ঢাকা, ডিসেম্বর ১৩, ২০১৮, ২৮ অগ্রহায়ন ১৪২৫
---
bbc24news.com
প্রথম পাতা » অর্থ–শেয়ারবাজার » প্রথম তিন প্রান্তিক : যুক্তরাষ্ট্রে রফতানিকৃত পোশাক ২৭ শতাংশ কটন ট্রাউজার
মঙ্গলবার ● ৬ নভেম্বর ২০১৮, ২৮ অগ্রহায়ন ১৪২৫
Email this News Print Friendly Version

প্রথম তিন প্রান্তিক : যুক্তরাষ্ট্রে রফতানিকৃত পোশাক ২৭ শতাংশ কটন ট্রাউজার

---বিবিসি২৪নিউজ,অর্থনীতিডেস্ক:একক দেশ হিসেবে বাংলাদেশের তৈরি পোশাকের সর্ববৃহৎ বাজার যুক্তরাষ্ট্র। দেশটির একটি সরকারি পরিসংখ্যান বলছে, চলতি বছরের প্রথম তিন প্রান্তিকে (জানুয়ারি-সেপ্টেম্বর) বাংলাদেশ থেকে যুক্তরাষ্ট্র যে পরিমাণ তৈরি পোশাক আমদানি করেছে, তার ২৭ শতাংশই ছিল পুরুষদের কটন ট্রাউজার। এ সময় বাংলাদেশ থেকে যুক্তরাষ্ট্রে পণ্যটির রফতানি বেড়েছে ৯ দশমিক ৩১ শতাংশ।

নয় মাসে বাংলাদেশ থেকে যুক্তরাষ্ট্রে কটন ট্রাউজার রফতানি হয়েছে ১১৩ কোটি ৯৫ লাখ ২৭ হাজার ডলারের। ২০১৭ সালের একই সময় রফতানির পরিমাণ ছিল ১০৪ কোটি ২৪ লাখ ৫৭ হাজার ডলার।

সার্বিকভাবে জানুয়ারি-সেপ্টেম্বর মেয়াদে যুক্তরাষ্ট্রের বাজারে বাংলাদেশের তৈরি পোশাকের রফতানি ৫ দশমিক ৮৪ শতাংশ বেড়েছে। উল্লিখিত সময়ে বাংলাদেশ থেকে যুক্তরাষ্ট্র মোট ৪১৬ কোটি ৮০ লাখ ৮৩ হাজার ডলারের পোশাক আমদানি করেছে।

রফতানি বেড়েছে, এমন পণ্যের মধ্যে রয়েছে স্ল্যাকস। নয় মাসে পণ্যটি রফতানি হয়েছে ৫৯ কোটি ৯৬ লাখ ১০ হাজার ডলারের। ২০১৭ সালের একই সময় রফতানির পরিমাণ ছিল ৫৪ কোটি ৮৫ লাখ ৩ হাজার ডলার।

রফতানি কমেছে, এমন পণ্যের মধ্যে রয়েছে কটন ওভেন শার্ট। জানুয়ারি-সেপ্টেম্বর মেয়াদে পণ্যটি রফতানি হয়েছে ৪১ কোটি ৩১ লাখ ৯৬ হাজার ডলারের। গত বছরের একই সময় রফতানির পরিমাণ ছিল ৪১ কোটি ৭৯ লাখ ৫১ হাজার ডলার।

মান ভালো ও উৎপাদন খরচ কম হওয়ায় বাংলাদেশ থেকে তৈরি পোশাক কেনার বিষয়ে মার্কিন ক্রেতাদের আগ্রহ এখনো অটুট রয়েছে। পাশাপাশি চীনের সঙ্গে বাণিজ্যযুদ্ধ ত্বরান্বিত হওয়ায় ভবিষ্যতে পোশাকের ক্রয়াদেশ আরো বেড়ে যাওয়ার আশাবাদও ব্যক্ত করেছেন অনেকে।

বাংলাদেশ নিটওয়্যার ম্যানুফ্যাকচারার্স অ্যান্ড এক্সপোর্টার্স অ্যাসোসিয়েশনের (বিকেএমইএ) সাবেক সভাপতি ফজলুল হক বলেন, মার্কিন ক্রেতাদের কাছ থেকে তৈরি পোশাকের ক্রয়াদেশ কিছুটা বেড়েছে। চীনের সঙ্গে বাণিজ্যযুদ্ধের প্রভাবে ভবিষ্যতে ক্রয়াদেশ আরো বাড়বে বলে আশা করছি।

মার্কিন ক্রেতাদের আগ্রহ অটুট থাকার বিষয়টি সাম্প্রতিক এক প্রতিবেদনেও উঠে এসেছে। ‘২০১৮ ফ্যাশন ইন্ডাস্ট্রি বেঞ্চমার্কিং স্টাডি’ শীর্ষক প্রতিবেদনটিতে যুক্তরাষ্ট্রে ফ্যাশন পণ্য বাজারজাতকারী প্রতিষ্ঠানগুলোর পোশাক ক্রয়ের দায়িত্বে নিয়োজিতদের বরাতে বলা হয়েছে, ভবিষ্যতে বাংলাদেশ থেকে পোশাক সংগ্রহ বাড়ানোর বিষয়ে আশাবাদী মার্কিন ক্রেতারা। ক্রয় বাড়াতে মার্কিন নির্বাহীদের এ আগ্রহ ২০২০ সাল পর্যন্ত অটুট থাকবে।

প্রতিবেদনে আরো বলা হয়েছে, চীনসহ শীর্ষ সরবরাহকারী দেশগুলোর ওপর আরোপিত হয়েছে শাস্তিমূলক শুল্ক। ট্রাম্প প্রশাসনের বাণিজ্য নীতির প্রভাবে ‘ব্যয়চাপ বৃদ্ধি’কে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ সমস্যা হিসেবে চিহ্নিত করেছেন মার্কিন ক্রেতা প্রতিনিধিরা।


বগুড়ায় কথিত বন্দুকযুদ্ধে ‘জেএমবির আমির’ নিহত

সরকারের সাথে আলোচনায় ঐক্যফ্রন্ট কি সংবিধানের মধ্যেই সমাধান খুঁজছে?


