শিরোনাম:
●   মার্কিন দূতাবাসের কর্মীদের বাংলাদেশ থেকে চলে যাওয়ার বিষয়ে অনুমোদন দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র ●   বানিজ্যিক ব্যাংকগুলোকে ২৫ হাজার কোটি টাকা ধার দিল বাংলাদেশ ব্যাংক ●   পরিস্থিতি আরও খারাপ হতে পারে: কাদের ●   সহিংসতাকারীদের শাস্তির মুখোমুখি করা হবে- স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ●   অনেক বাধা পেরিয়ে মেট্রোরেল করেছিলাম, তারা ধ্বংস করল- প্রধানমন্ত্রী ●   ইন্টারনেট- ফেসবুক-টিকটকের ক্যাশ সার্ভার বন্ধ ●   সহিংসতার সব ঘটনা স্বচ্ছ ও বিশ্বাসযোগ্যভাবে তদন্ত করা উচিত: জাতিসংঘ ●   দেশব্যাপী হামলা–সংঘর্ষে জড়িতদের তালিকা করছে পুলিশ ও র‍্যাব ●   কোটা আন্দোলনের আগামী রোডম্যাপ জানালেন সমন্বয়ক নাহিদ ইসলাম ●  
ঢাকা, শুক্রবার, ২৬ জুলাই ২০২৪, ১০ শ্রাবণ ১৪৩১

BBC24 News
শুক্রবার, ২৫ আগস্ট ২০২৩
প্রথম পাতা » আমেরিকা | আর্ন্তজাতিক | পরিবেশ ও জলবায়ু | শিরোনাম | সাবলিড » গ্রেফতারের পর যে শর্তে ছাড়া পেলেন ট্রাম্প
প্রথম পাতা » আমেরিকা | আর্ন্তজাতিক | পরিবেশ ও জলবায়ু | শিরোনাম | সাবলিড » গ্রেফতারের পর যে শর্তে ছাড়া পেলেন ট্রাম্প
৩০০ বার পঠিত
শুক্রবার, ২৫ আগস্ট ২০২৩
Decrease Font Size Increase Font Size Email this Article Print Friendly Version

গ্রেফতারের পর যে শর্তে ছাড়া পেলেন ট্রাম্প

---বিবিসি২৪নিউজ,যুক্তরাষ্ট্র প্রতিনিধি: যুক্তরাষ্ট্রের জর্জিয়ায় ২০২০ সালে নির্বাচনে হস্তক্ষেপের অভিযোগে সাবেক প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। যুক্তরাষ্ট্রের স্থানীয় সময় গতকাল বৃহস্পতিবার তাঁকে জর্জিয়ার ফুলটন কাউন্টি কারাগারে আনুষ্ঠানিকভাবে গ্রেপ্তার দেখানো হয়।

গ্রেপ্তারের পর বেশিক্ষণ কারাবন্দী থাকতে হয়নি সাবেক এই প্রেসিডেন্টকে। সিএনএনের সরাসরি সম্প্রচারিত খবরে বলা হয়েছে, তিনি কারাগার ছিলেন ২০ মিনিটের মতো। এ নিয়ে চলতি বছরে দুবার গ্রেপ্তার হলেন ট্রাম্প। এর আগে গত এপ্রিলে পর্নো তারকা স্টরমি ড্যানিয়েলসকে ঘুষ দেওয়ার মামলায় তাঁকে গ্রেপ্তার করা হয়েছিল। ওই সময় নিউইয়র্কে ম্যানহাটানের আদালতে ট্রাম্পকে গ্রেপ্তার করা হয়।

