ঢাকা, জানুয়ারী ২১, ২০১৯, ৮ মাঘ ১৪২৫
---
bbc24news.com
প্রথম পাতা » আমেরিকা » শতাব্দীর এক রেকর্ড গড়েছেন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প
বৃহস্পতিবার ● ৮ নভেম্বর ২০১৮, ৮ মাঘ ১৪২৫
Email this News Print Friendly Version

শতাব্দীর এক রেকর্ড গড়েছেন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প

---বিবিসি২৪নিউজ,আন্তর্জাতিক ডেস্ক:শতাব্দীর এক রেকর্ড গড়েছেন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প। যুক্তরাষ্ট্রের ১০৮ বছরের ইতিহাসে এ পর্যন্ত মাত্র পাঁচবার ক্ষমতসীন প্রেসিডেন্ট কংগ্রেসের সিনেটে জয়লাভ করেছেন।

এর আগে ক্ষমতায় থাকা অবস্থায় প্রেসিডেন্ট জর্জ ডব্লিউ বুশ (রিপাবলিকান) ২০০২ সালে, জন এফ কেনেডি (ডেমোক্রেটিক) ১৯৬২ সালে, ফ্রাঙ্কলিন ডি রুজভেল্ট (ডেমোক্রেটিক) ১৯৩৪ সালে, উড্রু উইলসন (ডেমোক্রেটিক) ১৯১৪ সালে সিনেটে জয়ী হয়েছেন।

বাকি সব মধ্যবর্তী নির্বাচনে ক্ষমতাসীন দল সিনেটের নিয়ন্ত্রণ ধরে রাখতে পারলেও কোন আসনে জয় পায় নি।

যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যবর্তী নির্বাচনে কংগ্রেসের নিুকক্ষ প্রতিনিধি পরিষদ সহজেই ডেমোক্রেটিকের দখলে যাবে আগেই জরিপে জানা গিয়েছিল। হলও তাই। সবার নজর ছিল, উচ্চকক্ষ সিনেট থেকে তারা রিপাবলিকানদের হঠাতে পারবে কিনা।

কিন্তু রিপাবলিকানের সেই লাল দুর্গ ভাঙতে পারেনি ডেমোক্র্যাটদের নীল সেনারা। নির্বাচনের আগে ডেমোক্র্যাটদের সমর্থনে যে নীল ঢেউয়ের জোয়ার প্রত্যাশা করা হয়েছিল, আদতে ভোটে তেমনটা হয়নি।

তবে জয় হয়েছে ডেমোক্রেটিক দলের নারী প্রার্থীদের। ট্রাম্পের নারীবিদ্বেষের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়িয়ে রেকর্ডসংখ্যক ১৮০ নারী ডেমোক্রেটিক প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছিলেন। তাদের মধ্যে ৮৩ জন জয়ী হয়েছেন।

মঙ্গলবারের মধ্যবর্তী নির্বাচনে সিনেটের নিয়ন্ত্রণ ধরে রেখেছে ট্রাম্পের রিপাবলিকান দল। অপরদিকে, আট বছর পর প্রতিনিধি পরিষদ ছিনিয়ে নিয়েছে ডেমোক্রেটিক দল।

নিুকক্ষের ২২২ আসন নিশ্চিত করেছে ডেমোক্র্যাটরা। রিপাবলিকানরা জয় পেয়েছে ১৯৯ আসনে। ৪৩৫ আসনের হাউসে সংখ্যাগরিষ্ঠতার জন্য ২১৮টি আসন প্রয়োজন। সিনেটের ৩৫ আসনে নির্বাচন হয়েছে। এর মধ্যে ডেমোক্র্যাটরা জয় পেয়েছে ২২ আসনে।

রিপাবলিকান পেয়েছে ৯ আসনে। মধ্যবর্তী নির্বাচনের মাধ্যমে সিনেটে রিপাবলিকানের দখলে ৫১ আসন ও ডেমোক্র্যাটদের নিয়ন্ত্রণে রইল ৪৫ আসন (দুইজন স্বতন্ত্র প্রার্থী রয়েছে)। ১০০ আসনের সিনেটে সংখ্যাগরিষ্ঠতার জন্য দরকার ৫১ আসন।

৩৬টি রাজ্যে ও তিনটি অঞ্চলের গভর্নর পদেও মঙ্গলবার নির্বাচন হয়েছে। গভর্নর পদে ডেমোক্রেটিক দল জয় পেয়েছে ১৫ ও রিপাবলিকান পেয়েছে ১৭টিতে।

প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প রিপাবলিকান দলের বিজয়কে ‘অসাধারণ সাফল্য’ বলে উল্লেখ করেছেন। মঙ্গলবার রাতে এক টুইট বার্তায় তিনি রিপাবলিকান নেতাদের অভিনন্দন জানিয়েছেন। টুইটারে এ জয়কে ম্যাজিক বলে উল্লেখ করেছেন ট্রাম্প।

মধ্যবর্তী এ নির্বাচনের মাধ্যমে যুক্তরাষ্ট্র মূলত দু’ভাগে বিভক্ত হয়ে গেছে। সিনেটে আধিপত্য ধরে রাখার মাধ্যমে রিপাবলিকানরা প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের বেশ কিছু কর্মসূচি বাস্তবায়ন করতে সফল হবে, যার মধ্যে বিচারক নিয়োগ অন্যতম। তবে সিনেটের নিয়ন্ত্রণ নিতে ব্যর্থ হলেও নিুকক্ষ হাউসের নিয়ন্ত্রণ ডেমোক্র্যাটরাই পেয়েছে।

এর মাধ্যমে ডেমোক্র্যাটরা হাউস কমিটির মাধ্যমে প্রেসিডেন্টের বিরুদ্ধে নতুন তদন্ত শুরু করতে পারবে।


আগামীকাল নির্বাচনকালীন সরকার গঠন হতে পারে : অর্থমন্ত্রী

জলপাইয়ের লোভনীয় ভর্তা


এ বিভাগের আরো খবর...

