ঢাকা, জানুয়ারী ২১, ২০১৯, ৮ মাঘ ১৪২৫
---
bbc24news.com
প্রথম পাতা » সম্পাদকীয় » বাংলাদেশের রাজনৈতিতে সংলাপের কতটুকু গুরুত্ব পায়?
বৃহস্পতিবার ● ৮ নভেম্বর ২০১৮, ৮ মাঘ ১৪২৫
Email this News Print Friendly Version

বাংলাদেশের রাজনৈতিতে সংলাপের কতটুকু গুরুত্ব পায়?

---শাহাদাত হোসেন:’বুধবার সকালে গণভবনে সরকার ও আওয়ামী লীগের সঙ্গে দ্বিতীয় দফা সংলাপে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টকে হতাশ হয়েই ফিরতে হয়েছে৷সংলাপ শেষ হওয়ার পর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের সাংবাদিকদের বলেছেন, ‘‘আলাপ-আলোচনা চলবে, তবে ডায়লগ শেষ৷ কারণ, জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের প্রস্তাবিত নির্বাচনকালীন ১০ সদস্যের উপদেষ্টা পরিষদের প্রস্তাব নাকচ করে দিয়েছে সরকার৷ নির্বাচনের তফসিল পেছানোর দাবিও মানা হচ্ছে না৷

ওবায়দুল কাদের বলেন, নির্বাচন পেছানোর প্রস্তাব উভয় পক্ষেরই বিপদ হতে পারে৷ তৃতীয় পক্ষ সুযোগ নিতে পারে৷ তাই নির্বাচন সরকারের মেয়াদের শেষ তিন মাসের মধ্যেই হবে৷ সংবিধানেও তাই বলা আছে৷ তাঁদের প্রস্তাব অনুযায়ী, নির্বাচনকালীন সরকার হিসেবে ১০ সদস্যের উপদেষ্টা পরিষদ গঠনও সম্ভব নয়৷ সম্ভব নয় নির্বাচন কমিশন পুনর্গঠন৷ এই সরকারের অধীনেই নির্বাচন হবে৷ তাঁরা সংবিধানের মধ্যে থেকে এসব প্রস্তাব দেয়ার কথা বললেও আসলে এগুলো সংবিধানের বাইরে৷”

তিনি আরো বলেন,‘‘তাঁরা খালেদা জিয়ার জামিন চেয়েছেন৷আদালত যদি জামিন দেয়, তাহলে তো আমাদের আপত্তি থাকার কথা নয়৷ আর আমরা আইনমন্ত্রীকে দায়িত্ব দিয়েছি৷ তাঁরা যে মামলার তালিকা দিয়েছেন, তদন্তে যদি রাজনৈতিক মামলা পাওয়া যায় তা প্রত্যাহার করা হবে৷”

‘‘তাঁদের কয়েকটি দাবি তো আমরা মেনেই নিয়েছি৷ লেভেল প্লেইিং ফিল্ড তো নির্বাচন কমিশন নিশ্চিত করবে৷ আমরা সহযোগিতা করব৷ আমাদের কোনো মন্ত্রী, এমপি সরকারি সুযোগ-সুবিধা নির্বাচনের সময় ব্যবহার করবেন না৷ মন্ত্রীরা গাড়িতে পতাকাও ব্যবহার করবেন না৷ আর তাঁরা সভা- সমাবেশ সবই করতে পারবে৷”

তিনি আরেক প্রশ্নের জবাবে বলেন, ‘‘লং মার্চ বা রোড মার্চ তাঁদের গণতান্ত্রিক অধিকার৷ তাঁরা তা করবেন৷ কিন্তু যদি আগের মতো বোমাবাজি বা সন্ত্রাস করে, তাহলে তো ব্যবস্থা নেয়া হবে৷”

এদিকে বিকেলে এক সংবাদ সম্মেলনে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের মুখপাত্র এবং বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুণ ইসলাম বলেছেন, ‘‘আমরা যে প্রস্তাব দিয়েছি, তা জনগণেরই দাবি৷ সরকার যদি তা মেনে না নেয়, আমরা আন্দোলন চালিয়ে যাব৷ আমরা আন্দোলনের অংশ হিসেবেই এই সংলাপে অংশ নিয়েছ৷ কাল(বৃহস্পতিবার) রাজশাহীতে আমাদের রোড মার্চ হবে৷ আর শুক্রবার হবে সমাবেশ৷ যদি নির্বাচন কমিশন তফসিল ঘোষণা করে, তাহলে আমরা নির্বাচন কমিশন অভিমুখে পদযাত্রা করবো৷”

