ঢাকা, মার্চ ১৮, ২০১৯, ৪ চৈত্র ১৪২৫
---
bbc24news.com
প্রথম পাতা » আর্ন্তজাতিক » ব্রিটেন ও ইইউ-র মধ্যে সমোঝতা
মঙ্গলবার ● ১২ মার্চ ২০১৯, ৪ চৈত্র ১৪২৫
Email this News Print Friendly Version

ব্রিটেন ও ইইউ-র মধ্যে সমোঝতা

---বিবিসি২৪নিউজ,আন্তর্জাতিক ডেস্ক:গতকাল গভীর রাতে ব্রিটেন ও ইইউ-র মধ্যে ব্রেক্সিট সংক্রান্ত এক বোঝাপড়া হয়েছে৷ তবে আজ ব্রিটিশ সংসদে তার ভিত্তিতে ব্রেক্সিট চুক্তি অনুমোদন করা সম্ভব হবে কিনা, তা স্পষ্ট নয়৷গতকাল প্রায় মাঝরাতে ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী টেরেসা মে অবশেষে ইউরোপীয় ইউনিয়নের কাছ থেকে নতুন কিছু আদায় করতে পারলেন৷ ব্রেক্সিট চুক্তি নিয়ে ব্রিটেনের সংসদে ভোটাভুটির কার্যত কয়েক ঘণ্টা আগে তিনি আয়ারল্যান্ড সীমান্তে ব্যাকস্টপ সংক্রান্ত সংশয় দূর করার ক্ষেত্রে কিছুটা সাফল্য পেলেন বলা চলে৷

মূল ব্রেক্সিট চুক্তিতে রদবদল না ঘটিয়ে বাড়তি এক নথির মধ্যে ইইউ আইনি আশ্বাস দিয়েছে, যে এই রাষ্ট্রজোট ব্রিটেনকে অনির্দিষ্টকালের জন্য শুল্ক এলাকায় ‘বন্দি’ করে রাখতে চায় না৷ সাময়িক এই ব্যবস্থার বদলে স্থায়ী সমাধানসূত্র অর্জন করাই দুই পক্ষের লক্ষ্য৷

এমনকি ভবিষ্যৎ সম্পর্ক নিয়ে আলোচনা বিফল হলে ব্রিটেন একতরফাভাবে ব্যাকস্টপ ব্যবস্থা থেকে বেরিয়ে আসতে পারবে৷ তবে সে রকম পরিস্থিতি এড়াতে ব্রেক্সিট পরবর্তী দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক তরান্বিত করতেও দ্রুত পদক্ষেপ নেওয়া হবে৷ ২০২০ সালের মধ্যে দ্বিপাক্ষিক চুক্তি চূড়ান্ত করার লক্ষ্যমাত্রা স্থির করা হচ্ছে৷

সোমবার সন্ধ্যায় ফ্রান্সের স্ট্রাসবুর্গ শহরে ইউরোপীয় পার্লামেন্ট ভবনে ইইউ কমিশন প্রেসিডেন্ট জঁ ক্লোদ ইয়ুংকার ও ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী জরুরি আলোচনায় বসেন৷ আলোচনার পর মে বলেন, নতুন এই নথি অনুযায়ী ইইউ ইচ্ছাকৃতভাবে অনির্দিষ্টকালের জন্য ব্যাকস্টপ প্রয়োগ করতে পারবে না৷

ইয়ুংকার বলেন, ইইউ নিয়ন্ত্রিতভাবে ব্রিটেনের সঙ্গে বিচ্ছেদ প্রক্রিয়া শেষ করতে চায়৷ সেইসঙ্গে আইরিশ দ্বীপে শান্তি বজায় রাখাও জরুরি৷ তবে ইয়ুংকার ব্রিটেনকে সতর্ক করে দিয়ে বলেন, মূল ব্রেক্সিট চুক্তি ও বাড়তি নথির পর সে দেশ তৃতীয় কোনো সুযোগ পাবে না৷ এমনকি গোটা ব্রেক্সিট প্রক্রিয়া বানচাল হয়ে যেতে পারে বলে মনে করেন তিনি৷

