ঢাকা, মার্চ ১৮, ২০১৯, ৪ চৈত্র ১৪২৫
---
bbc24news.com
প্রথম পাতা » প্রধান সংবাদ » মানবতার সেবার বিত্তবানদের এগিয়ে আসা দরকার- প্রধানমন্ত্রী
বৃহস্পতিবার ● ১৪ মার্চ ২০১৯, ৪ চৈত্র ১৪২৫
Email this News Print Friendly Version

মানবতার সেবার বিত্তবানদের এগিয়ে আসা দরকার- প্রধানমন্ত্রী

---বিবিসি২৪নিউজ,নিজস্ব প্রতিবেদক:প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, রণদা প্রসাদ সাহা আমাদের দেশের নারী শিক্ষার প্রসার ঘটানোর থেকে শুরু করে মানবতার সেবার যে দৃষ্টান্ত স্থাপন করে গেছেন সেই দৃষ্টান্ত অনুসরণ করার মতো অনেক বিত্তশালী আমাদের দেশে আছেন, তারাও করতে পারেন। তাহলে আমাদের দেশের মানুষের আর কোনো কষ্ট থাকবে না।আজ টাঙ্গাইলের মির্জাপুরে ‘দানবীর রণদা প্রসাদ সাহা স্মারক স্বর্ণপদক’ প্রদান অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতাকালে প্রধানমন্ত্রী এ কথা বলেন। রণদা প্রসাদ সাহা প্রতিষ্ঠিত কুমুদিনী ওয়েলফেয়ার ট্রাস্ট এই পদক প্রদান অনুষ্ঠানের আয়োজন করে।

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ছোট মেয়ে এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ছোট বোন শেখ রেহানা অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, রণদা প্রসাদ সাহা দরিদ্র পরিবারে জন্মগ্রহণ করা সত্ত্বেও পরিশ্রম ও বুদ্ধিমত্তায় তিনি বাংলার অন্যতম ধনী হিসেবে পরিণত হয়েছিলেন। অর্থবৃত্তের মালিক হওয়ার পর তিনি ভোগবিলাসে ডুবে যাননি। বরং অর্জিত অর্থ মানবকল্যাণে ব্যয় করেছেন। এখানেই অন্যদের চেয়ে রণদা প্রসাদ সাহা আলাদা।

নারী শিক্ষার প্রসারে রণদা প্রসাদ সাহার গভীর আগ্রহ ছিল উল্লেখ করে শেখ হাসিনা বলেন, তিনি প্রতিষ্ঠা করেন ভারতেশ্বরী হোমস, কুমুদিনী কলেজ এবং পিতার নামে দেবেন্দ্র কলেজ।

১৯৫৪ সালে তিনি ঢাকা সেনানিবাসে সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে ম্যাটারনিটি বিভাগের বিল্ডিং স্থাপন করেন। দেশের বহু শিক্ষা প্রতিষ্ঠানকে তিনি আর্থিক সহায়তা দিয়েছেন। কুমুদিনী ওয়েলফেয়ার ট্রাস্টের পরবর্তী প্রজন্ম প্রতিষ্ঠাতার মানবিক প্রয়াস- প্রান্তিক অসহায় জনপদে স্বাস্থ্যসেবা প্রদান ও নারী শিক্ষা প্রসারে নিজেদের নিবেদিত রেখেছেন।

ট্রাস্টের সেবা কর্মযজ্ঞে যুক্ত হয়েছে কুমুদিনী উইমেন্স মেডিকেল কলেজ, কুমুদিনী নার্সিং স্কুল ও কলেজ এবং রণদা প্রসাদ সাহা বিশ্ববিদ্যালয়। অনগ্রসর মানুষের কল্যাণের জন্য প্রতিষ্ঠিত হয়েছে কুমুদিনী ট্রেড ট্রেনিং ইনস্টিটিউট।

কুমুদিনী ওয়েলফেয়ার ট্রাস্ট অব বেঙ্গলের (বিডি) ৮৬ বছর কার্যকাল পূর্তি উপলক্ষে চারজন বিশিষ্ট ব্যক্তিত্বকে এ বছরের দানবীর রণদা প্রসাদ সাহা স্মারক স্বর্ণপদকে ভূষিত করা হয়।