তাঁদের মূল দাবিগুলোই তো মানা হয়নি, এমন মন্তব্যের জবাবে তিনি বলেন, ‘‘আমরা মনে করি, এখনো আলাপ-আলোচনা শেষ হয়নি৷ আরো আলাপ- আলোচনার সুযোগ আছে৷”

সংবাদ সম্মেলনে ঐক্যফ্রন্টের আহ্বায়ক ড. কামাল হোসেন উপস্থিত থাকলেও তিনি তেমন কোনো কথা বলেননি৷ নেতাদের কিছুটা বিক্ষিপ্ত এবং উত্তেজিত মনে হয়েছে৷ তবে নির্বাচন বর্জন বা নির্বাচনে অংশ নেয়ার কোনো কথা বলেননি তাঁরা৷ তাঁরা বলেন, ‘‘সরকারকে জনগণের দাবি মানতে হবে৷ আলোচনায় সন্তুষ্ট কিনা জানতে চাইলে মির্জা ফখরুল বলেন, ‘‘এটা জনগণের বিষয়৷ তাঁরাই বলবেন সন্তুষ্ট, না অসন্তুষ্ট৷”

আর ড. কামাল হোসেন বলেন, ‘‘বল এখন সরকারের কোর্টে৷ আমরা এখন জনগণের কাছে
গত ১ নভেম্বর সন্ধ্যায় ঐক্যফ্রন্টের সঙ্গে প্রথম সংলাপ শুরু করে সরকার৷ পরের দিন সংলাপ হয় বিকল্পধারার সঙ্গে৷ ৪ নভেম্বর ক্ষমতাসীন ১৪ দলের সঙ্গে সংলাপ হয় সরকারের৷ ৫ নভেম্বর বর্তমান সংসদে বিরোধী দল জাতীয় পার্টির সঙ্গে সংলাপ হয়৷ ৬ নভেম্বর ইসলমি ঐক্যজোটসহ ১৫টি ইসলামিক দলের সঙ্গে সংলাপ করে সরকার৷ ওইদিন সন্ধ্যায় বাম গণতান্ত্রিক ফ্রন্ট সংলাপ করে৷

৭ নভেম্বর সকালে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের সঙ্গে দ্বিতীয় দফা সংলাপের পর সন্ধ্যায় ক্ষুদ্র ক্ষ্রদ্র ৩০টি দলের সঙ্গে সংলাপ হয়৷ সরকার জানিয়েছে, আর কোনো সংলাপ হবে না৷

বৃহস্পতিবার সকালেপ্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এই সংলাপের বিষয় নিয়ে সংবাদ সম্মেলন করবেন৷আর বিকেলের পর যে কোনো সময় নির্বাচন কমিশনের একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করার কথা রয়েছে৷

সংলাপে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট ছাড়া আর সবাই এই সরকারের অধীনেনির্বাচনে অংশ নেয়ার কথা বলেছে৷তারা নির্বাচন যাতে না পেছায়, তার দাবিও জানিয়েছে৷ তবে বাম গণতান্ত্রিক ফ্রন্ট নিরপেক্ষ নির্বাচনের দাবিতে আন্দোলন চালিয়ে যাওয়ার কথা বলেছে৷বাংলাদেশের রাজনৈতিতে যুগেযুগে সংলাপের কোন গুরুত্ব নেই।


না ফেরার দেশে চলে গেছেন ক্রিস গেইলের মা

দু’এক দিন পর প্রধানমন্ত্রীর সংবাদ সম্মেলন- কাদের


এ বিভাগের আরো খবর...