ট্রাম্প ও তাঁর ১৮ সহযোগী ২০২০ সালে জর্জিয়ায় নির্বাচনের ফল বদলে দেওয়ার চেষ্টা করছিলেন, এমন অভিযোগ আনা হয় গত ১৪ আগস্ট। ওই দিন ৯৮ পৃষ্ঠার একটি বিস্তারিত প্রতিবেদন প্রকাশ করা হয়। এতে ট্রাম্পসহ ১৯ জনের বিরুদ্ধে ৪১টি অভিযোগ আনা হয়েছে। অভিযুক্তদের সংঘবদ্ধ অপরাধী চক্র হিসেবে আখ্যা দেওয়া হয়। জর্জিয়ার গ্র্যান্ড জুরি ট্রাম্পসহ তাঁদের বিরুদ্ধে র‍্যাকিটেরিং ইনফ্লুয়েন্সড অ্যান্ড করাপ্ট অর্গানাইজেশন (আরআইসিও) আইন ভঙ্গের অভিযোগ এনেছেন।

সাবেক প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের বিরুদ্ধে জর্জিয়ার ফুলটন কাউন্টির ডিস্ট্রিক্ট অ্যাটর্নি ফ্যানি উইলিস এসব অভিযোগ তুলেছেন। গত ১৪ আগস্ট ফ্যানি উইলিস বলেছিলেন, নির্বাচনের ফলাফল নিয়ে জর্জিয়ার আইনি প্রক্রিয়া অবলম্বনের বদলে অভিযুক্তরা সংঘবদ্ধ অপরাধে জড়িয়ে পড়েন। ভোটের ফল বদলে দিতে এই পথে হাঁটেন তাঁরা।

এরপর ট্রাম্প ও তাঁর সহযোগীদের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করা হয়। গ্রেপ্তারের আশঙ্কা প্রকাশ করেছিলেন ট্রাম্প নিজেই। বৃহস্পতিবার তাই ঘটল। তবে ২ লাখ ডলারের মুচলেকা সাপেক্ষে তাঁকে ছেড়ে দেওয়া হয়।

এদিকে ট্রাম্পকে গ্রেপ্তারের পর কারাগারের নথির বরাত দিয়ে খবর প্রকাশ করেছে সিএনএন। এতে বলা হয়, ট্রাম্পের উচ্চতা ৬ ফুট ৩ ইঞ্চি। কারা নথিতে আরও উল্লেখ করা হয়েছে, তাঁর ওজন ৯৭ কেজি ৫০০ গ্রাম। তাঁর চোখের রং নীল। চুলের রং সোনালী বা স্ট্রবেরি।

যেসব অভিযোগ আনা হয়েছে
গত ১৪ আগস্ট ট্রাম্পের এই অভিযোগপত্র দেওয়ার আগের দিন আদালতের ওয়েবসাইটে ১৩ অভিযোগসংবলিত একটি নথি প্রকাশ করা হয়েছিল। পরে এই নথি সরিয়ে দেওয়া হয়। এতে বলা হয়, ২০২১ সালের ২ জানুয়ারি ট্রাম্প জর্জিয়ার শীর্ষ নির্বাচন কর্মকর্তার সঙ্গে টেলিফোনে কথা বলেছিলেন। এ সময় ট্রাম্প ওই কর্মকর্তাকে বলেন, কিছু ভোট খুঁজে বের করুন, যাতে নির্বাচনের ফল বদলে দেওয়া যায়। ট্রাম্পের ওই আহ্বানে সাড়া দেননি কর্মকর্তা।

এর ছয় দিন পর কংগ্রেস ভবন ইউএস ক্যাপটিলে ব্যাপক হামলা চালান ট্রাম্পের সমর্থকেরা। সেই দিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের জয়ের স্বীকৃতি দিতে কংগ্রেসের যৌথ অধিবেশন বসেছিল। কংগ্রেস সদস্যরা যাতে জো বাইডেনকে জয়ী ঘোষণা করতে না পারেন, এ লক্ষ্যে হামলা চালিয়েছিলেন তাঁরা।

