরসা। প্রয়োজনের তুলনায় এটি একেবারেই ছোট ও অপরিসর। ফলে পর্যাপ্ত জায়গার অভাবে অগ্নিদগ্ধ রোগীদের যথাযথ চিকিৎসা প্রদান ব্যাহত হচ্ছিল। এ অবস্থায় দুই একর জমির ওপর ৯১২ কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মিত এ বার্ন ইন্সটিটিউটে এখন কেবল দেশের নয়, বিদেশ থেকে আসা রোগীরাও প্রয়োজনীয় চিকিৎসা ও সেবা নিতে পারবেন। বলার অপেক্ষা রাখে না, রাজনৈতিক ও সামাজিকসহ নানা কারণে দেশে অগ্নিদগ্ধের ঘটনা বৃদ্ধি পেয়েছে।

এ অবস্থায় ১০০টি কেবিন, ৬০টি হাইডেফিসিয়েন্সি বেড, ১২টি অস্ত্রোপচার থিয়েটার এবং অত্যাধুনিক পোস্ট অপারেটিভ ওয়ার্ডসহ বিশেষায়িত এ ইন্সটিটিউট দেশি-বিদেশি রোগীদের কাছে আশার আলো হিসেবে প্রতিভাত হবে, এতে কোনো সন্দেহ নেই।

স্বাস্থ্য ও উন্নয়ন একসূত্রে গাঁথা। সরকার যদিও স্বাস্থ্য খাতকে প্রাধান্য দিয়ে দারিদ্র্য দূরীকরণ, নারীর ক্ষমতায়ন, লিঙ্গ সমতা, শিক্ষা, মাতৃস্বাস্থ্যসেবা, শিশুমৃত্যু হ্রাস ও পরিবার পরিকল্পনাসহ বিভিন্ন কর্মসূচি পরিচালনা করছে, তবে প্রায়ই দেখা যায়- সরকার যেভাবে চিন্তা করে, বাস্তবে তার সঠিক প্রতিফলন ঘটে না।

এ অবস্থায় সরকারপ্রধানের ব্যক্তিগত আগ্রহ ও ইচ্ছায় সেনাবাহিনীর ইঞ্জিনিয়ারিং কোরের মাধ্যমে বাস্তবায়িত এ প্রকল্প তথা ‘শেখ হাসিনা বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইন্সটিটিউট’ আমাদের আশাবাদী করে তোলে বৈকি। তবে মনে রাখা দরকার, স্বাস্থ্য খাতে বিরাজমান বিভিন্ন অনিয়ম ও দুর্নীতির কারণে দেশের অনেক ভালো মানের প্রতিষ্ঠানও প্রত্যাশিত স্বাস্থ্যসেবা প্রদানে ব্যর্থ হচ্ছে। ‘শেখ হাসিনা বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইন্সটিটিউটে’র ক্ষেত্রে এমনটি ঘটবে না বলেই আমাদের বিশ্বাস।


জাতিসংঘ দিবসে-শান্তি ও নিরাপত্তা নিয়ে কিছু প্রস্তাব?

জাবালে নূরের মালিকসহ ৬ জনের বিচার শুরু ১ নভেম্বর


এ বিভাগের আরো খবর...