বেআইনি ব্যাংকিং কার্যক্রমের বিরুদ্ধে বহুমুখী পদক্ষেপ নিন বেআইনি ব্যাংকিং কার্যক্রমের বিরুদ্ধে বহুমুখী পদক্ষেপ নিন
খাদ্যে অতিরিক্ত ট্রান্সফ্যাটের কারণে, প্রতি বছর বিশ্বে পাঁচ লাখ মানুষের মৃত্যু হয় খাদ্যে অতিরিক্ত ট্রান্সফ্যাটের কারণে, প্রতি বছর বিশ্বে পাঁচ লাখ মানুষের মৃত্যু হয়
ব্যবসায়ীদের বিনিয়োগের বাধা দূর করতে হবে? ব্যবসায়ীদের বিনিয়োগের বাধা দূর করতে হবে?
বাংলাদেশে নির্বাচন-পরবর্তী সহিংসতা রোধ করুন! বাংলাদেশে নির্বাচন-পরবর্তী সহিংসতা রোধ করুন!
ইশতেহার নয়, কাজে বিশ্বাস করে দেশবাসী ইশতেহার নয়, কাজে বিশ্বাস করে দেশবাসী
বাড়ছে চাল উৎপাদন - নেপাল বাড়ছে চাল উৎপাদন - নেপাল
সবদলকে নির্বাচনী আচরণবিধি মেনে চলা উচিত সবদলকে নির্বাচনী আচরণবিধি মেনে চলা উচিত
নির্বাচন কমিশনকে লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড নিশ্চিত করতে হবে নির্বাচন কমিশনকে লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড নিশ্চিত করতে হবে
ভিকারুননিসার ছাত্রী-অরিত্রীর আত্মহত্যা-দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি হওয়া উচিত! ভিকারুননিসার ছাত্রী-অরিত্রীর আত্মহত্যা-দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি হওয়া উচিত!
শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে লাগেজ চুরি ঘটনা আবারও বেড়ে গেছে শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে লাগেজ চুরি ঘটনা আবারও বেড়ে গেছে

সর্বাধিক পঠিত

আফগান সেনা ঘাঁটিতে তালেবান হামলা, নিহত শতাধিক আফগান সেনা ঘাঁটিতে তালেবান হামলা, নিহত শতাধিক
বিশ্ব ইজতেমা নিয়ে এখনও সংশয় কাটেনি বিশ্ব ইজতেমা নিয়ে এখনও সংশয় কাটেনি
ভারতে ষাঁড়ের রেসলিং উৎসবে নিহত ২ ভারতে ষাঁড়ের রেসলিং উৎসবে নিহত ২
ফ্রাঙ্কলিংকের ঝড়ে উড়ে গেল ঢাকা ডায়নামাইটস ফ্রাঙ্কলিংকের ঝড়ে উড়ে গেল ঢাকা ডায়নামাইটস
বড় সংগ্রহ গড়তে পারেনি সাকিবের ঢাকা বড় সংগ্রহ গড়তে পারেনি সাকিবের ঢাকা
রাতভর নেচে অসুস্থ বিপাশা রাতভর নেচে অসুস্থ বিপাশা
বিশ্ব ইজতেমা অনুষ্ঠানের নির্দেশনা চেয়ে হাইকোর্টে রিট বিশ্ব ইজতেমা অনুষ্ঠানের নির্দেশনা চেয়ে হাইকোর্টে রিট
রাষ্ট্রপতির সঙ্গে নৌবাহিনী প্রধানের বিদায়ী সাক্ষাৎ রাষ্ট্রপতির সঙ্গে নৌবাহিনী প্রধানের বিদায়ী সাক্ষাৎ
প্রচণ্ড শীত ও ঘন কুয়াশায় ৩১ রোহিঙ্গা শূন্যরেখায় প্রচণ্ড শীত ও ঘন কুয়াশায় ৩১ রোহিঙ্গা শূন্যরেখায়
বুধবারের বৈঠকে ইজতেমা নিয়ে সিদ্ধান্ত:স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বুধবারের বৈঠকে ইজতেমা নিয়ে সিদ্ধান্ত:স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী
বেআইনি ব্যাংকিং কার্যক্রমের বিরুদ্ধে বহুমুখী পদক্ষেপ নিন
খাদ্যে অতিরিক্ত ট্রান্সফ্যাটের কারণে, প্রতি বছর বিশ্বে পাঁচ লাখ মানুষের মৃত্যু হয়
স্বাধীনতার পর প্রথমবার ‘মন্ত্রীশূন্য’ কিশোরগঞ্জ
মন চুরির অভিযোগ পুলিশের কাছে!
সৈয়দ আশরাফ যে কবরে সমাহিত হবেন
ব্যবসায়ীদের বিনিয়োগের বাধা দূর করতে হবে?
মহাজোটের মহাজয়ে শেখ হাসিনা
বাংলাদেশে নির্বাচন-পরবর্তী সহিংসতা রোধ করুন!
নেইমারের সমালোচনায় পেলে
জলবায়ু পরিবর্তনে বিশ্বব্যাংক-আইএফসি ২২ বিলিয়ন ডলার দিবে