শিরোনাম:
●   সংঘাত, সহিংসতা প্রতিরোধে ব্যর্থতার জন্য- ভেঙে দেওয়া হলো আওয়ামী লীগের ২৭ ইউনিট কমিটি ●   মার্কিন দূতাবাসের কর্মীদের বাংলাদেশ থেকে চলে যাওয়ার বিষয়ে অনুমোদন দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র ●   বানিজ্যিক ব্যাংকগুলোকে ২৫ হাজার কোটি টাকা ধার দিল বাংলাদেশ ব্যাংক ●   পরিস্থিতি আরও খারাপ হতে পারে: কাদের ●   সহিংসতাকারীদের শাস্তির মুখোমুখি করা হবে- স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ●   অনেক বাধা পেরিয়ে মেট্রোরেল করেছিলাম, তারা ধ্বংস করল- প্রধানমন্ত্রী ●   ইন্টারনেট- ফেসবুক-টিকটকের ক্যাশ সার্ভার বন্ধ ●   সহিংসতার সব ঘটনা স্বচ্ছ ও বিশ্বাসযোগ্যভাবে তদন্ত করা উচিত: জাতিসংঘ ●   দেশব্যাপী হামলা–সংঘর্ষে জড়িতদের তালিকা করছে পুলিশ ও র‍্যাব ●   কোটা আন্দোলনের আগামী রোডম্যাপ জানালেন সমন্বয়ক নাহিদ ইসলাম
ঢাকা, শুক্রবার, ২৬ জুলাই ২০২৪, ১০ শ্রাবণ ১৪৩১

BBC24 News
বুধবার, ২৭ অক্টোবর ২০২১
প্রথম পাতা » আর্ন্তজাতিক | পরিবেশ ও জলবায়ু | বিজ্ঞান-প্রযুক্তি | শিরোনাম | সাবলিড » ছায়াপথের বাইরে প্রথম গ্রহের চিহ্ন পেলেন বিজ্ঞানীরা
প্রথম পাতা » আর্ন্তজাতিক | পরিবেশ ও জলবায়ু | বিজ্ঞান-প্রযুক্তি | শিরোনাম | সাবলিড » ছায়াপথের বাইরে প্রথম গ্রহের চিহ্ন পেলেন বিজ্ঞানীরা
৭১৭ বার পঠিত
বুধবার, ২৭ অক্টোবর ২০২১
Decrease Font Size Increase Font Size Email this Article Print Friendly Version

ছায়াপথের বাইরে প্রথম গ্রহের চিহ্ন পেলেন বিজ্ঞানীরা

---বিবিসি২৪নিউজ,আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ দূর মহাকাশে সম্ভাব্য গ্রহ শনাক্ত করেছেন জ্যোতির্বিজ্ঞানীরা। মিল্কিওয়ে ছায়াপথের বাইরে একটি নক্ষত্রকে অতিক্রমের সময় সেটি ধরা পড়ে। বিজ্ঞানীদের ধারণা যদি সত্যি হয়, তবে আমাদের ছায়াপথের বাইরে এই প্রথম কোনো গ্রহের খোঁজ পাওয়া গেল।

সম্ভাব্য গ্রহটির অবস্থান হোয়ার্লপুল ছায়াপথে। মার্কিন মহাকাশ গবেষণা সংস্থা নাসার চন্দ্র এক্স-রে অবজারভেটরিতে সেটি শনাক্ত করা হয়।

সিএনএনের প্রতিবেদনে বলা হয়, সৌরজগতের বাইরের গ্রহগুলোকে বলা হয় এক্সোপ্ল্যানেট বা বহিঃসৌরজাগতিক গ্রহ। সচরাচর সেগুলো সূর্য ভিন্ন অন্য কোনো নক্ষত্র ঘিরে আবর্তিত হয়। এ পর্যন্ত সব এক্সোপ্ল্যানেটের খোঁজ মিলেছে আমাদের মিল্কিওয়ে ছায়াপথে, সেগুলোর বেশির ভাগের অবস্থান পৃথিবী থেকে ৩ হাজার আলোকবর্ষের মধ্যে।