নির্বাচনে সবার অংশগ্রহণ-গণতন্ত্রের জন্য ইতিবাচক নির্বাচনে সবার অংশগ্রহণ-গণতন্ত্রের জন্য ইতিবাচক
বাংলাদেশের রাজনৈতিতে সংলাপের কতটুকু গুরুত্ব পায়? বাংলাদেশের রাজনৈতিতে সংলাপের কতটুকু গুরুত্ব পায়?
বহুল প্রত্যাশিত সংলাপে কি ছিল? বহুল প্রত্যাশিত সংলাপে কি ছিল?
একটি অর্থবহ ও সফল সংলাপের প্রত্যাশা করছি একটি অর্থবহ ও সফল সংলাপের প্রত্যাশা করছি
বিশ্বের সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের অপব্যবহার নয় বিশ্বের সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের অপব্যবহার নয়
শেখ হাসিনা বার্ন ইন্সটিটিউটের: প্রত্যাশিত স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত হবে কি? শেখ হাসিনা বার্ন ইন্সটিটিউটের: প্রত্যাশিত স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত হবে কি?
নদীশাসনের দুর্বলতা বিঘ্নিত হচ্ছে নৌপথে চলাচল নদীশাসনের দুর্বলতা বিঘ্নিত হচ্ছে নৌপথে চলাচল
দৃষ্টিহীনদের জন্য পুজো কতটা আনন্দদায়ক? দৃষ্টিহীনদের জন্য পুজো কতটা আনন্দদায়ক?
অবৈধ হাসপাতালগুলো আদালতের নির্দেশ মানছে না কেন? অবৈধ হাসপাতালগুলো আদালতের নির্দেশ মানছে না কেন?
শিল্পে গ্যাস সংযোগ না দেওয়া, আর্থিক ক্ষতির মুখে-সরকার শিল্পে গ্যাস সংযোগ না দেওয়া, আর্থিক ক্ষতির মুখে-সরকার

সর্বাধিক পঠিত

পরকীয়ার জের ধরে কেরোসিন ঢেলে দগ্ধ গৃহবুধূ! পরকীয়ার জের ধরে কেরোসিন ঢেলে দগ্ধ গৃহবুধূ!
ভুট্টার মজুদ চীনে ভুট্টার মজুদ চীনে
মা হতে চলেছেন অনুষ্কা শর্মা মা হতে চলেছেন অনুষ্কা শর্মা
নির্বাচন কমিশন ও পুলিশের ভূমিকা প্রশ্নবিদ্ধ: ফখরুল নির্বাচন কমিশন ও পুলিশের ভূমিকা প্রশ্নবিদ্ধ: ফখরুল
মেয়ের নাম জানালেন নেহা-অঙ্গদ মেয়ের নাম জানালেন নেহা-অঙ্গদ
ডিএমপি কমিশনার ও ইসি সচিবের শাস্তি দাবি- বিএনপির ডিএমপি কমিশনার ও ইসি সচিবের শাস্তি দাবি- বিএনপির
তেল দৈনিক ১০ লাখ ব্যারেল বাড়াতে চায় ভেনিজুয়েলা তেল দৈনিক ১০ লাখ ব্যারেল বাড়াতে চায় ভেনিজুয়েলা
পেঁয়াজের দাম কমেছে কেজিতে ১১ টাকা পেঁয়াজের দাম কমেছে কেজিতে ১১ টাকা
দীপিকা-রণবীর মুম্বইতে ইন্ডাস্ট্রির বন্ধুদের, সহকর্মীদের জন্য পার্টি দেবেন দীপিকা-রণবীর মুম্বইতে ইন্ডাস্ট্রির বন্ধুদের, সহকর্মীদের জন্য পার্টি দেবেন
ভারতের ৫৮ লাখ টন চাল রফতানি ৬ মাসে ভারতের ৫৮ লাখ টন চাল রফতানি ৬ মাসে
নির্বাচনে সবার অংশগ্রহণ-গণতন্ত্রের জন্য ইতিবাচক
বহুল প্রত্যাশিত সংলাপে কি ছিল?
একটি অর্থবহ ও সফল সংলাপের প্রত্যাশা করছি
শেখ হাসিনা বার্ন ইন্সটিটিউটের: প্রত্যাশিত স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত হবে কি?
নদীশাসনের দুর্বলতা বিঘ্নিত হচ্ছে নৌপথে চলাচল
শিল্পে গ্যাস সংযোগ না দেওয়া, আর্থিক ক্ষতির মুখে-সরকার
গুদামের খাদ্যদ্রব্য পাচারে-সক্রিয় চোর সিন্ডিকেট
প্যারিস জলবায়ু চুক্তি ৩০০ পৃষ্ঠার খসড়া অনুমোদন করেছে-ব্যাংকক
সড়ক শৃঙ্খলা-মূল সমস্যাটা রাজনীতিতেই: কাদের
বিশ্বের ভয়াবহ আবহাওয়া নিয়ে প্রযুক্তিগত আলোচনা চলছে