ওই অভিযোগপত্রে আরও বলা হয়েছে, ২০২০ সালের ৩ নভেম্বর ভোটের আগে থেকে ২০২২ সালের সেপ্টেম্বর পর্যন্ত ট্রাম্প ও তাঁর সহযোগীরা বেশ কিছু অপরাধ করেছেন। এর মধ্যে ২০২০ সালের নির্বাচন যাচাই-বাছাইয়ে আইনপ্রণেতাদের গঠিত কমিটিতে মিথ্যা সাক্ষী দেওয়ার অভিযোগ রয়েছে। একই সঙ্গে নির্বাচনী প্রক্রিয়ায় বাধা, নির্বাচনী সরঞ্জাম ভাঙচুরের অভিযোগও আনা হয়েছে ট্রাম্প ও তাঁর সহযোগীদের বিরুদ্ধে। বলা হয়েছে, জর্জিয়ার প্রত্যন্ত এলাকাগুলোয় ভোটারদের তথ্য চুরি ও ব্যালটের ছবি তুলেছেন ট্রাম্পের সমর্থকেরা। এ ছাড়া তাঁর সমর্থকেরা নির্বাচনী কর্মকর্তাদের হয়রানিও করেছেন। অভিযোগ প্রমাণিত হলে তাঁর ২০ বছর পর্যন্ত কারাদণ্ড হতে পারে।

যদিও ট্রাম্পও এসব অভিযোগ অস্বীকার করেছেন। তিনি বলছেন, এসব অভিযোগ উদ্দেশ্যপ্রণোদিত। তিনি যাতে আর প্রেসিডেন্ট হতে না পারেন, সেই চক্রান্ত হচ্ছে।যুক্তরাষ্ট্রের ২০২০ সালের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে জর্জিয়া অঙ্গরাজ্যের ফলাফলে হস্তক্ষেপের অভিযোগে সাবেক প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প আত্মসমর্পণ করেন। এর পর অন্তত ২০ মিনিট তিনি কারাবন্দি ছিলেন।

বৃহস্পতিবার তাকে জর্জিয়ার ফুলটন কাউন্টি কারাগারে আনুষ্ঠানিকভাবে গ্রেফতার দেখানো হয়। জর্জিয়া অঙ্গরাজ্যে হেরে যাওয়ায় ভোটের ফল পালটানোর চেষ্টার অভিযোগে তার বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। এ মামলায় তিনি আত্মসমর্পণ করেন। খবর আলজাজিরার।

বেশিক্ষণ কারাবন্দি থাকতে হয়নি সাবেক এই প্রেসিডেন্টকে। ২০ মিনিট পর কারাগার থেকে ছাড় পান তিনি। এ নিয়ে চলতি বছরে দুবার গ্রেপ্তার হলেন ডনাল্ড ট্রাম্প। এর আগে গত এপ্রিলে পর্নো তারকা স্টরমি ড্যানিয়েলসের মুখ বন্ধ রাখতে ঘুষ দেওয়ার মামলায় তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। ওই সময় নিউইয়র্কের ম্যানহাটানের আদালতে ট্রাম্পকে গ্রেপ্তার করা হয়।

ট্রাম্প ও তার ১৮ সহযোগীর বিরুদ্ধে ২০২০ সালে জর্জিয়ায় নির্বাচনের ফল বদলে দেওয়ার চেষ্টার অভিযোগ আনা হয় গত ১৪ আগস্ট। এ বিষয়ে ৯৮ পৃষ্ঠার বিস্তারিত প্রতিবেদন প্রকাশ করা হয়।

এতে ট্রাম্পসহ ১৯ জনের বিরুদ্ধে ৪১টি অভিযোগ আনা হয়। অভিযুক্তদের সংঘবদ্ধ অপরাধী চক্র হিসেবে আখ্যা দেওয়া হয়। জর্জিয়ার গ্র্যান্ড জুরি ট্রাম্পসহ তাদের বিরুদ্ধে র‍্যাকিটেরিং ইনফ্লুয়েন্সড অ্যান্ড করাপ্ট অর্গানাইজেশন (আরআইসিও) আইন ভঙ্গের অভিযোগ আনেন।

আটলান্টা বিমানবন্দর ছেড়ে যাওয়ার সময় স্বল্প সময়ের জন্য সাংবাদিকদের মুখোমুখি হন এই সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট। নিজেকে নির্দোষ দাবি করে ট্রাম্প বলেন, ‘একটি নির্বাচনকে চ্যালেঞ্জ জানানোর মতো সক্ষম হওয়া উচিত আপনার। আমি বিশ্বাস করি, এটি একটি কারচুপির নির্বাচন ছিল। আমি ভুল কিছু করিনি তা সবাই জানে।’