এ বিভাগের আরো খবর...

অপরিশোধিত ইস্পাত উৎপাদনের পথে চীন অপরিশোধিত ইস্পাত উৎপাদনের পথে চীন
১৮ বছরের সর্বোচ্চে পাম অয়েল মজুদ - মালয়েশিয়া ১৮ বছরের সর্বোচ্চে পাম অয়েল মজুদ - মালয়েশিয়া
১৬৩ দিনে  ৫৯ লাখ টন সয়াবিন আমদানি ইইউর ১৬৩ দিনে ৫৯ লাখ টন সয়াবিন আমদানি ইইউর
আইপিওর অর্থ অনিয়ম : প্যাসিফিক এমডিকে কোম্পানির অর্থ ফেরত দেয়ার নির্দেশ আইপিওর অর্থ অনিয়ম : প্যাসিফিক এমডিকে কোম্পানির অর্থ ফেরত দেয়ার নির্দেশ
জ্বালানির মূল্যযুদ্ধ করছে ইরান ? জ্বালানির মূল্যযুদ্ধ করছে ইরান ?
ভালো’ ব্যাংকেও খেলাপি ভালো’ ব্যাংকেও খেলাপি
ব্যাংকে ঋণ বাড়ছে ব্যাংকে ঋণ বাড়ছে
ডাবল ডিজিটের সুদ নিচ্ছে ২৯ ব্যাংক ডাবল ডিজিটের সুদ নিচ্ছে ২৯ ব্যাংক
এসএমই ক্রেডিট : ব্যাংকারদের যৌথভাবে প্রশিক্ষণ দেবে-বিআইবিএম এসএমই ক্রেডিট : ব্যাংকারদের যৌথভাবে প্রশিক্ষণ দেবে-বিআইবিএম
বাংলাদেশীদের কালো টাকার গন্তব্যস্থল সিঙ্গাপুর বাংলাদেশীদের কালো টাকার গন্তব্যস্থল সিঙ্গাপুর

সর্বাধিক পঠিত

চার নির্বাচন পর্যবেক্ষক সংস্থাকে চায় না- আওয়ামী লীগ চার নির্বাচন পর্যবেক্ষক সংস্থাকে চায় না- আওয়ামী লীগ
কেউ বৈধ অস্ত্র প্রদর্শন ও বহন করতে পারবে না: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী কেউ বৈধ অস্ত্র প্রদর্শন ও বহন করতে পারবে না: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী
দেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন হয়েছে- শেখ হাসিনা দেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন হয়েছে- শেখ হাসিনা
‘বিএনপি প্রথম দিনেই এক লাখ লোক মারবে- তোফায়েল ‘বিএনপি প্রথম দিনেই এক লাখ লোক মারবে- তোফায়েল
সিলেটে কামালসহ ঐক্যফ্রন্ট নেতারা সিলেটে কামালসহ ঐক্যফ্রন্ট নেতারা
অপরিশোধিত ইস্পাত উৎপাদনের পথে চীন অপরিশোধিত ইস্পাত উৎপাদনের পথে চীন
বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে শেখ হাসিনা বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে শেখ হাসিনা
কিছুই করতে পারছেন না বলেই সিইসি অসহায় ও বিব্রত-  সেলিমা রহমান কিছুই করতে পারছেন না বলেই সিইসি অসহায় ও বিব্রত- সেলিমা রহমান
২ কর্মীকে খুন করেছে বিএনপি , প্রমাণও আছে- কাদের ২ কর্মীকে খুন করেছে বিএনপি , প্রমাণও আছে- কাদের
ভোটারদের মন জয় করতে নেমেছি: মির্জা আব্বাস ভোটারদের মন জয় করতে নেমেছি: মির্জা আব্বাস
জলবায়ু পরিবর্তনে বিশ্বব্যাংক-আইএফসি ২২ বিলিয়ন ডলার দিবে
জলবায়ু পরিবর্তনের যুদ্ধে নারীর অংশগ্রহণ করতে হবে-প্যাট্রিসিয়া
বিএনপির দুটি আসনের পরিবর্তন
কলেজ শিক্ষক আলী হোসেন হত্যা দুইজনের ত্যুদণ্ড
নির্বাচনে সবার অংশগ্রহণ-গণতন্ত্রের জন্য ইতিবাচক
বহুল প্রত্যাশিত সংলাপে কি ছিল?
একটি অর্থবহ ও সফল সংলাপের প্রত্যাশা করছি
শেখ হাসিনা বার্ন ইন্সটিটিউটের: প্রত্যাশিত স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত হবে কি?
নদীশাসনের দুর্বলতা বিঘ্নিত হচ্ছে নৌপথে চলাচল
শিল্পে গ্যাস সংযোগ না দেওয়া, আর্থিক ক্ষতির মুখে-সরকার