ঢাকা, জানুয়ারী ২২, ২০১৯, ৮ মাঘ ১৪২৫
---
bbc24news.com
প্রথম পাতা » সম্পাদকীয় » শেখ হাসিনা বার্ন ইন্সটিটিউটের: প্রত্যাশিত স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত হবে কি?
বৃহস্পতিবার ● ২৫ অক্টোবর ২০১৮, ৮ মাঘ ১৪২৫
Email this News Print Friendly Version

শেখ হাসিনা বার্ন ইন্সটিটিউটের: প্রত্যাশিত স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত হবে কি?

---আশরাফ আলী: রাজধানীর চানখাঁরপুলে ১৮ তলাবিশিষ্ট ৫০০ শয্যার ‘শেখ হাসিনা বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইন্সটিটিউট’ উদ্বোধন করেছেন প্রধানমন্ত্রী।এটি বিশ্বে বড় ধরনের সর্ববৃহৎ ইন্সটিটিউট।

দেশে এ ইন্সটিটিউট নির্মিত হওয়ায় অগ্নিদগ্ধ রোগীদের চিকিৎসায় যে নবযুগের সূচনা হয়েছে, তা বলাই বাহুল্য। আশার কথা, প্রতিষ্ঠানটিতে কেবল হাজার হাজার অগ্নিদগ্ধ রোগীর সুচিকিৎসাই হবে না, একইসঙ্গে এটি চিকিৎসক ও নার্সদের এ বিষয়ে পেশাগত দক্ষতা বৃদ্ধি এবং বিশেষজ্ঞ ডাক্তার তৈরির ক্ষেত্রেও সহায়ক ভূমিকা রাখবে।

আগে দেশের অগ্নিদগ্ধ রোগীদের চিকিৎসার জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালের (ঢামেক) বার্ন ইউনিট ছিল একমাত্র ভরসা। প্রয়োজনের তুলনায় এটি একেবারেই ছোট ও অপরিসর। ফলে পর্যাপ্ত জায়গার অভাবে অগ্নিদগ্ধ রোগীদের যথাযথ চিকিৎসা প্রদান ব্যাহত হচ্ছিল। এ অবস্থায় দুই একর জমির ওপর ৯১২ কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মিত এ বার্ন ইন্সটিটিউটে এখন কেবল দেশের নয়, বিদেশ থেকে আসা রোগীরাও প্রয়োজনীয় চিকিৎসা ও সেবা নিতে পারবেন। বলার অপেক্ষা রাখে না, রাজনৈতিক ও সামাজিকসহ নানা কারণে দেশে অগ্নিদগ্ধের ঘটনা বৃদ্ধি পেয়েছে।

এ অবস্থায় ১০০টি কেবিন, ৬০টি হাইডেফিসিয়েন্সি বেড, ১২টি অস্ত্রোপচার থিয়েটার এবং অত্যাধুনিক পোস্ট অপারেটিভ ওয়ার্ডসহ বিশেষায়িত এ ইন্সটিটিউট দেশি-বিদেশি রোগীদের কাছে আশার আলো হিসেবে প্রতিভাত হবে, এতে কোনো সন্দেহ নেই।

স্বাস্থ্য ও উন্নয়ন একসূত্রে গাঁথা। সরকার যদিও স্বাস্থ্য খাতকে প্রাধান্য দিয়ে দারিদ্র্য দূরীকরণ, নারীর ক্ষমতায়ন, লিঙ্গ সমতা, শিক্ষা, মাতৃস্বাস্থ্যসেবা, শিশুমৃত্যু হ্রাস ও পরিবার পরিকল্পনাসহ বিভিন্ন কর্মসূচি পরিচালনা করছে, তবে প্রায়ই দেখা যায়- সরকার যেভাবে চিন্তা করে, বাস্তবে তার সঠিক প্রতিফলন ঘটে না।

এ অবস্থায় সরকারপ্রধানের ব্যক্তিগত আগ্রহ ও ইচ্ছায় সেনাবাহিনীর ইঞ্জিনিয়ারিং কোরের মাধ্যমে বাস্তবায়িত এ প্রকল্প তথা ‘শেখ হাসিনা বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইন্সটিটিউট’ আমাদের আশাবাদী করে তোলে বৈকি। তবে মনে রাখা দরকার, স্বাস্থ্য খাতে বিরাজমান বিভিন্ন অনিয়ম ও দুর্নীতির কারণে দেশের অনেক ভালো মানের প্রতিষ্ঠানও প্রত্যাশিত স্বাস্থ্যসেবা প্রদানে ব্যর্থ হচ্ছে। ‘শেখ হাসিনা বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইন্সটিটিউটে’র ক্ষেত্রে এমনটি ঘটবে না বলেই আমাদের বিশ্বাস।


জাতিসংঘ দিবসে-শান্তি ও নিরাপত্তা নিয়ে কিছু প্রস্তাব?

জাবালে নূরের মালিকসহ ৬ জনের বিচার শুরু ১ নভেম্বর


এ বিভাগের আরো খবর...