এ পাতার আরও খবর

বাংলাদেশে বিক্ষোভ দমনে কী কী ঘটেছে, তার বিস্তারিত প্রকাশ করুন: জাতিসংঘের মানবাধিকার প্রধান বাংলাদেশে বিক্ষোভ দমনে কী কী ঘটেছে, তার বিস্তারিত প্রকাশ করুন: জাতিসংঘের মানবাধিকার প্রধান
সহিংসতার সব ঘটনা স্বচ্ছ ও বিশ্বাসযোগ্যভাবে তদন্ত করা উচিত: জাতিসংঘ সহিংসতার সব ঘটনা স্বচ্ছ ও বিশ্বাসযোগ্যভাবে তদন্ত করা উচিত: জাতিসংঘ
বাংলাদেশে কোটা সংস্কার আন্দোলনকারীদের ওপর নজর রাখছে : জাতিসংঘ বাংলাদেশে কোটা সংস্কার আন্দোলনকারীদের ওপর নজর রাখছে : জাতিসংঘ
শিক্ষার্থী বিক্ষোভ ও সহিংসতা ঘটনা পর্যবেক্ষণ করছে যুক্তরাষ্ট্র: মিলার শিক্ষার্থী বিক্ষোভ ও সহিংসতা ঘটনা পর্যবেক্ষণ করছে যুক্তরাষ্ট্র: মিলার
যুক্তরাষ্ট্রে ট্রাম্পকে রিপাবলিকান পার্টির প্রেসিডেন্ট প্রার্থী ঘোষণা যুক্তরাষ্ট্রে ট্রাম্পকে রিপাবলিকান পার্টির প্রেসিডেন্ট প্রার্থী ঘোষণা
ট্রাম্পের খোঁজ নেননি পুতিন ট্রাম্পের খোঁজ নেননি পুতিন
ট্রাম্পকে হত্যার উদ্দেশ্যেই হামলা, পরিচয় পেয়েছে এফবিআই ট্রাম্পকে হত্যার উদ্দেশ্যেই হামলা, পরিচয় পেয়েছে এফবিআই
ডোনাল্ড ট্রাম্পের উপর হামলা, গুলিতে ডান কানের ওপরের অংশে ফুটো ডোনাল্ড ট্রাম্পের উপর হামলা, গুলিতে ডান কানের ওপরের অংশে ফুটো
মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে, আমিই সেরা প্রার্থী: বাইডেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে, আমিই সেরা প্রার্থী: বাইডেন
ইরানকে কড়া হুঁশিয়ার বার্তা দিলেন: ন্যাটো ইরানকে কড়া হুঁশিয়ার বার্তা দিলেন: ন্যাটো

আর্কাইভ

মার্কিন দূতাবাসের কর্মীদের বাংলাদেশ থেকে চলে যাওয়ার বিষয়ে অনুমোদন দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র
বানিজ্যিক ব্যাংকগুলোকে ২৫ হাজার কোটি টাকা ধার দিল বাংলাদেশ ব্যাংক
পরিস্থিতি আরও খারাপ হতে পারে: কাদের
সহিংসতাকারীদের শাস্তির মুখোমুখি করা হবে- স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী
ইন্টারনেট- ফেসবুক-টিকটকের ক্যাশ সার্ভার বন্ধ
সহিংসতার সব ঘটনা স্বচ্ছ ও বিশ্বাসযোগ্যভাবে তদন্ত করা উচিত: জাতিসংঘ
দেশব্যাপী হামলা–সংঘর্ষে জড়িতদের তালিকা করছে পুলিশ ও র‍্যাব
কোটা আন্দোলনের আগামী রোডম্যাপ জানালেন সমন্বয়ক নাহিদ ইসলাম
কোটা আন্দোলন ঘিরে সংঘর্ষ, নিহত ১৯