অথচ হোয়ার্লপুল ছায়াপথের সম্ভাব্য এক্সোপ্ল্যানেটটির অবস্থান পৃথিবী থেকে প্রায় ২ কোটি ৮০ লাখ আলোকবর্ষ দূরে। মিল্কিওয়ের এক্সোপ্ল্যানেটগুলোর তুলনায় সেটির দূরত্ব হাজারো গুণ বেশি।

দুটি নক্ষত্র যখন তাদের সাধারণ ভরকেন্দ্রকে প্রদক্ষিণ করে, তখন বলা হয় বাইনারি নক্ষত্র। আর যে বাইনারি নক্ষত্রগুলো থেকে এক্স-রে বা রঞ্জন রশ্মি নির্গত হয়, সেগুলোকে বলা হয় এক্স-রে বাইনারি। এক্স-রে বাইনারিতে সাধারণত একটি নিউট্রন নক্ষত্র কিংবা কৃষ্ণগহ্বর থাকে। গবেষক দলটি এক্স-রে বাইনারি থেকে নির্গত রশ্মির তারতম্যে চোখ রাখেন।

মহাকাশের যে অঞ্চলটি থেকে উজ্জ্বল এক্স-রে আসে, সেটি বেশ ছোট। এর সামনে দিয়ে কোনো গ্রহ পেরিয়ে গেলে সে আলোর প্রায় সবটুকুই ঢেকে যায়। সে কারণেই অনেক দূরের এক্সোপ্ল্যানেটও শনাক্ত করা সম্ভব হয়।তবে জ্যোতির্বিজ্ঞানীরা আসলেই গ্রহ শনাক্ত করেছেন কি না, তা শিগগিরই নিশ্চিত করা সম্ভব হচ্ছে না। কক্ষপথ বড় হওয়ায় আগামী ৭০ বছরে সেটি বাইনারি সঙ্গীর সামনে আসবে না। সে কারণেই নিশ্চিত হতে দশকের পর দশক লেগে যাবে।

গবেষণাপত্রটির সহলেখক যুক্তরাষ্ট্রের ইউনিভার্সিটি অব ক্যালিফোর্নিয়া অ্যাট সান্তা ক্রুজের জ্যোতিঃপদার্থবিদ নিয়া ইমারা এক বিবৃতিতে বলেন, ‘দুর্ভাগ্যবশত, আমরা যে আসলেই গ্রহ দেখেছি, তা নিশ্চিত করতে সেটি আরেক দফা দেখার জন্য হয়তো দশকের পর দশক লেগে যাবে। কক্ষপথে একবার আবর্তনের জন্য প্রয়োজনীয় সময় নিয়ে এই অনিশ্চয়তার জন্য আমরা জানি না আবার কখন সেখানে চোখ রাখতে হবে।’

যদি গ্রহ হয়, তবে সেটিকে সুপারনোভা বিস্ফোরণে টিকে থাকতে হয়েছে বলে জানিয়েছেন গবেষকেরা। সেই বিস্ফোরণেই নিউট্রন নক্ষত্র বা কৃষ্ণগহ্বরের সৃষ্টি। আর ভবিষ্যতে সঙ্গী নক্ষত্রটিরও সুপারনোভা বিস্ফোরণ হতে পারে, যখন গ্রহটিও আবার বিস্ফোরিত হবে।

গবেষকেরা এবার অন্যান্য ছায়াপথে সম্ভাব্য এক্সোপ্ল্যানেটের খোঁজে নাসার চন্দ্র এবং ইউরোপিয়ান স্পেস এজেন্সির এক্সএমএম-নিউটন উপগ্রহ থেকে প্রাপ্ত পুরোনো তথ্য ঘেঁটে দেখবেন।গবেষণাপত্রটি নেচার অ্যাস্ট্রোনমি জার্নালে প্রকাশ করা হয়।