বেআইনি ব্যাংকিং কার্যক্রমের বিরুদ্ধে বহুমুখী পদক্ষেপ নিন বেআইনি ব্যাংকিং কার্যক্রমের বিরুদ্ধে বহুমুখী পদক্ষেপ নিন
খাদ্যে অতিরিক্ত ট্রান্সফ্যাটের কারণে, প্রতি বছর বিশ্বে পাঁচ লাখ মানুষের মৃত্যু হয় খাদ্যে অতিরিক্ত ট্রান্সফ্যাটের কারণে, প্রতি বছর বিশ্বে পাঁচ লাখ মানুষের মৃত্যু হয়
স্বাধীনতার পর প্রথমবার ‘মন্ত্রীশূন্য’ কিশোরগঞ্জ স্বাধীনতার পর প্রথমবার ‘মন্ত্রীশূন্য’ কিশোরগঞ্জ
মন চুরির অভিযোগ পুলিশের কাছে! মন চুরির অভিযোগ পুলিশের কাছে!
সৈয়দ আশরাফ যে কবরে সমাহিত হবেন সৈয়দ আশরাফ যে কবরে সমাহিত হবেন
ব্যবসায়ীদের বিনিয়োগের বাধা দূর করতে হবে? ব্যবসায়ীদের বিনিয়োগের বাধা দূর করতে হবে?
মহাজোটের মহাজয়ে শেখ হাসিনা মহাজোটের মহাজয়ে শেখ হাসিনা
বাংলাদেশে নির্বাচন-পরবর্তী সহিংসতা রোধ করুন! বাংলাদেশে নির্বাচন-পরবর্তী সহিংসতা রোধ করুন!
ইশতেহার নয়, কাজে বিশ্বাস করে দেশবাসী ইশতেহার নয়, কাজে বিশ্বাস করে দেশবাসী
নেইমারের সমালোচনায় পেলে নেইমারের সমালোচনায় পেলে

সর্বাধিক পঠিত

আফগান সেনা ঘাঁটিতে তালেবান হামলা, নিহত শতাধিক আফগান সেনা ঘাঁটিতে তালেবান হামলা, নিহত শতাধিক
বিশ্ব ইজতেমা নিয়ে এখনও সংশয় কাটেনি বিশ্ব ইজতেমা নিয়ে এখনও সংশয় কাটেনি
ভারতে ষাঁড়ের রেসলিং উৎসবে নিহত ২ ভারতে ষাঁড়ের রেসলিং উৎসবে নিহত ২
ফ্রাঙ্কলিংকের ঝড়ে উড়ে গেল ঢাকা ডায়নামাইটস ফ্রাঙ্কলিংকের ঝড়ে উড়ে গেল ঢাকা ডায়নামাইটস
বড় সংগ্রহ গড়তে পারেনি সাকিবের ঢাকা বড় সংগ্রহ গড়তে পারেনি সাকিবের ঢাকা
রাতভর নেচে অসুস্থ বিপাশা রাতভর নেচে অসুস্থ বিপাশা
বিশ্ব ইজতেমা অনুষ্ঠানের নির্দেশনা চেয়ে হাইকোর্টে রিট বিশ্ব ইজতেমা অনুষ্ঠানের নির্দেশনা চেয়ে হাইকোর্টে রিট
রাষ্ট্রপতির সঙ্গে নৌবাহিনী প্রধানের বিদায়ী সাক্ষাৎ রাষ্ট্রপতির সঙ্গে নৌবাহিনী প্রধানের বিদায়ী সাক্ষাৎ
প্রচণ্ড শীত ও ঘন কুয়াশায় ৩১ রোহিঙ্গা শূন্যরেখায় প্রচণ্ড শীত ও ঘন কুয়াশায় ৩১ রোহিঙ্গা শূন্যরেখায়
বুধবারের বৈঠকে ইজতেমা নিয়ে সিদ্ধান্ত:স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বুধবারের বৈঠকে ইজতেমা নিয়ে সিদ্ধান্ত:স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী
বেআইনি ব্যাংকিং কার্যক্রমের বিরুদ্ধে বহুমুখী পদক্ষেপ নিন
খাদ্যে অতিরিক্ত ট্রান্সফ্যাটের কারণে, প্রতি বছর বিশ্বে পাঁচ লাখ মানুষের মৃত্যু হয়
স্বাধীনতার পর প্রথমবার ‘মন্ত্রীশূন্য’ কিশোরগঞ্জ
মন চুরির অভিযোগ পুলিশের কাছে!
সৈয়দ আশরাফ যে কবরে সমাহিত হবেন
ব্যবসায়ীদের বিনিয়োগের বাধা দূর করতে হবে?
মহাজোটের মহাজয়ে শেখ হাসিনা
বাংলাদেশে নির্বাচন-পরবর্তী সহিংসতা রোধ করুন!
নেইমারের সমালোচনায় পেলে
জলবায়ু পরিবর্তনে বিশ্বব্যাংক-আইএফসি ২২ বিলিয়ন ডলার দিবে