তারা হচ্ছেন- গণতন্ত্রের মানসপুত্র ও অবিভক্ত বাংলার মুখ্যমন্ত্রী হোসেন শহীদ সোহরাওয়ার্দী (মরণোত্তর), জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম (মরণোত্তর), নজরুল গবেষক ও ভাষা সৈনিক অধ্যাপক রফিকুল ইসলাম এবং প্রখ্যাত চিত্রশিল্পী শাহাবুদ্দিন আহমেদ।

হোসেন শহীদ সোহরাওয়ার্দীর পক্ষে বঙ্গবন্ধুর ছোট মেয়ে শেখ রেহানা, কাজী নজরুল ইসলামের পক্ষে তার নাতনী খিলখিল কাজী এবং অধ্যাপক রফিকুল ইসলাম ও শাহাবুদ্দিন আহমেদ প্রধানমন্ত্রীর কাছ থেকে স্বর্ণপদক গ্রহণ করেন।

কুমুদিনী ওয়েলফেয়ার ট্রাস্টের পরিচালক প্রতিভা মুৎসুদ্দির সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কৃষিমন্ত্রী ড. আব্দুর রাজ্জাক, শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি, স্বাস্থ্য প্রতিমন্ত্রী ডা. মো. মুরাদ হাসান, স্থানীয় সংসদ সদস্য একাব্বর হোসেন। স্বাগত বক্তব্য রাখেন ট্রাস্টের পরিচালক ও রণদা প্রসাদ সাহার পূত্রবধূ শ্রীমতি সাহা, ব্যবস্থাপনা পরিচালক রাজিব প্রসাদ সাহা।

এর আগে, বেলা সাড়ে ১১টায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা অনুষ্ঠানস্থলে পৌঁছালে জাতীয় সংগীত ও দেশাত্মবোধক সংগীত পরিবেশনের মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠান শুরু হয়। পরে প্রধানমন্ত্রী ভারতেশ্বরী হোমসের শিক্ষার্থীদের মনোমুগ্ধকর শরীর চর্চা প্রদর্শন উপভোগ করেন। অনুষ্ঠানে রণদা প্রসাদ সাহার জীবন ও কর্ম এবং কুমুদিনী ওয়েলফেয়ার ট্রাস্টের ওপর নির্মিত প্রামাণ্যচিত্র প্রদর্শন করা হয়।

এর আগে প্রধানমন্ত্রী মির্জাপুর কুমুদিনী কমপ্লেক্সে টাঙ্গাইল প্রেসক্লাবের বঙ্গবন্ধু ভিআইপি অডিটরিয়ামসহ ১২টি প্রকল্পের উদ্বোধন ও ১৯টি প্রকল্পের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন।


বিইআরসি গ্যাসের দাম নিয়ে আলোচনা করছে- তৌফিক-ই-এলাহী

দুঃখ লাগে, বিশ্ব র‌্যাংকিংয়ে ঢাবি নেই- নাসিম


এ বিভাগের আরো খবর...

বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন বাস্তবায়নে শপথ নিতে হবে: ড. কামাল বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন বাস্তবায়নে শপথ নিতে হবে: ড. কামাল
রাঙ্গামাটিতে দুর্বৃত্তদের গুলিতে প্রিসাইডিং অফিসারসহ নিহত ৫ রাঙ্গামাটিতে দুর্বৃত্তদের গুলিতে প্রিসাইডিং অফিসারসহ নিহত ৫
দ্বিতীয় ধাপে ভোট সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ হয়েছে- ইসি সচিব দ্বিতীয় ধাপে ভোট সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ হয়েছে- ইসি সচিব
দেশের প্রচলিত শিক্ষা ব্যবস্থায় চাকরির সুযোগ নেই- মোস্তাফা জব্বার দেশের প্রচলিত শিক্ষা ব্যবস্থায় চাকরির সুযোগ নেই- মোস্তাফা জব্বার
মর্যাদাহীন নির্বাচন করে কেউ খুশি হতে পারে না- মাহবুব তালুকদার মর্যাদাহীন নির্বাচন করে কেউ খুশি হতে পারে না- মাহবুব তালুকদার
পাকিস্তানি সেনার গুলিতে ভারতীয় সেনা নিহত, উত্তেজনার আশংকা! পাকিস্তানি সেনার গুলিতে ভারতীয় সেনা নিহত, উত্তেজনার আশংকা!
মমতা প্রিয়ঙ্কাকে  বেফাঁস মন্তব্য করায় বিতর্কে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী মমতা প্রিয়ঙ্কাকে বেফাঁস মন্তব্য করায় বিতর্কে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী
নেদারল্যান্ডে যাত্রীবাহী ট্রামে বন্দুকধারীর হামলা! নেদারল্যান্ডে যাত্রীবাহী ট্রামে বন্দুকধারীর হামলা!
২০২০ সালের পর বেসরকারি খাতে ট্রেন দেওয়া হবে না- রেলমন্ত্রী ২০২০ সালের পর বেসরকারি খাতে ট্রেন দেওয়া হবে না- রেলমন্ত্রী
বাতিঘরের মাশুল  দিতেই হবে বাতিঘরের মাশুল দিতেই হবে