এ পাতার আরও খবর

বাংলাদেশে বিক্ষোভ দমনে কী কী ঘটেছে, তার বিস্তারিত প্রকাশ করুন: জাতিসংঘের মানবাধিকার প্রধান বাংলাদেশে বিক্ষোভ দমনে কী কী ঘটেছে, তার বিস্তারিত প্রকাশ করুন: জাতিসংঘের মানবাধিকার প্রধান
সহিংসতার সব ঘটনা স্বচ্ছ ও বিশ্বাসযোগ্যভাবে তদন্ত করা উচিত: জাতিসংঘ সহিংসতার সব ঘটনা স্বচ্ছ ও বিশ্বাসযোগ্যভাবে তদন্ত করা উচিত: জাতিসংঘ
শিক্ষার্থী বিক্ষোভ ও সহিংসতা ঘটনা পর্যবেক্ষণ করছে যুক্তরাষ্ট্র: মিলার শিক্ষার্থী বিক্ষোভ ও সহিংসতা ঘটনা পর্যবেক্ষণ করছে যুক্তরাষ্ট্র: মিলার
যুক্তরাষ্ট্রে ট্রাম্পকে রিপাবলিকান পার্টির প্রেসিডেন্ট প্রার্থী ঘোষণা যুক্তরাষ্ট্রে ট্রাম্পকে রিপাবলিকান পার্টির প্রেসিডেন্ট প্রার্থী ঘোষণা
ট্রাম্পের খোঁজ নেননি পুতিন ট্রাম্পের খোঁজ নেননি পুতিন
পাকিস্তানে নিষিদ্ধ হতে যাচ্ছে ইমরান খানের দল ‘পিটিআই’ পাকিস্তানে নিষিদ্ধ হতে যাচ্ছে ইমরান খানের দল ‘পিটিআই’
গাজায় ইসরায়েলি হামলায় ১৫০ ফিলিস্তিনি নিহত গাজায় ইসরায়েলি হামলায় ১৫০ ফিলিস্তিনি নিহত
নেপালে আবারও প্রধানমন্ত্রী কেপি শর্মা নেপালে আবারও প্রধানমন্ত্রী কেপি শর্মা
উত্তেজনা কমাতে যুক্তরাষ্ট্র ও রাশিয়া উত্তেজনা কমাতে যুক্তরাষ্ট্র ও রাশিয়া
নাইজেরিয়ায় স্কুলভবন ধসে পড়ে ২২ শিক্ষার্থী নিহত নাইজেরিয়ায় স্কুলভবন ধসে পড়ে ২২ শিক্ষার্থী নিহত

আর্কাইভ

সংঘাত, সহিংসতা প্রতিরোধে ব্যর্থতার জন্য- ভেঙে দেওয়া হলো আওয়ামী লীগের ২৭ ইউনিট কমিটি
মার্কিন দূতাবাসের কর্মীদের বাংলাদেশ থেকে চলে যাওয়ার বিষয়ে অনুমোদন দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র
বানিজ্যিক ব্যাংকগুলোকে ২৫ হাজার কোটি টাকা ধার দিল বাংলাদেশ ব্যাংক
পরিস্থিতি আরও খারাপ হতে পারে: কাদের
সহিংসতাকারীদের শাস্তির মুখোমুখি করা হবে- স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী
ইন্টারনেট- ফেসবুক-টিকটকের ক্যাশ সার্ভার বন্ধ
সহিংসতার সব ঘটনা স্বচ্ছ ও বিশ্বাসযোগ্যভাবে তদন্ত করা উচিত: জাতিসংঘ
দেশব্যাপী হামলা–সংঘর্ষে জড়িতদের তালিকা করছে পুলিশ ও র‍্যাব
কোটা আন্দোলনের আগামী রোডম্যাপ জানালেন সমন্বয়ক নাহিদ ইসলাম