এই আইনি আশ্বাস সম্বল করে ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী আজ সংসদে দ্বিতীয়বারের মতো ব্রেক্সিট চুক্তি অনুমোদনের চেষ্টা চালাবেন৷

জানুয়ারি মাসে সেই প্রস্তাব পাস করতে গিয়ে শোচনীয় পরাজয়ের মুখে পড়েছিলেন টেরেসা মে৷ আজ ব্রিটেনের অ্যাটর্নি জেনারেল সোমবার প্রকাশিত নথি পরীক্ষা করে তার মূল্যায়ন করবেন৷

ইইউ-র সঙ্গে নতুন এই বোঝাপড়া আজ ভোটাভুটির উপর কতটা প্রভাব ফেলবে, তা এখনো স্পষ্ট নয়৷ বিরোধী লেবার দলের নেতা জেরেমি কর্বিন প্রাথমিক প্রতিক্রিয়ায় এই বোঝাপড়ার তুমুল বিরোধিতা করে সংসদ সদস্যদের ব্রেক্সিট চুক্তির বিরুদ্ধে ভোট দেবার আহ্বান জানিয়েছেন৷

তাঁর অভিযোগ, প্রধানমন্ত্রী সংসদে যে সব আশ্বাস দিয়েছিলেন, নতুন এই নথির মধ্যে তার কোনো প্রতিফলন দেখা যাচ্ছে না৷

ক্ষমতাসীন টোরি দলের মধ্যে কট্টর ব্রেক্সিটপন্থি ও জোটসঙ্গী উত্তর আয়ারল্যান্ডের ডিইউপি দলের মনোভাব মঙ্গলবারের ভোটাভুটির ক্ষেত্রে নির্ণয়ক হবে বলে ধরে নেওয়া হচ্ছে৷

এই দুই শিবিরের সংসদ সদস্যরা প্রথমবারের মতো আবার প্রস্তাবের বিপক্ষে ভোট দিলে এই চুক্তি কার্যত ভেঙে পড়বে৷ সে ক্ষেত্রে বুধবার চুক্তিহীন ব্রেক্সিট এবং বৃহস্পতিবার ব্রেক্সিটের সময়সীমা বাড়ানোর প্রশ্নে ভোটাভুটি হবে৷

গতকালের বোঝাপড়ার পর ইইউ ব্রেক্সিটের সময়সীমা বাড়ানোর আবেদন মেনে নেবে কিনা, তা নিয়ে সন্দেহ রয়েছে৷ গণভোট অথবা আগাম নির্বাচনের মতো স্পষ্ট কারণ থাকলে তবেই ইইউ হয়তো গোটা প্রক্রিয়া বছর দুয়েকের জন্য মুলতুবি রাখতে সম্মত হতে পারে৷


ডাকসুর পুনঃভোটের দাবি সরাসরি নাকচ- বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের

ফায়ার সার্ভিসের সার্মথ্য বৃদ্ধিতে কাজ করছে যাচ্ছে সরকার- স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী


এ বিভাগের আরো খবর...

রাঙ্গামাটিতে দুর্বৃত্তদের গুলিতে প্রিসাইডিং অফিসারসহ নিহত ৫ রাঙ্গামাটিতে দুর্বৃত্তদের গুলিতে প্রিসাইডিং অফিসারসহ নিহত ৫
দ্বিতীয় ধাপে ভোট সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ হয়েছে- ইসি সচিব দ্বিতীয় ধাপে ভোট সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ হয়েছে- ইসি সচিব
দেশের প্রচলিত শিক্ষা ব্যবস্থায় চাকরির সুযোগ নেই- মোস্তাফা জব্বার দেশের প্রচলিত শিক্ষা ব্যবস্থায় চাকরির সুযোগ নেই- মোস্তাফা জব্বার
মর্যাদাহীন নির্বাচন করে কেউ খুশি হতে পারে না- মাহবুব তালুকদার মর্যাদাহীন নির্বাচন করে কেউ খুশি হতে পারে না- মাহবুব তালুকদার
পাকিস্তানি সেনার গুলিতে ভারতীয় সেনা নিহত, উত্তেজনার আশংকা! পাকিস্তানি সেনার গুলিতে ভারতীয় সেনা নিহত, উত্তেজনার আশংকা!
মমতা প্রিয়ঙ্কাকে  বেফাঁস মন্তব্য করায় বিতর্কে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী মমতা প্রিয়ঙ্কাকে বেফাঁস মন্তব্য করায় বিতর্কে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী
নেদারল্যান্ডে যাত্রীবাহী ট্রামে বন্দুকধারীর হামলা! নেদারল্যান্ডে যাত্রীবাহী ট্রামে বন্দুকধারীর হামলা!
২০২০ সালের পর বেসরকারি খাতে ট্রেন দেওয়া হবে না- রেলমন্ত্রী ২০২০ সালের পর বেসরকারি খাতে ট্রেন দেওয়া হবে না- রেলমন্ত্রী
বাতিঘরের মাশুল  দিতেই হবে বাতিঘরের মাশুল দিতেই হবে
জন্মভূমি নইমকে জাতীয় সম্মান জানাবে জন্মভূমি নইমকে জাতীয় সম্মান জানাবে