সর্বাধিক পঠিত

বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন বাস্তবায়নে শপথ নিতে হবে: ড. কামাল বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন বাস্তবায়নে শপথ নিতে হবে: ড. কামাল
৫০ কোটি টাকা নিয়ে ব্যাংক কর্মকর্তা উধাও! ৫০ কোটি টাকা নিয়ে ব্যাংক কর্মকর্তা উধাও!
১৫তম শিক্ষক নিবন্ধন পরীক্ষার সময় নির্ধারণ ১৫তম শিক্ষক নিবন্ধন পরীক্ষার সময় নির্ধারণ
রাঙ্গামাটিতে দুর্বৃত্তদের গুলিতে প্রিসাইডিং অফিসারসহ নিহত ৫ রাঙ্গামাটিতে দুর্বৃত্তদের গুলিতে প্রিসাইডিং অফিসারসহ নিহত ৫
প্রকৃত মুক্তিযোদ্ধাদের তালিকা তৈরি করতে পারছে না কেন? প্রকৃত মুক্তিযোদ্ধাদের তালিকা তৈরি করতে পারছে না কেন?
দ্বিতীয় ধাপে ভোট সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ হয়েছে- ইসি সচিব দ্বিতীয় ধাপে ভোট সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ হয়েছে- ইসি সচিব
দেশের প্রচলিত শিক্ষা ব্যবস্থায় চাকরির সুযোগ নেই- মোস্তাফা জব্বার দেশের প্রচলিত শিক্ষা ব্যবস্থায় চাকরির সুযোগ নেই- মোস্তাফা জব্বার
কালীগঞ্জে কিশোরীকে গনধর্ষণে গ্রেফতার ৩ কালীগঞ্জে কিশোরীকে গনধর্ষণে গ্রেফতার ৩
মর্যাদাহীন নির্বাচন করে কেউ খুশি হতে পারে না- মাহবুব তালুকদার মর্যাদাহীন নির্বাচন করে কেউ খুশি হতে পারে না- মাহবুব তালুকদার
পাকিস্তানি সেনার গুলিতে ভারতীয় সেনা নিহত, উত্তেজনার আশংকা! পাকিস্তানি সেনার গুলিতে ভারতীয় সেনা নিহত, উত্তেজনার আশংকা!
প্রকৃত মুক্তিযোদ্ধাদের তালিকা তৈরি করতে পারছে না কেন?
শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ-ভারত সম্পর্ক বিশ্বে একটি রোল মডেল?
সীমাহীন দুর্নীতিগ্রস্ত বিমান
নানা সমস্যায় জর্জরিত ব্যাংকিং খাত!
উত্তপ্ত কাশ্মীর সমস্যার স্থায়ী সমাধান প্রয়োজন!
দেশকে দ্রুত উন্নতির জন্য কারিগরি শিক্ষার বিকল্প নেই!
প্রধানমন্ত্রীর জার্মানি সফর উন্নয়ন- কূটনৈতিক সম্পর্ক জোরদার হবে!
খেলাপি ঋণে ‘জিরো টলারেন্স’ চাই
৫ জনই ছাত্রলীগ-যুবলীগ নেতা
দুর্নীতির বিরুদ্ধে প্রকৃত অর্থেই নিতে হবে জিরো টলারেন্স