আফগান সেনা ঘাঁটিতে তালেবান হামলা, নিহত শতাধিক আফগান সেনা ঘাঁটিতে তালেবান হামলা, নিহত শতাধিক
বিশ্ব ইজতেমা নিয়ে এখনও সংশয় কাটেনি বিশ্ব ইজতেমা নিয়ে এখনও সংশয় কাটেনি
ভারতে ষাঁড়ের রেসলিং উৎসবে নিহত ২ ভারতে ষাঁড়ের রেসলিং উৎসবে নিহত ২
ফ্রাঙ্কলিংকের ঝড়ে উড়ে গেল ঢাকা ডায়নামাইটস ফ্রাঙ্কলিংকের ঝড়ে উড়ে গেল ঢাকা ডায়নামাইটস
বড় সংগ্রহ গড়তে পারেনি সাকিবের ঢাকা বড় সংগ্রহ গড়তে পারেনি সাকিবের ঢাকা
বিশ্ব ইজতেমা অনুষ্ঠানের নির্দেশনা চেয়ে হাইকোর্টে রিট বিশ্ব ইজতেমা অনুষ্ঠানের নির্দেশনা চেয়ে হাইকোর্টে রিট
রাষ্ট্রপতির সঙ্গে নৌবাহিনী প্রধানের বিদায়ী সাক্ষাৎ রাষ্ট্রপতির সঙ্গে নৌবাহিনী প্রধানের বিদায়ী সাক্ষাৎ
বুধবারের বৈঠকে ইজতেমা নিয়ে সিদ্ধান্ত:স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বুধবারের বৈঠকে ইজতেমা নিয়ে সিদ্ধান্ত:স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী
এবারের নির্বাচনের পরিবেশ ছিল সম্পূর্ণ শান্তিপূর্ণ- তথ্যমন্ত্রী এবারের নির্বাচনের পরিবেশ ছিল সম্পূর্ণ শান্তিপূর্ণ- তথ্যমন্ত্রী
পাঁচ প্রতিষ্ঠানের পানি ‘মানহীন’ আদলতকে- বিএসটিআই পাঁচ প্রতিষ্ঠানের পানি ‘মানহীন’ আদলতকে- বিএসটিআই

সর্বাধিক পঠিত

আফগান সেনা ঘাঁটিতে তালেবান হামলা, নিহত শতাধিক আফগান সেনা ঘাঁটিতে তালেবান হামলা, নিহত শতাধিক
বিশ্ব ইজতেমা নিয়ে এখনও সংশয় কাটেনি বিশ্ব ইজতেমা নিয়ে এখনও সংশয় কাটেনি
ভারতে ষাঁড়ের রেসলিং উৎসবে নিহত ২ ভারতে ষাঁড়ের রেসলিং উৎসবে নিহত ২
ফ্রাঙ্কলিংকের ঝড়ে উড়ে গেল ঢাকা ডায়নামাইটস ফ্রাঙ্কলিংকের ঝড়ে উড়ে গেল ঢাকা ডায়নামাইটস
বড় সংগ্রহ গড়তে পারেনি সাকিবের ঢাকা বড় সংগ্রহ গড়তে পারেনি সাকিবের ঢাকা
রাতভর নেচে অসুস্থ বিপাশা রাতভর নেচে অসুস্থ বিপাশা
বিশ্ব ইজতেমা অনুষ্ঠানের নির্দেশনা চেয়ে হাইকোর্টে রিট বিশ্ব ইজতেমা অনুষ্ঠানের নির্দেশনা চেয়ে হাইকোর্টে রিট
রাষ্ট্রপতির সঙ্গে নৌবাহিনী প্রধানের বিদায়ী সাক্ষাৎ রাষ্ট্রপতির সঙ্গে নৌবাহিনী প্রধানের বিদায়ী সাক্ষাৎ
প্রচণ্ড শীত ও ঘন কুয়াশায় ৩১ রোহিঙ্গা শূন্যরেখায় প্রচণ্ড শীত ও ঘন কুয়াশায় ৩১ রোহিঙ্গা শূন্যরেখায়
বুধবারের বৈঠকে ইজতেমা নিয়ে সিদ্ধান্ত:স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বুধবারের বৈঠকে ইজতেমা নিয়ে সিদ্ধান্ত:স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী
বেআইনি ব্যাংকিং কার্যক্রমের বিরুদ্ধে বহুমুখী পদক্ষেপ নিন
খাদ্যে অতিরিক্ত ট্রান্সফ্যাটের কারণে, প্রতি বছর বিশ্বে পাঁচ লাখ মানুষের মৃত্যু হয়
স্বাধীনতার পর প্রথমবার ‘মন্ত্রীশূন্য’ কিশোরগঞ্জ
মন চুরির অভিযোগ পুলিশের কাছে!
সৈয়দ আশরাফ যে কবরে সমাহিত হবেন
ব্যবসায়ীদের বিনিয়োগের বাধা দূর করতে হবে?
মহাজোটের মহাজয়ে শেখ হাসিনা
বাংলাদেশে নির্বাচন-পরবর্তী সহিংসতা রোধ করুন!
নেইমারের সমালোচনায় পেলে
জলবায়ু পরিবর্তনে বিশ্বব্যাংক-আইএফসি ২২ বিলিয়ন ডলার দিবে