সর্বাধিক পঠিত

রাঙ্গামাটিতে দুর্বৃত্তদের গুলিতে প্রিসাইডিং অফিসারসহ নিহত ৫ রাঙ্গামাটিতে দুর্বৃত্তদের গুলিতে প্রিসাইডিং অফিসারসহ নিহত ৫
প্রকৃত মুক্তিযোদ্ধাদের তালিকা তৈরি করতে পারছে না কেন? প্রকৃত মুক্তিযোদ্ধাদের তালিকা তৈরি করতে পারছে না কেন?
দ্বিতীয় ধাপে ভোট সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ হয়েছে- ইসি সচিব দ্বিতীয় ধাপে ভোট সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ হয়েছে- ইসি সচিব
দেশের প্রচলিত শিক্ষা ব্যবস্থায় চাকরির সুযোগ নেই- মোস্তাফা জব্বার দেশের প্রচলিত শিক্ষা ব্যবস্থায় চাকরির সুযোগ নেই- মোস্তাফা জব্বার
কালীগঞ্জে কিশোরীকে গনধর্ষণে গ্রেফতার ৩ কালীগঞ্জে কিশোরীকে গনধর্ষণে গ্রেফতার ৩
মর্যাদাহীন নির্বাচন করে কেউ খুশি হতে পারে না- মাহবুব তালুকদার মর্যাদাহীন নির্বাচন করে কেউ খুশি হতে পারে না- মাহবুব তালুকদার
পাকিস্তানি সেনার গুলিতে ভারতীয় সেনা নিহত, উত্তেজনার আশংকা! পাকিস্তানি সেনার গুলিতে ভারতীয় সেনা নিহত, উত্তেজনার আশংকা!
হাসতে নেই মানা: হাসুন প্রাণ খুলে হাসতে নেই মানা: হাসুন প্রাণ খুলে
তিমির পেটে ৪০ কেজি প্লাস্টিকের ‘শপিং ব্যাগ’! তিমির পেটে ৪০ কেজি প্লাস্টিকের ‘শপিং ব্যাগ’!
মিয়া খলিফার ‘একদম পারফেক্ট রাত’ মিয়া খলিফার ‘একদম পারফেক্ট রাত’
প্রকৃত মুক্তিযোদ্ধাদের তালিকা তৈরি করতে পারছে না কেন?
শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ-ভারত সম্পর্ক বিশ্বে একটি রোল মডেল?
সীমাহীন দুর্নীতিগ্রস্ত বিমান
নানা সমস্যায় জর্জরিত ব্যাংকিং খাত!
উত্তপ্ত কাশ্মীর সমস্যার স্থায়ী সমাধান প্রয়োজন!
দেশকে দ্রুত উন্নতির জন্য কারিগরি শিক্ষার বিকল্প নেই!
প্রধানমন্ত্রীর জার্মানি সফর উন্নয়ন- কূটনৈতিক সম্পর্ক জোরদার হবে!
খেলাপি ঋণে ‘জিরো টলারেন্স’ চাই
৫ জনই ছাত্রলীগ-যুবলীগ নেতা
দুর্নীতির বিরুদ্ধে প্রকৃত অর্থেই নিতে হবে জিরো টলারেন্স